যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ২০ মে, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 05:33am

|   লন্ডন - 12:33am

|   নিউইয়র্ক - 07:33pm

  সর্বশেষ :

  নারী সহকর্মীদের ধর্ষণ করতে তালিকা তৈরি যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর নাবিকদের   ভাড়া করা নেতৃত্বে চলছে বিএনপি : হাছান মাহমুদ   খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছি : খন্দকার মাহবুব   কৃষক বাঁচাতে চাল আমদানি বন্ধ করতে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ   রোজা রেখে দায়িত্ব পালনের সময় ঢাকায় ট্র্যাফিক কনস্টেবলের মৃত্যু   হামলার জেরে ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মী বহিষ্কার   পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করেছে বাংলাদেশ   সততার বিরল দৃষ্টান্ত: সেতুর কাজ শেষ করেও ৭০০ কোটি টাকা ফেরত দিলো কোম্পানি   হন্ডুরাসে ব্যক্তিগত বিমান বিধ্বস্তে নিহত পাঁচ   মন্ত্রিসভায় দপ্তর পুনর্বণ্টন   যুক্তরাষ্ট্র-ইরান যুদ্ধাতঙ্ক, জরুরি বৈঠক ডেকেছেন সৌদি বাদশাহ   রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে হরিলুট: তদন্ত কমিটি গঠন   ইউরোপেও যাচ্ছে সাতক্ষীরার আম   ২৫ টাকার ইনজেকশন ১৫০০ টাকায় বিক্রি   চলমান মামলা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা যাবে : আইনমন্ত্রী

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে কৃষকের প্রতিবাদ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-১২ ১৬:৪৭:১২

নিউজ ডেস্ক: ধানের দাম কম হওয়ায় ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে অভিনব প্রতিবাদ করেছেন এক কৃষক। রোববার দুপুরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বানকিনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিবাদী ওই কৃষকের নাম আব্দুল মালেক শিকদার। তিনি নিজের পাকা ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে এই প্রতিবাদ জানান। ঘটনাটি এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

প্রতিবাদী কৃষক আব্দুল মালেক শিকদার বলেন, বাজারে প্রতিমণ ধানের দাম ৫০০ টাকা। অথচ একমণ ধানের উৎপাদন খরচ এক হাজার টাকার উপরে। এছাড়া বর্তমানে একজন ধানকাটা শ্রমিকের মূল্য ৮০০ টাকা থেকে ৮৫০ টাকা। আর একজন শ্রমিক একদিনে এক থেকে দেড়মণ ধান কাটতে পারে। এছাড়া শ্রমিক সংকটের কারণে ক্ষেতের পাকা ধানও সময়মত ঘরে তুলতে পারছি না। তাই কোনো উপায় না দেখে দেশের কৃষকদের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ হিসেবে আমি নিজের পাকা ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছি। যাতে ধানের দাম বাড়ানোর বিষয়টি সরকার বিবেচনা করে।
প্রতিবাদী কৃষক আব্দুল মালেক শিকদার- ছবি: নয়া দিগন্ত

পাইকড়া ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন পাকা ধানক্ষেতে আগুন দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এটা অত্যন্ত বেদনাদায়ক ঘটনা। কৃষকদের ধানের ন্যায্য মূল্য দেয়া উচিত। কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হলে দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য মতে, জেলায় এবার বোরো ধানের আবাদ হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার ৭০২ হেক্টর জমিতে। ফলনও হয়েছে ভালো। এ পর্যন্ত জেলায় প্রায় ৩০ ভাগ জমির ধান কাটা শেষ হয়েছে। ক্ষেতের সব ধান পেকে গেলেও শ্রমিকের অভাবে কৃষক ধান কেটে ঘরে তুলতে পারছেন না।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক জানান, এই সময়ে ধানের বাজার কিছুটা কম থাকলেও কৃষক যদি ধান সংরক্ষণ করে রাখেন তবে ক’দিন পরেই অধিক মূল্য পাবেন। তাপদাহসহ নানা কারণে বর্তমানে কিছুটা শ্রমিক সংকট রয়েছে বলে তিনি জানান।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৩৭ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত