আপডেট :

        আমাদের আগামীরা আজকে দেশব্যাপী রাজপথে

        দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

        দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

        নৌ অবরোধের কারণে দেউলিয়া হয়ে গেছে ইসরায়েলের ইলাত বন্দর

        ‘ধাতব স্যুটের বর্ম’ তৈরি করতে চান টেসলার প্রধান ইলন মাস্ক

        শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের নৃশংস হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

        হামলায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের ছবি-ভিডিও মুহূর্তের মধ্যেই ঝড় তোলেছে ইন্টারনেট

        পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

        কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আবু সাঈদ নিহত

        কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আবু সাঈদ নিহত

        শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে জনগণকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান

        শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে জনগণকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান

        ডান কানে বড় একটি ব্যান্ডেজ নিয়ে জাতীয় সম্মেলনে উপস্থিত ট্রাম্প

        ট্রাম্পকে মাসে ৪৫ মিলিয়ন ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ইলন মাস্কের

        শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগ পাল্টাপাল্টি ধাওয়া

        আম্বানি পুত্রের বিয়েতে নিক-প্রিয়াঙ্কার উজ্জ্বল উপস্থিতি নজর কেড়েছে নেটিজেনদের

        প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

        সাহিত্যিক যাত্রার শুরু এবং কাশবন পত্রিকার সম্পাদনার পিছনে অনুপ্রেরণা

        নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন

        নারী শিক্ষার অগ্রদূত হিসেবে "তমগায়ে কায়েদে আজম "

করোনার দ্বিতীয় টেউ;বিচক্ষণতায় সামলাতে হবে

করোনার দ্বিতীয় টেউ;বিচক্ষণতায় সামলাতে হবে

শীতের আগমনী বার্তায় চারদিক যেন কুয়াশাঘেরা চৌচির জমিন বুকে ফাটল ধরেছে।ভোরে সামান্য কাছেও কুয়াশায় ঢাকা থাকায় দেখা যায় না কিছুই।মানে শীত ধীরে ধীরে ঝেঁকে বসেছে। এই সময়টা ঋতু পরিবর্তনের কারণে এমনিতেই কমবেশি সবার ফ্লো লেগে আছে। জ্বর, সর্দি  আর সারাশরীরে প্রচন্ড ব্যথা,যন্ত্রণা। এখন এই অবস্থায় মানুষ জীবন-জীবিকার তাগিদে বের হতে হচ্ছে প্রবল করোনার দ্বিতীয় টেউয়ের ভিতরেই।

কোন উপায় নেই যে আর ঘরের অভিভাবকদের। আমি নিজেও যাই।তার ফল স্বরূপ দীর্ঘদিন জ্বর লেগে আছে।প্রশাসন উর্ধতনের এ ব্যাপারে সকল চাকরীজীবীদের বাঁচাতে সুদৃষ্টি কামনা করছি।যদিও প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে মাস্ক না পরলে সকল সেবা বন্ধ থাকবে গ্রাহকের।এসব কেউ মানে না এই দেশে যা বিভিন্ন পত্রিকা,গণমাধ্যমে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত।

তাহলে কি করে স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নেবেন?ছোট ছোট মাসুম শিশুরা দেশের ভবিষ্যৎ মানছি।কিন্তু লেখাপড়ার চেয়ে জীবন অনেক মূল্যবান।স্কুল,কলেজ আর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সব সময় স্বাস্থ্যবিধি মানবে না।গ্রামেগঞ্জের অবস্থা স্বচক্ষে দেখলাম কারো মুখেই মাস্ক নাই। পাড়ার দোকানে বসে আড্ডা চলছে সেই আগের মতোই।তাহলে এতো বড় একটা জনগোষ্ঠীকে করোনার দ্বিতীয় টেউ থেকে রক্ষা করতে লকডাউন জরুরী কিছুদিনের জন্য।বিশ্ব এই নীতি অনুসরণ করছে।যদিও আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে দীর্ঘদিন লকডাউনে জনজীবন অচল হয়ে যাবে।

তাই জনসংখ্যার কিয়দংশের এক ভাগ হলেও লকডাউনের আওতায় থাকা সমীচীন।বেঁচে থাকলে আসছে বছর পড়ালেখা স্বাভাবিক গতিতে চলবে বৈকি।আমাদের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা সুন্দর, নিরাপদে ঘরে থাকুক।ঘরই হোক তাদের আনন্দ স্কুল।


লেখক: শিক্ষক, কবি ও প্রাবন্ধিক

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত