Updates :

        সামলে উঠছে বিপর্যস্ত অর্থনীতি, তবে কাটেনি শঙ্কা

        নির্বাচনে বাগড়া দিলে দেশব্যাপী আন্দোলনের হুমকি

        শীঘ্রই দৈনিক ১ লাখ বাসিন্দা আক্রান্ত হবে করোনায়

        দেশজুড়ে জরিপে এগিয়ে বাইডেন, তবে স্বস্তি নেই শিবিরে

        প্যাটারসনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুই বাংলাদেশি কাউন্সিলম্যান প্রার্থী

        মাস্ক পড়তে বলায় গার্ডকে ছুরিকাঘাত করলো দুই বোন!

        মহানবী ( সা.) এর কার্টুন প্রকাশে জাতিসংঘের উদ্বেগ

        নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত হয়ে যা বললেন সাকিব

        মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ লিখতে হবে

        দেশে করোনায় ২৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৮১

        ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্যে ম্যাক্রোঁকে পূর্ণ সমর্থন জানালো ভারত

        রায়হান হত্যাকাণ্ড: আরেক পুলিশ সদস্য গ্রেপ্তার

        কুর্দিদের না সরালে সিরিয়ায় সামরিক হামলার হুমকি তুরস্কের

        মাল্টিব্রান্ড ইনফোটেক-এডিসন ইন্ডাস্ট্রিজের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর

        ৮ ব্যক্তি ও ১ প্রতিষ্ঠান পেল স্বাধীনতা পুরস্কার

        ফ্রান্সে ফের লকডাউন জারি

        সৌদিআরবে বিলুপ্ত হচ্ছে কফিল পদ্ধতি

        এন্টিবডি ড্রাগ উৎপাদনের চুক্তি করলো যুক্তরাষ্ট্র

        ট্রাম্পের ২৭০ মিলিয়ন ডলার দেনা মওকুফ করলেন পাওনাদার!

        ধেয়ে আসছে হারিকেন জেটা, সতর্কতা সংকেত জারি

করোনা সংক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় ভারত

করোনা সংক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় ভারত

বিশ্বের সর্বাধিক করোনা সংক্রামিত দেশ হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই ছাড়িয়ে যেতে পারে ভারত। ওয়াল্ডওমিটারের তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে অদৃশ্য এই ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিতের সংখ্যা ৭৯ লাখ ৪৫ হাজার ৯৪৫। আর ভারতের মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ লাখ ৫৩ হাজার ৮০৬ জন।

রবিবার ( ১১ অক্টোবর) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কয়েক সপ্তাহ ধরে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা দিন দিন দ্রুতই বেড়েই যাচ্ছে। তাই সবাইকে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার বিষয়ে বিশেষ ভাবে সতর্ক করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সংক্রমণের প্রকৃত সংখ্যা আরো অনেক বেশি হতে পারে, কারণ ভারত বিশ্বের বৃহত্তম জনবহুল শহরগুলির মধ্যে একটি। ১.৩ বিলিয়ন বিশাল জনসংখ্যার এই দেশে পরীক্ষার হার অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম। বিশেষজ্ঞরা আরো বলেন, সংক্রমণের হার আনুষ্ঠানিকভাবে যা প্রকাশ পাচ্ছে তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি হতে পারে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ তথ্যানুসারে, ভারতের মৃত্যুর সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ৩৩৪ জন যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় অনেক কম। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ১৯ হাজারেরও বেশি মারা গেছে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ রণদীপ গুলেরিয়া অ্যাসোসিয়েটেড ভারতের সংক্রমণের কথা উল্লেখ করে বলেন, “আমরা সংক্রমণের ঊর্ধ্ব গতিকে কিছুটা দমিয়ে রাখতে সক্ষম হয়েছি, তবে আমি স্বীকার করছি যে আমরা করোনার সংক্রমণ আশানুরূপ ভাবে কমিয়ে আনতে পারিনি।”

তবে কিছু বিশেষজ্ঞ যুক্তি দিয়ে বলেছেন যে, দুর্বল স্বাস্থ্য অবকাঠামো এবং অপর্যাপ্ত পরীক্ষার কারণে সরকারি ভাবে দেয়া মৃত্যুর সংখ্যার এই তথ্য নির্ভরযোগ্য হতে পারে না।

বৃহস্পতিবার থেকে সিনেমাগুলি পুনরায় চালু করতে যাচ্ছে ভারত। বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন আসন্ন ধর্মীয় উৎসবের বিশাল জনসমাগম করোনা সংক্রমণ হার কে আরো তরান্বিত করতে পারে।

হিন্দু ধর্মের প্রধান দুটি উৎসবে যেন আর নতুন সংক্রমণ না হয় সে জন্য কঠোর নির্দেশিকা জারি করেছে ভারত সরকার । এ মাসের দুর্গা পূজা ও পরের মাসে দিওয়ালির আনুষ্ঠানিকতায় কিছুটা সীমাবদ্ধতা এনেছেন তারা।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/আই

শেয়ার করুন