যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 10:25pm

|   লন্ডন - 05:25pm

|   নিউইয়র্ক - 12:25pm

  সর্বশেষ :

  আইসোলেশনে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু   করোনায় অবৈধ প্রবাসীরাও পাবেন সরকারি চিকিৎসা : সৌদি বাদশা   করোনাভাইরাসে নিউইয়র্কে কমপক্ষে ১৫ বাংলাদেশীর মৃত্যু   দিল্লির মসজিদে জমায়েত, কোয়রান্টিনে পাঠানো হল ২০০০ জনকে   করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে থাকবে চীন   কভিড-১৯; গ্রোসারি পণ্য বাড়ি পৌঁছানোর দায়িত্ব নিল টরেন্স সিটি কর্তৃপক্ষ   ছুটি না দেওয়ায় পোশাক কারখানায় আগুন দিলো শ্রমিক   আইসোলেশনে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী, করোনা আক্রান্তের আশঙ্কা   লকডাউন ভারতে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা   করোনা মোকাবিলায় গণমাধ্যম ও সরকার আরো ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে : তথ্যমন্ত্রী   করোনাভাইরাস: গৃহবন্দি শিশুর বিষণ্নতা দূর করতে যাকিছু করণীয়   অবরুদ্ধ লস এঞ্জেলেসে কেমন কাটল প্রবাসীদের ছুটির দিন   করোনা ঠেকাতে ৩০০০ বন্দি মুক্তি   সরকারের পলিসি নো কিট, নো টেস্ট, নো পেসেন্ট, নো করোনা : রিজভী   ঢামেকে করোনা শনাক্তের টেস্ট, ৩ ঘণ্টায় রিপোর্ট

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

আমাকে স্যার ডাকবেন না, আমি জনগণের কর্মচারী: গোয়ালন্দঘাট থানার ওসি

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০২০-০২-১৯ ০১:৪১:০৪

নিউজ ডেস্ক: সম্প্রতি প্রথমবারের মতো দৌলতদিয়া যৌ’নপল্লীর এক যৌ’নকর্মীর জা’নাজা-দাফ’ন ও কুলখা’নি করে প্রশংসিত হয়েছেন জানিয়েছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশিকুর রহমান। এ ছাড়াও একের পর এক ব্যতিক্রমী কাজ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন পুলিশের এ কর্মকর্তা। এবার তিনি নিজ কার্যালয়ের সামনে একটি ব্যানার টানিয়ে ব্যাপ’কভাবে আলোচনায় এসেছেন। ব্যানারে নিজেকে স্যার না ডাকতে জনসাধারণের প্রতি অনুরো’ধ জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে গোয়ালন্দঘাট থানার ফেসবুক আইডিতে নিজের অফিস কক্ষের দরজার সামনে টাঙানো একটি ব্যানারের ছবি পোস্ট করেন ওসি আশিকুর রহমান। যাতে লেখা রয়েছে, ‘মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, পু’লিশ হবে জনতার। ইহা একজন গণকর্মচারীর অফিস। যে কোনো প্রয়োজনে এ অফিসে ঢু’কতে অনুম’তির প্রয়োজন নেই। সরাসরি রুমে ঢুকুন। ওসি’কে স্যার বলার দরকার নাই।’

ওসি আশিকুর রহমান নিজেকে স্যার না ডাকতে অনুরো’ধ করে বলেন, ‘জনগণ হচ্ছেন প্রজাতন্ত্রের মালিক আর আমি প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী। তাই মালিক কর্মচারীকে স্যার বলে ডাকবেন; এটি আমার কাছে বেমানান মনে হয়। জনগণ আমাকে অফিসার, ভাই, বাবা, চাচা যে কোনো সম্বোধন করতে পারেন।’ ওসির এমন উদ্যাগকে ফেসবুকে স্বাগত জানিয়ে মন্তব্য করেছেন অনেকেই। শামীম শেখ নামে একজন সংবাদকর্মী মন্তব্য করেছেন, ‘খুব ভালো উদ্যোগ। এটিকে সাধুবাদ জানাই।’ মো. হোসাইন নামে একজন লিখেছেন, প্রতিটি থানায় এমন সাইনবোর্ড দেওয়া উচিৎ। রফিক বিশ্বাস লিখেছেন, ‘আপনার মতো একজন পুলিশ অফিসার প্রতি থানায় থাকলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির আরও বেশি উন্নতি হতো।’

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২৪৪ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর