Updates :

        মাইক পেন্সের পাঁচ উপদেষ্টা করোনায় আক্রান্ত

        স্ত্রীসহ নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর করল এমপি হাজী সেলিমের ছেলে

        তাহলে এমি কোনি ব্যারেটই হবেন নতুন বিচারপতি?

        ডিসেম্বরে নির্ণয় হবে ভ্যাকসিনের কার্যকারীতা: ফাউসি

        প্রস্তাবনা ২৩: স্বাস্থ্যসেবায় উভয় সংকট

        বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির সামনে অনশনে রায়হানের মা

        মহানবীকে নিয়ে ম্যাক্রোঁর বক্তব্যের প্রতিবাদে ইসরাইলে বিক্ষোভ

        ১ নভেম্বর থেকে ওমরাহ করতে পারবেন বিদেশিরাও

        ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, আইনের খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন

        ক্যামেরুনে স্কুলে বন্দুকধারীর হামলায় ৬ শিশু নিহত

        এবার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

        রায়হান হত্যা ও গণধর্ষণের ঘটনায় জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব ক্যালিফোর্নিয়ার প্রতিবাদ সভা

        এবার ভাইস প্রেসিডেন্টের অফিসে করোনার হানা!

        ভোট দিলেন ট্রাম্প, বাইডেন বললেন আসন্ন 'ডার্ক উইন্টার'

        আগাম ভোটারদের টানতে প্রচারণায় ট্রাম্প ও বাইডেন

        ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রস্তাবনা ২১ পাশ হলে কমবে উচ্ছেদ শঙ্কা

        চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

        জার্মানিতে বন্দুকধারীর হামলায় ৬ শিশু নিহত

        বিশ্বব্যাপী একদিনে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৫ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার

        ক্যাম্পাস ক্লাব সামিটে অংশ নিচ্ছে চবির ২২ টি সংগঠন

যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের চুক্তি নিয়ে পরিস্থিতি ধোঁয়াশা

যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের চুক্তি নিয়ে পরিস্থিতি ধোঁয়াশা

ছবি: এলএবাংলাটাইমস

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ওরাকল এবং ওয়ালমার্টের সাথে চুক্তিবদ্ধ হতে চলেছে টিকটকের পেরেন্ট প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স। ডোনাল্ড ট্রাম্প এই চুক্তিকে স্বাগতও জানিয়েছেন। চুক্তি অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে টিকটকের ৮০ শতাংশ মালিকানা থাকবে বাইটড্যান্স এর হাতে, ১২.৫ শতাংশ মালিকানা থাকবে ওরাকলের হাতে ও ৭.৫ শতাংশ মালিকানা থাকবে ওয়ালমার্টের হাতে। 

যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের পাঁচজন বোর্ড সদস্যের মধ্যে চারজনই আমেরিকান থাকবে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের একটি হেডকোয়ার্টারও থাকবে যার মাধ্যমে ইউএস এ টিকটক অপারেট করা হবে। 

তবে, নতুন চুক্তির বিভিন্ন দিক নিয়ে রয়ে গেছে ধোঁয়াশা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, টিকটক সম্পূর্ণ যুক্তরাষ্ট্র থেকে পরিচালিত হবে এবং যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠানই এটি নিয়ন্ত্রণ করবে। এছাড়া আমেরিকার ব্যবহারকারীদের তথ্যও শুধুমাত্র ওরাকলের কাছে থাকবে। 

তবে বাইটড্যান্স জানিয়েছে, ওরাকল চাইলে শুধুমাত্র এপটির সোর্স কোড রিভিউ করতে পারবে। কিন্তু এপটির এলগরিদম ও প্রযুক্তি কোনোভাবেই হস্তান্তর করা হবে না। 

আর এই বিষয়টি নিয়েই আপত্তি জানিয়েছেন অনেকে। রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও বলেন, বাইটড্যান্স এর কাছে যদি কোড নিয়ন্ত্রন করার সুযোগ থাকে, তবে মার্কিনীদের তথ্য চীনের কাছে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবেই। ফলে এই চুক্তি নাগরিকদের প্রতিরক্ষার জন্য কোনো কাজেই আসবে না। 

এছাড়াও ট্রাম্প বলেছেন, টিকটকের নতুন চুক্তিতে '৫ বিলিয়ন ডলার' এডুকেশন ফান্ড অন্তর্ভুক্ত করা হবে। কিন্তু এই ফান্ড এর অর্থ কোন কোম্পানি পরিশোধ করবে সেটি উল্লেখ করেননি তিনি। ফলে এটি নিয়েও শুরু হয়েছে জল্পনা কল্পনা। 

বাইটড্যান্স দাবি করছে, ৫ বিলিয়ন ডলার এডুকেশন ফান্ড এর ব্যাপারে তাদের কোনো ধারণাই নেই। ট্রাম্পের মুখেই ফান্ডের ব্যাপারে প্রথম শুনেছে বাইটড্যান্স। 

ফলে, যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকের ভবিষ্যৎ কি, এই বিষয়ে এখনো ধোঁয়াশা রয়ে গেছে। 


এলএবাংলাটাইমস/ওএম 

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো খবর