যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 10:41pm

|   লন্ডন - 04:41pm

|   নিউইয়র্ক - 11:41am

  সর্বশেষ :

  ককপিটে কেবিন ক্রুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ বাংলাদেশ বিমানের পাইলটের বিরুদ্ধে   দেশটিভি পরিচালক আরিফের দেড় কোটি টাকা জব্দ   প্রেম করছি, বিয়ে করব আগামী বছর: জয়া আহসান   বিএনপির হাতে কোনো ইস্যু দেয়া হবে না : কাদের   পর্দাকাণ্ডে দুর্নীতির প্রমাণ পাচ্ছে দুদক   গুজবে সারাদেশে লবণের বাজারে অস্থিরতা   ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের বসতি স্থাপনের বৈধতা দিল যুক্তরাষ্ট্র   বাংলাদেশ ইচ্ছা করেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বন্ধ রেখেছে : মিয়ানমার   এলএ বাংলা টামইসের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ   সিরিয়ায় রাশিয়ার বিমান হামলা, নিহত ৯   পেঁয়াজ নিয়ে কারসাজি, আড়াই হাজার ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা   ২ ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে এক কেজি পেঁয়াজ কিনলেন সিলেটের মেয়র   ক্যালিফোর্নিয়ায় ফুটবল খেলা দেখার সময় গুলি, নিহত ৪   কাশ্মীরে বিস্ফোরণ, ভারতীয় সেনা নিহত   কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম

মূল পাতা   >>   টুকিটাকি

ঢেউয়ে ভাসে মসজিদ : তিন মিনিট পরপর খুলে যায় ছাদ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-৩০ ১৭:১৪:১৪

নিউজ ডেস্ক: মরক্কোর মাটিতে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা দৃষ্টিনন্দন পানিতে ভাসমান এ মসজিদটির নাম গ্র্যান্ড মস্ক হাসান–২ বা দ্বিতীয় হাসান মসজিদ। একে ভাসমান মসজিদ বলার কারণ হচ্ছে, মসজিদটির তিন ভাগের এক ভাগ আটলান্টিক মহাসাগরের ওপর অবস্থিত। দূরের কোনো জাহাজ থেকে দেখলে মনে হয়, ঢেউয়ের বুকে যেন মসজিদটি দুলছে আর মুসল্লিরা যেন নামাজ পড়ছেন পানির ওপর।

মহাসাগরে ভাসমান এ মসজিদটি মরক্কোসহ আফ্রিকার সবচেয়ে বড় মসজিদ। ঝড়–বৃষ্টির সময় ছাড়া প্রাকৃতিক আলো ও মুক্তবাতাস প্রবেশ করায় মসজিদটির ছাদ স্বয়ংক্রিয়ভাবে খুলে যায় তিন মিনিট পরপর। ৩৩ ফুট উচ্চতার সামুদ্রিকঢেউ সামলে নেওয়ার ব্যবস্থা আছে মসজিদটিতে। সমুদ্রের কোনো গর্জন শোনা যায় না মসজিদটির ভেতর থেকে।

২২ দশমিক ২৪ একর জায়গার ওপর অবস্থিত এ মসজিদের মূল ভবনের সঙ্গে আছে সভাকক্ষসহ লাইব্রেরি, কোরআন শিক্ষালয়, অজুখানা। আড়াই হাজার পিলারের ওপর স্থাপিত এ মসজিদের ভেতরের পুরোটায়ই টাইলসবসানো। মসজিদ এলাকার আশপাশ সাজানো হয়েছে ১২৪টি ঝরনা ও ৫০টি ক্রিস্টালের ঝাড়বাতি দিয়ে। শুধু তা–ইনয়, কোথাও কোথাও এসব মোড়ানো হয়েছে স্বর্ণের পাত দিয়ে। মসজিদটির মেঝে থেকে ছাদের উচ্চতা ৬৫ মিটার। মেহরাবের উচ্চতা দোতলা ভবনের সমান। আর মিনারের উচ্চতা ২১০ মিটার। ৬০ তলা ভবনের সমান এমিনারের ওপর রয়েছে লেজার রশ্মি, যা নাবিকদের দেখিয়ে দেয় পবিত্র কাবা শরিফের পথ। ৩০ কিলোমিটার দূরথেকেও স্পষ্ট দেখা যায় এই লেজার রশ্মি। বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু মিনার এটি।

মরক্কোর বাদশাহ দ্বিতীয় হাসান মসজিদটি তৈরি করেছেন। এটি নির্মাণে কাজ করেছেন ফরাসি কম্পানি বয়গিসের প্রকৌশলীরা। আর নকশা করেছেন ফরাসি স্থপতি মিশেল পিনচিউ।

 এলএবাংলাটাইমস/টি/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৮৮৮ বার

আপনার মন্তব্য