যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ২০ Jul, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 09:13am

|   লন্ডন - 04:13am

|   নিউইয়র্ক - 11:13pm

  সর্বশেষ :

  আগুন থেকে বাঁচতে ১৯ তলা বেয়ে নামলেন 'স্পাইডারম্যানে'র মতো!   দুবাইয়ে দোকান থেকে মদ কিনতে পারবে পর্যটকরা   বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   প্রিয়া সাহাকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি ১৪ দলের   মার্কিন সেনাদের থাকার অনুমতি দিলেন সৌদি বাদশাহ   আমেরিকা আমাদের সবার : মিশেল ওবামা   ২৭ ও ২৮ জুলাই লস এঞ্জেলেসে বর্ণাঢ্য আনন্দমেলা   দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য প্রিয়া সাহাকে আইনের আওতায় আনা হোক   প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী প্রতারণার শিকার   ফিলিস্তিন যেতে নেতানিয়াহুর অনুমতি লাগবে মার্কিন মুসলিম এমপিদের!   নেত্রকোনার পর এবার রাজশাহীতে শিশুকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা   হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন মিন্নি, রিমান্ডে রিশান   কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৬   ইরানের ড্রোন ধ্বংস করেছে যুক্তরাষ্ট্র   উদ্ভট দাবি নিয়ে ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশি নারীর নালিশ, সমালোচনার ঝড়

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে কৃষকের প্রতিবাদ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১২ ১৬:৪৭:১২

নিউজ ডেস্ক: ধানের দাম কম হওয়ায় ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে অভিনব প্রতিবাদ করেছেন এক কৃষক। রোববার দুপুরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বানকিনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিবাদী ওই কৃষকের নাম আব্দুল মালেক শিকদার। তিনি নিজের পাকা ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে এই প্রতিবাদ জানান। ঘটনাটি এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

প্রতিবাদী কৃষক আব্দুল মালেক শিকদার বলেন, বাজারে প্রতিমণ ধানের দাম ৫০০ টাকা। অথচ একমণ ধানের উৎপাদন খরচ এক হাজার টাকার উপরে। এছাড়া বর্তমানে একজন ধানকাটা শ্রমিকের মূল্য ৮০০ টাকা থেকে ৮৫০ টাকা। আর একজন শ্রমিক একদিনে এক থেকে দেড়মণ ধান কাটতে পারে। এছাড়া শ্রমিক সংকটের কারণে ক্ষেতের পাকা ধানও সময়মত ঘরে তুলতে পারছি না। তাই কোনো উপায় না দেখে দেশের কৃষকদের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ হিসেবে আমি নিজের পাকা ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছি। যাতে ধানের দাম বাড়ানোর বিষয়টি সরকার বিবেচনা করে।
প্রতিবাদী কৃষক আব্দুল মালেক শিকদার- ছবি: নয়া দিগন্ত

পাইকড়া ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন পাকা ধানক্ষেতে আগুন দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এটা অত্যন্ত বেদনাদায়ক ঘটনা। কৃষকদের ধানের ন্যায্য মূল্য দেয়া উচিত। কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হলে দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য মতে, জেলায় এবার বোরো ধানের আবাদ হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার ৭০২ হেক্টর জমিতে। ফলনও হয়েছে ভালো। এ পর্যন্ত জেলায় প্রায় ৩০ ভাগ জমির ধান কাটা শেষ হয়েছে। ক্ষেতের সব ধান পেকে গেলেও শ্রমিকের অভাবে কৃষক ধান কেটে ঘরে তুলতে পারছেন না।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক জানান, এই সময়ে ধানের বাজার কিছুটা কম থাকলেও কৃষক যদি ধান সংরক্ষণ করে রাখেন তবে ক’দিন পরেই অধিক মূল্য পাবেন। তাপদাহসহ নানা কারণে বর্তমানে কিছুটা শ্রমিক সংকট রয়েছে বলে তিনি জানান।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৯৬ বার

আপনার মন্তব্য

সাম্প্রতিক খবর