যুক্তরাষ্ট্রে আজ শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 11:19pm

|   লন্ডন - 06:19pm

|   নিউইয়র্ক - 01:19pm

  সর্বশেষ :

  জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন   আমেরিকারপ্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের প্রমাণ মিলেছে   খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া শপথ নেয়ার প্রশ্নই আসে না: মওদুদ   তারেক-জোবাইদার ব্রিটেনের ৩ ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশ দিল ঢাকার আদালত   ভারতের নির্বাচনে বাংলাদেশে যে প্রভাব পড়তে পারে   নুসরাত হত্যা : আ.লীগ নেতা রুহুল আমিন আটক   দেশের গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করছে : তথ্যমন্ত্রী   গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ   আল্লাহর রহমতে আ.লীগের জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে : প্রধানমন্ত্রী   নতুন চমক নিয়ে আসছেন এআর রহমান   ইতালিতে বারবিকিউয়ের আগুন থেকে দাবানল, দুই শিক্ষার্থীকে ২৭ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা   দেশেই উৎপাদন হবে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ গাড়ি   বিমানবন্দরে অস্ত্র গুলিসহ উপজেলা চেয়ারম্যান আটক   নুসরাতকে নিয়ে ছোট ভাই রায়হানের আবেগঘন স্ট্যাটাস   কৌশলগত ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

স্তন্যপান করিয়ে বিপন্ন শিশুকে বাঁচালেন আর্জেন্টিনার পুলিশ কর্মকর্তা

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৮-১৮ ১৩:৩৯:৫৪

নিউজ ডেস্ক: স্তন্যপান করিয়ে বিপন্ন শিশুকে বাঁচালেন এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা। সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে আর্জেন্টিনায়। দায়িত্ব পালনের সময় এক বিপন্ন শিশুকে স্তন্যদান করে ইন্টারনেট দুনিয়ায় লাখ লাখ মানুষের ভালোবাসার জোয়ারে ভাসছেন এই মহিলা পুলিশ কর্মকর্তা। খবর ডেইলি মেইল, মেট্রো।

এরই মধ্যে সেলেস্টা আয়ালা নামে ওই অফিসারের এক বিপন্ন শিশুকে কোলে নিয়ে হাসপাতালের চেয়ারে বসে স্তন্যপান করানোর দৃশ্য অনলাইন দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। 

ঘটনার দিন সেলেস্টা বুয়েনস আইরেসের ‘সোর মারিয়া লুদোভিকা চিল্ড্রেন্স হাসপাতালে’ ডিউটি করছিলেন। হঠাৎ ওই শিশুটির কান্নার আওয়াজ পান।  হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছে অনুরোধ করেন শিশুটিকে দুধ খাওয়ানোর জন্য। কিন্তু হাসপাতালের কর্মীরা এতটাই ব্যস্ত ছিলেন যে, তারা সেই শিশুটিকে সেখানেই ফেলে রেখে দেন। পুলিশ অফিসার সেলেস্টা শিশুটিকে কোলে নিয়ে নিজেই স্তন্য পান করান। বিপন্ন শিশুটি তখনই কান্না থামায় এবং প্রাণে বাঁচে।

সেলেস্টা আয়ালার এমন পদক্ষেপ ক্যামেরাবন্দি করে ফেসবুকে পোস্ট করেন তার সহকর্মী মারকোস হেরেদিয়া। মার্কোস তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, হাসপাতাল কর্মীরা শিশুটিকে ‘নোংরা’ বলে ধরতেও চায়নি।

ছবি ফেসবুকে পোস্ট হতেই প্রায় দেড় লাখ লাইক হয়েছে। আর লাইক, শেয়ার ও ইতিবাচক কমেন্ট তো আছেই। শিশুটি একজন সিঙ্গেল মাদারের ষষ্ঠ ও কনিষ্ঠতম সন্তান। তবে হাসপাতালে সে কীভাবে এবং কার সঙ্গে এলো তা জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, গত বছর অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে অধিবেশন চলাকালীন সেনেটর ল্যারিসা ওয়াটার্স তার দু’মাসের মেয়েকে স্তন্যপান করিয়ে শিরোনামে এসেছিলেন।

এলএবাংলাটাইমস/আই/এলআরটি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১১৫৫ বার

আপনার মন্তব্য