Updates :

        ইউএনজিএর ৩১তম বিশেষ অধিবেশন: করোনা মোকাবিলায় আরো সহযোগিতার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

        এবার বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসাবে চাঁদে পতাকা ওড়ালো চীন

        টাইমের বর্ষসেরা শিশু গীতাঞ্জলি রাও

        মূর্তি ও ভাস্কর্য নিয়ে যা বললেন আলেমরা

        এবার 'সিটি অব লস এঞ্জেলেসে' জারি হলো 'স্টে-এট-হোম'

        বারের উপর চটেছেন ট্রাম্প

        প্রকাশ্যে টিকা নেবেন সাবেক তিন প্রেসিডেন্ট

        যুক্তরাষ্ট্রে একদিনেই হাসপাতালে ভর্তি লক্ষাধিক করোনা রোগী

        ফ্রান্সে ৭৬টি মসজিদ বন্ধের পরিকল্পনা

        আসাদুজ্জামান নূর করোনায় আক্রান্ত

        দল সাজাচ্ছেন হ্যারিস, ঘোষণা করলেন তিন নাম

        ফোবানা নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় মাসুদ চৌধুরীকে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের অভিনন্দন

        আলাস্কায় ভয়াবহ ভূমিধস: নিখোঁজ ছয়

        একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

        ক্যালিফোর্নিয়ায় বইছে গরম হাওয়া, বিচ্ছিন্ন হবে বিদ্যুৎ

        টিকা বিতরণে প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র

        চীনা পণ্যের শুল্ক সহসা বাতিল হবে না: বাইডেন

        ইরানে যুক্তরাষ্ট্র হামলা চালালে আমিরাত আক্রমণের হুমকি তেহরানের

        করোনার ভুয়া টিকা নিয়ে ইন্টারপোলে সতর্কতা জারি

        অনুমতি ছাড়া ঢাকায় কোন মিছিল-সমাবেশ করা যাবে না

প্যাটারসনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুই বাংলাদেশি কাউন্সিলম্যান প্রার্থী

প্যাটারসনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুই বাংলাদেশি কাউন্সিলম্যান প্রার্থী

সিটি কাউন্সিল নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের প্যাটারসন সিটির ২ নম্বর ওয়ার্ড এখন প্রচার প্রচারনায় সরগরম ।বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সাবেক দুই কাউন্সিলম্যান ছাড়াও নির্বাচনী ময়দান চষে বেড়াচ্ছেন ৫ প্রার্থী। উন্নয়নের নানান আশ্বাস দিয়ে ভোটারদের মনজয়ের চেষ্টা করছেন তারা।অপরদিকে একইদিনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টসহ স্থানীয় গুরুত্বপূর্ণ বেশ কটি পদে নির্বাচন হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে বিরাজ করছে এক অন্যরকম আমেজ।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর প্যাটারসন সিটিতে ২০ হাজার বাংলাদেশি অভিবাসীর বসবাস। ২ নম্বর ওয়ার্ডে বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন জাতী-গোষ্টির ভোটর রয়েছেন সাড়ে ১৪ হাজার। যার অধিকাংশই  বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত। টানা ৮ বছর ধরে ওয়ার্ডটি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সাবেক দুই কাউন্সিলম্যানদের দখলে। এর মধ্যে ৪ বছর করে পর্যায়ক্রমে দ্বায়িত্বপালন করেছেন মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান ফয়সল এবং শাহীন খালিক। ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আবারও লড়ছেন প্রতিদ্বন্দ্বি এই দুই প্রার্থী।কমিনিউটির উন্নয়নকে মাথায় রেখে প্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে ভোটারও বেশ সচেতন।

উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে শাহীন খালিক তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে নানা যুক্তি তুলে ধরছেন।এক্ষেত্রে মসজিদগুলোতে মাইকে প্রকাশ্যে আযান, পাবলিক স্কুলগুলোতে মুসলিম শিক্ষার্থীদের মধ্যে হালাল খাবারের ব্যবস্থা, বাংলাদেশ বুলেবার্ড হিসাবে প্যাটারসনের প্রধান সড়কের নামকরনসহ উন্নয়নের নানান ফিরিস্তি তুলে ধরছেন।

অপরদিকে আক্তারুজ্জামান ফয়সল বাড়িঘরের ট্যাক্স ও সুয়ারেজ বিল বৃদ্বির বিরুদ্বে আন্দোলন ছাড়াও অপরাধ দমনে তার নেওয়া বলিষ্ট ভুমিকাসহ নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে ভোটারদের মনজয়ের চেষ্টা করছেন।

উলেখ্য যে গত ১২ মে ওয়ার্ডটিতে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে কাউন্সিলম্যান পদে মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান ফয়সল এবং শাহীন খালিক সমান সংখক ভোট পেলে কাউকে বিজয়ী না করে আগামী ৩ নভেম্বর প্রসিডেন্ট নির্বাচনের সাথে বিশেষ নির্বাচনের এই আয়োজন করেছে পেসাইক কাউন্টি নির্বাচন অফিস।

শেয়ার করুন