যুক্তরাষ্ট্রে আজ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 08:32pm

|   লন্ডন - 03:32pm

|   নিউইয়র্ক - 10:32am

  সর্বশেষ :

  মিয়ানমার কারও কথা শোনে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   পরীক্ষা ছাড়া ভর্তিকে কেন্দ্র করে ঢাবিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের হাতাহাতি   ১৮টি অমুসলিম উপাসনালয়ের অনুমোদন দিচ্ছে আরব আমিরাত   দেশে দুর্নীতি মহামারী আকার ধারণ করেছে : মওদুদ   লাইবেরিয়ায় ধর্মীয় স্কুলে আগুন, নিহত ৩০   ১৮ দিনেও খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ পাননি স্বজনরা, উদ্বেগ   নিউইয়র্কে ইন্টারন্যাশনাল সীরাত কনভেনশন শনিবার   নিউইয়র্কে বিয়ানীবাজার এডুকেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্টের ক্রিকেট টুনার্মেন্ট সম্পন্ন   ওয়াশিংটন ডিসিতে শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি সংগঠন ‘সমস্বর’-এর আত্মপ্রকাশ   বাফলা চ্যারিটির ফান্ড রাইজিং ডিনার রবিবার   দক্ষিণ কোরিয়ার রাজনীতিবিদরা মাথা ন্যাড়া করছেন   বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আরো ভাগাভাগি হচ্ছে, গণমাধ্যমে আসছে না: আরেফিন সিদ্দিক   ‘জাবির অর্থ কেলেঙ্কারি ফাঁসকারী ছাত্রলীগ নেতারা হুমকির সম্মুখীন’   খালেদা কিছুই দেননি, হাসিনা আমাদের সম্মানিত করেছেন: আল্লামা শফী   রাখাইনে আরও ৬ লাখ রোহিঙ্গা গণহত্যার চরম ঝুঁকিতে : জাতিসংঘ

>>  প্রবাসী কমিউনিটি এর সকল সংবাদ

ওয়াশিংটন ডিসিতে শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি সংগঠন ‘সমস্বর’-এর আত্মপ্রকাশ

আবৃত্তি শিল্পে শুদ্ধ উচ্চারণ, বাচনভঙ্গি, প্রক্ষেপন ও কবিতার মর্মার্থ উপলব্ধির লক্ষ্যে ওয়াশিংটন ডিসি তে পথ চলা শুরু করল “শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি সংগঠন- সমস্বর”। গত  ১৫ই সেপ্টেম্বর, রবিবার জর্জ মেসন রিজিওনাল লাইব্রেরি মিলনায়তনে উৎসবমুখর পরিবেশে “সমস্বর” এর অভিষেক অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগের প্রধান রোকেয়া হায়দার। ওয়াশিংটন ডিসির প্রবাসী বাঙালিদের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিতব্য অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্যে শুদ্ধ উচ্চারণের প্রয়োজনীয়তার উপর আলোকপাত করেন রোকেয়া হায়দার। তারপর শুভেচ্ছা বানী পাঠ করেন বিশিষ্ট কবি, সাংবাদিক

বিস্তারিত খবর

বাফলা চ্যারিটির ফান্ড রাইজিং ডিনার রবিবার

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৮ ০৮:৪১:৩৮

আগামী রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস (বাফলা)-এর চ্যারিটি ইউনিটের বার্ষিক ফান্ডরাইজিং ও এপ্রিসিয়েশন ডিনার। নর্থ হলিউডের চার্চ অব সাইন্টিলজিতে (Church of Scientology, 11455 Burbank Blvd, North Hollywood, CA 91601) বিকেল ৫টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চলবে এই অনুষ্ঠান। 
অনুষ্ঠানে থাকবে বাফলা চ্যারিটির বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে প্রজেক্ট প্রেজেন্টেশন ও ভিডিও প্রদর্শন, গান এবং ডিনার। 
'We Help Needy & Distressed People' এই প্রতিপাদ্য নিয়ে আয়োজিত এই ফান্ডরাইজিং ডিনারে সকল প্রবাসীদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বাফলা নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানে প্রবেশের জন্য কোনো ফি নেই।
উল্লেখ্য, বাফলা চ্যারিটি একটি ট্যাক্স ফ্রি 501(c)(3) স্ট্যাটাসের চ্যরিটি সংগঠন। এর যাবতীয় অর্থ দুস্থ মানুষের কল্যাণে ব্যয় করা হয়।

বিস্তারিত খবর

ইতালিতে প্রবাসীর মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৬ ১৪:৪৪:৪৬

ইতালির ভেনিসের বাসিন্দা শওকত হোসেন নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশীর মৃত্যু হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেলে ইতালির ভেনিসে বসবাসরত শওকত হোসেন নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশী মৃত্যুবরন করেছে। ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল আনুমানিক ৫০ বছর। স্টোক জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। তার বাড়ী নরসিংদী জেলার রায়পুর এলাকায়।
২০১২ সালে সে ইতালির ভেনিসে এসেছিলেন। শওকত হোসেনের মৃত্যু সংবাদে ভেনিসে বসবাসরত বাংলাদেশীদের মাঝে গভীর শোকের ছায়া নেমে আস।

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্র সফররত শ্যামা ওবায়েদের সাথে ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপির মতবিনিময়

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৫ ১৫:২৮:৪৩

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াতে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম' দলের সভানেত্রী এবং মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বিএনপির সাবেক মহাসচীব জননেতা মরহুম কে এম ওবায়দুর রহমান তনয়া শ্যামা ওবায়েদের সাথে ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি নেতা কর্মীদের এক মতবিনিময় সভা অনুস্ঠিত হয়।

গত ৯ই সেপ্টেম্বর সোমবার ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপির সাধারন সম্পাদক এম ওয়াহিদ রহমানের লস এঞ্জেলেসের বাসভবনে অনুষ্ঠিত উক্ত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপির প্রেসিডেন্ট বদরুল আলম চৌধুরী শিপলু।

এম ওয়াহিদ রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী কাঞ্চন, আব্দুল বাসিত, শামসুজ্জোহা বাবলু প্রমুখ।


মতবিনিময় সভায় শ্যামা ওবায়েদ বলেন, বিএনপি বিপদে আছে বলে যারা মনে করে তাদের বলতে চাই, আসলে দেশটাই বিপদের মধ্যে আছে।দেশে গণতন্ত্র ভূলুন্ঠিত। স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব হুমকির সম্মুক্ষীন। গণতন্ত্রের প্রতীক, স্বাধীনতার অতন্ত্র প্রহরী, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সুদীর্ঘ ১৮ মাস কারা বন্দী করে রাখা হয়েছে!
যে মামলায় আমি আপনি হলেও জামিন হয়ে যেত, সেই ঠুনকো মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে যামিন দেয়া হচ্ছে না! আমাদের বিচার ব্যবস্হাকে সম্পুর্ণ ভাবে দলীয়করণ করা হয়েছে। যে সকল মাপকাঠিতে একজন বিচার প্রার্থী জামিন পাবার যোগ্যতা রাখেন, তার প্রতিটা ক্রাইটেরিয়ায় বেগম খালেদা জিয়া জামিন পাবার যোগ্য। তিনি একজন নারী, তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী, যিনি জীবনে কোনো নির্বাচনে হারেননি, শারীরিক ভাবে অসুস্থ, তেহাত্তর ঊর্ধ্ব বয়সী এই নেত্রীকে গণতন্ত্র বিন্যাসী আওয়ামী জালিম সরকার অন্যায় ভাবে কারারুদ্ধ করে রেখে চরম মানবাধিকার লংঘন করেছে। একজন সাধারন নাগরীকের সাংবিধানিক যে অধীকার রয়েছে সেই অধীকারটুকুও তাঁকে দেয়া হচ্ছেনা।

শ্যামা ওবায়েদ বলেন, দেশে তথাকথিত উন্নয়নের নামে সবখানে হরিলুট চলছে। পদ্মাসেতুর হরিরলুট, রূপপুরের বালিশ সমাচার, ফরিদপুরের হাসপাতালের পর্দা সমাচার, ব্যাংক বিমা শেয়ারবাজার সর্বত্র দূর্ণীতির এক স্বর্গরাজ্যে পরিনত হয়েছে!

তিনি বলেন, আমাদের নেতা তারেক জিয়া আওয়ামী  প্রোপাগাণ্ডার তথ্য উপাত্ত দেশবাশীর কাছে প্রমাণ সহ উপস্হাপন করায় তাকে সাজানো মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। তাদের একমাত্র ভয় খালেদা জিয়া এবং আগামী দিনের রাষ্ট্রনায়ক তারেক জিয়া। প্রকৃতপক্ষে শেখ হাসিনা তারেক জিয়া ও বিএনপিকে ভীষণ ভয় পায়। শহীদ জিয়ার সততাই তাদেরকে অস্থির করে ফেলেছে।

তাই বিএনপিকে নির্মূল করাই তাদের একমাত্র এজেন্ডা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি প্রবাসী সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে অবৈধ সরকারের তথাকথিত উন্নয়নের নামে লুটপাটের এবং স্বৈরচারী অগণতন্ত্রীক সরকারের বিরুদ্ধে বিদেশীদের নিকট আসল তথ্য তুলে ধরার আহবান জানান।

সভাপতি  বদরুল আলম চৌধুরী শিপলু তার আলোচনায় প্রধান অতিথীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, দেখুন, আমার পাশে তিনজন সাবেক সভাপতি সহ সিনিয়ার নেতারা রয়েছেন, যার কারনে ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি  আজ শক্তিশালী। আপনার মাধ্যমে কেন্দ্রকে বলতে চাই, সকলে যদি এই ভাবে এক সঙ্গে কাজ করতেন, তাহলে শহীদ জিয়ার সৈনিকেরা বেঁচে থাকতে কার এতো শক্তি আমাদের মাকে কারাগারে রাখে? আলোচনায় সাধারন সম্পাদক এম ওয়াহিদ রহমান বলেন, আমাদের দাবি বেগম জিয়ার মুক্তির লক্ষ্যে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা। জিয়ার সৈনিকরা রক্ত দিতে প্রস্তুত কিন্তু আর এক মুহুর্ত ও মায়ের কারাবাস দেখতে চায় না।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা সাইফুল আনসারী চপল, অপু সাজ্জাত, আফজাল হোসেন শিকদার, অধ্যাপক শাহদাৎ হোসেন শাহীন, মিকায়েল খান রাসেল, মানিক চৌধুরী, যুগ্ন সম্পাদক ফারুক হাওলাদার, সৈয়দ নাছির উদ্দীন জেবুল, রফিকুজ্জামান জুয়েল, ইলিয়াছ মিয়া, শাহদাৎ কবির ভুইয়া শান্ত, শাহীন হক, আলমগীর হোসেন, রনি জামান সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ খান, মহিলা সম্পাদক এ্যাড: শামীমা খান লাকী, প্রচার সম্পাদক কামাল হোসেন তরুন, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক নয়ন বড়ুয়া, দপ্তর সম্পাদক রেজাউল হায়দার  চৌধুরী বাবু, আপ্যায়ন সম্পাদক খসরু রানা, সমাজ কল্যান সম্পাদক আব্দুল মান্নান, পরিবহন বিষয়ক সম্পাদক হোসেন আহমেদ, সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক কবির আহমেদ প্রমুখ। এছাড়া আরো উপস্হিত ছিলেন শ্যামা ওবায়েদের জীবনসঙ্গী বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী শোভন ইসলাম শাওন, কমিউনিটি লিডার খন্দকার আলম, সাংবাদিক আহমেদ ফয়সাল(তুহীন), আহামেদ রহমান, শামীমা জ্জোহা, পারভীন জামান, সেলিমা ইয়াসমীন, মিসেস আফজাল প্রমুখ।

বিস্তারিত খবর

ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশী যুবক প্রশংসিত: প্রবাসীদের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনার আহ্বান

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৫ ১৪:৪৭:০০

ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশীদের সুনাম ছিল অনন্য উচ্চতায়।কখনো কখনো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ডকুমেন্ট ছাড়া কেউ আটক হলেও বাংলাদেশি জেনে তাদেরকে ছেড়ে দিত। সময়ের বিবর্তনে বাংলাদেশীদের সেই সুনাম এখন ক্ষুণ্ন হতে চলেছে। আদম পাচার, দালালি এবং সর্বশেষ ড্রাগ নিয়ে ধরা পড়ছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এখনো গ্রেপ্তার হয়ে ৭ জন রয়েছেন কারাগারে।
এই যখন বাংলাদেশীদের অবস্থা, তখন বাংলাদেশি এক যুবক ইতালির রাজধানী রোমের ব্যস্ততম এলাকা ভিয়া ন্যাশনালে একটি মানিব্যাগ সমেত ২000 ইউরো কুড়িয়ে পান।  ওই বাংলাদেশি যুবক মানি ব্যাগটি নিয়ে স্থানীয় থানায় গিয়ে জমা দেয়। ওই মানি ব্যাগের ভেতর টাকা ছাড়াও ক্রেডিট কার্ড এবং ডকুমেন্ট ছিল ওই মানিব্যাগ হারানো ব্যক্তিটির। পুলিশ মানিব্যাগের মালিককে খবর দিলে তিনি এসে ব্যাগটি নিয়ে যান।স্থানীয় পত্রিকা জানায় ওই মালিক যুবকটিকে কিছু টাকা উপহার দিতে চাইলে সে নিতে অস্বীকার করে। এতেই প্রশংসিত হয় যুবকটি।প্রবাসীরা বলছেন ওই যুবকের মতো প্রতিটি বাংলাদেশিকে হতে হবে। ইতালির কমিউনিটি নেতা হাজী মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন, আমাদেরকে সকল প্রকার অপরাধের বিরুদ্ধে গণসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে, যাতে প্রবাসী বাংলাদেশীরা কোনোভাবেই অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়তে না পারে।ইতালী আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব হোসেন বলেন ,আমাদের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে হবে ।প্রবাসীরা যাতে সুন্দরভাবে জীবন-যাপন করতে পারে সেদিকে সমাজের সকলকে কাজ করে যেতে হবে।

বিস্তারিত খবর

আমেরিকান সেনাবাহিনীতে বাংলাদেশি পম্পি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৪ ১১:১৯:৪২

সম্প্রতি মার্কিন সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আফিয়া জাহান পম্পি (২০)। তার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার জমালপুর গ্রামে। পরিবারের সঙ্গে ব্রুকলিনের চার্চ ম্যাকডোনাল্ডে থাকেন আফিয়া। ছোটবেলায় মা-বাবার সঙ্গে অভিবাসী হয়ে আমেরিকায় যান তিনি।

আফিয়ার মা নুরুচ্ছাবাহ পূর্ণিমা বলেন, ‘ছোটবেলায় আমাদের সঙ্গে সে আমেরিকায় আসে। এখানে এসে অধ্যয়নের পাশাপাশি নাচ, গান ও সাহিত্য চর্চা করে। সে নাচসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে সাফল্যের জন্য বেশ কয়েকটি পুরস্কারও পেয়েছে।’

বাংলাদেশের চট্টগ্রাম শহরে ব্যবসা করতেন আফিয়ার বাবা মেজবাহ উদ্দিন। প্রায় দু দশক আগে আমেরিকা এসে স্বপ্ন দেখছিলেন এ দেশটিকে একদিন জয় করবেন। মেয়ে আফিয়া মার্কিন সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার পর তাই বাবা মেজবাহ উদ্দিন স্বাভাবিকভাবেই ভীষণ আনন্দিত।
তিনি বলেন, ‘আমেরিকা আমাদের অনেক দিয়েছে। এ দেশের সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়ে আমার মেয়ে নতুন এক স্বপ্ন-যাত্রা শুরু করেছে।’

বিস্তারিত খবর

আব্দুস সামাদ আজাদের ভাইয়ের মৃত্যুতে নিউজার্সি আ.লীগের শোক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১৪ ১১:১৪:৫২

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের বড় ভাই রইস উদ্দিন আহমেদ এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন  যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

নিউজার্সির প্যাটারসন থেকে নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সংগঠনটির সভাপতি আজমল আলী ও সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ দে বাবলু গণমাধ্যমে প্রেরিতে এক  শোকবার্তায় মরহুম রইস উদ্দিন আহমেদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ এর বড় ভাই রইস উদ্দীন আহমেদ গত ১৩ সেপ্টম্বর শুক্রবার বাংলাদেশে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নিজ বাসায় ইন্তেকাল করিয়াছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজীউন)। 

বিস্তারিত খবর

রবিবার উডলি পার্কে জালালাবাদের পিকনিক ও ঈদ পুনর্মিলনী

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১২ ১৬:৩২:৩১

আগামী রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ক্যালিফোর্নিয়ার ভেন নাইস সিটির উডলি পার্কে (6350 Woodley Ave, Van Nuys, CA 91406) বৃহত্তর সিলেটিদের সংগঠন ‘জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব ক্যালিফোর্নিয়া’র বার্ষিক পিকনিক ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর ক্যালিফোর্নিয়ায় এই আয়োজন করে থাকে সংগঠনটি।

এবার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত আয়োজনে থাকবে লাইভ মিউজিক, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, র‌্যাফেল ড্র, দেশীয় খাবারসহ নানা বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান।

আনন্দঘন এই আয়োজনে সকল প্রবাসী বাংলাদেশিদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জালালাবদের নেতৃবৃন্দ।

বিস্তারিত খবর

ওয়াশিংটনে ভ্যালেঙ্কিনি মারিয়ার পর্ব

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১১ ১৪:৫১:২৩

প্রতিবারের ন্যায় এবারও ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল শ্রাইন ইম্মাকুলেট চার্চে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলো ভ্যালেঙ্কিনি মারিয়ার পর্ব। ইন্ডিয়ান আমেরিকান ক্যাথলিক এসোসিয়েশন এর আয়োজনে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকার প্রবাসী খ্রীষ্টভক্তরা এতে অংশগ্রহণ করেন।
৭ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুর ১ ঘটিকায় মূল চার্চের নিচতলায় ক্রাইপ্ট চার্চে পাপস্বীকার ও রোজারি মালা প্রার্থনার মধ্যে দিয়ে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। এর পরে ভ্যালেঙ্কিনি মারিয়ার মূর্তি, ধর্মীয় ফ্যাষ্টুন ও ভিবিন্ন দেশের পতাকা বহন করে শোভাযাত্রার মাধ্যমে মূল চার্চে প্রবেশ করেন খ্রীষ্টভক্তগণ। এ সময় শোভাযাত্রায় অংশ নেন  ওয়াশিংটন আর্চ ডায়োসিসের সহকারী বিশপ মোস্ট রেভারেন্ড মাইকেল ডব্লিউ ফিশার এবং সাথে ছিলেন স্থানীয় যাজকবৃন্দ। বাংলাদেশ থেকে আগত ফাদার শেখর রিচার্ড পেরেরা, সিএসসি।
ছোট ছোট শিশুদের ধূপারতির মধ্যে দিয়ে বিশপ ও যাজকগণ বেদিতে আসন গ্রহণ করেন।
পবিত্র এই মহা খ্রীষ্টযাগে তামিল, মালায়লাম,বাংলা, হিন্দি,কঙ্কনি, উর্দু ও ইংরেজি ভাষায় গান ও উদ্দেশ্য প্রার্থনা করা হয়। প্রতিবারের ন্যায় বাংলা কয়্যার গ্রূপ বাংলায় খ্রিষ্টীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন।
খ্রীষ্টযাগে উপদেশ বাণীতে রেভারেন্ড বিশপ মাইকেল প্রবাসীদের উদ্যোগকে স্বাগতঃ জানিয়ে বলেন, প্রবাসে আমাদের ধর্মীয় বিশ্বাস ও মারিয়ার প্রতি ভালোবাসা এশিয়ায় বাণী প্রচারের ফসল। ভ্যালেঙ্কিনি মারিয়ার বিশেষ আশীর্বাদে আপনাদের জীবন আরো সুন্দর ও ভক্তিপূর্ণ হোক এই প্রার্থনা করি।
খ্রীষ্টযাগ শেষে ইন্ডিয়ান আমেরিকান ক্যাথলিক এসোসিয়েশনের সভাপতি জন হুইটলি বলেন, আপনাদের সার্বিক সাহায্য-সহযোগিতার ফলে এবার আমরা সুন্দর ও সফল ভাবে ভ্যালেঙ্কিনি মারিয়ার মারিয়ার পর্ব পালন করতে পেরেছি। আগামীতেও আপনার সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করি।
খ্রীষ্টযাগ শেষে বিশেষ আশীর্বাদিত রোজারিও মালা খ্রীষ্টভক্তদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

বিস্তারিত খবর

আইল্যান্ড আওয়ামী লীগের সমস্ত কমিটি বাতিল: এডহক কমিটি গঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-১১ ১৪:৪৯:১৯

আইল্যান্ড আওয়ামী লীগের এক কর্মী সভায় সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম জামাত-বিএনপি'র অপপ্রচার প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়েছেন।
ডাবলিনে অনুষ্ঠিত ওই কর্মী সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান।
দ্বিধাবিভক্ত আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগকে ওকে বন্ধ করতেই কর্মী সভার আয়োজন করা হয়।
কিবরিয়া হায়দারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মী সভা পরিচালনা করেন বিল্লাল হোসেন।
এতে ইকবাল আহমেদ লিটন, মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান, মিজানুর রহমান , রফিক খান, জসিমউদ্দিন সহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন আইল্যান্ডের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন।
সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামীলীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম ঐক্যবদ্ধভাবে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার আহ্বান জানান।
দলীয় নেতাকর্মীরা একটি ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ চান আয়ারল্যান্ডে।
জামাত-শিবির মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ ভাবে তারা কাজ করবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

কর্মীসভায় পুরোনো সকল কমিটি ভেঙে দিয়ে বিল্লাল হোসেনকে আহ্বায়ক এবং ইকবাল আহমেদ লিটনকে সদস্যসচিব করে একটি এডহক কমিটি গঠন করা হয় আগামী ৬ মাসের মধ্যে তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবে।

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানায় ডাকাতের গুলিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৮ ১০:২৬:৫০

যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানা স্টেস্ট ইউনিভার্সিটির এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার স্থানীয় সময় সকালে লুইজিয়ানার বিমান বন্দর হাইওয়ের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. ফিরোজ উল আমিন (৩০)। তিনি লুইজিয়ানা স্টেস্ট ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পিএইচডি করছিলেন।

বাংলাদেশে থাকাকালে তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সিএসই-তে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, হাইওয়ের পাশে এক গ্যাস স্টেশনে কাজ করছিলেন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ফিরোজ। সকালে বন্দুক নিয়ে দুর্বৃত্তরা ডাকাতির উদ্দেশ্যে সেখানে এসে গুলি চালায়। এতে ঘটনাস্থলেই ফিরোজের মৃত্যু হয়।

ফিরোজের মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন লুইজিয়ানা স্টেস্ট ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট এফ কিং আলেক্সান্ডার।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ফিরোজ উল আমিনের মর্মান্তিক মৃত্যুতে পুরো লুইজিয়ানা স্টেস্ট ইউনিভার্সিটি শোকাহত। সে ছিল অবিশ্বাস্য রকমের একজন মেধাবী ছাত্র ও গবেষক; যার একটি সম্ভাবনাময় ভবিষ্যৎ ছিল।

বিস্তারিত খবর

ইতালিতে ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৩ বাংলাদেশি আটক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৭ ১১:২১:৪৬

ইতালি রোমের ভিলা দে সান্টিস নামক এলাকা থেকে প্রায় এক হাজার পিস ইয়াবাসহ তিন বাংলাদেশিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশ করা হয়। জব্দ ইয়াবার নাম দেয়া হয়েছে ‌‘হিটলার ড্রাগস’।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ইতালির মিলিটারি বিশেষ অভিযান চালিয়ে ৯৭৮ পিস ইয়াবাসহ তাদের আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেয়। তবে পুলিশ তাদের নাম প্রকাশ করেনি।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেখানকার প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তারা বলছেন, তাদের এই অপকর্মের জন্য স্থানীয়রা আমাদের অবিশ্বাস ও ঘৃণার চোখে দেখে। রাজনৈতিকভাবেও এর প্রভাব পড়েছে ২০১৮ নির্বাচনে। তাদের জন্য দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। রোমে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূতের কাছে তাদের বিচারের দাবি জানিয়েছেন তারা।

বিস্তারিত খবর

ইতালিতে বিএনপি'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৭ ০৬:৩৫:৫২

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল  বি এন পির গৌরবময় ৪১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১২তম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে একটি বিশেষ আলোচনা সভার আয়োজন করে বি এন পি ইতালি শাখা।
ইতালি বি এন পির সাধারণ সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিনের পরিচালনায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি হাজী আব্দুর রাজ্জাক। রাজধানী রোমের স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টের হলরুমে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন" দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লক্ষেই জন্ম হয়েছিল এই দলের। কিন্তু সেই দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় দীর্ঘদিন যাবত কারাবন্দি করে রেখেছে। নেতৃবৃন্দরা বেগম জিয়ার মুক্তির দাবী করেন এবং সুষ্ঠ ও স্বচ্ছ গণতন্ত্রের চর্চা স্বরূপ একটি নির্বাচনের দাবী করেন। তারা আরো বলেন "  বর্তমান সময়ে  গণতন্ত্র সম্পূর্ণ  বিপন্ন অবস্থায় আছে  কাজেই ১৭ কোটি জনগণকে পুনরায় গণতন্ত্র ও আইনের শাসনকে ফিরিয়ে দিতেই সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। 
এই সময় বক্তব্য রাখেন ইতালি বি এন পির সাবেক সভাপতি শাহ তাইফুর রহমান, সিনিয়র সহ সভাপতি আমিনুর রহমান সালাম, সহ সভাপতি সাজ্জাদুল কবির, হুমায়ন কবির, ফিরোজ খান, মাইনুল আলম, মাসুম বিল্লাহ, কাদের বেপারী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ মোঃ তৌহিদ কাদের, আবুল কালাম সায়মন, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন সহ ইতালি যুবদল, রোম মহানগর বি এন পি, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ।

বিস্তারিত খবর

টেক্সাসে বাংলাদেশি গ্রেফতার

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৫ ০৭:২৬:২৬

মানবপাচারের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে মিলন মিয়া নামে এক বাংলাদেশি গ্রেফতার হয়েছেন। তিনি অর্থের বিনিময়ে টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে কমপক্ষে ১৫ জন বাংলাদেশিকে যুক্তরাষ্ট্রে পাচার করেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ অভিযোগে গত ৩১ শে আগস্ট টেক্সাসের হিউসটনে অবস্থিত জর্জ বুশ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে পৌঁছামাত্র তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বসবাস করেন মেক্সিকোর টাপাচুলায়। যুক্তরাষ্ট্রের আইন মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, মিলান মিয়াকে ৩রা সেপ্টেম্বর টেক্সাসের সাউদার্ন ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট জাজ ডেনা এইচ পালমেরো’র আদালতে তোলা হয় মামলার প্রাথমিক শুনানির জন্য। এতে মিলন মিয়াকে আরো ফৌজদারি অপরাধের শুনানির জন্য আটক রাখতে নির্দেশ দেন বিচারক।
 
ওই বিবৃতি অনুযায়ী, মিলন মিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়েছে- তিনি ২০১৭ সালের মার্চ থেকে ২০১৮ সালের আগস্ট পর্যন্ত বাংলাদেশিদের পাচার করেছেন।

বাংলাদেশ থেকে অর্থের বিনিময়ে অনেক নাগরিককে মেক্সিকো নিয়েছেন। এ সময়ের মধ্যে তিনি ১৫ জন বাংলাদেশিকে টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে নেয়ার ব্যবস্থা করেছেন। আরও অভিযোগ আছে যে, তিনি মেক্সিকোর টাপাচুলায় একটি হোটেল ব্যবসা করেন। বিভিন্ন মানুষকে সেখানে নিয়ে রাখেন তিনি। তাদেরকে খাবার দেন। আশ্রয় দেন। তারপর তাদেরকে বিমানের টিকেট দেন মেক্সিকোর উত্তরাঞ্চলে যাওয়ার। সেখানে পাচারকারীদের সঙ্গে সাক্ষাত করিয়ে দেয়া হয় ওইসব মানুষকে। পাচারকারীরাই ওইসব ব্যক্তিকে যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত পর্যন্ত নিয়ে যায়। গত সপ্তাহে এমন অভিযোগ স্বীকার করেন মিলন মিয়ার এক সহযোগী মোকতার হোসেন।

যুক্তরাষ্ট্রের আইন মন্ত্রণালয়ের ক্রিমিনাল ডিভিশনের সহকারী এটর্নি জেনারেল ব্রায়ান এ বেনজোওস্কি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছে মানব পাচারকারী চক্রগুলো। মিলন মিয়াকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে একটি শক্ত বার্তা দেয়া হয়েছে যে, যেসব ব্যক্তি ব্যক্তিগত লাভের জন্য আমাদের জাতীয় অভিবাসন আইনের প্রতি ষড়যন্ত্র করবে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনতে বদ্ধপরিকর আইন মন্ত্রণালয়।

অন্যদিকে টেক্সাসের সাউদার্ন ডিস্ট্রিক্ট-এ যুক্তরাষ্ট্রের এটর্নি রায়ান কে প্যাট্রিক বলেছেন, আমাদের সীমান্তকে নিরাপদ করা হলো জাতীয় নিরাপত্তা ও আইন প্রয়োগকারীদের অগ্রাধিকার। মাঝে মধ্যে আমাদের সীমান্তকে অপকর্মে ব্যবহার করতে কিছু বেপরোয়া সংগঠন সহযোগিতা করে। এসব নিয়ে অনুসন্ধানী কাজ করে বহু এজেন্সি। তাদের এ কাজের কারণে এসব গ্রুপকে থামানো হয়েছে এবং বিদেশী অপরাধীদের বিচারের মুখোমুখি করা সম্ভব হয়েছে।

সান অ্যান্টনিওতে যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ইনভেস্টিগেশনের (এইচএসআই) স্পেশাল এজেন্ট ইনচার্জ শেন ফোল্ডেন।

তিনি বলেছেন, আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা ও জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করে মিলন মিয়াকে গ্রেফতার। এটা সম্মিলিত প্রচেষ্টার একটি বড় অংশ।

তিনি আরো বলেন, এইসএসআন অব্যাহতভাবে প্রচণ্ড তৎপরতার সঙ্গে অনুসন্ধান করে যাচ্ছে এবং ভেঙে দিচ্ছে বহুজাতিক অপরাধী চক্রগুলোকে, যারা জাতীয় স্বার্থের জন্য হুমকি প্রদর্শন করছে। আমাদের সীমান্তের অখন্ডতা ও আমাদের সম্প্রদায়গুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমাদের আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো অব্যাহতভাবে কাজ করে যাবে।


বিস্তারিত খবর

নিউইয়র্কে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি শাহেদ, খুনিরা গ্রেফতার না হওয়ায় প্রবাসীদের ক্ষোভ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৫ ০৩:২৬:২৭

নিউইয়র্কের ওজনপার্কে আবারো দুর্বৃত্তের গুলিতে গত ২রা সেপ্টেম্বর সোমবার ভোররাত সাড়ে ৪টায় রিচমন্ড হিল নামক স্থানে  নিহত হন বাংলাদেশী (সন্দীপের) যুবক শাহেদ উদ্দিন (২৭) ।শাহেদের নামাজে  জানাযা আজ  ৪ঠা সেপ্টেম্বর বুধবার বাদ এশা (রাত ৯টায়) ওজনপার্কের ফরবেল স্ট্রিটে অবস্থিত মসজিদ আল আমানে অনুষ্ঠিত হবে। নিহত শাহেদের বাবা যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি আলহাজ্ব বাবর উদ্দিনের উদ্ধৃতি দিয়ে কমিউনিটি লিডার আবু নাসের আরো জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় তার লাশ নেয়া হবে লং আইল্যান্ডে ওয়াশিংটন মেমোরিয়্যাল পার্কে অবস্থিত মুসলিম গোরস্থানে। সেখানেই তাকে দাফন করা হবে।

এদিকে, একই সময়ে গুলিতে আহত অপর বাংলাদেশী যুবক ইপু জামান (২৭) কে  চিকিৎসার পর সোমবার বিকেলে জ্যামাইকা হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়া হয়েছে। তার ঘনিষ্ঠজনেরা জানিয়েছেন যে, নাইট ক্লাবে সৃষ্ট গন্ডগোলের ভিকটিম হয়েছেন তারা। কারণ, গন্ডগোলে লিপ্তদের একজন (কৃষ্ণাঙ্গ) বাইরে এসে তাদের মধ্যে ঢুকে পড়েছিল। সে সময় দৃর্বত্ততরা ব্রাশ ফায়ার করলে শাহেদের বুকে তা বিদ্ধ হয়। ইপুর দু’পায়েই গুলি লাগে। এবং ঐ ২৮ বছর বয়েসী কৃষ্ণাঙ্গের বুক ভেদ করেছে আরেকটি গুলি। সে এখনও হাসপাতালে অচেতন অবস্থায় রয়েছে।

নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, রিচমন্ড হিল এলাকার ১৩০ স্ট্রিট এবং ৯২ এভিনিউতে অবস্থিত একটি নাইট ক্লাবের সামনে গত ২রা সেপ্টেম্বর  সোমবার ভোররাত সাড়ে ৪টায় বিবদমান দুই গ্রুপের মধ্যে রাস্তায় হাঁটাকে কেন্দ্র করে ঝগড়ার এক পর্যায়ে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এদিকে, শাহেদকে গুলিবর্ষণকারী কেউই ঘটনার ৪৮ ঘন্টা পরও গ্রেফতার না হওয়ায় কমিউনিটিতে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এহেন হত্যাযজ্ঞে লিপ্তদের অবিলম্বে গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন প্রবাসীরা।
উল্লেখ্য যে ঐ এলাকায় এর আগে ২০১৬ সালের জুলাই মাসে মসজিদের ইমাম আলা উদ্দিন আকুঞ্জি ও তারা মিয়াকে দিন দুপুরে এক দুর্বৃত্ত গুলি করে হত্যা করে।

বিস্তারিত খবর

স্বপ্নের ইউরোপ যাওয়া হলো না মামুনের, লাশ ফিরলো দেশে

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৪ ০৪:২০:২৮

স্বপ্নের ইউরোপ পাড়ি জমাতে গিয়ে প্রান হারালো সিলেটের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন।

সিলেট শহরের স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শাহজালাল জামেয়া ইসলামীয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক ছাত্র ও সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার বোয়ালজুড় ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন ইউরোপ যাওয়ার উদ্দেশ্য গত ৯ ফেব্রুয়ারি মরক্কোতে পাড়ি জমান।

পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, মরক্কো থেকে বিভিন্ন দেশ হয়ে সর্বশেষ সে আলজেরিয়াতে অবস্থান নেন। আলজেরিয়াতে থাকাকালীন গত ১আগস্ট অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। অসুস্থ হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত পরিবারের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ থাকলেও অসুস্থ হওয়ার পর তার সাথে আর কোনো যোগাযোগ করতে পারেনি পরিবার।

গত ২৭ আগস্ট পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মামুন পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছে। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর মামুনের লাশ আজ ৩ সেপ্টেম্বর রোজ মঙ্গলবার দেশে আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার বেলা ১১.০০ ঘটিকার সময় পাঠানটুলা জামেয়ায় তার ১ম জানাযার নামাজ এবং দুপুর ২ ঘটিকার সময় তার নিজ গ্রামে ২য় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

বিস্তারিত খবর

ক্যালিফোর্নিয়ায় বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৩ ১৪:৩৫:১১

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বিএনপি ক্যালিফোর্নিয়া শাখা রবিবার লস এঞ্জেলেসের গ্রিফিত পার্কের ক্রিস্টাল স্প্রিং প্রাঙ্গণে নানা কর্মসূচির আয়োজন করে।

যুক্তরাষ্ট্র, বাংলাদেশ ও বিএনপির দলীয় পতাক উত্তোলনের মাধ্যমে সূচিত অনুষ্ঠানে প্রবাসী বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাখা সভাপতি বদরুল আলম চৌধুরী শিপলু, পরিচালনা করেন সাধারন সম্পাদক এম ওয়াহিদ রহমান। বক্তৃতা করেন বিএনপি ক্যালিফোর্নিয়া শাখার সাবেক সভাপতি আব্দুল বাছিত, নজরুল ইসলাম চৌধুরী ও শামসুজ্জোহা বাবলু প্রমুখ। 


সভায় বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপর দায়েরকৃত মামলাগুলো মিথ্যা আখ্যা দিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার করণে সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং বয়বৃদ্ধ নেত্রীকে অন্যায়ভাবে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে। এসময় তারা খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি দাবি করেন। এছাড়া বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে দায়েরকৃত সকল মামলা প্রত্যাহার এবং জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানানো হয় অনুষ্ঠান থেকে।

অনুষ্ঠানে বাচ্চাদের জন্য বিভিন্ন ধরণের খেলাধুলা ও বড়দের জন্য র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া অনুষ্ঠান শেষে সবার মাঝে দুপুরের খাবার পরিবেশন করা হয়।

বিস্তারিত খবর

অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস ও মিডিয়া ক্লাবের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৩ ০২:৩১:৪৪

অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস ও মিডিয়া ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার প্রবাসী সাংবাদিক, কর্মী, সম্পাদক ও কলামিস্টদের সংগঠন। সারা অস্ট্রেলিয়া জুড়ে প্রায় ২০টিরও বেশী সংবাদ মাধ্যম ও ফ্রি ল্যান্সারদের নিয়ে গঠিত এই সংগঠনটি অস্ট্রেলিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশী প্রেস ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের যোগসুত্র হিসেবে পরিচিত। শুধুমাত্র প্রফেশনাল প্রেস ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের নিয়ে গঠিত অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ মিডিয়া ও প্রেস ক্লাব ২০১৬ সালে সৃষ্টি হলেও গত বছর প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৯, বিকেল ৭ টায় সিডনির রকডেলে এক রেস্টুরেন্টে অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস এন্ড মিডিয়া ক্লাব-এর বার্ষিক সাধারন সভা ও নির্বাচন ২০১৯-২০২০ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সাধারন সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ।

সংগঠনটির অন্যতম সদস্য শাখাওয়াত নয়নের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ ইকবাল টুটুল সংগঠনটির গত এক বছরের কার্যকলাপ এবং কোষাধক্ষ্য আবুল কালাম আজাদ আর্থিক প্রতিবেদন তুলে ধরেন। দু’টি রিপোর্টের উপর আলোচনা করেন, জন্মভূমি টেলিভিশনের কর্ণধার রেজা আরেফিন, মুক্তমঞ্চের সম্পাদক আল নোমান শামিম, বাংলাকথার শফিকুল আলম, বাংলাবার্তার আসলাম মোল্লা।
সভাপতি রহমত উল্লাহ সংক্ষিপ্ত বক্তব্যর মাধ্যমে গত বছরের কার্যকম তুলে ধরেন এবং সেই সঙ্গে পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন এবং এস বি এস বাংলা রেডিওর প্রধান কর্ণধার আবু রেজা আরেফীনকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে ঘোষনা
দেন। উপস্থিত সবার সম্মতিক্রমে প্রত্যক্ষ সিলেকসনের মাধ্যমে ২৭ জন নির্বাহী সদস্য নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ নতুন কমিটি ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশনার। পূরানো কমিটির সভাপতি রহমত উল্লাহ এবং সাধারন সম্পাদক ইউসুফ ইকবাল টুটুল নতুন কমিটির পূনরায় সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদক পুনঃনির্বাচিত হন।
অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস ও মিডিয়া ক্লাবের ২০১৯-২০২০-এর পুর্নাংগ সদস্য তালিকাঃ
সভাপতিঃ মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ (বিদেশ বাংলা টিভি)
সাধারন সম্পাদকঃ ইকবাল ইউসুফ টুটুল (সম্পাদক, প্রবাসবাংলানিউজ ডট কম)

সহসভাপতি মন্ডলী :
ডঃ শাখাওয়াত নয়ন (কলামিস্ট),
শফিকুল আলম (বাংলাকথা অনলাইন),
কাজী সুলতানা শিমি (কলামিস্ট),
যুগ্ম সাধারন সম্পাদকঃ সোলেইমান দেওয়ান (প্রকাশক, প্রভাতফেরী
পত্রিকা), কোষাধ্যক্ষ: আবুল কালাম আজাদ (সম্পাদক, নবধারা অনলাইন),
সাংগঠনিক সম্পাদকঃ এস এম আমিনুল ইসলাম রুবেল (প্রতিনিধি, সময় টিভি,
ঢাকা), গন-সংযোগ সম্পাদকঃ আরিফুর রহমান (বার্তা সম্পাদক, প্রশান্তিকা
অনলাইন), সাংস্কৃতিক সম্পাদকঃ মোঃ তুষার খান (জন্মভুমি টিভি)
সদস্য মন্ডলী :
অজয় দাশগুপ্ত (কলামিস্ট), ডঃ আবুল হাসনাত মিল্টন (কলামিস্ট, প্রদায়ক
সম্পাদক), আসলাম মোল্লা (সম্পাদক, বাংলাবার্তা), আব্দুল মতিন (সিডনিবাসী-
বাংলা অনলাইন) সাহাদাত মানিক (প্রিয় অস্ট্রেলিয়া অনলাইন), আল নোমান শামীম
(সম্পাদক, মুক্তমঞ্চ পত্রিকা), আতিকুর রহমান শুভ (সম্পাদক, প্রশান্তিকা
অনলাইন), আবু তারিক (সম্পাদক, সিডনি বেঙ্গলীজ অনলাইন), আসওয়াদুল বাবু
(প্রতিনিধি, চ্যানেল আই, ঢাকা), হাসনা হেনা (মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, পার্থ), আকাশ দে
(এটিএন বাংলা), এলিজা টুম্পা (আরঙ্গ অনলাইন), নাদেরা সুলতানা নদী (সহযোগী
সম্পাদক, প্রশান্তিকা), বেলাল হোসেন (প্রতিনিধি, জয়যাত্রা টিভি, ঢাকা), নাফিউল
ইসলাম (মেলবোর্ন রেডিও), মাসুম বিল্লাহ (প্রতিনিধি, নিউজ ২৪ ঢাকা), সৈয়দ
আকরাম (জন্মভুমি অনলাইন)।
উল্লেখ্য, সংগঠনটির সাথে ৬৬জন মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জড়িত আছেন।

বিস্তারিত খবর

প্রশ্নবিদ্ধ ও বিশৃঙ্খলার মাধ্যমে শেষ হলো ফোবানা সম্মেলন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০৩ ০১:৫৩:৪৬

তপন চৌধুরী, রিজিয়া পারভীন, বেবী নাজনীন, ফাহমিদা নবী, সামিনা চৌধুরী ও শুভ্র দেবসহ জনপ্রিয় শিল্পীদের গান শোনতে ৩০ ডলার থেকে ১০০ ডলার দিয়ে টিকেট কেটে দূর-দূরান্ত থেকে নিউইয়র্কের বিশ্বখ্যাত অডিটরিয়াম নাসাউ কলিসিয়ামে গিয়েছিলেন বাংলাদেশি দর্শকেরা। কিন্তু স্পন্সরদের খুশি রাখতে গিয়ে আয়োজকদের ‘বাড়াবাড়ি’ ও কথিত ‘সাংগঠনিক’ কর্মকাণ্ডেই শেষ হয়েছে অনুষ্ঠানের অধিকাংশ সময়। সময় স্বল্পতার কারণে গান গাইতে না পেরে শিল্পীরা যেমন অখুশি হয়েছেন, তেমনি প্রিয় শিল্পীদের গান শোনতে না পেরে দর্শকেরা বাড়ি ফিরে গেছেন চরম হতাশা নিয়ে।

এ ধরণের বিশৃঙ্খল ঘটনার মধ্য দিয়ে স্থানীয় সময় রবিবার নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ডে শেষ হয়েছে ৩৩ বছরের ফোবানার ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যয়বহুল ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত তিন দিনের ফোবানা সম্মেলন। দুদিনে অডিটরিয়ামের ভাড়া বাবদ গুনতে হয়েছে তিন লাখ ডলার। ব্যক্তিগত রেষারেষির কারণে একদিকে যেমন একই শহরে আরেকটি ফোবানা হয়েছে, তেমনি বিশৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে শেষ হওয়ায় ভবিষ্যত ফোবানার কার্যক্রমও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

এবারের ৩৩তম ফোবানার আয়োজক ছিল নিউইয়র্কের নাট্য সংগঠন ড্রামা সার্কল। সবার সেরা হতে সংগঠনটি ভেন্যু হিসাবে বেঁছে নেয় নাসাউ কলিসিয়ামকে। এজন্য দুদিন অর্থাৎ দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিনের ভাড়া বাবদ আয়োজকদের গুনতে হয় ৩ লাখ ডলার। নাট্য সংগঠন ড্রামা সার্কলের অনভিজ্ঞতা এবং দুর্বল প্রচারের কারণে প্রায় ১৫ হাজার আসন ক্ষমতার মিলনায়তনে দ্বিতীয় দিনে দুই হাজার দর্শক অতিক্রম করেনি। তৃতীয় দিনে তপন চৌধুরী, রিজিয়া পারভীন, বেবী নাজনীন, ফাহমিদা নবী, সামিনা চৌধুরী ও শুভ্র দেবসহ জনপ্রিয় শিল্পীদের কথা প্রচার করায় হাজার তিনেক দর্শকের উপস্থিতি দেখা গেছে। কিন্তু তাদেরও হতাশ করেছেন আয়োজকরা। একটি দেশাত্মবোধক গান গাইবার পর জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী বেবী নাজনীনকে মঞ্চ ছাড়তে বলায় তিনি ক্ষুব্ধ হন। বেবী নাজনীন মঞ্চ ছাড়ার আগেই মাইক হাতে নেন তপন চৌধুরী। তার একটি গান শেষ না হতেই মঞ্চে এসে তার সঙ্গে গলা মেলান আরেক জনপ্রিয় শিল্পী রিজিয়া পারভীন। এর আগে মঞ্চে একটি গান গেয়ে বিদায় নেন শুভ্র দেব। প্রয়াত শিল্পী মাহমুদুন্নবীকে সম্মাননা জানায় ড্রামা সার্কল। তার দুই মেয়ে জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ফাহমিদা নবী ও সামিনা চৌধুরী সময় স্বল্পতার কারণে খালি গলায় দুই লাইন গেয়ে মঞ্চ থেকে বিদায় নেন। অথচ ফোবানা সম্মেলনের টাইটেল স্পন্সর হওয়ায় টাউন এমডি পক্ষের কর্ণধার রাহাত আল মুক্তাদিরের কবিতা এবং তার ছোট ভাই ফুয়াদ ও বন্ধুরা ব্যান্ডের গান গেয়ে পার করেছেন পুরো একটি ঘণ্টা। এসব নিয়ে দর্শকেরা ক্ষুব্ধ হন। শুরু করেন চেঁচামেচি।

এদিকে, কলকাতার জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ইমন চক্রবর্তীকে একটি এবং পরে অর্ধেক বাংলা গান গেয়ে মঞ্চ থেকে বিদায় নেন তিনি। অথচ কলকাতার এই নারী শিল্পীকে সম্মানী দিতে হয়েছে আট হাজার ডলার। বাংলাদেশের জনপ্রিয় দুইজন শিল্পী অভিযোগ করেছেন, তাদের বেলায় প্রাপ্য সম্মানী দেওয়া হয়নি।

অনুষ্ঠানের সময় যখন শেষের পথে, দর্শকেরা যখন প্রিয় শিল্পীদের গান শোনার জন্য অধীর অপেক্ষায় তখনই মঞ্চে আসেন ফোবানা কর্মকর্তারা। তারা নতুন কমিটি এবং পরবর্তী ফোবানা সম্মেলনের কথা ঘোষণা করেন।

কর্মকর্তাদের ‘অতিকথনে’ দর্শকেরা ক্ষোভ প্রকাশ করলে আয়োজক সংগঠন ড্রামা সার্কলের সভাপতি ও ফোবানার সদস্য সচিব আবীর আলমগীর বলেন, এটা ফোবানা কনসার্ট নয়, সম্মেলন। অতএব, আমাদের কথা শুনতে হবে। তার এ কথায় দর্শকেরা চিৎকার করে প্রতিবাদ জানান।

মিলনায়তরে ভেতরে যখন ‘হযবরল’ অবস্থা, বাইরে এক্সপো সেন্টারে তখন তীব্র হট্টগোল চলছিল। অর্ধশতাধিক স্টল মালিককে মিলনায়তনের প্রধান ফটকের বাইরে বিক্ষোভ করছিলেন। তাদের হাতে গলদগর্ম হন ফোবানার আয়োজক সংগঠন ড্রামা সার্কলের সাধারণ সম্পাদক পলাশ পিপলু। স্টল মালিকদের অভিযোগ, ১০-১২ হাজার লোকের উপস্থিতি ঘটবে বলে তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ নিয়ে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অথচ নগণ্য উপস্থিতির কারণে তাদের স্টলের ভাড়াই ওঠেনি। পরে নাসাউ কলিসিয়ামের নিরাপত্তা কর্মীদের মধ্যস্থতায় আয়োজকরা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার অঙ্গীকার করলে স্টল মালিকেরা শান্ত হন।

এ ব্যাপারে ফোবানার সদস্য সচিব আবীর আলমগীরের বক্তব্য জানতে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

এদিকে নিউইয়র্কের লাগোর্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেলের বলরুমে ফোবানার আরেক অংশের অনুষ্ঠানের শেষ দিনে বাংলাদেশিদের উপস্থিতি ছিল আরও হতাশাজনক। তবে অনুষ্ঠানটি ছিল সবার জন্য উন্মুক্ত। নিউইয়র্কের স্থানীয় শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন।

বিস্তারিত খবর

দক্ষিণ সুরমার গোপশহরের যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের পুনর্মিলনী

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৯-০১ ০৮:০২:০৬

সিলেট শহরের অতি নিকটবর্তী দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী খিত্তা গোপশহর গ্রামের ব্রিটেন প্রবাসীদের উদ্যোগে গত ২৭শে আগস্ট লুটনের একটি হলে পুনঃমিলনী অনুষ্টিত হয়।

গ্রামের প্রবাসীদের বহুল প্রতিজ্ঞার এই মিলনমেলায় ব্রিটেনের দূর-দূরান্তের ভিবিন্ন শহর থেকে সকাল ১১টা থেকে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে অনুষ্ঠান স্থলে সমবেত হতে শুরু করেন গোপশহরের গর্বিত প্রবাসীরা।

গোপশহর প্রবাসী ইউকের সভাপতি ও প্রাক্তন কৃতি ফুটবলার মো: জালালুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং তরুণ প্রবাসী ইসমাইল খানের পরিচালনায় অনুষ্টানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ইফতেখার আহমদ (ইফতি) এবং গ্রামের সকল মুরদেগানদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও জীবিত সকলের সুখ,শান্তি এবং ঐক্য কামনা করে মোনাজাত করেন মাওলানা আসাদ খান।


লুটনের প্রাক্তন কাউন্সিলর আব্দুর রকিব এর শুভেচ্ছা বক্তব্যের পর গ্রামের ইতিহাস ও ঐতিহ্য বিবরণে অত্যন্ত মূল্যবান বক্তব্য রাখেন ব্রিটেনের খ্যাতনামা আইনজীবী ও ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ কাউন্সিলর আব্দুর রকিব। পর্যায়ক্রমে গোপশহর প্রবাসী ইউকের লক্ষ্য,উদ্দেশ্য ও কার্যক্রম বিষয়ে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু এবং আর্থিক রিপোর্ট নিয়ে বক্তব্য রাখেন কোষাধ্যক্ষ দুলাল উদ্দিন এবং সংগঠনের সদস্য সরোয়ার খান,মনির পারভেজ (সাইজলা), ফায়েজুল ইসলাম ফয়েজ নূর, সুয়েব আহমদ, রফিক মিয়া (মেম্বার), উসমান খান, ফখরুজ্জামান ইমরান, মুজাহিদ আলী সুমনকে সভা মঞ্চে আনুষ্টানিক ভাবে সভার কাছে পরিচয় করে দেয়া হয়।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আব্দুল হামিদ খান সুমেদ এবং উপস্থিত ছিলেন গোপশহর গ্রামের কৃতি সন্তান হীরা মিয়া, সিরাজুল ইসলাম,সইদুল ইসলাম মুকুল,মহিনুর আহমদ,তুফায়েল আহমদ,এহিয়া খান,জিয়া খান,আজহার উদ্দিন,শিবলী আহমদ,আব্দুল্লাহ আল আমিন,সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার,আমিনুর রহমান,উমর  খান,রাজীব আহমদ,সামিউল  ইসলাম,জীবন আহমদ,নিজাম  উদ্দিন,সাইদুর রহমান,সজীব আহমদ,সাদিউল ইসলাম,শাওন আহমদ প্রমুখ সহ তাদের স্ত্রী-সন্তান ও পরিবারের অন্যান্য সদস্য সহ গোপশহর গ্রামের অসংখ্য আত্মীয় স্বজন।


আলোচনা সভা ও মধ্যান্নভোজ শেষে সংগীত শিল্পী গৌরী চৌধুরী ও অমিতের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্টান। এরপর অন্যতম প্রবীণ সংগঠক রকিব ও উনার সহধর্মিনীর পরিচালনায় মহিলাদের  মিউজিক্যাল বালিশ নিক্ষেপ খেলা এবং খেলায় চ্যাম্পিয়ন সুয়েব আহমদ দম্পতি, প্রথম রানার আপ আমিন দম্পতি এবং দ্বিতীয় রানার আপ রাজু দম্পতির হাতে বিশেষ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

শৈশব, কৈশোর আর যৌবনের অতীত স্মৃতিচারণ করে ব্রিটেনের গ্রীষ্ম  ঋতুর লম্বা একটি দিন অত্যন্ত আনন্দ উচ্ছাসে অতিবাহিত করে ক্লান্ত শরীর নিয়ে ঘর মুখী হওয়ার পূর্বে অনুষ্টান আয়োজনের অন্যতম সংগঠক সরোয়ার খান, ফায়েজুল ইসলাম ফয়েজ নূর, দুলাল উদ্দিন এবং শিবলী আহমদের পরিচালনায় অনুষ্টানের অন্যতম আকর্ষণীয় ইভেন্ট চ্যারিটি রাফেল ড্র ছিল সবার কাছে ছিলো অতি উপভোগ্য. ৫পাঊন্টএ ক্রয়কৃত কুপনের প্রথম সুভাগ্যবান সুমেদ খান এবং পর্যায়ক্রমে আরো সুভাগ্যবান সাদিউল ইসলাম,শিবলী আহমদ,রাজীব আহমদ,শাওন আহমদ,এমি বেগম সহ অন্যান্য আরো বিজয়ীদের হাতে কয়েকজন দাতার স্বেচ্ছায় দানকৃত আকর্ষণীয় পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্টান মিডিয়া কাভারেজ করেন ইউকের আশিয়ানা ষ্টুডিও এর পরিচালক ইমরান জামান এবং নিজাম উদ্দিন।

বিস্তারিত খবর

সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের কাছে জিম্মি আমেরিকার ফোবনা সম্মেলন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-৩০ ১৯:১৫:০৪

ফোবানা সম্মেলন উত্তর আমেরিকায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী ও বাংলাদেশী সংগঠনগুলোর সর্ববৃহৎ আয়োজন। যা উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরার সবচেয়ে বড় মঞ্চ।

তবে উত্তর আমেরিকায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সর্ববৃহৎ এই মিলনমেলায় অস্তিত্ব এখন চরম হুমকির মুখে। একদিকে অভ্যন্তরীন স্বার্থানেষী গোষ্টি ও অন্যদিকে সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র এই দুই শ্রেণীর নীলনকশায় ফোবানা সম্মেলন আজ অস্তিত্ব সংকটে পরেছে।
জানা গেছে, ৩০শে আগস্ট থেকে ১লা সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ৩দিন ব্যাপী ৩৩তম ফোবানা সম্মেলন নিয়ে যখন উত্তর আমেরিকার প্রবাসী বাংলাদেশিদের উৎসব মুখর থাকার কথা। তবে আজ সেখানে তারা দ্বিধাবিভক্ত ও ফোবানা সম্মেলনের সফলতা ও সার্থকতা নিয়ে শংকাগ্রস্থ।
কারণ একদিকে মূল ফোবানা সমর্থিত ‘ড্রামা সার্কেল, নিউ ইউর্ক’ ৩৩তম ফোবানা সম্মেলন আয়োজনের সকল প্রস্তুতি সপন্ন করেছে। অন্যদিকে ফোবানার মূল ধারা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া স্বার্থনেষী একটি সমর্থনে বাংলাদেশ আমেরিকান ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটি নামে একটি তথাকথিত সংগঠন নিউ ইয়র্ক শহরে উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে পৃথক একটি ফোবানা সম্মেলন আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে। আর ধোঁয়াশাপূর্ণ পরিবেশ বিদ্যামান সংকটকে ব্যবহার করে স্বার্থনেষী একটি মহল তাদের নীলনকশা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।
এদিকে, যখন সবাই মূলত ব্যস্ত ৩৩তম ফোবানা সম্মেলনের সফলতা নিশ্চিত করতে এবং উত্তর আমেরিকায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী সংগঠনগুলোকে একতাবদ্ধ করতে। তখন এই স্বার্থনেষী গোষ্ঠী কার্যরত একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের হাতে পরবর্তী ফোবানা সম্মেলনকে তুলে দিতে ব্যস্ত।তাদের নীলনকশা অনুযায়ী ২০১৯ সালের ফোবানা সম্মেলন এর আয়োজন করার অনুমতি দেয়া হবে ওয়াশিংটন ডিসির একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রকে যার কেন্দ্র রয়েছে ‘আমেরিকান বাংলাদেশ বিসনেস এসোসিয়েশন’ নামে একটি বাণিজ্যিক সংগঠন। যার নতুন নাম হয়েছে বাংলাদেশ আমেরিকান ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটি সংগঠন। এই সংগঠনটি পূর্বেও স্বার্থনেষী মহলের সহযোগিতায় ২০০৯ ও ২০১১সালে দুইবার ফোবানা সম্মেলন আয়োজন করে যা ভুয়া ফোবানা সম্মেলন হিসাবে বহুল পরিচিত বলে দাবি রয়েছে।
আরো জানা গেছে, ফোবানা সম্মেলন এর মত একটি তাৎপর্যপূর্ণ/গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলন এ স্বার্থানেষী কিছু ব্যাক্তি ও প্রতারকচক্র সক্রিয় থাকবে এটাই স্বাভাবিক, তবে সম্মেলনটিই যখন কুক্ষিগত হয় তখন আর কিছুই অবশিষ্ট থাকে না। বাংলাদেশ আমেরিকান ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটি নামক সংগঠনটির পরিচালক অথবা মূলব্যাক্তি স্টল বরাদ্দ, বিজ্ঞাপনের অঙ্গীকার, ব্যাবসায়িক অঙ্গীকার, ভুয়া কাগজে মানুষ পাচার এমন কোন কর্মকান্ড নেই যা ২০০৯ ও ২০১১ সালের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে করেনি।
শুধুমাত্র সম্মেলনের নামে বিভিন্ন সময় প্রবাসী বাংলাদেশীদের থেকে এই প্রতারক চক্র বিপুল পরিমান অর্থ হাতিয়ে নেয়। যার মধ্যে প্রবাসী রেজাউল করিম নামক একব্যক্তি থেকে ১০ হাজার, গোলাম ফরিদ আক্তার থেকে ১২ হাজার, রফিকুল ইসলাম থেকে ৭ হাজার, জাকির হোসেন থেকে ১৫ হাজার, রুমন নামক এক ব্যাক্তি থেকে ২৩ হাজার, শামীম আলী থেকে ৩৯ হাজার ও মাইনুল ইসলাম তাপস থেকে ৭ হাজার মার্কিন ডলার আত্মসাৎ করা হয়েছে বলে সূত্রে জানা যায়।
এমনকি ফোবানা সম্মেলন শেষ করে ভেনু ভাড়া না দিয়ে শুধুমাত্র ফোবানা সম্মেলন নয় বরং পুরো বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের মুখে চুনকালি দিয়ে এই প্রতারক পরবর্তীতে ফেডারেল কোর্টে নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করে পিটিশিন পর্যন্ত দাখিল করেছে। আলেক্সান্ড্রিয়া ফেডারেল কোর্ট তাকে এবং তার স্ত্রীকে দেউলিয়া হিসাবে রায়ও দেয়।
এ ব্যাক্তির প্রতারণা শুধু ফোবানা সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সীমাবদ্ধ নয়। বরং প্রতারণাই তার পেশা। কখনো সে ব্যাবসার কথা বলে প্রতারণা করা, কখনও রাজনৈতিক ক্ষমতা দেখিয়ে প্রতারণা করা, কখনও বা সমাজ সেবা বা ধর্মের নামে প্রতারণা করে বলে ভুক্তভোগীদের দাবি। 
এ প্রতারক উত্তর আমেরিকার প্রবাসী বাংলাদেশীদের ব্যবসার কথা বলে ও ব্যবসায় অংশীদারিত্ত দেয়ার প্রতিশ্রুতি করে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ব্যাক্তিকে তার ফাঁদে ফেলেছে। যার মধ্যে নাইমা রহমান থেকে ২৬ হাজার, হানিফ পিপলস টেক থেকে ১৮ হাজার, মেজর আলম থেকে ২০ হাজার, ড. রাজ্জাক থেকে ৮০ হাজার মার্কিন ডলার হাতিয়ে নেয়ার কথা জানা যায়।
তার প্রতারণা এ তালিকায় আছে নাম না জানা আরো অসংখ্য বাংলাদেশী এ প্রতারণার শিকার হয়েছেন অভিযোগ রয়েছে। এ মানুষগুলো এ প্রতারকের রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকদের ভয়ে এক সময় চুপ থাকলেও পরবর্তীতে অনেকেই তাদের সাথে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের ও প্রতারণার বর্ণনা দেন।
এর মধ্যে সবচেয়ে মর্মান্তিক হল ড. রাজ্জাক এর ঘটনা । তার স্ত্রী ড. নাজমা জাহান থেকে জানা যায়, ড. রাজ্জাক এই প্রতারককে কয়েক দফায় প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার দেয় ব্যাবসায়িক কারণে। পরবর্তীতে যখন তিনি বুঝতে পারেন তিনি এক সংবদ্ধ প্রতারক চক্রের খপ্পরে পড়েছেন তখন তার আর করার কিছু ছিল না। ড. রাজ্জাক মানসিক ভাবে প্রচন্ডভাবে ভেঙে পড়েন এবং এই মানসিক যন্ত্রনায় অসুস্থ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।
এই প্রতারক এতটাই কৌশলী ও চতুর যে তার খপ্পরে যে পরে সে সর্বশান্ত হওয়ার আগে তার জাল থেকে বের হতে পারে না। এই প্রতারক মসজিদ উন্নয়ন তহবিল এ অনুদান এর কথা বলে আলেক্সান্ড্রিয়া বাংলাদেশী সম্প্রদায় এর মসজিদ উন্নয়ন তহবিল থেকে ৬০ হাজার মার্কিন ডলার আত্মসাৎ করেছে।
এছাড়াও জানা যায়, বাংলাদেশে অনেক দরিদ্র পরিবারকে উত্তর আমেরিকায় এনে কাজ দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পরিবারগুলোকে সর্বশান্ত করেছে।
যারা ফোবানার সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত তাদের সকলেই কমবেশি জানেন এ প্রতারকের কুকীর্তির কথা। কিন্তু এতকিছু জেনেও ফোবানার অভ্যান্তরিন একটি স্বার্থনেষী মহল শুধুমাত্র তাদের ব্যাক্তিগত লাভের জন্য ফোবানা সম্মেলনকে আবার এই প্রতারকের হাতে তুলে দেবার নীলনকশা করছে।
এ প্রতারক তার কুকীর্তির আড়াল করতে তার মতো আরো কয়েকটি পকেট সংগঠনকে নিয়ে একটি আয়োজক গোষ্ঠী তৈরি করেছে। আর শিকড়বিহীন ব্যাঙের ছাতার মত এ সংগঠনগুলো কখনো সামাজিক আন্দোলন ও সমাজমুলক কর্মকান্ডে জড়িত ছিল না। তাই তাদের থেকে সর্তক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দ্রুত পদক্ষেপের প্রয়োজন বলে দাবি জানান ভুক্তভোগীরা।

বিস্তারিত খবর

ওয়াশিংটনে খান বাড়িতে দোয়া মাহফিল ও মেজবান

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-৩০ ১৪:০৪:৫৩

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনডিসিতে জ্ঞানবাহনের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ড. বদরুল হুদা খানের বাবা ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের নেতা লোকমান খান শেরওয়ানীর মৃত্যুবার্ষিকীতে দোয়া মহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।দোয়ামাহফিলে  লোকমান খান সহ সকলের জন্য দোয়া করা হয়। গত  শনিবার,২৪ শে আগস্ট (ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডে) খান বাড়ীতে এই দোয়ার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অতিথিদেরকে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ‘মেজবান’ খাবার পরিবেশন করা হয়।   

বার্ষিক দোয়া মাহফিলে ও মেজবানীতে উপস্থিত ছিলেন- কংগ্রেস ম্যান প্রার্থী ড.রসিদ মালিক, ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসের ইকোনমিক  মিনিস্টার শাহাবুদ্দিন পাটয়ারি, ভয়েস অফ আমেরিকার সরকার কবির উদ্দিন, ড.রুমানা রিফাত, ড.ওয়াহিদ সাজ্জাদ, ফকির সেলিম, আহসানুল হক, সাবরিনা চৌধুরী ডোনা(লোকমান খান শেরওয়ানীর নাতি), হাসান ইমাম, লাইলা হাসান, ইমাম হাসান, ড.হুসাম, হাবিব খান, ড.বসির আহমেদ, ড.গেলাম ফারুক, ড.শহিদ খান,ড.ফরিদ আক্তার সহ  কমিউনিটির গণ্যমান্য  ও প্রবাসী সকল রাজনৈতিক দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। দোয়া মাহফিলে বাবার রুহের মাগফিরাত কামনা করে সকলের কাছে দোয়া চান ড. বদরুল হুদা খান।

মেজবানী খাবারের অতিথিয়তা প্রায় ৪ শতাধিক উপস্থিত সকলের কাছে প্রসংশনীয় হয়ে উঠে। অতিথিদের আপ্যায়ন করানো হয় সাদা ভাত সিদ্ধ চালের, বিশেষ পদ্ধতিতে রান্নাকৃত মেজবান গরুর মাংস, ডাল এবং মুরগী, খাসীর মাংস দিয়ে। কিন্তু প্রধান হচ্ছে সাদা ভাত, মেজবান গরুর মাংসের তরকারি এবং চানার ডাল। বিদেশের মাটিতে বসে চট্টগ্রামের মেজবানী খাবারের স্বাদ নিতে উচ্ছাসিত ছিল প্রবাসীরা।

উল্লেখ্য, প্রাচীন ঐতিহ্য “মেজবান”- যার মূল ধারনা হচ্ছে- এলাকাবসীদের নিয়ে বিশেষ উপলক্ষে বিশাল আয়োজনে ভোজন-আপ্যায়নের আনন্দ আয়োজন। “মেজবান” শব্দটি এসেছে পার্সিয়ান শব্দ ভান্ডার থেকে, যার আভিধানিক অর্থ হচ্ছে “হোষ্ট” বা “আপ্যায়নকারী”। হাজার বছর আগে সমাজের বিত্তশালীরা তাদের যেকোন উৎসব আয়োজনে এলাকার সবাইকে নিমন্ত্রন করে বিরাট ভোজ-বিলাসের আয়োজন করতেন তাদের প্রভাব, বিত্ত-বৈভব প্রকাশ করতেন।


বিস্তারিত খবর

আগামী’র সম্মাননা পেলেন শারমিন-ফারহানা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-২৮ ০৯:৫৩:৫৯

শিক্ষা ও আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান এবং নারীর ক্ষমতায়নের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দুই নারী ব্যক্তিত্বকে সম্মাননা প্রদান করেছে ওয়াশিংটন ডিসি ও ভার্জিনিয়ার সামাজিক সংগঠন আগামী সাউথইস্ট চ্যাপ্টার। শনিবার ভার্জিনিয়ার আলেকজান্দ্রিয়ায় লী সেন্টারের রিচার্ড কফম্যান অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ফান্ড রাইজিং কনসার্টে বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের জ্যেষ্ঠ কন্যা শিক্ষাবিদ ও লেখক শারমিন আহমদ রিপি এবং যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি মালিকানাধীন সর্ববৃহৎ আইটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পিপল এন টেকের প্রেসিডেন্ট, নারী উদ্যোক্তা ফারহানা হানিপের হাতে সম্মাননা তুলে দেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আফসান খান।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আগামী সাউথইস্ট চ্যাপ্টারের প্রেসিডেন্ট আফসান খান, সংগঠনের অন্যতম ফাউন্ডার ও এডভাইজার, সাবেক প্রেসিডেন্ট মোস্তাফিজুর রহমান পারভেজ, মার্কেটিং ডিরেক্টটর ফারহানা জামান মৌ এবং সম্মাননাপ্রাপ্ত দুই নারী ব্যক্তিত্ব শারমিন আহমদ রিপি ও ফারহানা হানিপ। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা, সিইও ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিপ।
ফান্ড রাইজিং কনসার্টে সংগীত পরিবেশন করেন ব্যান্ডদল ফুয়াদ এন্ড ফ্রেন্ডস, ক্রোনেজ ও আনিলা নাজ চৌধুরী। অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার ছিল এনআরবি কানেক্ট টিভি।
শিক্ষাবিদ শারমিন আহমদ বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত তাজউদ্দীন আহমদ এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেত্রী প্রয়াত জোহরা তাজউদ্দীনের বড় মেয়ে। ১৯৮৪ সাল থেকে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। মানবাধিকার ও নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ক বিভিন্ন ইন্সটিটিউট ও সংস্থায় পরামর্শক হিসেবে কাজ করছেন প্রায় দু’দশক ধরে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে তাজউদ্দীন আহমদের অবদান নিয়ে ২০১৪ সালে লেখা ‘তাজউদ্দীন আহমদ নেতা ও পিতা’ বইটি বিভিন্ন মহলে প্রশংসা পেয়েছে।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নারীর ক্ষমতায়নে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ফারহানা হানিপ। নারীকে কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত করে সামাজিক ক্ষমতায়নে বিশেষ ভূমিকা রাখা ফারহানা হানিপ বাংলাদেশি মালিকানাধীন সর্ববৃহৎ আইটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পিপল এন টেকের প্রেসিডেন্ট। তাঁর সবচেয়ে বড় অবদান তিনি পিপল এন টেক ফাউন্ডেশনের আওতায় ফিমেল ইন আইটি বা এফআইটি প্রজেক্টের মাধ্যমে আমেরিকায় প্রায় ৩ হাজার নারীকে আইটি ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ দিয়ে উন্নত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন। তাঁর স্বামী ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিপ পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা। পিপল এন টেক এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৫ হাজার জনকে আইটি ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের উন্নত বেতনে চাকরির ব্যবস্থা করেছে, যাদের বেশির ভাগই আগে আমেরিকায় অড জব করতেন। এখন তারা ৮০ হাজার থেকে ২ লাখ ডলার বেতনে চাকরি করছেন।
প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা প্রদানে ভূমিকা রেখে চলেছে ‘আগামী’। ২০০৩ সালে ক্যালিফোর্নিয়ায় সংগঠনটি আত্মপ্রকাশ করে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে চারটি চ্যাপ্টার রয়েছে। সেগুলো হলোÑ ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত আগামী ক্যালিফোর্নিয়া চ্যাপ্টার, ২০১২ সালে নিউইয়র্কে প্রতিষ্ঠিত আগামী নর্থইস্ট চ্যাপ্টার, ২০১৪ সালে ডিসি ও ভার্জিনিয়ায় প্রতিষ্ঠিত আগামী সাউথইস্ট চ্যাাপ্টার এবং ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত আগামী ক্যারোলাইনা চ্যাপ্টার। সংগঠনের তিনজন ফাউন্ডার হলেন ক্যালিফোর্নিয়ার বাবু রহমান ও মাহমুদুল হাসান এবং নর্থ ক্যারোলাইনার সাবির মজুমদার।
এই চারটি চ্যাপ্টারে ২শ’র বেশি স্বেচ্ছাসেবী রয়েছেন। তারা আগামী বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে দেশের ৩০টি স্কুলে এ পর্যন্ত ১২ হাজার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষাপ্রদানে সহায়তা করেছেন।

বিস্তারিত খবর

২৪ আগস্ট প্রবাসী সাংবাদিক বিশ্বজিৎ দে বাবলুর জন্মদিন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-২৪ ১০:৩৩:৪৪

২৪শে আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি প্রবাসী সাংবাদিক, সফল সংগঠক, যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি ষ্টেট আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক  সাবেক ছাত্রনেতা এবং উত্তর আমেরিকা থেকে প্রকাশিত নিউজ ম্যাগাজিন ‘দিনবদল‘-এর সম্পাদক বিশ্বজিৎ দে বাবলুর জন্মদিন। বিশ্বজিৎ দে বাবলু ৮০ দশকের আজকের এ দিনে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ৭নং করগা‍ঁও ইউনিয়নের অতীত ঐতিয‍্যবাহী জন্তরী গ্রামে বিশিষ্ট কায়স্থ পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর পিতা বেনু লাল দে এব‌ং মাতা সবিতা ঘোষ উভয়ই অব‌‍সরপ্রাপ্ত প্রাথমিক স্কুল শি‍ক্ষক বর্তমানে আমেরিকা প্রবাসী। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি বাবা মায়ের ১ম সন্তান।

বিশ্বজিৎ দে বাবলু ২০০১ সালে নবীগঞ্জ সরকারি কলেজে অধ্যয়নরত অবস্থায় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে আমেরিকায় অভিবাসন নিয়ে আসার পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে এনটিভি ইউসএ, বাংলাদেশের ডিবিসি নিউজ টিভি, এটিএন বাংলা, মিলিনিয়াম টিভি, এবং নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক বাংলাপত্রিকা, সাপ্তাহিক বর্ণমালার, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাপস নিউজ, বোস্টন বাংলা ডট কম, ইউএসএ বাংলা নিউজ ডট কম, খবর ডট কম, সিলেটের আলাপ, ও বাংলাদেশের জাগো নিউজ২৪ ও শীর্ষ খবর ডটকম -এর যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করেছেন। বিশ্বজিৎ দে বাবলু ২০১৫ সালের প্রথম দিকে উত্তর আমেরিকা থেকে বাংলায় ভাষায় প্রকাশিত নিউজ ম্যাগাজিন ‘দিনবদল‘ এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসেবে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তার সম্পাদিত নিউজ ম্যাগাজিন দিনবদল প্রবাসে বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তিনি এক যুগেরও অধিক সময় ধরে সাংবাদিকতা পেশায় জড়িত রয়েছেন।
সাংবাদিক বিশ্বজিৎ দে বাবলু ২০০৮ সালে নন্দিনী দে বুবুল সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এই দম্পতির এক ছেলে এক মেয়ে রুদ্রজিৎ দে বান্টি (৯ ) এবং চন্দ্রিকা দে মন্টি (৯)। বিশ্বজিৎ-এর প্রিয় রং লাল-সবুজ।
যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি স্টেটের টোটোয়া সিটিতে তিনি দীর্ঘদিন বসবাস করছেন।নিউজার্সির স্টেটের ডিভিশন অফ মেন্টাল হেলথ সার্ভিসে এসিস্ট্যান্ট থেরাপি প্রোগ্রামার হিসাবে গ্রে-স্টোন পার্ক সাইকিয়াট্রিক হাসপাতালে কাজ করছেন । কাজের ফাঁকে সাংবাদিকতায় আর সোশ্যাল ওয়ার্ক নিয়েই বেশির ভাগ সময় ব্যয় করেন।

বিস্তারিত খবর

সুনামগঞ্জ জেলা সমাজকল্যাণ সমিতি, যুক্তরাষ্ট্র’-এর ‘বার্ষিক মিলন-উৎসব ও বনভোজন অনুষ্ঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-২৪ ১০:২৯:২৮

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সুনামগঞ্জ জেলার প্রবাসীদের প্রথম সামাজিক সংগঠন ‘সুনামগঞ্জ জেলা সমাজকল্যাণ সমিতি, যুক্তরাষ্ট্র’-এর ‘বার্ষিক মিলন-উৎসব ও বনভোজন-২০১৯’ গত ১৮ আগস্ট রোববার নিউইয়র্কের লংআইল্যান্ড হেকশেয়ার পার্কে অনুষ্ঠিত হয়। এই ‘মিলন-উৎসবে’ প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাধীনতা-পরবর্তী প্রজন্মের বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সুনামগঞ্জ জেলার প্রথম ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হুমায়ুন বখত, (মুহিত) এনডিসি, পিএসসি (অব:) এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন সুনামগঞ্জের আরেক সুসন্তান প্রখ্যাত চিত্রকর ও মুক্তিযোদ্ধা সুনীল শুক্লা।
উৎসবে আমন্ত্রিত অতিথিদ্বয় ও অংশহণকারী সকল সুধীজনকে স্বাগত ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি মারুফ চৌধুরী এবং ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন সম্পাদক ডি. চৌধুরী অসিত, মিলনোৎসব উদযাপন পরিষদের আহবায়ক আইয়ুব আলী, যুগ্ম-আহবায়ক মান্নাফ তালুকদার, মো: হাবিবুর রহমান, পারভেজ চৌধুরী ও আবুল হোসেন লিটন। অতিথিদের জীবন ও কর্মের তাৎপর্যপূর্ণ দিকের উপর আলোকপাত করেন উভয়ের শিক্ষাগুরু প্রবীণ শিক্ষাবিদ প্রফেসর বিধুভূষণ চৌধুরী, প্রবীণ কবি ও লেখক সালমা বখত চৌধুরী, কবি ও লেখক মাহমুদুল চৌধুরী, সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্ট জুলকারনাইন হায়দার, শিবলী চৌধুরী, সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগ নেতা আমীর হোসেন রেজা, মিসবাহুর রশীদ পীর, সাব্রী সাবেরীন, কবি মাসুদ চৌধুরী, কবি দেওয়ান নাসের রাজা চৌধুরী, জয়েদ চৌধুরী অপু, এনওয়াইপিডি’র পুলিশ অফিসার নিয়ন চৌধুরী, সাংবাদিক নূরুল গণি নজরুল প্রমুখ। উৎসবে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মিসেস বিধু ভূষণ চৌধুরী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়-এর প্রাক্তন কর্মকর্তা হাসানুল কবীর ডাবলু, কবি তৃষ্ণা শুক্লা, সৈয়দা নীলুফার চৌধুরী, সনচিতা চৌধুরী, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ ছাত্রী-সংসদের প্রাক্তন জিএস আফসিন নিগার, রবীন্দ্র বর্মন, রতন দাশ, নারায়ণ দেব, আব্দুল কাদির, শামনুন শীবলী, ফারহান বখত, লাফী চৌধুরী, মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী জোসেফ, বখত রুম্মান বিরতিজ, সুরাইয়া চৌধুরী চাঁদনী, বিলকিস খান, ফৌজিয়া চৌধুরী, শিমু বখত প্রমুখ।
আলোচনা শেষে সমিতির পক্ষ থেকে অতিথিদ্বয় কে স্মারক-ক্রেস্ট হস্তান্তর করেন সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ-এর প্রাক্তন প্রফেসর ও প্রবীণ শিক্ষাবিদ বিধুভূষণ চৌধুরী। এছাড়াও সদ্য প্রয়াত সমিতির সাধারণ সম্পাদকের বড় ভাই দিলীপ চৌধুরী কর্মের তাৎপর্যের পুর্ন দিকের উপর আলোকপাত করেন বন্ধু ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) হুমায়ুন বখত  এবং ক্রেস্ট হস্তান্তর করেন। তিনি শোকাহত পরিবারের জন্য সমবেদনাও জানান।
শতাধিক অংশগ্রহণকারীর আমোদ-আড্ডার মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত মিলন-উৎসবটি পরিণত হয়েছিল একখন্ড সুনামগঞ্জে।

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত