যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 10:34pm

|   লন্ডন - 04:34pm

|   নিউইয়র্ক - 12:34pm

  সর্বশেষ :

  নিজের জন্য সংগৃহীত ৪২ হাজার ডলার নিহতদের পরিবারে দান করছেন ‘এগ বয়’   অসুস্থতার কারণে আদালতে খালেদা জিয়াকে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ   এই বিশ্বে ইসলামবিদ্বেষের কোনো স্থান নেই: কানাডার প্রধানমন্ত্রী   ‘মুজিব কোট’ পরে এসেছিল শিশুরা   ক্রাইস্টচার্চে সন্তানকে বাঁচাতে বন্দুকের সামনে বুক পাতেন বাবা!   সিনেটরের মাথায় ডিম ভেঙে রাতারাতি হিরো কনোলি   লাশ আনতে প্রতি পরিবারের একজন নিউজিল্যান্ডে যেতে পারবেন   আবারও ডাকসুর পুনর্নির্বাচন চাইলেন ভিপি নুর   ক্রাইস্টচার্চে হামলাকারীর মৃত্যুদণ্ড চাইলেন তার বোন   ইতালিতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রবাসীর মৃত্যু   ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি নিহতের সংখ্যা ৮ হতে পারে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   এবার অস্ট্রেলিয়ায় মসজিদে গাড়ি নিয়ে ঢুকে পড়লো উগ্রবাদী   বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিন আজ   যুক্তরাষ্ট্রে ৯ মিনিটে ৬ সন্তান প্রসব করে রেকর্ড   কবি আল মাহমুদ কর্মগুণে বাংলা সাহিত্যে অমর হয়ে থাকবেন: স্মরণ সভায় অধ্যাপক মতিউর রহমান

>>  প্রবাসী কমিউনিটি এর সকল সংবাদ

নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলা: স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে নিহত হলেন পারভীন

নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত তিন বাংলাদেশির মধ্যে একজন সিলেটের হুসনে আরা পারভীন (৪২)। সন্ত্রাসী হামলা থেকে বেঁচে গেছেন তার অসুস্থ স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমদ।

পারভীনের নিহত হওয়ার খবরে দেশে থাকা তার পরিবারের সদস্যরা হতভম্ব হয়ে পড়েছেন। সন্ত্রাসী হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া পারভীনের স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমদ বর্তমানে ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে নিজের বাসায় রয়েছেন। ফরিদ উদ্দিনের বাড়ি বিশ্বনাথ উপজেলার চকগ্রামে। আর হুসনে আরা পারভীনের বাবার বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জের জাঙ্গালহাটা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত

বিস্তারিত খবর

সিনেটে আইন পাস, নিউইয়র্কে ২৫ সেপ্টেম্বর পালিত হবে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-১৩ ০৯:১৫:০২

নিউইয়র্ক সিনেটে  ‘বালাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ আইন পাস হয়েছে। এ বছর  থেকে নিউইয়র্ক স্টেটে ২৫ সেপ্টেম্বর ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ পালিত হবে।

নিউইয়র্ক স্টেট ক্যালেন্ডারে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে দিনটিকে।মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা বিশ্বজিত সাহার পক্ষ থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি আলবেনিতে অনুষ্ঠিত সিনেট অধিবেশনে এই বিলটি উত্থাপন করেন টবে আন স্তাভাস্কি। সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হওয়ার পরে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ রেজ্যুলেশন ৩২২ নাম্বারের আইনটি ঘোষণা করেন নিউইয়র্ক স্টেটের গভর্নর অ্যান্ড্রু ক্যুমো।

বালাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে হিসেবে ২৫ সেপ্টেম্বরকে বাছাই করা প্রসঙ্গে দিবসটির স্বপ্নদ্রষ্টা বিশ্বজিত সাহা বলেন, ১৯৭৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে  প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের স্থপতি শেখ মুজিবুর রহমান বাংলায় ভাষণ দিয়েছিলেন। তাই দিনটি বাঙালি জাতি ও বাংলা ভাষার জন্য  খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। ২০২১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী। তার আগে ২৫ সেপ্টেম্বরকে বাংলাদেশ রাষ্ট্রীয়ভাবে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ ঘোষণা করে জাতির জনককে শ্রদ্ধা জানাবার গৌরবতম অধ্যায় হবে বলে মনে করি।

বিশ্বজিত সাহা আরো বলেন, বিশ্বে প্রবাসী আয়ে বাংলাদেশের অবস্থান নবম। বাংলাদেশ পৃথিবীর পঞ্চম বৃহত্তম দেশ, যে দেশের এত বিপুলসংখ্যক প্রবাসী রয়েছে। বিশ্বব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বর্তমানে প্রায় ৮৮ লাখ বাংলাদেশি বাস করেন। বাংলাদেশ জন্মের ৪৭ বছরেও এ বিপুল সংখ্যক প্রবাসীর জন্য আলাদা কোনো দিবস ছিল না। আজ প্রবাসীদের জন্য একটি দিবস পেয়েছি। সকল প্রবাসীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমাদের আকুল আবেদন,  ২৫ সেপ্টেম্বরকে যেন ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ হিসেবে সংসদে আইন আকারে পাশ করা হয়। যেমন আইন পাশ করা হয়েছে নিউইয়র্ক স্টেটে।

সিনেট অফিস থেকে পাশ হওয়া রেজ্যুলেশনটি ১২ মার্চ মুক্তধারা ফাউন্ডেশনে পাঠানো হয়। আগামী ১৭ মার্চ নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিতব্য শিশু-কিশোর মেলায় এই রেজ্যুলেশনটি প্রদর্শিত হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে মুক্তধারা ফাউন্ডেশন গত ৩ বছর ধরে এই শিশু-কিশোর মেলা আয়োজন করে আসছে।

তথ্য অনুসন্ধান করে জানা যায়, বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে আইন পাশ করার লক্ষ্যে বিশ্বজিত সাহা ২০১৬ সালের ১২ ডিসেম্বর প্রথম সিনেটর টবে আন স্তাভাস্কির কাছে আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৭ সালের জানুযারি মাসে সিনেট অধিবেশনে এই প্রস্তাব উত্থাপিত হলে রিপাবলিকান সিনেটরদের বিরোধিতার মুখে বাতিল হয়ে যায়। পরে বিশ্বজিত সাহা ২০১৭ সালের  জানুয়ারি মাসে সিনেটর হোজে প্যারাল্টার সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি তাকে জানান। সিনেটর আশ্বাস দেন। ২০১৮ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর হোজে পেরাল্টা একটি প্রক্লেমেশনে ২৫ সেপ্টেম্বরকে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ হিসেবে ঘোষণা করেন। ইতোপূর্বে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রেজ্যুলেশটিও সিনেটর হোজে প্যারাল্টার প্রস্তাবনায় নিউইয়র্ক স্টেটে পাস হয়েছিল এবং তা স্টেট ক্যালেন্ডারের অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল।

বিস্তারিত খবর

ফেয়ারফিল্ড বৈশাখী মেলা ২০১৯ এর প্রস্তুতি সভা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-০৮ ১৫:৩৫:৩৬

আগামী ৬ই এপ্রিল শনিবার, দিনব্যাপী সিডনিতে ফেয়ারফিল্ড বৈশাখী মেলা ২০১৯ উপলক্ষে,গত ৫ই মার্চ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিডনির রকডেলের পালকি রেস্টুরেন্টে বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনি, অস্ট্রেলিয়া এক  সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ওয়েস্টার্ন সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মাসুদুল হক ও সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও বৈশাখী মেলা কমিটির মুল আহ্বায়ক গাউসুল আলম শাহজাদা | বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. রতন কুন্ডুর সূচনা বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয় | ড. মাসুদুল হক  মেলার ইতিহাস ও মেলার বিভিন্ন দিক, সুবিধা, অসুবিধা, নতুন সংযোজন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন | তিনি জানান যে টেম্পি মেলায় বিশাল জননসমাবেশের কারণে স্থান সংকুলানের সমস্যা ও পার্কিংয়ের সমস্যার কারণে টেম্পি রিজার্ভ হতে মেলা ফেয়ারফিল্ডশোগ্রাউন্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে | নতুন ভেন্যুতে গতবারের প্রথম আয়োজনই বিশাল সাফল্য অর্জন করে | মেলা প্রাঙ্গনে ২০০০ এর উপর ফ্রি পার্কিং আছে| ATM, নামাজের ব্যবস্থা সহ আশেপাশে আরো পার্কিং এর সুবিধা আছে | দর্শক শ্রোতাদের সুবিধা বিবেচনা করে অনলাইন এ টিকেট প্রাপ্তির বন্দোবস্ত করা হয়েছে| Online Ticket link: https://www.trybooking.com/361162


মেলা চত্বর সদ্য নতুন করে উন্নীত করাতে মেলার পরিবেশ নিশ্চিত হয়েছে | অর্থাৎ একই জায়গায় বসে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সব ধরণের সেবা ও সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবে | মেলা ভেনুতে একসাথে হাজার হাজার লোক একত্রিত হয়ে ভেন্যুর কেন্দ্রে অবস্থিত মঞ্চের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারবে | যথারীতি বিভিন্ন রকমের সুস্বাদু খাবার ও বিপণন সামগ্রীর ষ্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে | বাচ্চাদের বিনোদনের জন্য থাকবে বিভিন্ন রাইডস | সাটল বাস সার্বক্ষণিক ভাবে রেলওয়ে স্টেশন থেকে মেলা ভেনুতে যাত্রী পরিবনের জন্য নিয়োজিত থাকবে | সংগীত পিপাসুদের কথা বিবেচনা করে এবার দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় শিল্পী হাবিব ও ফেরদৌস ওয়াহিদকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ও তাঁদের ভিসা নিশ্চিত হয়েছে | গেলবারের মতো এবারেও থাকছে বর্ণিল আলোকসজ্জা ও ফায়ার ওয়ার্কস | সভায় জনাব শাহজাদা সবার প্রশ্নের উত্তর দেন ও তাদের পরামর্শ মোতাবেক আইটেম সংযোজন-বিয়োজনের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন | সভাশেষে মূল স্পনসর অস্ট্রাল বিল্ডার্স এর কর্মকর্তাদের সাথে সবার পরিচয় করিয়ে দেয়া হয় | অস্ট্রাল এম ডি মিঃ নজরুল ইসলাম  শুভেচ্ছা বক্তব্যে সবাইকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন | অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী সব বাঙালিদের মেলায় আমন্ত্রণ জানান মেলা আহ্বায়ক জনাব শাহজাদা | সভাশেষে সবাইকে নৈশভোজে আপ্যায়ন করা হয় | সভায় সিডনির অধিকাংশ প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক, বেতার, ফটো, টেলিভিশন সাংবাদিক, রিপোর্টার, লেখক, কলামিস্ট ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন | এবারের মেলায় টাইটেল স্পনসর হলোঃ অস্ট্রাল বিল্ডার্স|

এলএবাংলাটাইমস/এলএ/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী ইউএসএ’র পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-০৬ ১৩:৫৯:৪৯

উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হলো প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী ইউএসএ’র পিঠা উৎসব। এ উপলক্ষ্যে গত ৩ মার্চ রোববার জ্যামাইকার ওরকা পার্টি হলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি খন্দকার বদরুজ্জামান পিকলুর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পিঠা উৎসববের উদ্বোধন করেন সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ও সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ডা. ওয়াজেদ এ খান।

অনুষ্ঠানে সংগঠনের সদস্য নিউইয়র্ক প্রবাসী মোহাম্মদ মুসা’র ইন্তেকালে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে তার বিদেহী আতœার শান্তি কামনায় বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ মোজাম্মেল হক। এছাড়াও অনুষ্ঠানে ছিলো আলোচনা, কবিতা পাঠ ও সঙ্গীতানুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন নতুন প্রজন্মের মাহী। পরবর্তীতে কবিতা আবৃত্তি করেন জিন্নরাহি মেরি এবং সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী লাল্টু ও পারভীন।

ব্যতিক্রমী এই পিঠা উৎসবে বাংলাদেশের জনপ্রিয় ১৫ পদের পিঠা পরিবেশন করা হয় বলে আয়োকরা জানান। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য পিঠার তালিকায় ছিলো তেলের পিঠা, ভাপা পিঠা, চিতই পিঠা, দুধের পিধা, পাটি সাপটা পিঠা প্রভৃতি। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীসহ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ পিঠা উৎসবে যোগ দেন এবং উপভোগ করেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন- মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার ফরহাদ, নর্থ বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ইউএসএ’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাসানুজ্জামান হাসান, প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী ইউএসএ’র উপদেষ্টা খন্দকার আশেক শামীম ও ডা. মুনিবুর রহমান খান, সাবেক সভাপতি ফরিদ খান, হাজী মোজাম্মেল হক ও আকতারুজ্জামান হ্যাপী, সহ সভাপতি খন্দকার জাকির হোসেন, মোহাম্মদ তৌফিকুর রহমান ও সুলতান বোখারী, সাধারণ সম্পাদক শরীফ শিকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাকিম ও মোহাম্মদ শাহিনুর রহমান প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীদের সৌহার্দ-সম্প্রীতিতে পিঠা উৎসবটি মিলনমেলায় পরিণত হয় এবং বিপুল সংখ্যক প্রবাসী সপরিবারে অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ায় আয়োজকদের পক্ষ থেকে সভাপতি খন্দকার বদরুজ্জামান পিকলু সবাইকে ধন্যবাদ জানান এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।


এলএবাংলাটাইমস/এলএ/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ফ্লোরিডায় প্রথম বারের মতো বাংলাদেশ ডে পেরেড আয়োজনের উদ্যোগ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৩-০৫ ১২:৫৫:২০

সেন্ট্রাল ফ্লোরিডায় প্রথম বারের মতো বাংলাদেশ ডে পেরেড আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী ২৩ মার্চ এই প্যারেড অনুষ্ঠিত হবে।

সেন্ট্রাল ফ্লোরিডায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংখ্যা কম বেশী সাত আট হাজার । ডিজনি ওয়াল্ড খ্যান সেন্ট্রাল ফ্লোরিডায় নব্বই দশক থেকে বিভিন্ন ষ্টেট ধেকে প্রবাসীরা বসতি স্থাপন করেন । এখানে প্রায় দেড় দশক থেকে প্রবাসীরা নানা জাতীয় দিবস পালন করে আসছেন , বিশেষ করে সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা মহানগর আওয়ামী লীগই সব জাতীয় দিবস পালন করে । এবার ২৬ মার্চ কে সামনে রেখে স্বাধীনতা দিবসকে ব্যাতিক্রমী করতে সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা মহানগর আওয়ামী লীগ উদ্যেগী হয়ে বাংলাদেশ ডে পালনের ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করে ।

সেন্ট্রাল ফ্লোরিডার বেশ কয়েকটি সংসঠন বাংলাদেশ ডে পালনের সাথে সম্পৃক্ত হয় । সেন্ট্রাল ফ্লোরিডার প্রবীন মুরুব্বী জনাব ডাক্তার মুরাদ খান ঠাকুরকে আহয়বায়ক করে একটি আহয়বায়ক কমিটি গঠিত হয়েছে । বাংলাদেশ ডে পেরেড কে সার্থক করার জন্য আহয়বায়ক কমিটি ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে । সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা দু একটি ছাড়া প্রায় সব গুলো সংগঠন বাংলাদেশ ডে পালনের সাথে সম্পৃক্ত হয়েছে । বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক সংগঠন ও বাংলাদেশ ডে পালনের সাথে সহযোগীতায় । বাংলাদেশ ডে পালনের অন্যতম সংগঠক আনো্য়ার হোসেন সেন্টু জানান প্রতিদিন নতুন নতুন কর্মসুচি এড হচেছ । একটি ভাল কনসাট উপহার দেবার জন্য দেশের সেরা ব্যান্ড যুক্ত হয়েছে । শিশূ কিশোরদের জন্য রয়েছে নানান প্রজেক্ট ।

স্থানীয় লেক এওলা তে প্রথম বারের মত বাংলাদেশ ডে পালন অনূষ্টানে মুল ধারার রাজনীতিবিদরা উপস্থিত থাকবেন । কমিউনিটি একটিভিষ্ট এ কে এম হোসেন হিটু ও সাবেক ছাত্রনেতা নাজিম উল্লাহ লিটন একটি সুন্দর ম্যাগাজিনের জন্য কাজ করছেন । মিডিয়া পাটনার হিসাবে থাকবে ফ্লোরিডা বাংলা টিভি, টিভি ৫২, জাতীয় দৈনিক রাজনীতি ও প্রবাসীদের অন্যতম মুখপাত্র প্রবাসের নিউজ । প্যারেড অনুষ্টানে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে উপস্থিত হবার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে ।
থাকবে কালচারাল অনুষ্টান, চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা, ফেস ফেস পেন্টিং, নানান দেশীয় ষ্টল এক কথায় বাংলাদেশকে তুলে ধরা হবে । কমিউনিটির সকলকে নিয়ৈ একটি সার্বজনিন উদযাপন কমিটি তৈরী করা হয়েছে । প্রবাসীদের ম্ধ্য ব্যাপক উ্যসাহ উদ্দিপনা দেখা যাচেছ । সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা মহানগর আওয়ামী লীগের একটি শক্তিশালী টিম কমিউনিটির বিভিন্ন জনদের নিয়ে দিন রাত কাজ করছে বাংলাদেশ ডে সফল করার জন্য । শত শত পতাকা ও  বাংলাদেশের পতাকার টি শাট, লাল সবুজের পাতাকার শাড়ী পরিহিত হয়ে সবাই পেরেড এ অংশগ্রহন করবেন ।

বিস্তারিত খবর

লস এঞ্জেলেস প্রবাসীর ইন্তেকাল

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২৮ ১৪:১২:০৯

লস এঞ্জেলেসের ভ্যালীতে বসবাসকারী  প্রবাসী শেখ মোহাম্মদ আনসার উদ্দীন (৭২) গত ২৩ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি গত ২৩ বছর ধরে লস এঞ্জেলেসে বসবাস করে আসছিলেন। মরহুম ইন্তেকালের পূর্বে ৩ ছেলে ও ৫ মেয়ের রেখে গেছেন তারা  সকলেই আমেরিকা প্রবাসী । দীর্ঘ দিন যাবত তিনি অনেক অসুখে ভুগছিলেন ।

প্রবাসীরা জানিয়েছেন, শেখ মোহাম্মদ আনসার উদ্দীন গত ২৩ বছর ধরে লস এঞ্জেলেসে বসবাস করে আসছিলেন। তার দেশের বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলায়।

আজ ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ বুধবার বাদ মাগরিব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ইসলামীক সেন্টার লস এঞ্জেলেসে  মরহুম আনসার উদ্দীনের  জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয় । উক্ত জানাজা নামাজে লস এঞ্জেলেসে বসবাসকারী প্রচুর প্রবাসী শরিক হয়।
জানাজা নামাজে  পূর্বে মরহুমের ছেলে তার বাবার জন্য সকলের কাছে  দোয়া ও রুহের মাগফিরাত কামনা করেন । সবাই তার আত্মার মাগফিরাত এবং পরকালের শুক শান্তি কামনা করেন । ইসলামীক সেন্টারে  অনেক মহিলাও দোয়াতে  শরিক হন ।মরহুম আনসার উদ্দীন  অত্যন্ত আল্লাহওলা  এবং পরহেজগার  মানুষ ছিলেন। তার মরদেহ  দেশের বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলায় নেওয়ার প্রস্তুতি চালছে বলে তার পরিবার থেকে জানা যায় ।

এদিকে গত ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ অরেঞ্জ কাউন্টিতে  আনোয়ারা বেগম (৯০)  নামে  এক মহিলা ৮টায় ইন্তেকাল করেন। তিনি ক্যালিফোর্নিয়া প্রবাসী প্রফেসর আলী আকবরের মাতা । তিনি গত কয়েকমাস যাবৎ বিভিন্ন বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। ২০০৬ সাল থেকে তিনি তার বড় ছেলে প্রফেসর আলী আকবর সাহেবের সাথে অরেঞ্জ কাউন্টিতে বসবাস করে আসছিলেন । মৃত্যুকালে দুই ছেলে, চার মেয়ে সহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গিয়েছেন। আনোয়ারা বেগমের আদিবাড়ি সিরাজগঞ্জে  হলেও পরবর্তীতে সৈয়দপুর বসবাস করতেন। এখন পর্যন্ত মরহুমার  জানাজা নামাজ  ও দাফন কাফন অনুষ্ঠনের সময় সূচি জানা যাইনি ।

গত এক সপ্তাহে সর্ব মোট চার জন প্রবাসী বাংলাদেশী লস এঞ্জেলেসে বসবাসকারী  মিত্তুঁ বরন করেন বলে জানা গেছে ।

এলএবাংলাটাইমস/এলএ/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ফ্লোরিডায় দ্বিতীয় বইমেলা সম্পন্ন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২৮ ১৪:০৬:৩৭

দ্বিতীয় ফ্লোরিডা বই মেলা গত ২৪ মার্চ রোবাবার ফ্লোরিডার বয়ন্টন বীচ হাই স্কুলে সফল ভাবে অনুষ্টিত হয় । বিকেল ৩ টা থেকে ব্ই মেলা ও একুশে উদযাপন শুরু হবার কথা থাকলেও মুল অনুষ্টান শুরু হয় বিকেল সাড়ে চার টায় । ঢাকা ক্লা্ব ও ফ্লোরিডা শিল্পী সমাজের যৌথ উদ্যেগে ২য় ফ্লোরিডা ব্ই মেলায় উপস্থিত ষ্টল গুলো বিকাল ৩ টায় প্রবাসীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠে । বই মেলায় ব্ইয়ের ষ্টল ছাড়াও ছিল নানা রকম  কাপড়ের দোকান ,খাবারের দোকান ও বিভিন্ন খেলনার দোকান । অনেকে আগ্রহ নিয়ে বই কিনেন, উপস্থিত লেখকদের অটোগ্রাফ নেন । উল্লেখ্য বই মেলায় ফ্লোরিডা লেখকদের বই ছিল বেশী , ছিল ইয়া্ং রাইটার আরমান সোবহানের ‘ষ্টেইনড ইউনডো,‘ যা যখন সে ১৪ বছর  তখন প্রকাশিত হয় । মেলায় ছিলেন ওরলান্ডো ফ্লোরিডার লেখক গোলাম সাদত জুয়েল ৬ টি বই নিয়ে, ছিলেন ফ্লোরিডার লেখক ডাক্তার সুলতান সালাউদ্দিন আহমেদ তার “সুতোর টানে“ বই নিয়ে ।

মেলায় সামিরা আব্বাসীর নতুন সংযোজন বহি:বিশ্বের প্রথম হিউম্যান লাইব্রেরী । সেখানে লেখক শামীম আজাদ, ডাক্তার আতিকুজ্জামান,ডা: কেয়া রোজারিও,জাহানারা খান বীনা নিজেরা  গ্রন্থ হিসাবে উপস্থিত হন   । যা বই মেলায় নতুন মাত্রা যোগ করে । ব্ই মেলায় ছিল স্বপন মাঝির লেখা ও সালমা রহমান মিনুর পরিচালনায় ভাষার উপর একটি শিক্ষনীয় নাটিকা ”উল্টোরথ ” । বই মেলায় সামিরা আব্বাসীর পরিকল্পনায় ছিল গীতি আলেখ্য, সেখানে অংশগ্রহন করেন দিপু খান,আতিকুর রহমান, ফারহানা বাতেন,জাহানারা খান বিনা, কেয়া রোজারিও, আওয়াল হেলাল ,পৃথি  হেলাল , পাপ্পু  রহিম,আব্দুল বাতেন ও সোহাগ উদ্দিন । ছিল লন্ডন থেকে আগত বিশিষ্ট লেখিকা অধ্যাপিকা শামীম আজাদের ষ্টোরি টেলিং, ১৭ জন নতুন প্রজন্ম সেখানে অংশ গ্রহন করেন । গুনি জন সম্মামনা প্রদান করা হয় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের নিউজ প্রেজেন্টার বেগম আজমান হোসেন , লেখিকা শামীম আজাদ ও সেলিম জাহান কে ।  ইরিন খানের কোরিওগ্রাফিতে “কারার ওই লৌহকপাট”  ও ,মীম হোসেইনের কোরিওগ্রাফিতে “মম চিত্তে”  ছিল চম্যকার পরিবেশনা ।

ভাষা আন্দোলনের উপর রচনা প্রতিযোগিতায় ১২ জন বিজয়ী নতুন প্রজন্ম দের নিয়ে এই অনুষ্টানে আত্বপ্রকাশ করল “বাংলা বুক ক্লাব” । রচনা প্রতিযোগীতার প্রথম পুরষ্কার স্পন্সর করেন, মোস্তফা জামান আব্বাসী ও অন্যান্য পুরষ্কার স্পন্সর করে ঢাকা ক্লাব ফ্লোরিডা । বই মেলা চলা কালিন ন মহান একুশের ভাষা আন্দোলনের স্মরনে অস্থায়ী শহিদ মিনারে ফ্লোরিডার সব সংগঠন পুষ্প স্তবক প্রদান করেন । সব সংগঠন লাইন ধরে শহিদ বেদীতে ফুল প্রদান করেন । ঢাকা ক্লাবের দিপু খান ও আতিকুর রহমান এবং শিল্পী সমাজের সামিরা আব্বাসীর সমন্বিত প্রচেষ্টায় বই মেলাটা ছিল সাজানো গোছালো একটি পরিচছন্ন আয়োজন । বয়ন্টন স্কুলের উন্মক্ত স্থানে বই মেলা চলাকালিন বৃষ্টির জন্য সামান্য সময় অনুষ্টানে বিঘ্ন ঘটলেও উপস্থিত প্রবাসীরা বিকেল চার টা ধেকে রাত সাড়ে দশটা পযন্ত ছিলেন । বই মেলার শুরুতে বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয় , তখন ষ্টেজে উপস্থিত ছিলেন বয়ন্টন বীচ সিটির মেয়র ষ্ঠিভ গ্রান্ট ।

কনভেনর ডাক্তার সালা্হ উদ্দিন আহমেদ তার সংক্ষিপ্ত  বক্তব্যে, সকল ফ্লোরিডাবাসী কে ধন্যবাদ জানান এবং আগামীতে আরও বড় আকালে বই মেলা করার ঘোষনা প্রদান করেন । সভাপতির ব্ক্তব্য সেলিম জাহান বলেন , বাংলা ভাষাটা আমাদের আহংকার । আজ সময়ের প্রয়োজনে আমরা  বিদেশে বসেও উপলব্দি করছি ভাষাটা রক্ষা করা কতটা জরুরী । অন্যান্য যে কোন গোষ্টির চেয়ে বাংলাদেশীদের আহংকার করার একটি বিষয় , তা হল আমারা রক্ত দিয়ে ভাষা পেয়েছি ।

বিশেষ অতিথি অধ্যাপক শামীম আজাদ বলেন ,বাংলা ভাষাটা আমাদের ও নতুন প্রজন্মের মাধ্যমেই টিকে থাকবে । বিশ্ববাসীকে এ্ই বাংলা ভাষাকে আমাদের পরিচয় করিয়ৈ দিতে হবে । আমাদের আরও যত্ন বান হতে হবে, ভাষাটাকে যেন আমরা অবহেলা না করি ।

ফ্লোরিডা বই মেলায় প্রবাসিরা বিভিন্ন ষ্টল থেকে বই সংগ্রহ করেন । তবে প্রবাসীদের বই য়ের চাহিদা মেটানোর জন্য আরও বেশী বইয়ের ষ্টলের  উপস্থিতি প্রয়োজন, বলে অনেকে মন্তব্য করেন । সাউথ ফ্লোরিডায় বসবাসরত কয়েক হাজার প্রবাসী বই মেলায় উপস্থিত হয়ে মেলাটাকে সফল করেন । ঢাকা ক্লাবের দিপু খান ও শিল্পী সমাজের সামিরা আব্বাসীকে অনেকে ধন্যবাদ দেন সুন্দর ও সফল বই মেলা উপহার দেয়ায় ।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিডনিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২৭ ১৩:৩১:৫৯

২১শে ফেব্রুয়ারী কোন ছুটি না থাকায় সিডনীতে ১৭ই ফেব্রুয়ারিরোববার এশফিল্ড পার্কের সবুজ চত্বরে দিনব্যাপী পালন করা হয়েছে অমর একুশ ওআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। সাদাকালো পোশাক পরিহিত জন সমাগমে এশফিল্ড পার্কের সবুজ চত্বর সেদিন পরিণত হয় এক টুকরো বাংলাদেশে। এ উপলক্ষে আয়োজিত প্রভাত ফেরী, সমবেত দেশের গান, দিনব্যাপী বইমেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান স্মরণ করিয়ে দেয় সালাম, রফিক, বরকত, জব্বার সহ সকল ভাষা শহীদদের কথা। মাতৃভাষা চর্চা ও তার ইতিহাস আগামী প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে অস্ট্রেলিয়ায় জন্ম নেয়া এবং বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে প্রাধান্য দিয়ে নানা আয়োজনে সাজানো হয় একুশে একাডেমী অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত এই অমর একুশের অনুষ্ঠানমালা।
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও অমর একুশে পালন উপলক্ষে প্রভাতফেরী ও পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে দিনটির শুরু হয়।একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বইমেলায় বইয়ের স্টল ছাড়াও ছিল খাবার সহ অন্যান্য স্টল।বাংলাদেশের প্রথিতযশা লেখকদের বইয়ের পাশাপাশিবিক্রি হয়েছে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বেশ কয়েকজন প্রবাসী লেখকদের বই। প্রতিবছরের মতো এবারেও বইমেলা উপলক্ষে প্রবাসী লেখকদের লেখা নিয়ে মাতৃভাষা নামে একটি সংকলন প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়াও প্রবাসী লেখকদের প্রকাশিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

একুশে একাডেমী অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত অমর একুশ পালনের আয়োজনে রক্তদান কর্মসূচী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও ভাষা বিষয়ক সেমিনার ছাড়াও মূল আয়োজনে  থাকে এই বইমেলা ও প্রভাতফেরী। উল্লেখ্য,আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও একুশে ফেব্রুয়ারি পালনের উদ্দশ্যে প্রতি বছর একুশে একাডেমী সারাদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকে।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

মিলানে একুশে উদযাপন পরিষদের আয়োজনে মাতৃভাষা দিবস পালিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২৫ ১৩:২১:৫০

ইতালির মিলানে একুশে উদযাপনের আয়োজনে একুশের প্রহরে সম্মিলিত ভাবে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পস্তর্পক অর্পনের মাধ্যমে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।মিলানের স্থানীয় কায়াচ্ছ পার্কে অস্থায়ী শহীদ মিনারে একুশ উদযাপনের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী জাকির হোসেন,মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলম সহ পরিষদের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তর্পক অর্পণ করেন এবং সকল ভাষা শহীদদের স্মরণে নীরবতা পালন ও মোনাজাত করেন।

প্রচন্ড ঠান্ডা উপেক্ষা করে  কর্মদিবস থাকার পরেও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ইতালি,মিলান বিএনপি, বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি, বাংলা প্রেসক্লাব, ফেনী সমিতি, দিরাই সমাজ কল্যাণ সমিতি,জাতীয়তাবাদী যুবদল, উত্তরবঙ্গ পরিষদ,জাতীয়তাবাদী ফোরাম সিলেট,স্পোটিং ক্লাব মিলান  সহ  সামাজিক ও আঞ্চলিক সংগঠন গুলো পুস্পস্তর্পক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
একুশে উদযাপন পরিষদ ছাড়াও মিলানে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় মিলান কনসুলেট অফিস সংলগ্ন অস্থায়ী শহীদ মিনারে কনসাল জেনারেল পুস্পস্তর্পক অর্পণ করেন।


এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিল অব নিউজার্সির অমর একুশে উদযাপন ও নবনির্বাচিতক কমিটির অভিষেক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২৫ ১৩:১৭:০৬

বাংলাদেশি অধ্যুষিত যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির প্যাটারসনে 'বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিল অবনিউজার্সির' উদ্যাগে অমর একুশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ও নবনির্বাচিতকমিটির অভিষেক গত ২০ ফেব্রুয়ারী অনুষ্টিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্যাটারসন সিটিরজন এফ কেনেডী হাইস্কুল প্রাঙ্গনে নয়নাবিরাম সুদৃশ্য স্থানে সরকারি জমিতে সরকারিভাবেনির্মিত স্থায়ী শহীদ মিনারে প্রচন্ড তুষার ঝড় ও ঠান্ডা উপেক্ষা করে নিউইয়র্ক কন্স্যুলেট এরপ্রতিনিধি, পেটারসন মেয়র আন্দ্রে সায়েগ, স্থানীয় কাউন্সিলম্যান শাহীন খালিক, কাউন্সিলপ্রেসিডেন্ট মারিছা ডেবিলা, কাউন্সিল এট লার্জ ফ্লাবিয় রিবেরা, পেটারসন বোর্ড অফএডোকেশন এর কমিশনার জোয়েল রামিরাজ, সাবেক কাউন্সিলমেন মোহাম্মদআখতারুজ্জামান, ডেপুটি মেয়র ফেরদৌস হোসেন, কমিশনার জয়েদ রহিম সামরান,কমিশনার কবির আহমদ, প্রসপেক্ট পার্ক সিটির মেয়র মোহাম্মদ খায়রুল্লাহ, কাউন্সিলপেসিডেন্ট আনান্দ সাহ, প্রসপেক্ট পার্ক বোর্ড অফ এডোকেশন কমিশনার মোহাম্মদ সুরমানহোসেন, কমিশনার নিয়াজ নাদিম, হেলডন সিটির কমিশনার দেওয়ান বজলু চৌধুরী,নিউজার্সিস্টেট আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, নিউজার্সি স্টেইট বি এন পি, যুবদল, ছাত্রদল,নিউজার্সীমহাজোট, নিউজার্সী মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ নিউজার্সির বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক,সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক, পেশাজীবী, ব্যবসায়ীদের মোট ২৮টি সংগঠনের পাশাপাশি প্রবাসেরসকল শ্রেণী পেশার মানুষ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ।
এর আগে সন্ধ্যা ৮ ঘটিকায় প্যাটারসন  জন এফ কেনেডি  হাইস্কুলের অডিটরিয়ামে'বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিল অব নিউজার্সির নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি মোহাম্মদমহসিন সেলিমের সার্বিক তত্বাবাধনে প্রথম পর্বে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান উপস্হাপনাকরেন ফারুক সিদ্দিীক ও ফারাহ হাসান। গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী বাদশাহ বুলবুল ও প্যারসনের জনপ্রিয় গায়কনাহিদ ও দীপ্ত রায়। কবিতা আবৃত্ করেন মুক্তা আবেদীন ।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্ব মো: মহসিন সেলিমের সভাপতিত্তে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামানসুহেলের পরিচালনায় নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক, আলোচনা সভা ও “বর্ণমালা” নামে একটিবিশেষ প্রকাশনা অনুষ্টিত হয়.

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দেওয়ান বজলু চৌধুরী, সৈয়দ জুবায়ের আলী, এনামুল বাকীমজনু, আবুল হোসেন সুরমান, মুক্তা আবেদীন, মো: আনহার মিয়া, শামীম আহমদ, আব্দুলহালিম, হারুন মিয়া, খলকু মিয়া, সাইদুর রহমান ( দাদাভাই), মো: হোসেন, বিশ্বজিত দে বাবলু,তাজুল ইসলাম শাহীন, রোহেল আহমদ প্রমুখ .

ওই অনুষ্ঠানে আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ওনবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক উপলক্ষে সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশণা সম্পাদক মাশুকআহম্মদ সম্পাদনায় স্মারক গ্রন্থ “বর্ণমালা, প্রকাশন করা হয়।

আলোচনায় অংশকারী বাংলাদেশী বংশদ্দ্ভুত প্যাটারসন সিটির ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলমেনশাহিন খালিক নতুন কমিটিতে অভিনন্দন ও বাংলা ভাষাকে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা ঘোষনায়সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান।

পাশাপাশি প্যাটারসন বোর্ড অফ এডুকেশন ও সিটির সকল নির্বাচিতদ্র কাছে সিটির স্কুলেরপাঠ্য সূচীতে বাংলা ভাষা অন্তরভুক্ত করার জোর দাবী জানান এবং আরও উল্লেখ করেন এইভাষার মাসেই পেটারনের স্কুলে মুসলিম ছাত্রদের টিফিনে হালান খাবার পরিবেশন শুরু হবে ।এই ঘোষনায় পর পরই অবশিষ্ট সকল বক্তা তাদের বক্তব্যে কাউন্সিলমেনর ভুয়সী প্রশংসা করেন। রাত ১২.০১ মিনিটে স্হায়ী শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন ও শহীদদের আত্তার মাগফিরাতকামনায় অনুস্টানের সমাপ্তি করা হয়।


এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি
 

বিস্তারিত খবর

ইতালির ত্রেভিজো বাংলা স্কুলে স্বপ্নকুঁড়ি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২০ ১২:৩৮:৪৪

ইতালিতে বেড়ে উঠা এই প্রজন্মের শিশু কিশোরদের নিয়ে একুশের মাসে  শুরু হয়েছে স্বপ্নকুঁড়ি প্রতিযোগিতা। বাংলা ভাষা কে আরো জানানোর জন্য প্রবাসের শিশু কিশোরদের অংশগ্রহণে ত্রেভিজো  বাংলা স্কুলে রবিবার  চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃতি ও সুন্দর বাংলা লিখন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রবাসে ছেলে মেয়েরা চমৎকার ভাবে আমাদের শহীদদের স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনার ও বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা অঙ্কন করে। শুদ্ধ বাংলা ভাষায় কবিতা আবৃতি এবং বাংলা লিখন ছিল অসাধারণ। প্রবাসের শিশুকিশোররা এতো ভালো করে উপস্থাপন করেছে আমাদের একুশের তাৎপর্য যা উপস্থিত অভিবাবকদের আপ্লুত করেছে।

বাংলা স্কুলের সভাপতি কামরুল হাসান রাসেল এর সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে শিশু কিশোরদেদর মাঝে  পুরস্কার তুলে দেন বাংলাদেশ সমিতি ভেনিস এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মজিবুর রহমান সরকার।

অনুষ্ঠানে কোর আন তেলাওয়াত ও জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে  শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্বপ্নকুঁড়ি অনুষ্ঠানের সভাপতি ও বাংলা প্রেসক্লাব মিলানের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেন,যমুনা টিভির ইতালি প্রতিনিধি জাকির হোসেন সুমন,সাংবাদিক আসলামুজ্জামান,ত্রেভিজো  বাংলা স্কুলের সিনিয়র সহ সভাপতি ইমরান  হোসেন ,সাধারণ সম্পাদক তৈয়ব আলী,উপদেষ্টা ওমর ফারুক ,দিন ইসলাম হীরা,কোষাধক্ষ জসিম বেপারী,স্কুলের শিক্ষিকা জাহিদা পারভিন,কামরুন নাহার তুলি,সাথী আক্তার,মুকুল আক্তার।
আলোচনা শেষে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগীর মধ্য বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের অতিথিবৃন্দ।
স্কুলের অভিবাবকরা এমন আয়োজনে প্রশংসা করেন এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ডিসি একুশে এলায়েন্সের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উদযাপন ২৩ ফেব্রুয়ারি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১৯ ১৩:০৭:৫৭

ওয়াশিংটন ডিসিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সম্মিলিত আয়োজনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত হবে ।ডিএমভি এলাকার সকল সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর সম্মিলিত  আয়োজনে, আগামী ২৩শে ফেব্রুয়ারি  রোজ শনিবার সন্ধ্যা ৫টায় , কেনমোর মিডল স্কুলের অডিটোরিয়ামে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন আর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের নিমিত্তে  বৃহত্তর ওয়াশিংটন ডিসির প্রবাসী বাংলাদেশিদের উপস্থিতি একান্ত কাম্য।

মাতৃভাষা দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করবেন বাংলাদেশ দুতাবাসের ডেপুটি চীপ মিশন মাহবুব হোসেন সালেহ।বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন আর্লিংটন কাউন্টি চেয়ারম্যান মারশা সেম্মেল। অনুষ্ঠানে শহীদ বুদ্ধিজীবী মনির চৌধুরীর কবর নাটক মঞ্চায়িত হবে, পরিচালনা করবেন শামীম চৌধুরী ।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের কমিটি গঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১৭ ১৩:২১:৪৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবশেষে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে এম নজরুল ইসলামকে  সভাপতি ও মুজিব  রহমানকে সাধারন সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা করেছেন। জার্মান সফররত প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বিকালে ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের পুরাতন কমিটি বিলুপ্ত করে অস্টিয়ার নজরুল ইসলামকে সভাপতি ও ফ্রান্সের মুজিবুর রহমান মুজিব কে সাধারন সম্পাদক করে ২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করেন। এই দুজন পরে সকলের সাথে পরামর্শ করে পুর্নাঙ্গ কমিটি করবেন বলে সদ্য ঘোষিত সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান   জানান ।

নব-নির্বাচিত সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান মুজিব.  সাংবাদিক দের  বলেন তাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা যে আস্থা তার প্রতি পূর্ণ সম্মান রেখে দলের জন্য কাজ করবেন ।

এতদিন নজরুল ইসলাম ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের  সহসভাপতি ও ফ্রান্সের মুজিবুর রহমান মুজিব যুগ্ন সাধারন সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন।

সূত্র জানায়, ইউরোপ জুড়ে আওয়ামী লীগে নাজুক অবস্থা বিরাজ করছে দীর্ঘ দিন যাবত । দেশে দেশে বিবাদমান একাধিক  কমিটি। জার্মানিতেও রয়েছে আওয়ামী লীগের দুই কমিটি, ফলে বুধবার অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবর্ধনা  আওয়ামী লীগের ব্যানারে হতে পারে নি। এসব বিরোধ  ও সাংগঠনিক নাজুক পরিস্থিতির জন্য অভিযুক্ত সদ্য বিদায়ী ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ সভাপতি অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারন সম্পাদক এমএ গনি ।

বিস্তারিত খবর

মিউনিখে প্রধানমন্ত্রীকে নাগরিক সংবর্ধনা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১৬ ১৩:৪৮:৫০

আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশ নিতে তিনদিনের সফরে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জার্মানির মিউনিখে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান জার্মানিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ।

পরে প্রধানমন্ত্রীকে বর্ণাঢ্য মোটর শোভাযাত্রাসহ হোটেল শেরাটনে নিয়ে যাওয়া হয়। সফরকালে তিনি এখানে অবস্থান করবেন। চতুর্থবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর এটাই তার প্রথম জার্মান সফর।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শেরাটন হোটেলের বলরুম মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর নাগরিক সংবর্ধনায় বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করেন। এ সময় প্রবাসীদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।
নাগরিক সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্টের পর দীর্ঘদিন যারা ক্ষমতায় ছিল তারা দেশকে কিছুই দিতে পারেনি। বরং আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদেরকে অকথ্য অত্যাচার নির্যাতন করেছে। সেনা বাহিনীর হাজার হাজার অফিসার এবং সৈনিকদের হত্যা করেছে।

বিএনপির শাসন আমলের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা ক্ষমতায় থাকতে যে দুর্নীতি করেছে, দশ ট্রাক অস্ত্র মামলায় সাজা পেয়েছে, এতিমের অর্থ আত্মসাতের সাজা পেয়েছে তাই জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। অগ্নি সন্ত্রাস, সাজাপ্রাপ্তদের নেতৃত্ব এবং জামায়াতকে ধানের শীষ মার্কা দিয়ে প্রার্থী করাতে জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে এবং ভোট দেয়নি।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনীল দাশ গুপ্ত, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফ। সংবর্ধনা অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জার্মানিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ।
শুক্রবার (১৫ ফেব্রুারি) আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভাষণ দেয়া ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিস অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ এবং ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (হু) আয়োজিত ‘হেলথ ইন ক্রাইসিস-হু কেয়ার্স’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে যোগ দেবেন। ২০১৭ সালের নোবেল বিজয়ী পরমাণু অস্ত্র ধ্বংসবিষয়ক আন্তর্জাতিক প্রচারণা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বিয়াট্রিস ফিন এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) শীর্ষ প্রসিকিউটর ড. ফাতৌ বেনসৌদার সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

বিকালে প্রধানমন্ত্রী সিমেন্স এজির প্রেসিডেন্ট ও সিইও জোয়ে কায়িজার সঙ্গে বৈঠক করবেন। তিনি ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের প্রেসিডেন্ট বোর্জ ব্রেন্ডি ও জিগসাওয়ের সিইও জারেড কোহেনের নৈশভোজে অংশ নেবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যাজ এ সিকিউরিটি থ্রেট’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় যোগ দেবেন। রোববার সকালে আবুধাবির উদ্দেশে মিউনিখ ত্যাগ করবেন প্রধানমন্ত্রী।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইতালি বিমান বন্দরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালকে অভ্যর্থনা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১৩ ১৩:৪৮:৫৯

১২ নভেম্বর  মঙ্গলবার  অর্থমন্ত্রী কে বাংলাদেশ দূতাবাস ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ অভ্যর্থনা জানায়।আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (IFAD) এর ৪২তম গভনিং কাউন্সিলে গণপ্রজাতন্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল ইতালী আগমনে ইতালী আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দরা রোমের ইন্টারন্যাশনাল ফিমিউসিনো এয়ারপোর্টে ফুলের অভ্যর্থনা জানান।
এ সময় বিমান বন্দরে উপস্হিত ছিলেন ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবহান সিকদার, অল ইউরোপ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি,এম কিবরিয়া, ইতালি আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সহ নেতৃবৃন্দ।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

মালয়েশিয়ায় পুলিশের গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১৩ ১২:৫১:০৬

মালয়েশিয়ায় পুলিশের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ বলছে, নিহতরা অপহরণকারী ছিলেন এবং তাদের বিরুদ্ধে ১৩টি অভিযোগ ছিল। মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালায় পুলিশ।

মালয়েশিয়ার জাতীয় দৈনিক স্টার অনলাইনে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়েছে, দেশটির তামান মুডুন, বাতু ৯ চেরাস এলাকার একটি বাড়ি থেকে অপহৃত এক বাংলাদেশিকে উদ্ধারের সময় পুলিশের অভিযানে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুইজন বাংলাদেশি মারা যান। পুলিশের দাবি, তারা অপহরণকারী ছিলেন।


কাজাং ওসিপিডির সহকারী কমিশনার আহমেদ জাফির ইউসুফ বলেন, ‘কুয়ালালামপুরের পুলিশ একটি সংঘবদ্ধ চক্রকে ধরার জন্যে ওঁৎ পেতে ছিলেন। মঙ্গলবার রাতে চেরাসের বাতু ৯ এবং তামান মুদুনের একটি ছোট স্থানে অবস্থান করছিলেন তারা। রাত ১টা ৩৫ মিনিটে পুলিশ বাড়িটিতে অভিযান চালায়। সেখানে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে রাখা হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছিল। অভিযান চলাকালীন সময়ে বাড়িটি থেকে অপহরণকারীরা গুলি ছুড়তে শুরু করে। আত্মরক্ষার জন্য পাল্টা গুলি ছোড়ে পুলিশ।’

জাফির ইউসুফ বলেন, ‘আমরা সফলভাবে অপহরণে আটক ব্যক্তিকে মুক্ত করি। গত ৮ ফেব্রুয়ারি সেন্তুল থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি ৯এমএম পিস্তল এবং একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহত ব্যক্তিদের কাছ থেকে কোনো ধরনের ডকুমেন্টও পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।’ ৩০৭ ধারায় পেনাল কোর্টে এই মামলাটির তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

পুলিশ বলছে, নিহত ২ বাংলাদেশির বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশের শ্রমিকদের অপহরণ করে চাঁদাবাজির অভিযোগ ছিল। মুক্তিপণের দাবিতে এ পর্যন্ত তারা ২.৫ মিলিয়ন মালয় রিঙ্গিত অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।

পুলিশের অভিযানের সময় ওই বাড়ি থেকে অপহৃত এক বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত বাংলাদেশির বয়স আনুমানিক ৩০ থেকে ৩৫ বছর। তবে পুলিশ নিহত এবং উদ্ধারকৃত বাংলাদেশির নাম এখনও প্রকাশ করেনি। পুলিশ বলছে, নিহত ২ বাংলাদেশির কাছে কোনো বৈধ কাগজপত্র ছিল না।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাংবাদিক জুয়েল সাদতের কবিতার সিডির মোড়ক উন্মোচন

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১২ ১৩:৩৬:১০

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাংবাদিক,কলামিষ্ট জুয়েল সাদতের প্রথম কবিতার সিডি অনুভবে আলিঙ্গন এর মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্টান গত ১০ জুলাই সিলেটে শহিদ মিনারে প্রথম আলো বন্ধু সভা আয়োজিত বই মেলায় অনুষ্টিত হয় সন্ধা সাত টায় । এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কারা মহা পরিদর্শক মেজর জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন ( অব:) । বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের প্রিন্সিপাল হায়াতুল ইসলাম আকুঞ্জি, কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয়ের রেজিষ্টার বদরুল  ইসলাম সোয়েব, সিনিয়র সাংবাদিক দৈনিক উত্তর পুর্ব সম্পাদক আজিজ আহমেদ সেলিম, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমদ মিশু ।

সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব এনামুল মুনিরের পরিচালনায় অনুষ্টানের শুরুতে কবিতার সিডি অনুভবে আলিঙ্গন থেকে কবিতা শুনানো হয় । তার পর মোড়ক উন্মোচন করেন আতিথিরা । সে সময় সিলেট শহিদ মিনার প্রাঙ্গন সিলেটের , সাংবাদিক ,সাংস্বৃতিক কর্মি ও সাহিত্য প্রেমীদের পদচারনায় মুখরিত ছিল ।

মোড়ক উন্মোচন এর পর প্রকাশনা অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্য সাবেক কারা মহা পরিদর্ক মেজর জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন ( অব: ) বলেন, জুয়েল কে চিনি অনেক দিন থেকে, তার লেখনির সাথে পরিচয় দীর্ঘদিনের  । সে ইতিহাস নির্ভর  বই লিখেছে, তার রাজনৈতিক বিশ্লেষনধমি গ্রন্থ এর পরিচিত, সে উপস সম্পাদকীয় লেখে , সে কবিতা লিখে যানতাম না । তার কবিতার নতুন সিডি তার বহুমাত্রিক গুনের বহি:প্রকাশ । কবিতার সিডিতে  যে বিষয়গুলো স্থান পেযেছে , সেখানে অনেক ভাল ম্যাসেজ রয়েছে যা অনেককে উপকৃত করবে ।  এটা কোন একক প্রেমের কবিতার সিডি নয়, একজন সমাজ সচেতন সাংবাদিকের দেখা ও লেখার দৃষ্টিভঙ্গি  ভিন্ন মিডিয়া ভার্সন ।তার উত্তরোত্তর উন্নয়ন কামনা করি ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রসেফর হায়াতুল ইসলাম আকুঞ্জি বলেন, আমার একজন ষ্টার  ছাত্র হিসাবে আমি তাকে নিয়ে গর্ব অনুভব করি । সে বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী । তার প্রায় প্রতিটা প্রকাশনায় আমাকে থাকতে হয়, তার সিডিতে যে বিষয় গুলো আছে তা বাংলাদেশের সমসাময়িক ঘটনার কবিতা । আমেরিকায় থেকে শত ব্যাস্থতার মধ্য তার শিল্পকর্ম ইতিহাস মুল্যায়ন করবে । সে অনেক এগিয়ে যাবে ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার বদরুল ইসলাম সোয়েব বলেন, সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জুয়েল সাদতের কর্মকান্ড আমাকে আকৃষ্ট করেছে । তিনি সিলেটের গোলাপগঞ্জ এর একজন আলোকিত মানুষ । জুয়েল সাদতের সাহিত্য কর্ম ছাড়াও তার মানবিক কাজের সাথে আমি পুর্ব পরিচিত । তিনি প্রবাসের নিউজ নামক  একটি প্রবাসী বান্ধব কাগজের সম্পাদক , তার বহু মুখি প্রতিভা খুব কম প্রবাসীর মাঝে চোখে পড়ে । তার সিডির কবিতা শুনেছি  সেখানে অনেক ভাল ম্যাসেজ রয়েছে , যা সকলকে আলোড়িত করবে ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাংবাদিক আজিজ আহমেদ  সেলিম বলেন, জুয়েল সাদত সাংবাদিক হিসাবে সিলেটে থাকা কালিন কমিটেড ছিলেন, তার সময়কালের সাংবাদিকদের চেয়ে তার সাহিত্যর প্রতি দুর্বলতা ছিল । যা প্রবাসেও তিনি ধরে রেখেছেন আজও । যখন দেশে আসেন তিনি বই প্রকাশ করেন, প্রতি তিন চার বছর বছর তিনি সময় নিয়ে ভাল প্রকাশনা উপহার দেন। সিলেটের কোন কবিই সিডি করেন নি , জুয়েল সাদত তার অনুভবে আলিঙ্গনের মাধ্যমে নতুন দ্বার উন্মোচন করলেন ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নাট্য ব্যাক্তিত্ব মিশফাক আহমেদ মিশু বলেন, ‍জুয়েল সাদত আমাদের সময়ের প্রতিনিধি, তিনি দেশের বাইরে আমেরিকার কঠিন জীবনযাত্রার মাঝেও তার বহুমুখি প্রতিভার জানান দেন সময়ে সময়ে । ২০১৮ সালে তিনি দুটি ব্ই প্রকাশ করলেন, ২০১৯ সালে কবিতার সিডি । জুয়েল সাদত সাহিত্য সাংবাকিতায় প্রবাসী হিসাবেও দৃষ্টান্ত স্থাপন করছেন । তার সিডি বাংলাদেশের চলমান নানান ঘটনার একটি দলিল হিসাবে স্থান পাবে । অনুষ্টানের পর সিলেট শহিদ মিনার প্রাঙ্গনে কবিতার সিডি অনুভবে আলিঙ্গন নিযে জম্পেস আড্ডায় বসেন সাহিত্য প্রেমীরা । যা অনুষ্টানে নতুন মাত্রা যোগ করে ।

অনুষ্টান সমন্বয়ে এনামুল মুনিরের সাথে ছিলেন সাংবাদিক আ র ম রেনু ও সাংবাদিক খালেদ আহমদ । অনুষ্টানে উপস্থিত সকলকে সিডি উপহার দেন রুহল আমিন ও তক্বি তাহমিদ । অনুভবে আলিঙ্গন সিডিটি পাওয়া যাচ্চে সিলেট ঢাকায় পায়রা প্রকাশনীতে , সিলেটের জসিম বুক হাউসে ও প্রাকৃত প্রকাশনীতে । দেশের বাহিরে আমেরিকায় পাওয়া যাবে নিউি ইয়র্ক  এর মুক্তধারায় ।


এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইতালীতে কঠোর আইনের প্রতিবাদে প্রবাসীদের সমাবেশ

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-১১ ০১:৫০:৪১

ইতালীর বর্তমান সরকারের করা প্রবাসী বিরোধী কড়া আইন বাতিল এর দাবীতে  প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়  ভেনিসে। 

রোববার  ইতালীর "সাইড বাই সাইড" এর আয়োজনে ও ভিক্টরিয়ার নেতৃত্বে ইতালীর ও বিদেশী ছোট বড় বেশকিছু  সংগঠনের  কয়েক হাজার প্রবাসী এতে অংশ নেয়। সমাবেশে ভেনিসে বসবাসরত  বিভিন্ন দেশের  অভিবাসী প্রতিনিধিরা বক্তব্যে বলেন, ইতালীর স্বরাট্রমন্ত্রী  মাত্তেও সালভিনি ইতালীতে বসবাসরত অভিবাসীদের তাড়ানোর জন্য নতুন নতুন আইন পাশ পরে প্রবাসীদের হয়রানি করছে । আগে  স্টেপারমিট নবায়ন করতে রেসিডেন্ট কার্ড লাগতো না,  এখন রেসিডেন্ট কার্ড, বাসস্থানের বৈধতা ও কাজের কন্টাক্ট বাধ্যতামূলক করায়  বিভিন্ন দেশ হতে আগত শরনার্থীদের মানবাধিকার দেয়া হচ্ছে না। 

সমুদ্র  পথে আসা বিদেশীদের সমান অধিকার  না দেয়া,  ইতালীতে নাগরিকত্ব   দেয়ার আইন সংশোধন  করে ৪ বছর করাসহ বিভিন্ন কালো আইন বাতিলের দাবি জানানো হয়েছে ।

পিয়াচ্ছা আলে রোমা সংলগ্ন ভেনিস ট্রেন ষ্টেশনের বাইরে কয়েক হাজার প্রবাসী প্রেকার্ড,  ব্যানার ,  ফেস্টুন হাতে  স্বরাষ্টমন্ত্রী  সালভিনি র বিরুদ্ধে স্লোগান  দেয় । সে সময় ইতালীয়ান ছেলে মেয়েরা সং সেজে নিত্যের তালে বাদ্য যন্ত্র  বাজিয়ে কালো আইন বাতিল করে সকলের সমান অধিকারের দাবী জানায়। 

বিশাল এ প্রতিবাদ সমাবেশে বাংলাদেশীদের পক্ষে ভেনিস বাংলা স্কুল অংশগ্রহণ গ্রহন করে ।সমাবেশ শেষে প্রতিবাদ  মিছিলটি ভেনিসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ  সড়ক প্রদক্ষিন করে পিয়াচ্ছা সানপওলোতে গিয়ে শেষ হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বইমেলায় মাজহার সরকারের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘নেমক হারাম’

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-০৮ ১৩:১৪:৩৪

এবছর অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে কবি ও কথাসাহিত্যিক মাজহার সরকারের লেখা মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘নেমক হারাম’।

নেমক হারাম’ প্রকাশ করেছে প্রকাশনি সংস্থা ‘তাম্রলিপি, বইমেলায় বইটি পাওয়া যাবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তাম্রলিপির প্যাভিলিয়ন নাম্বার ১৪তে। প্রচ্ছদশিল্পী চারু পিন্টু, প্রায় ৩০০ পৃষ্ঠার এ বইটির মূল্য ৪০০ টাকা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনাপূর্ব থেকে একাত্তর পর্যন্ত কালনি নদীর দুই পারের মানুষ ও এক মাঝি পরিবারের দুই প্রজন্মের কাহিনী 'নেমক হারাম'। একবার ব্রিটিশদের কাছে থেকে ও পরেরবার পাকিস্তানের কাছ থেকে একই ভূখণ্ডের দুই-দুইবার স্বাধীনতা প্রাপ্তির নানা ঐতিহাসিক প্রক্রিয়ায় এক অন্ত্যজ শ্রেণির লড়াই ছড়িয়ে পড়েছে উপন্যাসের পাতায় পাতায়। জলের শরীরে বুনোহাঁসের ডানাঝাড়ার মতো কোমল সেই আখ্যান, রাতের আঁধারে গোরখোদকের মাটি খননের মতো হাই হাই অনুচ্চ স্বর, পালকের মতো নরম বিস্তার, পাথরের মতো ভারি জীবনের অগণন জিজ্ঞাসা এই বই। 'রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই' মিছিলের কেউ একজন হয়তো একবার বলে ফেলেছিল 'বাংলা ভাষা রাষ্ট্র চাই', সেই রাষ্ট্র গঠনে অশ্রুত এক চিৎকার 'নেমক হারাম'।

পাকিস্তানি ক্যাপ্টেন রুস্তম তার ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায় সরলাকে। সপ্তাহখানেক পর কালনি গাঙের মাঝি জুলহাস ক্যাম্প আক্রমণ করে উদ্ধার করলেও সরলাকে আর মেনে নেয় না গ্রামবাসী। মুক্তিযোদ্ধা জুলহাস অস্ত্র জমা দিয়ে নেমে পড়ে আরেক মুক্তি আকাঙ্খায়। এর মধ্যে সরলা গর্ভবতী হয়ে পড়ে, প্রাক্তন প্রেমিকাকে নিয়ে জুলহাস ছুটে বেড়ায় বাংলার গ্রাম থেকে গ্রামে…।

বইয়ের নাম ‘নেমক হারাম’ কেন? এ সম্পর্কে মাজহার বলেন, “মুক্তিযুদ্ধ কোনো সাধারণ যুদ্ধ নয়,এর যুদ্ধের প্রিফিক্স হিসেবে আছে ‘মুক্তি’ শব্দটা। যুদ্ধ শেষ হয়, কিন্তু মুক্তির প্রশ্ন থেকে যায়, থাকে শোষণ-বঞ্চনায় প্রভু বা মালিক এমনকি নিজের বিপরীতেও দাঁড়ানোর গণদাবি। এর বাইরে এটিকে একটি প্রেমের উপন্যাসও বলা যেতে পারে, সেখানেও আছে যুদ্ধাবস্থায় বিশ্বাসঘাতকতা।”

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস লিখতে কিভাবে উদ্ভুদ্ধ হলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, আবার দেখেছি অগণিত বই-পুস্তক-পত্রিকা-সাময়িকী পঠন-পাঠনের মধ্য দিয়ে। যুদ্ধকে হৃৎপিণ্ডে ধারণ করেছি, চারপাশ থেকে যুদ্ধের উপকরণ নিয়েছি, তারপর নিজের কল্পনাকে বিস্তার করেছি। তার প্রতিধ্বনি এ উপন্যাস, যুদ্ধ বর্ণনায় নয়- যুদ্ধের পরিণতি নিয়ে। তবে ইতিহাসকে এখানে ব্যবহার করা হয়েছে লবণের মতো, অল্প।

নেমক হারাম’মাজহার সরকারের দ্বিতীয় উপন্যাস। স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশের ছাত্ররাজনীতি নিয়ে লেখা তার প্রথম উপন্যাস ‘রাজনীতি’। বইটির জন্য তিনি ২০১৬ সালে ‘ব্র্যাক ব্যাংক সমকাল হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার’ পেয়েছিলেন।

বিস্তারিত খবর

নিউজার্সিতে বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিলের নতুন কমিটি গঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-০৫ ০০:৫৩:০৫

যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে “বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিলের” নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। ২ ফেব্রুয়ারি কাউন্সিলের সাধারণ সভায় ২০১৯-২০২১ সালের জন্য দুই বছর মেয়াদি ২৫সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা হয়, এর আগে গত সপ্তাহে ২৬শে জানুয়ারি শনিবারসভাপতি ও সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন, তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনে ছিলেনদেওয়ান বজলু চৌধুরী, সৈয়দ জুবায়ের আলী, হোসেন পাঠান বাচ্চু ।

গত ২রা ফেব্রুয়ারি শনিবার প্যাটারসন হেল্প সেন্টারে কমিউনিটির সাধারন সভা বিদায়ীসভাপতি হোসেন পাঠান বাচ্চুর সভাপতিত্বে ও বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদচৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভার শুরুতেই পেটারসন সিটির ২ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলম্যান মোহাম্মদআক্তারুজ্জামান সাহেবের বড় ভাই মোহাম্মদ আলিমোজ্জামান ফজলু সাহেবের অকালমৃত্যুতে গভীর শোক এবং তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্বাপন করে বিশেষ মোনাজাত করাহয় ।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন শাহজালাল-লতিফিয়া ইসলামিক সেন্টারের সভাপতি,কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট সৈয়দ জুবায়ের আলী, হেলডন সিটির কমিশনার দেওয়ান বজলু চৌধুরী,মোঃ আনহার মিয়া, মো. এনামুল বারী মজনু, আলাউর খন্দকার, মুনিম খালিক, পাক্ষিকদিনবদল সম্পাদক বিশ্বজিৎ দে বাবলু, নিরাপদ সড়ক চাই নিউজার্সি শাখার আহ্বায়ক আবুলকালাম, রেজাউল করিম চৌধুরী, সাইদুর রহমান, জালালাবাদ ট্রাভেলসের প্রেসিডেন্ট মাশুকআহমদ, মো: জুবের আহমদ, আব্দুল হামিদ, ফয়েজ আহমদ, মোহাম্মদ রাছেল, শায়েকহোসাইন প্রমুখ।

সভায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে দেয়ার জন্য দায়িত্ব দেয়া হয় নির্বাচন কমিশন সদস্য দেওয়ানবজলু চৌধুরী, সৈয়দ জুবায়ের আলী, বিদায়ী সভাপতি ও নির্বাচন কমিশনের সদস্য হোসেনপাঠান বাচ্ছু, বিদায়ী সাধারন সম্পাদক সেলিম চৌধুরী , নবনির্বাচিত সভাপতি মোঃ মহসিন,সাধারন সম্পাদক নুরুজ্জামান সোহেল এবং মোঃ আনহার মিয়াকে, তাঁরা পূর্ণাঙ্গ কমিটির নামঘোষনা করলে, তা সর্বসম্মতি ক্রমে গৃহিত হয় এবং সবাই করতালীর মধ্যদিয়ে সমর্থন জানান ।

বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিলের কার্যকরী কমিটির নবনির্বাচিত কর্মকর্তারা হলেন-সভাপতি মোহাম্মদ মহসিন সেলিম, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো: জুবের আহমদ, রেজাউল করিমচৌধুরী, আবুল কালাম, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান সুহেল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাঈদ-উররহমান ও ইমরান হোসেন,

অর্থ সম্পাদক শাহজাহান হান্নান সাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফর হোসেন, প্রচার সম্পাদকমাশুক আহমাদ, দপ্তর সম্পাদক দীপ্ত রায়, সাংস্কৃতিক সম্পাদক ইসতিয়াক হাছান নাহিদ,আইন বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ রাসেল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা হাসিনা পাঠান এবংকার্যকরী সদস্যরা হলেন- সেলিম আহমদ চৌধুরী, মো: আনহার মিয়া, নাসরিন সিদ্দিকী, গোলামরব্বানী, আল আমিনুল হক পান্না, আব্দুল হামিদ, মিনহাজ আহমদ, বুরহান উদ্দিন বুলু,আতিকুল ইসলাম শাহিন, আবদুর রকিব ও আবু সুফিয়ান।

এদিকে সভায় ১১ সদস্যবিশিষ্ট “বাংলাদেশি আমেরিকান কাউন্সিলের” নতুন উপদেষ্টা পরিষদগঠন করা হয়েছে। উপদেষ্টারা হলেন কাউন্সিলর শাহীন খালিক, হোসেন পাঠান বাচ্চু, দেওয়ানবজলু চৌধুরী, সৈয়দ জোবায়ের আলী, আব্দুল মালিক চুন্নু, এনামুল বারী মজনু, মুক্তা আবেদিন,আবুল হোসেন সুরমান, ফারুক আহমদ সিদ্দিকী, আলাউর খন্দকার ও কালাম আলী।

সভায় পুরানা কমিটির বিলুপ্ত করেন সভার বিদায়ী সভাপতি হোসেন পাঠান বাচ্ছু, নতুন কমিটিরসভাপতি ও সাধারন সম্পাদক এই সপ্তাহে প্যাটারসনের সকল রাজনৈ্তিক ও সামাজিকসংগঠনের সভাপতি/সম্পাদক ও কমিউনিটি নে্তৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা করে আসন্নআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ও এবং একুশের প্রথম প্রহরে প্যাটারসনের স্থায়ী শহীদমিনারে ফুল দেয়ার ব্যাপারে পরামর্শ সভা করার ঘোষনা দিয়ে সকলের উপস্থিতি ও সহযোগিতাকামনা করেন এবং তাদেরকে নির্বাচিত করায় সকলের প্রতি কৃ্তজ্ঞতা প্রকাশ করেন ।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

একুশে একাডেমীর আয়োজনে সিডনিতে বইমেলা

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-০৫ ০০:৪৮:৫৭

আসছে ১৭ই ফেব্রুয়ারি রোববার সিডনির এশফিল্ড পার্কের সবুজ চত্বরে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অমর একুশ উপলক্ষে বইমেলা’। এ উপলক্ষে গত ৩রা ফেব্রুয়ারি এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়। ড.স্বপন পাল এর সভাপতিত্বে সেমিনারে মুল প্রবন্ধ পাঠ করেন এ প্রজন্মের প্রতিনিধি অরিত্রি বড়ুয়া। প্রতিবছর মহানএকুশেফেব্রুয়ারিউপলক্ষেসিডনীরঅ্যাশফিল্ড পার্কে অনুষ্ঠিত হয় একুশের বইমেলা। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও একুশে ফেব্রুয়ারি পালনের উদ্দশ্যে প্রতি বছর একুশে একাডেমী সারাদিন ব্যাপী এই বইমেলার আয়োজন করে থাকে। মাতৃভাষা চর্চা ও তার ইতিহাস আগামী প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে অস্ট্রেলিয়ায় জন্ম নেয়া এবং বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে প্রাধান্য দিয়ে নানা আয়োজনে সাজানো হয় একুশে একাডেমী অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত এই বইমেলা।
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও অমর একুশে পালন উপলক্ষে প্রভাতফেরী ও পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে দিনটির শুরু হবে। একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বইমেলায় বইয়ের স্টল ছাড়াও থাকবে খাবার সহ অন্যান্য স্টল।বাংলাদেশের প্রথিতযশা লেখকদের বইয়ের পাশাপাশিবিক্রি হবে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বেশ কয়েকজন প্রবাসী লেখকদের বই।প্রতিবছরের মতো এবারেও বইমেলা উপলক্ষে প্রবাসী লেখকদের লেখা নিয়ে মাতৃভাষা নামে একটি সংকলন প্রকাশিত হচ্ছে।
একুশে একাডেমী অস্ট্রেলিয়া আয়োজিত অমর একুশ পালনের আয়োজনে রক্তদান কর্মসূচী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও ভাষা বিষয়ক সেমিনার ছাড়াও মূল আয়োজন থাকে এই বইমেলা।


এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ইতালীতে বাংলাদেশী সাইবার অপরাধী চক্র সনাক্ত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-০২ ১৩:৩৯:৪৬

ইতালির রাজধানী রোমে একটি দুষ্টু চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভূয়া ফেইসবুক আইডি খুলে নানা অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।  প্রশাসন এবার তাদের সনাক্ত করেছে বলে জানা যায়।

বেশ কিছুদিন আগে ইতালির সম্মানিত ব্যক্তি, নারী নেত্রীসহ রাজনৈতিক নেতাদের বিরুদ্ধে ফেক আইডি ব্যবহার করে আপত্তিকর, অসম্মানিত করে পোস্ট দেয়।
এই অপকর্ম প্রতিরোধে এগিয়ে আসেন ইতালি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল সহ ভুক্তভোগী কয়েকজন নারী নেত্রী সাইবার অপরাধের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন।  তারই ফলশ্রতিতে আদালত থেকে চিহ্নিত করা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সমন জারি করা হয়েছে।   ইতালীর পোস্টাল পুলিশ তদন্ত শেষে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছে।

মামলার অন্যতম বাদী ইতালি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল বলেন, আমরা প্রবাসী বাংলাদেশিদের মর্যাদা রক্ষা এবং একটি সুন্দর সমাজ গঠনে কাজ করছি।   কাজেই আমার দায়িত্ব বোধ থেকেই এই অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি।  সনাক্তকারী অপপ্রচারী চক্রকে ইতালির পুলিশ এবং আদালত দেখবে।  তবে তিনি সকলকে সর্তক করে দিয়ে বলেন, যারা অপপ্রচারের সাথে জড়িত, তারা যতই শক্তিশালীই হোক না কেন? প্রশাসন তাদের উপযুক্ত শাস্তি দিতে প্রস্তুত।   হাসান ইকবাল আরও জানান, আমরা আদালত থেকে চিঠি পেয়েছি।  দোষীদের শাস্তি দিতে এখন সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

একটি সূত্রে জানা যায়, নামধারী সাংবাদিক পরিচয়ে রোমে চিহ্নিত দুই অপপ্রচারকারীর এহেন কর্মকাণ্ডে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।   রোমের সামাজিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিদের কাছে চিহ্নিত ঐ চক্রকে বহু বার মৌখিকভাবে সতর্ক করার পরও তারা সত্যের পথে না এসে বার বার একই অপকর্মে করতে থাকে।

ইতালি প্রবাসীরা আশাকরেন এই অপপ্রচারকারী চক্র উপযুক্ত শাস্তি পেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বাঙগালী সমাজ অনেকটাই কলঙ্ক মুক্ত হবে।  পাশাপাশি ইতালিয়ান প্রশাসনের প্রতিও তারা কৃতজ্ঞতা জানান।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

বইমেলায় মাজহার সরকারের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘নেমক হারাম’

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-০১ ১২:০৬:৪৬

এবছর অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে কবি ও কথাসাহিত্যিক মাজহার সরকারের লেখা মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘নেমক হারাম’।

‘নেমক হারাম’ প্রকাশ করেছে প্রকাশনি সংস্থা ‘তাম্রলিপি’, বইমেলায় বইটি পাওয়া যাবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তাম্রলিপির প্যাভিলিয়ন নাম্বার ১৪তে। প্রচ্ছদশিল্পী চারু পিন্টু, প্রায় ৩০০ পৃষ্ঠার এ বইটির মূল্য ৪০০ টাকা।

‘নেমক হারাম’ এর মূল বিষয়বস্তু মুক্তিযুদ্ধ হলেও উপন্যাসে এর কাহিনী শুরু হয়েছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনাকাল থেকে। কালনি নদীর তীরবর্তী একটি গ্রামের অন্ত্যজ শ্রেণির এক মাঝি পরিবারের দুই প্রজন্মের মুক্তি-আকাঙ্খা যুদ্ধের বাস্তবতায় ছড়িয়ে পড়েছে উপন্যাসের পাতায় পাতায়।

পাকিস্তানি ক্যাপ্টেন রুস্তম তার ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায় সরলাকে। সপ্তাহখানেক পর কালনি গাঙের মাঝি জুলহাস ক্যাম্প আক্রমণ করে উদ্ধার করলেও সরলাকে আর মেনে নেয় না গ্রামবাসী। মুক্তিযোদ্ধা জুলহাস অস্ত্র জমা দিয়ে নেমে পড়ে আরেক মুক্তি আকাঙ্খায়। এর মধ্যে সরলা গর্ভবতী হয়ে পড়ে, প্রাক্তন প্রেমিকাকে নিয়ে জুলহাস ছুটে বেড়ায় বাংলার গ্রাম থেকে গ্রামে…।

বইয়ের নাম ‘নেমক হারাম’ কেন? এ সম্পর্কে মাজহার বলেন, “মুক্তিযুদ্ধ কোনো সাধারণ যুদ্ধ নয়, এর যুদ্ধের প্রিফিক্স হিসেবে আছে ‘মুক্তি’ শব্দটা। যুদ্ধ শেষ হয়, কিন্তু মুক্তির প্রশ্ন থেকে যায়, থাকে শোষণ-বঞ্চনায় প্রভু বা মালিক এমনকি নিজের বিপরীতেও দাঁড়ানোর গণদাবি। এর বাইরে এটিকে একটি প্রেমের উপন্যাসও বলা যেতে পারে, সেখানেও আছে যুদ্ধাবস্থায় বিশ্বাসঘাতকতা।”

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস লিখতে কিভাবে উদ্ভুদ্ধ হলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, আবার দেখেছি অগণিত বই-পুস্তক-পত্রিকা-সাময়িকী পঠন-পাঠনের মধ্য দিয়ে। যুদ্ধকে হৃৎপিণ্ডে ধারণ করেছি, চারপাশ থেকে যুদ্ধের উপকরণ নিয়েছি, তারপর নিজের কল্পনাকে বিস্তার করেছি। তার প্রতিধ্বনি এ উপন্যাস, যুদ্ধ বর্ণনায় নয়- যুদ্ধের পরিণতি নিয়ে। তবে ইতিহাসকে এখানে ব্যবহার করা হয়েছে লবণের মতো, অল্প।”

‘নেমক হারাম’ মাজহার সরকারের দ্বিতীয় উপন্যাস। স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশের ছাত্ররাজনীতি নিয়ে লেখা তার প্রথম উপন্যাস ‘রাজনীতি’। বইটির জন্য তিনি ২০১৬ সালে ‘ব্র্যাক ব্যাংক সমকাল হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার’ পেয়েছিলেন।

বিস্তারিত খবর

অস্ট্রেলিয়ায় ১৬ ফেব্রুয়ারি ‘ভালোবাসার বাংলাদেশ মেলা’

 প্রকাশিত: ২০১৯-০১-২৯ ১০:৫৩:০১

আসছে ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার ব্যাঙ্কসটাউনের পল কিটিং পার্কে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বছরের প্রথম মেলা ‘ভালোবাসার বাংলাদেশ’। প্রবাসী বাংলাদেশীরা ভালোবাসা দিবসকে উপজীব্য করে এই মেলার উদ্যোগ নিয়েছে। এ মেলায় বাংলাদেশী কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে ভিনদেশীদেরসাথে পরিচিত করিয়ে দিতে চলছে বর্ণিল আয়োজন।এ উপলক্ষে আয়োজক কমিটি গত ২৮শে জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

দেশ ছেড়ে বহুদূর থাকলেও প্রবাসী বাংলাদেশীরা সবসময় বাংলাদেশকে বুকে ধরণ করে রঙিন স্বপ্ন দিয়ে। আর সেই রঙেরই মেলার আয়োজন চলছে সিডনিতে। আয়োজকরা জানান এরই মধ্যে প্রায় শেষ হয়েছে স্টল বুকিং। মেলা জুড়ে আয়োজন চলছে গান, নাচ, কবিতা, ফ্যাশন ও ফিউশন, কনসার্ট। আয়োজকদের পক্ষ থেকে মাসিক মুক্তমঞ্চ সম্পাদক নোমান শামীম জানান, সিডনির প্রখ্যাত রেস্টুরেন্ট ও চটপটি-পেয়াজু-ঝালমুড়িতে স্টলে স্টলে মেতে উঠবে সিডনির সবাই, বাহারী সব রঙের পোশাকে আসবে তারুন্য, বাজবে ঢোল, সানাই সবাই হৃদয়ে। ডিজিটাল ডিসপ্লে, লেজার আর শাড়ী-চুড়িতে আবার জমবে মেলা পল কিটিং পার্ক, ব্যাঙ্কসটাউন।
ব্যাঙ্কসটাউন ট্রেন স্টেশন থেকে অল্প দুরত্বে মেলায় বিশাল পার্কিং সম্পুর্ন ফ্রি, অনুষ্ঠান শুরু হবে ঠিক ২টায়, চলবে শনিবারের গভীর রাত অবধি। মেলা কমিটির পক্ষ্ থেকে সবাইকে ফেসবুক, পোষ্টার ও ব্যানারে লক্ষ্য রাখতে অনুরোধ করা হয়েছে। মেলা উপলক্ষ্যে একটি ওয়েবসাইট ও ফেসবুক একাউন্ট খোলা হয়েছে, এসম্পর্কিত যাবতীয় তথ্যেরজন্য:www.brandingbangladesh.com.auসাইটে যোগাযোগের অনুরোধ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ‘ভালোবাসার বাংলাদেশ’ নামের এই মেলার আয়োজক হচ্ছে ব্যান্ডিং বাংলাদেশ ইনক। এই মেলায় অংশ নিতে বাংলাদেশ থেকে আসছে তরুন প্রজন্মের জনপ্রিয় শিল্পী আরেফিন রুমি ও জিঙ্গেল শিল্পী কৃতি। "ভালোবাসার বাংলাদেশ" মেলাটির এবারের টাইটেল স্পন্সর হয়েছে ওয়েস্টইন হোমস, এছাড়া সিডনির প্রখ্যাত ব্যবসায়িক স্থাপনাগুলোর মধ্যে রয়েছে লিবারা মোবাইল, গ্লোবাল একাউন্টিং এন্ড ফাইন্যান্স, ফার্স্ট চয়েস, দি ব্ল্যাক ক্যাট পার্টনার ল ফার্ম, এপলো ইন্টারন্যাশনাল, টেলিওজ, এম আই এডুকেশন, রয়াল সিটি সলিসিটরস, ক্রিস্টোফার লিভিংস্টোন এসোসিয়েটস।


এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ভেনিসে জাকজমকপূর্ণভাবে ভৈরব পরিষদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত

 প্রকাশিত: ২০১৯-০১-২৮ ১৩:৩৯:০৩

গত ২৭ জানুয়ারী রবিবার সন্ধ্যায় ইটালির ভেনিসে বাংলাদেশী কমিউনিটির সুনাম অর্জনকারী সামাজিক সংগঠন “ভৈরব পরিষদ ভেনিস” এর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ভৈরব পরিষদের প্রায় ১০৭ জন উপদেষ্টার সর্বসম্মতিক্রমে ও সকল উপদেষ্টামণ্ডলীর স্বাক্ষরের মাধ্যমে বিগত বছরের কর্মদক্ষতা যাচাই করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট এক সাংগঠনিক কার্যকরী পরিষদ গঠন করা হয়।
পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনার পর এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।আলোচনা সভা শেষে নতুন কমিটিকে পরিচয় করিয়ে দেন সংগঠনের অন্যতম উপদেষ্টা কামরুজ্জামান সাফি। আলোচনা সভা শেষে বিগত বছরের অনুষ্ঠিত কর্মসূচী নিয়ে এক আলোকচিত্র প্রদর্শনী উপস্থাপন করা হয়।
সংবর্ধনা দেয়া হয় ইতালীর প্রথম সারির স্বনামধন্য বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ভৈরবের কৃতি সন্তান জনাব মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনকে, সংবর্ধনা দেয়া হয় ১৯৮৬ সালে ভেনিসে সর্বপ্রথম পদার্পণকারী ভৈরবের সন্তান মোহাম্মদ ফরিদ মিয়াঁকে। আলোচনা সভা শেষে সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ওয়াহিদুজ্জামান এর দ্বায়িত্বে এক মনোমুগ্ধকর ঝমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। স্থানীয় ও মনফাল্কনে থেকে আগত শিল্পীদের সংগীত ও নৃত্য পরিবেশন করা হয়। সব শেষে সকল দর্শকদের জন্য এক প্রতিযোগিতামুলক লটারির আয়োজন করা হয়, লটারীতে পুরষ্কার দেয়া হয় টিভি, মোবাইল, মাইক্রোওয়েভ ওভেন সহ অন্যান্য সামগ্রী।
অনুষ্ঠানের  আলোচনা সভায় বক্ত্যব্য রাখেন ইতালীর রোম থেকে আগত ইতালীর স্বনামধন্য ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর আজীবন সম্মানিত উপদেষ্টা জনাব কাজী আব্দুল মান্নান, নবগঠিত পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা জনাব মোহাম্মদ সিরাজুল হক, উপদেষ্টা মোহাম্মদ মুসা মিয়াঁ, ইটালি আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি বিশিষ্ট আইনজ্ঞ রেহান উদ্দিন দুলাল, বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন এর সাবেক সভাপতি ও ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর আঞ্চলিক উপদেষ্টা জনাব রফিক ছৈয়াল, ভেনিস বাংলা স্কুল এর সভাপতি কামরুল সারোয়ার, বৃহত্তর ঢাকা সমিতির সভাপতি নাসির উদ্দিন, বৃহত্তর ঢাকা এসোসিয়েসন এর সাধারন সম্পাদক ও ভৈরব পরিষদ  ভেনিস এর সম্মানিত আঞ্চলিক উপদেষ্টা মোস্তাক আহমেদ, নরসিংদী জেলা সমিতির সভাপতি মনিরুল হক, আব্দুল্লাপুর আঞ্চলিক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ কুদ্দুস মিয়াঁ, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর আঞ্চলিক উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন এর যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক আবু তাহের খান ঢালী, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর সম্মানিত আঞ্চলিক উপদেষ্টা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মিলন মোহাম্মদ, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর সম্মানিত আঞ্চলিক উপদেষ্টা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নেয়ামাল চৌধুরী, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর আঞ্চলিক উপদেষ্টা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, ভৈরব পরিষদ ভেনিস এর সম্মানিত আঞ্চলিক উপদেষ্টা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শরিফুল আলম, ভৈরব পরিষদ ভেনিসের  সাধারন সম্পাদক সেলিম জাভেদ, সহ-সভাপতি আবদূর রাসেদ ভুইয়া, যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক সহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক  মোবারক হোসাইন, অর্থ-বিষয়ক সম্পাদক  মোহাম্মদ রাসিদ মিয়া প্রমুখ।
সম্মেলন উপলক্ষ্যে যুক্তরাজ্য থেকে অংশগ্রহন করেন ভৈরবের সন্তান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান,শাহ হোসেন, নাদির আযহার প্রমুখ।
উক্ত সম্মেলনে সর্বসম্মতিক্রমে কাজী আব্দুল্লাহ আল বাকি রোনাককে সভাপতি, মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম কে সাধারন সম্পাদক, সেলিম জাবেদকে সিনিয়র সহ-সভাপতি, মোবারক হোসাইনকে সাংগঠনিক সম্পাদক, রাশিদ মিয়াকে অর্থ সম্পাদক ও সানি হককে প্রচার সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী পরিষদ গঠন করা হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এএল/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত