যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:10am

|   লন্ডন - 02:10am

|   নিউইয়র্ক - 09:10pm

  সর্বশেষ :

  বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের দৃষ্টান্ত নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   সেনাপ্রধানসহ মিয়ানমারের ৪ কর্মকর্তার ওপর ফের মার্কিন নিষেধাজ্ঞা   দিল্লির দূষণ নিয়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির অবাক করা বক্তব্য   নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে উত্তাল ত্রিপুরা, মোবাইল-ইন্টারনেট সেবা বন্ধ   নিউ জার্সিতে বন্দুকধারীর গুলিতে পুলিশসহ ৬ জন নিহত   সান দিয়াগোতে বিজয় মেলা আগামী শনিবার   প্রথম দিনের শুনানিতে আদালতে চুপচাপ সু চি   ভারতে ভিসার অতিরিক্ত সময় থাকলে বাংলাদেশি মুসলিমদের জরিমানা ২১০০০, হিন্দুদের ১০০   গণতান্ত্রিক দেশের তালিকায় নেই বাংলাদেশ   নো এনআরসি, নো ডিভাইড অ্যান্ড রুল: মমতা   ৩৮ আরোহী নিয়ে চিলির বিমান নিখোঁজ   ছাত্রদল সন্দেহে ২ শিক্ষার্থীকে হল থেকে বের করে দিল ছাত্রলীগ   নায়ক থেকে খলনায়ক সু চি   ‘সু চির জন্য দোয়া করতাম, তিনি আজ খুনিদের পক্ষে’   খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে সিএনএন ভবনের সামনে ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপির বিক্ষোভ

মূল পাতা   >>   লস এঞ্জেলেস

এলএ বাংলা টামইসের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-১১-১৮ ১১:৫৩:৩৯

নিউজ ডেস্ক: সম্প্রতি এলএ বাংলা টাইমসের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দেওয়া বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা বাণী নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি কুচক্রি মহল, যা এলএ বাংলা টাইমস কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। পত্রিকা কর্তৃপক্ষ এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

লস এঞ্জেলেসের একটি নিউজ পোর্টাল “প্রধানমন্ত্রীর ভুয়া বাণী নিয়ে লস এঞ্জেলেসে তোলপাড়” শিরোনামে একটা নিউজ প্রকাশ করেছে। এতে উল্লিখিত অধিকাংশ তথ্যই ভুল। নিউজটি করার সময় তারা এলএ বাংলা টাইমস কর্তৃপক্ষের সাথে কোনো কথা না বলেই মনগড়া তথ্য দেওয়া হয়েছে, যা সাংবাদিকতার নীতির বিরোধী।
নিউজে উল্লেখ করা হয়েছে, এলএ বাংলা টাইমসের বর্ষপূর্তিতে প্রধামন্ত্রীর দেওয়া বাণী নাকি ভুয়া। অথচ সরকারি সকল নিয়ম কানুন মেনে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণের মাধ্যমে দরখাস্ত করে প্রধানমন্ত্রীর বাণী সংগ্রহ করা হয়েছে। যার সব কাগজপত্র এলএ বাংলা কর্তৃপক্ষের কাছে রয়েছে। তাই এখানে বিভ্রান্তির কোনো অবকাশ নেই। একটি কুচক্রি মহল এলএ বাংলাটাইমস ও এর কর্তৃপক্ষকে হেয় করার উদ্দেশ্যে এমন প্রচারণা চালাচ্ছে।

এখানে একটি বিষয় উল্লেখ্য, একটি দেশের প্রধানমন্ত্রীর বাণী এভাবে ভুয়া প্রকাশের কোনো অবকাশ নেই। এই বিষয়টি এভাবে হালকাভাবে অপপ্রচার করে ঐ নিউজে বরং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হয়েছে। হিংসাত্মকভাবে মিথ্যা বানোয়াট নিউজ করে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংসের কর্মকর্তা এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়কে ছোট করা হয়েছে।
নিউজে উল্লেখ করা হয়েছে, ঐ বাণীটি নাকি স্মারক নম্বর ছাড়া। অথচ বাস্তবতা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রীর বাণীর কোন স্মারক নম্বর হয় না। যা সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক জানেনই না। আর প্রতিটা বাণী প্রধানমন্ত্রী নিজে পড়ে স্বাক্ষর করেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কোনো বাণী কার্যালয় থেকে বের হওয়ার সুযোগ নেই।
নিউজে আরও লেখা হয়েছে, প্রতিবেদক নাকি বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যোগাযোগ করেন। অথচ সেখানে কোনো কর্মকর্তার নাম উল্লেখ করা হয়নি। যা অনুসন্ধানী সংবাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এতে বুঝাই যায়, নিউজটি মিথ্যা তথ্য দিয়ে সাজানো। 

নিউজে প্রশ্ন করা হয়েছে, “কোন অনুষ্ঠান বা প্রকাশনা ছাড়া একটি অনলাইন পোর্টালে প্রধানমন্ত্রী শুভেচ্ছা বাণী দেন কিভাবে?” এলএবাংলা টামইস কর্তৃপক্ষ বলেন, প্রতিবেদককে কি এই বিষয়েও জবাবদিহী করবেন প্রধানমন্ত্রীকে? একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী শুধু বড় মিডিয়াকে শুভেচ্ছা দেবেন, ছোটগুলোকে দেবেন না- এমন কোন নিয়ম আছে নাকি? এটি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার, কাকে বাণী দেবেন না দেবেন।

নিউজে বলা হয়েছে, এই শুভেচ্ছা বাণীর খবরে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতারাও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেন। অথচ এলএ বাংলা টাইমসের পক্ষ থেকে  ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগ সভাপতি শফিকুর রহমানসহ স্থানীয় বিভিন্ন আওয়ামীলীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী কাকে বাণী দেবে না দেবে সেটা প্রধানমন্ত্রীর একান্ত বিষয়। এলএ বাংলা টাইমস কমিউনিটির জন্য ভালো কাজ করছে বলে প্রধানমন্ত্রী বাণী দিয়েছেন। সেটা নিয়ে অন্যের হিংসা করা মোটেও উচিত নয়।
এরকম নানা অবান্তর প্রশ্ন করে বিভ্রান্তি  সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়েছে নিউজটিতে।

এসব ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তমূলক নিউজের প্রতিবাদ জানিয়ে এলএ বাংলা টাইমসের সিইও আব্দুস সামাদ বলেন, লস এঞ্জেলেসের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল এলএ বাংলা টাইমস এর ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকিতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশে সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রীসহ দেশ বিদেশের অনেক সম্মানীয় ব্যাক্তিবর্গ বাণী প্রদান করেছেন। হিংসা বিদ্বেষ থেকেই এমন অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। আমরা এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। ভবিষ্যতে এ ধরনের মিথ্যা ওবিভ্রান্তিমূল সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকার জন্য পত্রিকা কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ রইল।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ২৫২৯ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর