যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 03:25am

|   লন্ডন - 10:25pm

|   নিউইয়র্ক - 05:25pm

  সর্বশেষ :

  নিউজিল্যান্ডে বাড়ি কিনতে পারবে না বিদেশিরা   লিবিয়ায় হত্যার দায়ে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড   কোটা সংস্কার আন্দোলন : ইডেন কলেজছাত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে   বঙ্গবন্ধু হত্যায় খালেদাও জড়িত: প্রধানমন্ত্রী   ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ী আর নেই   আমেরিকার বিপক্ষে তুরস্কের সঙ্গে জার্মান   ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে আমেরিকার তিন শতাধিক গণমাধ্যম   ভুটানকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ   সিঙ্গাপুরের শীর্ষ ধনীর তালিকায় বাংলাদেশি আজিজ খান   হজ করতে সৌদি আরবে ১ লাখ ২১ হাজার বাংলাদেশী   নিউইয়র্কে লাঞ্ছিত ইমরান এইচ সরকার   ট্রাম্প টাওয়ারের বিরুদ্ধে মামলা   ‘গুজব’ ছড়ানোর অভিযোগে আরও ৩ শিক্ষার্থী গ্রেফতার   আফগানিস্তানে সেনাঘাঁটিতে হামলায় সেনা-পুলিশসহ নিহত ৪৫   অস্ট্রেলিয়ার প্রথম মুসলিম নারী সিনেটর মেহরিন

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

‘সাধারণ কয়েদিদের অখাদ্য খাবার দেয়া হচ্ছে খালেদা জিয়াকে’

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৮-০২-১০ ১৩:০০:৪১

নিউজ ডেস্ক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাধারণ কয়েদিদের ‘অখাদ্য’ খাবার খেতে দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। তিনি বলেন, কারাগারের সাধারণ কয়েদিদের যে খাবার খেতে দেয়া হয়, সেই অখাদ্য ম্যাডামকে খেতে দেয়া হচ্ছে। তাকে ডিভিশন দেয়া হয়নি। জনমানবহীন নির্জন পরিবেশে তাকে রাখা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

মওদুদ বলেন, ম্যাডাম অসুস্থ, তিনি একা একা হাটুর ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন। যে গৃহপরিচারিকা ফাতেমাকে ছাড়া তিনি থাকতে পারেন না, তাকেও থাকার অনুমতি দেয়া হয়নি এখনো।

সরকার মুখে বলছে খালেদা জিয়াকে ডিভিশন দেয়া হচ্ছে এমন মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, তিনি শুধু এক সময় দেশের প্রধানমন্ত্রীই ছিলেন না, একজন এমপি ছিলেন। বিএনপির মতো একটি বড় দলের তিনি প্রধান হিসেবে তাকে তিন ক্যাটাগরিতে ডিভিশন দেয়ার কথা। অথচ সরকার তাকে এমন পরিবেশে রেখে মুখে বলছে তাকে ডিভিশন দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা অচিরেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে কথা বলবো।

তিনি বলেন, আমরা নেত্রীর সাথে ডিভিশন এবং আপিলের বিষয়ে পরামর্শ করেছি। তার নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব। আর রায়ের নথিপত্র পাওয়ার পরই আমরা দ্রুত আদালতে আপিল করব।

এরআগে বিএনপি আইনজীবী প্যানেলের সদস্যরা শনিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কারাগারে প্রবেশ করেন। তারা হলেন- ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী ও অ্যাডভোকেট আব্দুর রেজ্জাক খান।

দুপুর আড়াইটার দিকে কারাগারের সামনে আসেন এই পাঁচ আইনজীবী। প্রায় দুই ঘণ্টা অপেক্ষার পর কারা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি পান তারা।

উল্রেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি পুরানো ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এছাড়া মামলার অপর আসামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানসহ বাকি আসামিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

তাছাড়া তাদের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ওইদিনই নাজিমউদ্দিন রোডের পুরানো কারাগারে নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে।


এলএবাংলাটাইমস/এন/এলআরটি 

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৬৮৬ বার

আপনার মন্তব্য