যুক্তরাষ্ট্রে আজ মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 02:40am

|   লন্ডন - 09:40pm

|   নিউইয়র্ক - 04:40pm

  সর্বশেষ :

  ক্যালিফোর্নিয়ার ডিজনিল্যান্ড পার্ক খুলতে কর্তৃপক্ষের কাছে আপিল   যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়ালো   নির্বাচনের আগেই বিচারপতি নিয়োগের ভোট হবে সিনেটে: মিচ ম্যাককনেল   করোনার জন্য জাতিসংঘে চীনকে দায়ী করলেন ট্রাম্প   দেশে করোনায় মৃত্যু ৫ হাজার ছাড়ালো   ভিপি নূরের মামলাকে মিথ্যা বললেন ড. কামাল, দেবেন আইনি সহায়তা   বাণিজ্য করার উদ্দেশ্যে গণস্বাস্থ্যের কিটের অনুমতি দেয়নি সরকার: ডা. জাফরউল্লাহ   একের পর এক দুর্যোগে নাজেহাল ক্যালিফোর্নিয়া   ভূরাজনৈতিক বিরোধ জাতিসংঘকে যেন দুর্বল না করে: প্রধানমন্ত্রী   নূরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক মামলা   চীন-রাশিয়া থেকে অস্ত্র কিনবে ইরান   ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রথমবারের মতো সংক্রমণ ৩ শতাংশেরও নিচে   ডেঙ্গু আক্রান্তরা হতে পারেন করোনা প্রতিরোধে সক্ষম: গবেষণা   আসছে শীতে যুক্তরাষ্ট্রে 'টুইনডেমিক' আতঙ্ক   টেক্সাসে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে চারজনের মৃত্যু

>>  প্রবাসী কমিউনিটি এর সকল সংবাদ

আহমদ শফী (রহ:) ছিলেন সর্বজন শ্রদ্ধয় বুজর্গ ও উলামায়ে কেরামের সিপাহসালার: নিউইয়র্কে দুআ মাহফিলে বক্তারা

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর আমীর, দারুল উলূম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক,শায়খুল ইসলাম সাইয়্যিদ হোসাইন আহমদ মাদানী রহ,এর অন্যতম খলিফা, প্রবীণ আলেম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ: এর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা,খতমে কুরআন এবং দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।গত ২০শে সেপ্টেম্বর শনিবার বাদ মাগরিব মাদানী একাডেমী অফ নিউইয়র্ক আয়োজিত উক্ত মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক মাওলানা মুহিব্বুর রহমান।দারুল উলূম নিউইয়র্কের মুহাদ্দিস মাওলানা আজিজুর রহমান ঘোগারকুলীর সাবলীল উপস্থাপনায় সংগঠনের অস্থায়ী অফিসে অনুষ্ঠিত মাহফিলের শুরুতে কালামে হাকীম থেকে

বিস্তারিত খবর

বর্ণাঢ্য আয়োজনে নিউজার্সি স্টেট আ.লীগের বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন

 প্রকাশিত: ২০২০-০৯-২০ ১০:৫৮:৫০

নানা আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির প্যাটারসনে উদযাপন করা হয়েছে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। এ উপলক্ষে প্যাটারসন সিটির ২৭৭ ওয়াইন এভিনিউতে আয়োজন করা হয় বিশেষ দোয়া ও প্রার্থনা এবং আলোচনা সভা।

স্থানীয় সময় শনিবার নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রবাসী বাংলাদেশিসহ বিদেশি নাগরিকরা।  

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আওয়ামী লীগ নেতা ক্বারী মোহাম্মদ সিদ্দীক ও শ্রী ভগবত গীতা থেকে পাঠ করেন উপদপ্তর সম্পাদক মিল্টন দাশ। পরে বাংলাদেশ, আমেরিকার জাতীয় পতাকা ও আওয়ামী লীগের দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রবাসীরা। কেক কেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করা হয়।

আমেরিকাসহ বিশ্ববাসীর কাছে বঙ্গবন্ধুর আত্মত্যাগ তুলে ধরার জন্য আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্যাটারসন সিটি মেয়র আন্দ্রে সাঈয়া।

এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মেয়র আন্দ্রে সাঈয়া বলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত। সম্মানীত বোধ করছি। এসময় তিনি বঙ্গন্ধুর ভূয়সী প্রশংসা করেন।

মেয়র আগামী ১৬ ডিসেম্বরে সিটি হলে বাংলাশের বিজয় দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশিদের যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানান। নিউজার্সিতে বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটির প্রশংসা করেন।

আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল (সিডিসি)’র দেয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ আউটডোর প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি ও প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও  ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দীন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন  (দায়িত্বপ্রাপ্ত নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগ) ,প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম দুলাল মিয়া, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মোশাররফ আলম, কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য শাহানার রহমান, সুজন আহমেদ সাজু, কানেকটিকাট স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন আহমেদ চৌধুরী, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এ কে এম আলমগীর।


নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমল আলীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক বিশ্বজিৎ দে বাবলুর পরিচালনায় বঙ্গবন্ধুর জীবনী  ও কর্ম নিয়ে বক্তব্য রাখেন নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ফয়জুর রহমান ফটিক, সহ সভাপতি রেজাউল করিম চৌধুরী, এম এ হামিদ, আলী মুর্তজা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রকিবুল হাছান রিপন ,তাজ উদ্দীন আহমেদ (প্রভাষক), আব্দুল মুকিত, সাংগঠনিক সম্পাদক নৃপেন্দ্র কুমার পাল, সাদিক রহমান, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট হাফিজুর রহমান, যুব সম্পাদক জোবায়ের সিকদার, উপ প্রচার সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী তানিম, নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহেক হোসেন, নিউজার্সি স্টেট ছাত্রলীগ নেতা রাজু, খান শাইখুল ইসলাম নাইম প্রমুখ।

বর্ণাঢ্য এ আয়োজনে আরও উপস্থিত ছিলেন নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা  মোহাম্মদ আব্দুল হক, নাজিম উদ্দীন আজাদ, আব্দুল মতিন, সহ সভাপতি ইছহাক মিয়া , মোক্তা আবেদিন মিনা , দেলওয়ার হোসেন হেলাল, মোহাম্মদ আবদুল মন্নান, সাহেক আহমেদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ উর রহমান, সাবেক চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, হেলাল আহমেদ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সফিক উদ্দীন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক শাহাব উদ্দীন, দপ্তর সম্পাদক রাসেল মিয়া, প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক হাজী মশাহিদ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক হরে কৃষ্ণ রায়, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সিটি কমিশনার ইমরান হোসাইন,  মাসুদুর রহমান, নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য মোশাহীদ আলী,  অরুন চক্রবর্তী, রেজাউল করিম মোমিন, ফয়ছল আহমেদ,  মশাহীদুর রহমান,  ইলিয়াছ আলী মাস্টার, আসাদুজ্জামান খাঁন, নাজিম উদ্দীন লাহিন, মনোয়ার হোসেন মনু , আলী খান,  ইমামুল হক, এনায়েত করিম খোকা, শামীম আহমেদ,  মহিউদ্দীন আহমেদ আদিল, শওকত আহমেদ, ফয়ছল হোসেন,  দেলওয়ার হোসেন,  কনাই শাহ শাহীন, প্রসূন তালুকদার, এইহিয়া খান, আব্দুর রহমান, খলিল মিয়া, শাহজান সিরাজ, ফয়েজ আহমেদ, নোমান বারি ও প্রবাস জার্নালের সম্পাদক ও প্রকাশক আলমগীর হুসাইন, সিলেটি টিভির এডমিন সুজন আহমেদ এবং প্যাটারসন সিটির ২ নম্বর ওয়ার্ডের ভারপ্রাপ্ত কাউন্সিলম্যান গিলমান চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানসহ অন্যান্য বক্তারা দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান। দেশবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় প্রবাসী বাংলাদেশির সজাগ থাকার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়। দোয়া শেষে উপস্থিতদের মাঝে খাবার ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

নিউজার্সির প্যাটারসনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার ছিল প্যাটারসন এলাকা থেকে প্রকাশিত বাংলা অনলাইন পত্রিকা প্রবাস জার্নাল ও সিলেটি টিভি।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

পিপলনটেক এর ২ কোটি টাকার কোভিড রিকোভারী স্কলারশিপ পাচ্ছে ২ হাজার শিক্ষার্থী

 প্রকাশিত: ২০২০-০৯-১৬ ০৫:২৭:০৪

কোভিড-১৯ বিশ্ব অর্থনীতির ভীত যেমন নাড়িয়ে দিয়েছে, তেমনি অনেক মধ্যবিত্ত, নিম্নবিত্ত পরিবারকে ফেলে দিয়েছে দুঃসহ কষ্টের মধ্যে। এমন অস্থির সময়ে বাংলাদেশে অবস্থান করা শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান পিপলএনটেক গত ২৪ জুলাই ২ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য ২ কোটি টাকার “কোভিড রিকোভারী স্কলারশিপ” এর ঘোষণা দেয়। প্রায় ৩০ হাজার শিক্ষার্থী এই স্কলারশিপ পেতে আবেদন করেন। তাদের মধ্য থেকে লিখিত ও ভাইভা পরীক্ষার মাধ্যমে ২ হাজার শিক্ষার্থীকে স্কলারশিপের জন্য চূড়ান্ত করা হয়।

গত ১২ সেপ্টেম্বর এক ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে “কোভিড রিকোভারী স্কলারশিপ ২০২০” এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অথিতি জনাব হোসেনে আরা বেগম (এনডিসি), ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব), বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ভার্চুয়াল এই উদ্বোধনীতে বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিপ, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (পিপলএনটেক), ফারহানা হানিপ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (পিপলএনটেক), লিয়াকত হোসেন, সাধারন সম্পাদক (আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফোরাম), লায়ন মোঃ ইউসূফ খান, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (পিপলএনটেক)।

অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য দেন পিপলএনটেক উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক লায়ন মোঃ ইউসূফ। শিক্ষার্থীদের প্রতি আমাদের শুভকামনা জানিয়ে বলেন, আপনাদের মাধ্যমেই এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ, এবং প্রযুক্তি বিশ্বে মাথা উচু করে দাড়াতে পারবে বাংলাদেশ।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অথিতি লিয়াকত হোসেন তার বক্তব্যে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব তথা প্রযুক্তির বিপ্লবের জন্য বাংলাদেশকে প্রস্তুত করার কথা উল্লেখ করে বলেন, বর্তমান বাংলাদেশ দাঁড়িয়ে আছে গার্মেন্টস সেক্টরের ওপর। কিন্তু প্রযুক্তি খাতে দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তুললে সেটি আমাদের অর্থনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

পিপলএনটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারহানা হানিপ ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুবকর হানিপ তাদের বক্তব্যে পিপলএনটেকের নানা কার্যক্রমের কথা তুলে ধরেন। পিপলএনটেক এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৬ হাজারের বেশি বাংলাদেশীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে, যাদের বেশির ভাগই মেয়ে। এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের অন্যতম একটি লক্ষ্য যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করা সিঙ্গেল কিংবা বেকার মা-দের প্রযুক্তি ভিত্তিক কাজ শিখিয়ে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে তাদের পাশে দাঁড়ানো।

জনাব আবুবকর হানিপ তার বক্তব্যে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে কেউ যখন ব্যাচেলর কিংবা মাস্টার্স ডিগ্রী শেষ করে এন্ট্রি লেভেলের কোন চাকরি নেয়, তখন সে বছরে সর্বোচ্চ ৪৫-৫০ হাজার ডলার আয় করতে পারে। ১০০-১২০ হাজার ডলার আয় করতে হলে তাকে ৬/৭ বছর চাকরি করতে হয়। কিন্তু পিপলএনটেক সেখানে মাত্র ৪ মাসের প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের শিক্ষার্থীদের ১২০-১৪০ হাজার ডলারের চাকরি দিতে পেরেছে।

শুধু ব্যাচেলর কিংবা মাস্টার্স ডিগ্রীধারী নয়, গৃহিণী, রেস্তোরা কর্মীদেরকে কম্পিউটার সম্পর্কে প্রাথমিক জ্ঞান আছে এমন শিক্ষার্থীদের পিপলএনটেক, রিয়েল লাইফ প্রজেক্ট নির্ভর এমন প্রশিক্ষণ দেয়, যেন তারা চাকরি পেয়েই সেই কাজটি দক্ষতার সাথে করতে পারে। মূলত কেউ এন্ট্রি লেভেলের চাকরি করলে অভিজ্ঞতার অভাবে তাকে তার সহকর্মীদের থেকে কাজ শিখে নিতে হয়। কিন্ত পিপলএনটেকের প্রশিক্ষণের যেই মডেল, তাতে শিক্ষার্থীরা রিয়েল লাইফ প্রজেক্টের অভিজ্ঞতা নিয়েই চাকরি শুরু করতে পারে।

পিপলএনটেকের সিইও হানিপ বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়েও অভিনব এক শিক্ষা মডেল তৈরি করা নিয়ে কাজ করছেন বলে জানান। যেই মডেলের মূল লক্ষ্য বেকারত্ব দূর করা ও শিক্ষার্থীদের কম সময়ে আরও দক্ষ করে তোলা। এই মডেল অনুযায়ী একজন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের প্রথম তিন বছর একাডেমিক পড়াশোনা করবে। চতুর্থ বছর থেকে সে তার পছন্দের যেকোন একটি বিষয় বেছে নিয়ে সে বিষয়ে স্পেশালিস্ট হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলবে। যেন চাকরিতে প্রবেশ করেই সে মিড লেভেল পর্যায়ের দক্ষতা নিয়ে কাজ করতে পারে। এতে শিক্ষার্থীদের পাশ করার পর যেমন বেকার থাকতে হবে না, তেমনি কোম্পানিগুলোও উপকৃত হবে।

পিপলএনটেকের ২ কোটি টাকার আইটি বৃত্তিতে মোট ৯টি কোর্স রয়েছে। স্কলারশিপের শিক্ষার্থীরা কেউ যদি পরবর্তীতে অ্যাডভান্স কোর্স করতে চায় তবে সেক্ষেত্রে তারা ৫০% স্কলারশিপের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। যারা এবার আবেদন করে স্কলারশিপের জন্য বিবেচিত হননি, ভবিষ্যতে পিপলএনটেকের যে কোন স্কলারশিপের ক্ষেত্রে তারা অগ্রাধিকার পাবেন।

প্রধান অতিথি হোসেনে আরা বেগম পিপলএনটেকের এমন উদ্যোগের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে যেকোন প্রয়োজনে তাদের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন। সেই সাথে তিনি তথ্য প্রযুক্তি বিকাশে ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে তাদের বিভিন্ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমি নিজে হয়তো আমার প্রাতিষ্ঠানিক কাজের বাইরে এমন ভাল কাজ করার সামর্থ রাখি না যেমনটি পিপলএনটেক করার চেষ্টা করছে। তবে যারা ভাল কাজ করে তাদেরকে সহযোগীতা করতে আমি প্রাণপন চেষ্টা করি। সেই কারণে কোভিড রিকোভারী স্কলারশিপ নামের এই উদ্যোগে ২ হাজার জন শিক্ষার্থীকে আইটি প্রশিক্ষন দেবার এই উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানাই।

‘আমরা শিক্ষার্থীদের কে দক্ষ করে গড়ে তোলার জন্য কিছু সুযোগ সৃষ্টি করছি। ৭টি ইনকিউবেশন সেন্টার এর মাধ্যমে বর্তমানে ১৪০০০ শিক্ষার্থীকে আমরা প্রযুক্তি প্রশিক্ষন দিচ্ছি। আরেকটি ইনকিউবেশন সেন্টারে ২ হাজার মোট, ১৬০০০ জনকে ট্রেনিং দিচ্ছি, যার মধ্যে ৫০০০ জনের প্রশিক্ষন সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে ২১০০ জনের ট্রেনিং চলছে এবং আমরা আগামি সপ্তাহে নতুন ব্যাচ শুরু করার জন্য আবার বিজ্ঞপ্তি দিতে যাচ্ছি। সেখানে প্রযুক্তি সর্ম্পকিত কোর্স এ ট্রেনিং থাকবে, ট্রাবলশ্যুট এর উপর থাকবে সাথে যার যেই দিকে মনোযোগ আছে যেমন মেশিন লার্লিং, আইওটি ইত্যাদি নিয়ে আমরা ট্রেনিং দিচ্ছি।’

শেখ হাসিনা ইনন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি প্রতিষ্টার অগ্রগতির খবর ও জানান মিসেস হোসনে আরা বেগম।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

ভণ্ড পীরের পাল্লায় পড়ে প্রবাসী গৃহবধূর দেশে পলায়ন

 প্রকাশিত: ২০২০-০৮-২৮ ০৮:০২:৫৬

ঢাকার এক কথিত পীর ও তার স্ত্রীর পাল্লায় পড়ে গৃহত্যাগ করেছেন আমেরিকা প্রবাসী এক গৃহবধূ (৪১)। সম্প্রতি এই ঘটনা ঘটেছে মেরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের সিলভার স্প্রিং  শহরে। গৃহবধূ এখন ঢাকায় পীরের বাসায় অবস্থান করছেন।  এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। গাজীপুর জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার ভাদার্ত্তী গ্রামে গৃহবধূর বাড়ি। ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, চার বছর আগে পীরের এক মুরিদের মাধ্যমে  ফোনালাপে পীরের সঙ্গে তার পরিচয় হয়।

পীর ও তার তার কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী ফোনের মাধ্যমে ধর্মীয় বাণী ও নানাভাবে প্রার্থনার করার পদ্ধতি শিখিতে আকৃষ্ট করে গৃহবধূকে।  এভাবে এক পর্যায়ে পীর ওই গৃহবধূর কাছে টাকা দাবি করলে গৃহবধূ নিয়মিত প্রতি মাসে দুইশত ডলার ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের মাধ্যমে পাঠাতে থাকে।

ভোক্তভোগীরা জানায় বিভিন্ন দেশে পীরের অনেক ভক্ত রয়েছে যারা পীরকে প্রতিমাসে মাসোহারা দেয় প্রার্থনার জন্য।

গৃহবধূ এক পর্যায়ে এতো বেশি মোহাবিষ্ট হয়ে যায় যে, একটা সময় ঘরে ধুপ জ্বালিয়ে দরজা বন্ধ করে বিশেষ কায়দায় নেচে নেচে প্রার্থনা করতো। গৃহবধূর স্বামী বারণ করলে পুলিশের ভয় দেখাতো।

গৃহবধূর এমন আচরণে স্বামীকে পীরের কথিত স্ত্রী তাদের পালক ছেলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। পালক ছেলের সাথে নিয়মিত ফোনালাপে ঘনিষ্ঠতা বেড়ে গেলে পীরের স্ত্রী তাকে বিয়ে বসার প্রস্তাব দেয়।  এবং বিয়ে করে বাংলাদেশে চলে যেতে বলে। কথিত স্ত্রী আরো বলে, প্রতি সোমবার তাদের ঘরে যীশু আসেন।  যীশু এসে বলেছেন, তোমার স্বামী ভালো না যেকোন সময় তোমাকে মেরে ফেলবে, তাই এখনই স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে দেশে চলে এসো।

অন্ধ ভক্ত গৃহবধূ হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে স্বামীকে ডিভোর্স পেপার দিয়ে রাতের আঁধারে  গত ১২ আগস্ট পালিয়ে দেশে চলে যায়। এবং সাথে নিয়ে যায় চৌদ্দ বছরের একমাত্র কন্যার পাসপোর্ট, স্বামীর সিটিজেনশিপ সার্টিফিকেট, স্বর্ণালংকার ও ক্যাশ ডলার।  
অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার ফোন নাম্বার ও ব্যাংক একাউন্ট ট্র্যাগ করে জানা যায় সে দেশে চলে গেছে।  এবং পীরের পালিত ছেলের সাথে কোর্ট ম্যারেজ করে। উল্লেখ্য  এখানে তাদের কোনো ডিভোর্স হয়নি।  আমেরিকা আইনে ডিভোর্স সম্পন্ন হতে দেড় থেকে দুই বছর সময় লাগে। গৃহবধূ চলে যাওয়ার চারদিন পরে সময় ডিভোর্স লেটার হাতে পায় স্বামী । 

এদিকে ঢাকার মহাখালী ১১৫/১৫ পীরের নিজস্ব ফ্ল্যাটে অবস্থানরত ঐ গৃহবধূ জানায়, স্বামীর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে চলে এসেছি এবং বিয়ে করেছি।  অবুঝ  কন্যাকে কেন ফেলে এসেছেন? উত্তরে গৃহবধূ বলেন, এই কন্যা আমার না তার দায়িত্ব আমি নিতে পারবো না। 

মহাখালীর স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, কথিত এই পীর দীর্ঘদিন ধরে ধর্মের দোহাই দিয়ে এই ব্যবসা চালিয়ে আসছে। ভয়ে কেউ কিছু বলছে না।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, কথিত এই পীরের বাড়ি ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জের দেওতলা গ্রামে।  পীরের প্রথম স্ত্রী সন্তানসহ বাপের বাড়ি চলে গেলে পীর ধর্মের বয়ান দিয়ে মানুষকে আকৃষ্ট করতো।  এক পর্যায়ে বক্সনগরের এক মহিলা মুরিদের সাথে প্রেমে জড়িয়ে পড়লে অঞ্চলের মানুষ তাকে পিটিয়ে গ্রামছাড়া করে। এক পর্যায়ে পীর ঢাকার দক্ষিণ মহাখালীর একটি বাসায় ধর্ম ব্যবসা  শুরু করে। 
পীরের প্রথম টার্গেট তরুণদের।  ঘরে এনে তাদের ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট করে তোলে। এবং যারা তার ফাঁদে পা দেয় তাদের  ছেলে বানিয়ে নামের পদবি এফিডেভিট করে  পিতার নামের জায়গায় তার  নাম বসিয়ে দেয় এবং ইনকামের জন্য বিদেশ পাঠায়।

বর্তমানে পীরের দুই পালিত ছেলে এবং একটি নিজের একটি ছেলে রয়েছে।  দেশ বিদেশ থেকে  মুরিদদের  পাঠানো অর্থে পীর মহাখালীর ১১৫/১৫ নম্বরের ফ্ল্যাটটি কিনে।  এছাড়া তার নাম বেনামে রয়েছে কয়েকটি প্লট ও গচ্ছিত টাকা।

পীরের দ্বিতীয় টার্গেট সুন্দরী তরুণী।  প্রথমে তাদের মেয়ে বানিয়ে কৌশলে ঘরে এনে বড় পালক ছেলের সাথে বিয়ে করিয়ে দেয়।  এই বিয়ে এক থেকে দুই মাস টিকে পরে মেয়েরা পালিয়ে যায়।  এই পর্যন্ত বড় পালক ছেলে আমেরিকা গৃহবধূ সহ চারটি বিয়ে করেছে। এর মূল কাজ হচ্ছে শুধু বিয়ে করা। আমেরিকা প্রবাসীকে ভাগিয়ে আনার উদ্দেশ্য হচ্ছে এক ছেলেকে আমেরিকা যাওয়ার ভিসা সংগ্রহ করা।

সম্প্রতি পীরের এই চাঞ্চল্যকর ঘটনায়  এলাকায় গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসীর দাবি, অচিরেই এই কথিত পীরের গ্রেফতর করে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দাবি। করেন এই পর্যন্ত কথিত এই পীর  সংসার তছনছ করে দিয়েছে।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবারের শোক দিবস পালন

 প্রকাশিত: ২০২০-০৮-১৭ ১৪:০৮:১৩

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবার ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু ৪৫তম সাহাদত বাষির্কী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালন করলো।  যুক্তরাস্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য ও দেশের বাহির বিশেষ করে বাংলাদেশ ও মালয়শিয়া থেকে অনেকেই ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেছিল। অনুষ্ঠানের কর্মসূচিতে মধ্যে ছিলঃ ১) শহীদের স্বরণ, ২) দোয়া ও প্রার্থনা, ৩) বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি, ৪) বঙ্গবন্ধুর স্বরণে কবিতা ও সঙ্গীত পরিবেশনা এবং ৫) বঙ্গবন্ধু হত্যা পরবর্তী রাজনীতি ও আজকের বাংলাদেশ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথী ছিলেনঃ বাংলাদেশ সরকারের সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুক্তিযোদ্ভা শাহজাহান খান এমপি।
বিশেষ অতিথী ছিলেনঃ ১) হাজী দানেশ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এমিরিট্যাস প্রফেসর ডঃ আফজাল হোসেন, ২) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ- উপাচার্য ডঃ মুহামদ সামাদ, ৩) যুক্তরাস্ট্র আত্তয়ামী লীগের সাবেক সাধারন  সম্পাদক শামীম চৌধূরী, ৪) বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইনিসস্টিটিউটের  সাধারন  সম্পাদক খায়রুল আলম প্রিন্স।
ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর পরিবার পরিজন ও  সকল শহীদের উদ্দেশে ১ মিনিট নিরবতা পালন ও দোয়া করা হয়। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়া দেশে ও বিদেশে যারা করোনা সংক্রামণে আক্রান্ত, তাদের রোগমুক্তি কামনা করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন- শেখ হাসিনা মনচের সভাপতি জালালউদ্দিন জলিল।
অনুষ্ঠানের  স্বাগত বক্তব্যে বাকসু’র সাবেক জিএস  আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর বঙ্গবন্ধুর সাথে বিভিন্ন সময়ে দেখা নিয়ে স্রৃতিচারণ মুলক বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানের মডারেটর ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিঃ মোহম্মদ আলী সিদ্দিকী।
অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর উপর কবিতা পাঠ করেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচায্য কবি ডঃ মুহমদ সামাদ, যুক্তরাস্ট্র বসবাসরত প্রক্ষ্যাত আবৃতিকার গোপন সাহা, স্বরচিত কবিতা পাঠ আওয়ামী লীগ নেতা শরীফ কামরুল আলম হিরা।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন জলি কর। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সঙ্গীত পরিবেশন করেন স্বাধীন বাংলা বেতারের প্রক্ষ্যাত শিল্পী শহীদ হাসান। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর উদ্দেশ্যে রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশন করেন- মহিলা আওয়ামী লীগ নেএী রুমানা আকতার।
প্রধান অতিথী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান খান এমপি, তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন- পৃথিবীতে চন্দ্র, সূর্য যেমন সত্য। বাঙ্গালী ও বাংলাদেশে ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু তেমনি সত্য, কোন শক্তিই এ সত্য মুছে ফেলতে পারবে না। স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী দেশী ও বিদেশী শক্তি যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায় নাই। তারাই ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট  বঙ্গবন্ধুক স্বপরিবারে নিষ্ঠুর নির্মম ভাবে হত্যা করেছে। পৃথিবীতে এধরনের হত্যা নজীর বিহীন। বঙ্গবন্ধুর এ হত্যার বিচার ২১ বছর আটকে রাখা হয়েছিল। অনেক চড়াই উওাইয়ে ৩৫ বছর পর বঙ্গবন্ধুর এ হত্যার বিচারের রায় পাওয়া যায়। জননেএী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্দ্ধের পক্ষের শক্তি আজ দেশ পরিচালনা করছে। দেশ আজ অনেক দুর এগিয়েছে।  জননেএী শেখ হাসিনার উন্নয়নের এ অগ্রযাএায় প্রবাসী বাঙ্গালীদের এগিয়ে আসার আহবান জানাচ্ছি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথীবৃন্দ বঙ্গবন্ধু হত্যা, হত্যা পরবর্তী রাজনীতি ও আজকের বাংলাদেশের উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য দেন।
অন্যান্যদের মাঝে আলোচনায় যারা অংশ নেন তারা হলেন- মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসাইন, মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন তালুকদার, সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন , এ্যাডঃ শাহ মোহম্মদ বকতিয়ার, মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান চৌধূরী, শাহনাজ মমতাজ, জালালউদ্দিন জলিল, ইঞ্জিঃ মিজানুল হাসান, মঞ্জুর চৌধূরী, মোহম্মদ আকতার হোসেন, মুন্সি উদ্দিন, ছাদেকুল বদরুজামান পান্না, মাহাবুবুল খসরু, শেখ জামাল হোসেন, মোহম্মদ মাঈনদ্দিন, মোঃ আলমগীর, দেলোয়ার হোসেন মোল্লা, নাদের আলী মাষ্টার, মিজনুর রহমান চৌধূরী, ও শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। কনফারেন্সে আরও সংযুক্ত ছিল- রমেশ নাথ, এমএ করিম জাহাঙ্গীর, মেসবা অহমেদ, ফরিদ আলম, ইলিয়ার রহমান, আশাফ মাসুক, জাকির হোসেন হিরু ভূইয়া, কায়কোবাদ খান, মঞ্জুর চৌধূরী, হেলাল মাহমুদ, সুবল দেবনাথ, আশরাফ উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম সরকার, সিবুল মিয়া, মোল্লা মাসুদ, ইঞ্জি: হাসান, টি মোল্লা, আবুল কাশেম ভুইয়া, উৎফত মোল্লা, রহিমুজ্জামান সুমন, রিণ্টু লাল দাস, ফরিদা আরভি, আতাউর রহমান তালুকদার, হেলেমউদ্দিন, ইফজাল চৌধূরী, মাহাবুবুল খসরু, জামাল বস্ক, মোঃ আলীমউদ্দিন, জাহিদ হাসান, শারমিন তালুকদার, রাহিমুল হুদা, সহ আরো অনেকে।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

নিউজার্সিতে আ.লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন

 প্রকাশিত: ২০২০-০৮-১৬ ১৩:৫৬:৪৮

যথাযথ মর্যাদা এবং ভাবগাম্ভীর্যের সাথে জাতীয় শোক দিবস এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার বিকেলে পেটারসন সিটির ২৭৭ ওয়াইন এভিনিউতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ সভায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এ সময় বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানান প্রবাসীরা। নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদ ও উপদেষ্টা পরিষদের পাশাপাশি নিউজার্সি স্টেট যুবলীগ, ও ছাত্র লীগের বিপুল সংখ্যক নেতৃবন্দ উপস্থিত ছিলেন।করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল (সিডিসি)’র দেওয়া সামাজিক দূরত্ব বজায়সহ সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাই ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ইছহাক মিয়ার সভাপতিত্বে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মোশারফ আলম। সভা পরিচালনা করেন নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ দে বাবলু।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রেজাউল করিম চৌধুরী, মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ, আলী মুর্তজা, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম মো: আনোয়ার সাদাত, নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ উর রহমান, আসকার আহমেদ, সাদিকুর রহমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট এবি এম জাফরান, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট হাফিজুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ রাসেল মিয়া, জনসংযোগ সম্পাদক অরুন চক্রবর্তী  , আওয়ামী লীগ নেতা বেলাল আহমেদ উপ প্রচার সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী তানিম, নিউজার্সি স্টেট ছাত্রলীগ নেতা শাহেখুল ইসলাম নাঈম।

আলোচনা সভায় নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মোহাম্মদ আব্দুল হক, ফয়জুর রহমান ফটিক, ইলিয়াছ আলী মাস্টার, নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, নৃপেন্দ্র পাল, হেলাল আহমেদ, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক শাহাব উদ্দীন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শফিক উদ্দীন, প্রবাসী কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক হাজী মশাহিদ আলী, নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী পরিষদের সদস্য আসাদুজ্জুমান খান, দেবব্রত চক্রবর্তী, আব্দুল মন্নাফ, প্রসূন কান্তি তালুকদার, সেলিম মিয়া, শামীম আকবর, হেলাল মিয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রবাষক তাজ উদ্দিন আহমেদ সহ নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ও ছাত্র লীগের বিপুল সংখ্যক নেতৃবন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও পবিত্র গীতা পাঠ এবং ১৫ আগস্টের শোকাবহ দিনে জাতির পিতাসহ নিহত পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচালিত বাংলাদেশের সার্বিক কল্যাণ ও মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

লস এঞ্জেলেস কনস্যুলেটে জাতীয় শোক দিবস পালন

 প্রকাশিত: ২০২০-০৮-১৬ ০৮:০৪:৩৯

লস এঞ্জেলেসস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। ১৫ আগস্ট কনস্যুলেটের বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে সে সব অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

কনস্যুলেটে কনসাল জেনারেল কর্তৃক জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার মধ্য দিয়ে কর্মসূচির সূচনা করা হয়। অতঃপর বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এবং ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ করার পর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। পাশাপাশি জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জীবন কাহিনির উপর নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র 'বঙ্গবন্ধু- বজ্রে তোমার বাজে বাঁশি' প্রদর্শিত হয়। আয়োজিত অনুষ্ঠানে লস এঞ্জেলেসে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল বলেন, বঙ্গবন্ধু তাঁর নিজস্ব স্বকীয়তায় আজ বিশ্বের দরবারে বাঙালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা হিসেবে সম্মানিত। তিনি বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী ঘাতকচক্র ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যা করলেও তাঁর আদর্শ ও নীতিকে মুছে ফেলতে পারেনি। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকার এ জঘন্যতম হত্যার সাথে জড়িত ঘাতকদের শাস্তি দিয়ে জাতিকে গ্লানি থেকে মুক্ত করেছেন।

কনসাল জেনারেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক গৃহীত উন্নয়ন কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সকলকে যার যার অবস্থান থেকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কনস্যুলেটের উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্রের বহুল প্রচারিত দৈনিক 'খড়ং অহমবষবং ঞরসবং' এ রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী প্রকাশিত হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এল

বিস্তারিত খবর

আল-জাজিরাকে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-২৫ ০৫:৩৯:৩২

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে সাক্ষাৎকার দেওয়া বাংলাদেশি শ্রমিক রায়হান কবিরকে গ্রেপ্তার করেছে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ।

দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খাইরুল দিজামি দাউদের বরাত দিয়ে মালয় সংবাদমাধ্যম হারিয়ান মেট্রো শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে।

৩ জুলাই আল-জাজিরার ‘লকডআপ’ শিরোনামের একটি প্রামাণ্যচিত্রে দাবি করা হয়েছিল, লকডাউনের সময় অভিবাসী শ্রমিকদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করেছে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ। এতে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন রায়হান কবির। এতে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে জানায়, রায়হান কবিরের ওয়ার্ক পারমিট (ভিসা) বাতিল করেছে ইমিগ্রেশন বিভাগ। তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। এর আগে তাকে আত্মসমর্পণ করতে হবে।

শুক্রবার হারিয়ান মেট্রো জানিয়েছে, কুয়ালালামপুরের একটি কনডোমিনিয়ামে লুকিয়ে ছিলেন রায়হান কবির। সেখান থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে চমকিত করলো প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিকের চিঠি

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-২৩ ০৩:৪০:৩২

স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের সুনির্দিষ্ট ইউনিফর্ম নির্ধারণ নিয়ে লেখা ফ্রান্স প্রবাসী সাংবাদিক ফায়সাল আইয়ূবের একটি চিঠি প্রেসিডেন্ট অ্যামানুয়েল মেক্রনকে চমকিত করেছে। এজন্য প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে তাকে বিশেষ ধন্যবাদও জানানো হয়েছে। বুধবার প্রেসিডেন্টের দফতর শনজেঁলিজি থেকে প্রেরিত চিঠিতে এসব কথা বলা হয়েছে।

তিন সপ্তাহ আগে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমান্যুয়েল মেক্রন বরাবরে ফ্রান্সের পাবলিক স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের একটি সুনির্দিষ্ট ইউনিফর্ম নির্ধারণ করার জন্য পত্র লিখেছিলেন ফ্রান্স প্রবাসী সাংবাদিক ফায়সাল আইয়ূব। ২২ জুলাই বুধবার দুপুরে প্রেসিডেন্ট দফতরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা রোদরিগ ফোরসি স্বাক্ষরিত এই পত্রের জবাব পেয়েছেন ফায়সাল আইয়ূব। চিঠিতে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ পরামর্শমূলক চিঠির জন্যে ফায়সাল আইয়ূবকে বিশেষ ধন্যবাদ জানান। বিষয়টি তাকে চমকিত করেছে উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট বলেছেন, এটি তার মনোযোগ আকর্ষণ করেছে।
চিঠিতে প্রেসিডেন্ট ফায়সাল আইয়ুবকে একটি বিশেষ রেফারেন্স নাম্বারও দিয়েছেন, যেটি ব্যবহার করে তিনি ভবিষ্যতে ইমান্যুয়েল মেক্রনর কাছে যে কোনো বিষয়ে সরাসরি লিখতে পারবেন।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইউরোপের অন্যান্য দেশে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের নির্দিষ্ট ইউনিফর্ম থাকলেও ফ্রান্সের পাবলিক স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্যে কোনো ইউনিফর্ম নেই। আর এজন্যই চিঠি লিখেন সাংবাদিক ফায়সাল আইয়ূব।
চিঠিতে তিনি বলেন- বর্তমানে উন্নয়নশীল এমনকি অনুন্নত দেশের সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একটি নির্দিষ্ট ইউনিফর্ম থাকে। পক্ষান্তরে ফ্রান্সের মতো একটি উন্নত দেশে এমনটা নেই— যা অনেকের কাছেই বিস্ময়ের উদ্রেক করে।
ইউনিফর্মের বিষয়টা এখানে শুধু সৌন্দর্য বর্ধনেই সীমাবদ্ধ নয়— নির্দিষ্ট ইউনিফর্ম না থাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় যে বৈষম্য সৃষ্টি হচ্ছে সেটা হলো যে, একটি উচ্চবিত্ত পরিবারের শিক্ষার্থী যখন একটি উন্নত ব্রান্ডের জামা জুতা নিয়ে স্কুলে আসে এবং তার সহপাঠী অথবা সহপাঠিনী যখন তা দেখে তখন স্বাভাবিকভাবে তার মন খারাপ হয়। কারণ, অনেকের পক্ষেই সব সময় ব্র্যান্ডের জামা জুতা পরা সম্ভব নয়।
আপাতদৃষ্টিতে বিষয়টি কারো কাছে গুরুত্বহীন মনে হতে পারে, তবে তা মোটেও গুরুত্বহীন নয়। সৃষ্টি হয় যেটা শিক্ষার্থীদের মারাত্মক মানসিক পীড়ার কারণ হয়ে যায়। এমন রাষ্ট্রসৃষ্ট বৈষম্যে বহু শিক্ষার্থী মানসিকভাবে নিচু হয়ে যায়, কোণঠাসা হয়ে পড়ে। আমি তো মনে করি বৈষম্যহীন দেশখ্যাত ফ্রান্সে এই বৈষম্য শিগগির দূর করা প্রয়োজন।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

নিউজার্সিতে বাংলাদেশি মোহাম্মদ হোসাইনের কৃতিত্বের সঙ্গে বিবিএ ডিগ্রি লাভ

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-২০ ১১:১৯:৩১

যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের মন্টক্লিয়ার স্টেট ইউনির্ভার্সিটি থেকে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে (ফিন্যান্স)’র উপর সাফল্যের সাথে ব্যাচেলর ডিগ্রি লাভ করেছেন ‍নিউজার্সির প্যাটারসন সিটিতে বসবাসকারী বাংলাদেশি-আমেরিকান মোহাম্মদ এ হোসাইন।

মোহাম্মদ এ হোসাইন নিউজার্সির বাংলাদেশি কমিনিউটির পরিচিত মুখ হাজী তজমুল আলী‘র সন্তান। মোহাম্মদ এ হোসাইন‘র বড় ভাই মোহাম্মদ হোসেন ফয়ছল নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ।
মোহাম্মদ তার এ ফলাফলের জন্য তার ডিপার্টমেন্টের সকল শিক্ষক এবং পিতা-মাতা সহ সবার কাছে কৃতজ্ঞ। তিনি ভবিষ্যতে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (ফিন্যান্স)-উপর উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে মানুষের সেবা করতে চান।

মোহাম্মদ এ হোসাইন‘র জন্ম বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার ৭নং সিংচাপইড় ইউনিয়নের বানি কান্দি গ্রামে। তার উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এন

বিস্তারিত খবর

ফ্লোরিডা প্রবাসী সাংবাদিক জুয়েল বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি নির্বাচিত

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-১৯ ১৩:৫০:১২

সাংবাদিক কলামিষ্ট ও প্রবাসের অন্যতম মুখপাত্র প্রবাসের নিউজের সম্পাদক জুয়েল সাদত বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সহাপতি হিসাবে মনোনিত হয়েছেন । ইতিপুর্বে তিনি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন বন ও পরিবেশ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন ।

কমিউনিটি একটিভিষ্ট জুয়েল সাদত বহুমাত্রার একজন সংগঠক হিসাবে বিগত আঠার বছর থেকে সেন্ট্রাল ফ্লোরিডায় যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখেছেন । গত বছর তিনি সেন্ট্রাল ফ্লোরিডার বাংলাদেশ সমিতি কতৃক কমিউনিটি এওয়ার্ডে ভুষিত হয়েছেন । সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তিনি তার নানান কার্যক্রম চালিয়ে যাচেছন । করোনা কালিন সময়ে আমেরিকায় যে কজন সাংবাদিক উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রেখেছেন তার মধ্য জুয়েল সাদত অন্যতম । তিনি গত মার্চ মাস থেকে দেশ বিদেশের নানান টিভিতে আলোচক, মডারেটর, হোষ্ট ও করোনা বিশ্লেষক হিসাবে প্রশংসনিয় ভুমিকা রেখেছন । তার জনপ্রিয় “হ্যালো আমেরিকা‘ “গুড আফটা্রনুন ইউ এস এ “ জুয়েল শো “ ও “আমেরিকা জার্নাল“ বহুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে । তিনি একজন জনপ্রিয় টিভি এ্যংকর হিসাবে নানান  মাধ্যমে জড়িত আছেন । করোনা কালীন সময়ে জুয়েল সাদতের নানান আউট সাইটের লাইভ প্রশংসিত হয়েছে।

জুয়েল সাদতের প্রকাশিত গ্রন্থ ৬ টি  । তার কবিতার সিডি  অনুভ্বে আলি্ঙ্গন দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে । আগামী ২০২১ শে বই মেলাতে তার তিনটি বই প্রকাশিত হতে যাচেছ । তার ২৬৭ পৃষ্টার ইংরেজী বই “ আমেরিকা ব্রোকেন ইউংস ”নিয়ে তিনি খুব আশাবাদী । বই টি ইংরেজী মাধ্যমের স্কুল গুলোতে সমাদ্রিত হবে বলে তিনি আশাবিাদী । জুয়েল সাদত তার সাদত ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সিলেট ‍ ব্রাম্মনবাড়িয়াতে চার টি মাদ্রাসা পরিচালনা করে আসছেন । তিনি লন্ডনের অন্যতম চ্যারিটি ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের ট্রাষ্ট্রি । এছাড়াও তিনি প্রবাসীদের অন্যতম চ্যারিটি গ্রীন ক্রিসেন্ট সোসাইটির গভর্নর হিসোবে দায়িত্ব পালন করছেন ।

তিনি তার সাদত ফাউন্ডেশনের মা্ধ্যমে প্রতি বছর ফ্রি ওমরা  প্রজেক্ট  ও বছর ব্যাপি ফ্রি হুইল চেয়ার প্রজেক্ট চালিয়ে আসছেন। বহুমাত্রিক গুনের অধিকারী ও স্পষ্টভাষী সাংবাদিক জুয়েল সাদতকে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এ কে এম দাউদুর রহমান মিনা, সিনিয়র সভাপতি মো জাকির হোসেন বাদল  ও সাধারন সম্পাদক ড. জাফর ইকবাল গত ১৩ জুন কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব প্রদান করেছেন , পাশাপাশি তিনি বিদেশের কমিটি তৈরীতে ভুমিকা রাখবেন বলে তাকে দায়িত্ব প্রদান করেছেন । সিলেটের কৃতি সন্তান জুয়েল সাদত ফোবানার সাথেও গত ৬ বছর থেকে জড়িত রয়েছেন । ফোবানার মিডিয়া কমিটিতে তিনি উজ্জ্বল ভুমিকা রেখে চলেছেন ।

জুয়েল সাদত উত্তর আমেরিকা প্রথম আলোর স্পেশাল করসপনডেন্ট হিসাবে জড়িত আছেন । চার সন্তানের জনক জুয়েল আমেরিকার সবচেয়ে পপুলার এমিউজমেন্ট পার্ক ডিজনি ওয়ার্ল্ডে কর্মরত রয়েছেন । তিনি ইতোমধ্যে দেশ বিদেশের নানা সম্মামনায় ভুষিত হয়েছেন । তিনি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নানান জার্নালে বিগত দুশক থেকে নিয়মিত লিখে যাচেছন ।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এন

বিস্তারিত খবর

ইতালি উপকূলে ৩৬২ বাংলাদেশি উদ্ধার

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-১২ ০৫:৩৭:০৫

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেওয়ার সময় ইতালি উপকূল থেকে ৩৬২ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে সে দেশের কর্তৃপক্ষ। ইতালির ল্যাম্পেদুসা দ্বীপের কাছ থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত বাংলাদেশিদের বহনকারী দুটি নৌকার একটিতে ৯৫ জন ও অপরটিতে ২৬৭ জন বাংলাদেশি নাগরিক রয়েছেন বলে শনিবার ইতালির সংবাদমাধ্যম দ্য লোকাল জানিয়েছে।

গত দুই দিনে লিবিয়া ও তিউনিসিয়া উপকূল থেকে ৯টি নৌকায় করে ৫ শতাধিক লোক ইতালির ল্যাম্পেদুসা দ্বীপে পৌঁছেছেন। এর মধ্যে দুটি নৌকা লিবিয়া থেকে গিয়েছে।

বাংলাদেশিসহ এশিয়া ও আফ্রিকার অভিবাসন প্রত্যাশীরা  নৌকাযোগে ইতালি পৌঁছানোর চেষ্টা করেন প্রায়ই। তাদের অনেকেরই নানা দুর্ঘটনায় সাগরে সলিল সমাধি হয়।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

কুয়েত থেকে দেশে ফেরার আশঙ্কায় আড়াই লাখের বেশি বাংলাদেশি

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-১১ ০৭:৩৮:১৯

কুয়েত সরকার তার দেশ থেকে অভিবাসীদের সংখ্যা কমিয়ে আনতে একটি প্রবাসী কোটা বিল প্রণয়ন করেছে বলে খবর প্রকাশ হয়েছে। জানা গেছে, ঐ খসড়া আইনে বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য মাত্র ৩ ভাগ কোটা প্রস্তাব করা হয়েছে। এই আইন পাশ হলে দেশটিতে অবস্থানরত আড়াই লাখের বেশি অভিবাসীকে ফেরত আসতে হতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, কুয়েতে মোট জনসংখ্যা ৪৩ লাখ, এর মধ্যে ৩০ লাখ অভিবাসী। শতাংশের হিসেবে যা প্রায় ৭০ ভাগ। কুয়েতের মোট জনসংখ্যার ৭০ ভাগ অভিবাসী হওয়ায় দেশটির সরকার সম্প্রতি উদ্যোগ নিয়েছে অভিবাসীর সংখ্যা পর্যায়ক্রমে ৩০ শতাংশে নামিয়ে আনতে। যেন জনতাত্ত্বিক ভারসাম্য রক্ষা করা যায়। এ লক্ষ্যে কুয়েতের পার্লামেন্টের একটি কমিটি সম্প্রতি এ সংক্রান্ত খসড়া কোটা বিল অনুমোদন করে। প্রস্তাবিত বিল আইনে পরিণত হলে আড়াই লাখেরও বেশি বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হবে। সেখানে বিভিন্ন দেশের অভিবাসীদের বিভিন্ন কোটায় ভাগ করে ফেরত পাঠানোর প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

কুয়েতি গণমাধ্যমে এমন খবর প্রচার হতে দেখেছেন কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম। তাই প্রস্তাবিত এই বিলটির আইনে পরিণত হওয়া নিয়ে বেশ আতঙ্কে আছেন সেখানে অবস্থানরত প্রবাসীরা।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

নিউজার্সির বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ফাবিহা চিকিৎসাবিজ্ঞানে উচ্চতর ডিগ্রি নিতে চায়

 প্রকাশিত: ২০২০-০৭-১১ ০৩:২০:৫৪

যুক্তরাষ্ট্রের দ্বাদশ গ্রেডের সমাপনী পরীক্ষায় নিউজার্সি অঙ্গরাজ্যের প্যাটারসন সিটির ইন্টান্যাশনাল হাইস্কুলের ছাত্রী বাংলাদেশি আমেরিকান ফাবিহা চৌধুরী সম্মিলিত জাতীয় মেধা তালিকায় কৃতিত্বের সহিত তৃতীয় স্থান অর্জন করে হাইস্কুলে গ্র্যাজুয়েশন  সম্পন্ন করেছে ।

ফাবিহা নিউজার্সির বাংলাদেশ কমিনিউটির পরিচিত মুখ রেজাউল করিম চৌধুরী ও গোলশানা চৌধুরী’র কনিষ্ঠ সন্তান। ফাবিহার পিতা রেজাউল করিম চৌধুরী নিউজার্সি স্টেট আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এবং সুনামগঞ্জ জেলা জনকল্যাণ সমিতি নিউজার্সি যুক্তরাষ্ট্র ইনক্'র বর্তমান সহসভাপতি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক ।

ফাবিহা তার এ ফলাফলের জন্য স্কুল শিক্ষক এবং পিতামাতা ও বড় ভাইও বোনের কাছে কৃতজ্ঞ। সে ভবিশ্যতে নিউজার্সির রাটগার্স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে মানুষের সেবা করতে চায়।

ফাবিহা’র জন্ম বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নের মধুরা পুর গ্রামে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

নর্থ মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ৬৪ বাংলাদেশি আটক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৬-২৪ ১২:৩৭:২০

দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের বলকান অঞ্চলের দেশ নর্থ মেসিডোনিয়ায় ৬৪ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে একটি ট্রাক থেকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে।

পুলিশের বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার (২২ জুন) নিয়মিত টহলের সময় ৬৪ জন বাংলাদেশি অভিবাসীকে আটক করা হয়।

গ্রিসের সঙ্গে দেশটির সীমান্তের কাছাকাছি মহাসড়ক থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক অভিবাসীদের সীমান্তের কাছে গেভগেলিজা নামক একটি শহরে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ২৩ জুন এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয় নর্থ মেসিডোনিয়ার পুলিশ। তবে আটক হওয়া অভিবাসীদের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য দেয়নি তারা।

প্রতিবছরই বহু বাংলাদেশি ভয়ংকর পথ পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করে। অবৈধ এসব রুটের অন্যতম একটি রুট হলো যুগোস্লাভিয়ার ভেতর দিয়ে কথিত ‘বলকান অভিবাসন রুট’। এই রুট ২০১৫ সাল থেকে বন্ধ রয়েছে। এছাড়া বর্তমানে করোনার কারণে বন্ধ রয়েছে গ্রিস ও নর্থ-মেসিডোনিয়া সীমান্তও। তবে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, সীমান্ত সরকারিভাবে বন্ধ থাকলেও সেখান দিয়ে এখনও মানবপাচার অব্যাহত রয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

করোনায় মারা গেছেন এক হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি

 প্রকাশিত: ২০২০-০৬-১৫ ১৩:৪০:৪১

প্রবাসে করোনাভাইরাসে প্রায় ১ হাজার বাংলাদেশি মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সারা বিশ্ব স্তব্ধ হয়ে গেছে। এই করোনাভাইরাসের কারণে বহু মৃত্যুও ঘটছে। যা সত্যিই আমাদের জন্য দুঃখজনক ঘটনা।

সোমবার আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ কৃষক লীগের বৃক্ষরোপণ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এই করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণ করছে। যারা করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছে, আমি তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করি, শান্তি কামনা করি। এর হাত থেকে পৃথিবী মুক্তি পাক।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনাভাইরাস যেমন আমাদের অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতি হচ্ছে, মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষতি হচ্ছে, কাজের ক্ষতি হচ্ছে। এটাও যেমন ঠিক আবার প্রাকৃতিক ভারসাম্য যেভাবে নষ্ট হচ্ছিল। এসবের খারাপের দিক থাকার পরও আমি একটা ভালো দিক দেখতে পাচ্ছি। প্রাকৃতিক ভারসাম্য যেটা নষ্ট হয়েছিল, ওজন লেয়ার যেটা সৃষ্টি হয়েছিল। প্রকৃতি যেখানে সম্পূর্ণরূপে দূষিত হয়ে যাচ্ছিল। দূষণ যেভাবে পৃথিবীকে গ্রাস করছিল, করোনাভাইরাস আসার পর এই যে ৩/৪ মাস লকডাউন। এর ফলে প্রকৃতি কিন্তু হেসেখেলে উঠেছে। সবুজে সবুজে ভরে যাচ্ছে। ফুলে ফলে ভরে যাচ্ছে। এটাও কিন্তু প্রকৃতির অদ্ভূত একটা খেলা।

করোনাভাইরাস মহামারী সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা কৃষি ভর্তুকির জন্য আলাদা করে রেখেছি। কারণ, পেটে খেলে পিঠে সয়। এবার করোনাভাইরাসের জন্য বিশ্বে যে দুর্ভিক্ষ দেখা দিচ্ছে, খাদ্যের যে অভাব বাংলাদেশে যেন সেই অভাবটা না হয় সেজন্য আমরা বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। যাতে আমার দেশের কোনো খাদ্যে সমস্যা না হয়।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এন

বিস্তারিত খবর

ক্যালিফোর্নিয়ায় নার্সিং হোমে করোনায় প্রথম প্রবাসী বাংলাদেশির মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০২০-০৬-০৩ ০৫:৪১:০৯

লস এঞ্জেলেসের অদূরে অরেঞ্জ কাউন্টিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। অরেঞ্জ কাউন্টির আরবাইন নিবাসী বাবু চৌধুরী নামের এই প্রবাসী গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় ফ্রেঞ্চপার্ক নার্সিংহোমে ইন্তকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর।

তার এক আত্মীয়ের সূত্রে জানা যায়, বাবু চৌধুরী পেশায় একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ছিলেন। কয়েকদিন আগে তার হার্ট অ্যাটাক হয়। এছাড়া তিনি নিউমোনিয়ায় ভুগছিলেন। ৮ দিন আগে তার করোনা পজিটিভ আসে। অসুস্থতা নিয়ে তিনি নার্সিং হোমে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আজ সকালে মৃত্যুবরণ করেন।

       স্ত্রী-সন্তানদের সাথে বাবু চৌধুরী


বাবু চৌধুরীর দেশের বাড়ি খুলনায়। ৯০ এর দশকে তিনি আমেরিকা আসেন। দীর্ঘদিন এলএ কাউন্টির লংবিচে বাস করেছেন। গত ১০ বছর ধরে আরবাইন শহরে বসবাস করছেন। মৃত্যুকালে ৩ তিন ছেলে ও স্ত্রীকে রেখে গেছেন। স্ত্রী লীনা চৌধুরী, বড় ছেলে লনি চৌধুরী সান্তা ক্লারিটা থাকেন, মেঝ ছেলে অভি চৌধুরী আটলান্টা আর ছোট ছেলে নাসির চৌধুরী থাকেন আরবাইনে। 

পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী শুক্রবার পাম ডেল মসজিদে জানাযা ও দাফন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশীকে গুলি করে হত্যা করল মানবপাচারকারীরা

 প্রকাশিত: ২০২০-০৫-২৮ ১৪:৫৯:০০

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশীসহ ৩০ অভিবাসী শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের পরিবারের লোকজন। নিহত বাকি চারজন আফ্রিকান।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) লিবিয়ার সংবাদমাধ্যমে এ খবর জানিয়ে বলা হয়েছে, সাহারা মরুভূমি অঞ্চলের মিজদা শহরের এ ঘটনায় আরও ১১ জন আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, বাংলাদেশীসহ ওই অভিবাসীদের মিজদা শহরের একটি জায়গায় টাকার জন্য জিম্মি করে রেখেছিল মানবপাচারকারী চক্র। এ নিয়ে এক পর্যায়ে ওই চক্রের সাথে মারামারি হয় অভিবাসী শ্রমিকদের। এতে এক মানবপাচারকারী মারা যায়। তারই প্রতিশোধ হিসেবে সেই মানবপাচারকারীর পরিবারের লোকজন এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়।

এ বিষয়ে লিবিয়ার পশ্চিমা-সমর্থিত জাতীয় সরকার (জিএনএ) জানিয়েছে, মানবপাচারকারী চক্র ও অভিবাসী শ্রমিকদের মধ্যে যে বিরোধ চলে আসছিল, তার জেরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। আহতদের নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) লিবিয়া কার্যালয়ের মুখপাত্র সাফা সেহলি বলেন, আমরা এই মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের খবরটি শুনেছি এবং বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছি। যারা বেঁচে গেছেন তাদের পাশে আছে আইওএম।

মোয়াম্মার গাদ্দাফির সময় থেকে তৈল-নির্ভর অর্থনীতির দেশ লিবিয়া উন্নয়নশীল দেশগুলোর অন্যতম বড় শ্রমবাজার। এই দশকের শুরুতে আরব বসন্তের জেরে গাদ্দাফির পতনের পর গৃহযুদ্ধ বেঁধে গেলে লিবিয়ার শ্রমবাজারও ধাক্কা খায়। এক পর্যায়ে দেশটি হয়ে ওঠে ইউরোপে পাড়ি দেয়ার প্রধানতম রুট।

অন্যদিকে জিএনএকে পশ্চিমা দেশগুলো স্বীকৃতি দিয়ে এলেও সেখানে ভিন্ন ভিন্ন অঞ্চলে ভিন্ন ভিন্ন গোষ্ঠীর শাসন কায়েম রয়েছে। ক্ষমতার সংঘাতে লিবিয়ায় প্রায়ই বেসামরিক লোকজনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

করোনা: বিভিন্ন দেশে ৪৭২ বাংলাদেশির মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০২০-০৫-০৮ ১৩:২৪:২৪

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত অন্তত ৪৭২ বাংলাদেশি মারা গেছেন। বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের দূতাবাস, প্রবাসী কমিউনিটি ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

এর মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। শুক্রবার (৮ মে) পর্যন্ত কেবল যুক্তরাষ্ট্রেই করোনায় অন্তত ২৩৪ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়। যদিও শেষ ২৪ ঘণ্টায় এখানে নতুন করে আর কোনো বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। কেবল মৃত্যু নয়, আক্রান্তের দিক দিয়েও এ দেশে ঝুঁকির মধ্যে আছেন বাংলাদেশিরা। কয়েকশ’ করোনা আক্রান্ত বাংলাদেশি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি মারা গেছেন যুক্তরাজ্যে। এখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অন্তত ১২৩ বাংলাদেশি।

বিশ্বের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যেই করোনার প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। এ দুই দেশে প্রবাসী বাংলাদেশির সংখ্যাও বিশ্বের অন্য দেশগুলোর চেয়ে তুলনামূলক বেশি। ফলে দুইখানেই বাংলাদেশিদের করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের ঘটনা তুলনামূলক বেশি।

এর বাইরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবে এখন পর্যন্ত ৬৫ বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে।  এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৫ জন, ইতালিতে ৮,  কানাডায় ৭, স্পেনে ৫, কাতারে ৪,  কুয়েতে ৩,  সুইডেনে ২,  লিবিয়ায় ১,  ফ্রান্সে ১,  পর্তুগালে ১, গাম্বিয়ায় ১,  দক্ষিণ আফ্রিকায় ১ ও কেনিয়ায় ১ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

সিঙ্গাপুরেই সবার আগে প্রবাসী এক বাংলাদেশির করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া গেলেও সেখানে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে কোনো বাংলাদেশির মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। যদিও আক্রান্ত ৪ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি।

বিস্তারিত খবর

করোনা পরিস্থিতিতে বিপদগ্রস্থ মানুষের পাশে বাফলা

 প্রকাশিত: ২০২০-০৫-০৩ ০৯:২৮:৩৩

করোনায় কর্মহীন অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস (বাফলা)। গত শনিবার সিলেট নগরীর গোটাটিকর ষাটঘর এলাকাসহ আশপাশের কয়েটি গ্রামে কর্মহীন ১৩০টি পরিবারের মাঝে বাফলা চ্যারিটির উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

বাফলা চ্যারিটির কো-অর্ডিনেটর জসীম আশরাফী জানান, কোভিড-১৯ বাফলা এসিস্ট্যান্ট প্রোগ্রামের আওতায় আগামী ৩ মাস বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে খাদ্য সহায়তা ও চিকিৎসকদের পিপিইসহ চিকিৎসা সামগ্রী দেওয়া হবে।

এছাড়াও, করোনা পরিস্থিতিতে লস এঞ্জেলসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলের প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝেও সেবাগুলোও পৌঁছে দিচ্ছে সংস্থাটি।

করোনা ভাইরাসের কারণে সর্বসাধারণকে ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করেছেন বাংলাদেশ সরকার। অনেক হতদরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবার লক ডাউনের কারনে কাজে যেতে পারছেন না। সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যাক্তিও খাদ্য সহায়তা প্রদান করছেন। মানবতার এই শ্রেষ্ঠ উদাহরণ হলো মানবসেবা। এরই মধ্যে বাফলা’র পক্ষ থেকে হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী ঘরে নিয়ে পৌঁছে দেওয়া হয়।

সিলেটে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সমন্বয়ন করেন বাফলার পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি আব্দুস সামাদ।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার পলাশ রঞ্জ দে, মোগলাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার হোসেন, সাংবাদিক শিপন আহমদ, মুরব্বি লাল মিয়া, হারুন মিয়া, মুহিবুর রমান রনি, শদিুল ইসলাম প্রমূখ।

প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে পলাশ রঞ্জ দে বলেন, মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, এই দূর্যোগ মুহুর্তে আমাদের প্রবাসীরা তাদের মাতৃভূমিকে ভুলেনি। তারা প্রবাসে খুব বেশি ঝুঁকির মধ্যে থেকেও বাংলার সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করছেন। সব চেয়ে বেশি ঝুঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র এরপরও বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস (বাফলা ) নিজের দেশের গরীব হতদরিদ্র ১৩০টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করছেন। আমি বাফলাকে ধন্যবাদ জানাই। বাফলার মত আরো অনেক প্রবাসী সংগঠন এগিয়ে আসছেন আমি তাদেরকেও ধন্যবাদ জানাই। এখন আমরা যে যার অবস্থান থেকে মানুষকে সাহায্য করবো। তিনি সবাইকে এই দূর্যোগ মুহুর্তে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
আব্দুস সামাদ জানিয়েছেন, প্রতিষ্ঠাকাল থেকে দেশ-বিদেশে জনকল্যাণমূলক কাজ করে আসছে বাফলা। করোনাভাইরাসের এই সময়েও ‘কোভিড-১৯ বাফলা এসিস্ট্যান্স প্রোগ্রাম’ শিরোনামে সহযোগিতা কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি এক ভার্চুয়াল মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এজন্য ১০ হাজার ডলারের টার্গেট নিয়ে ফেসবুক ফান্ডরাইজিং চলছে।
এই ফান্ড থেকে ৪টি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে:

১. করোনার প্রভাবে আর্থিক ক্ষতিগ্রস্থ লস এঞ্জেলেসের স্থানীয় পরিবারগুলোর মধ্যে সহযোগিতার জন্য জরুরি খাদ্য পণ্য বা নগদ অর্থ প্রদান।

২. লস এঞ্জেলেস এবং আশপাশের সিটিতে মাস্ক বিতরণ।

৩. বাংলাদেশে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগিতা।

৪. বাংলাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদেরকে পিপিই প্রদান।



বাফলার প্রেসিডেন্ট শিপার চৌধুরী জানিয়েছেন, কারও আশপাশের কেউ করোনার কারণে কোন বিপদে বা আর্থিক সঙ্কটে থাকলে আমাদের অবগত করুন। আমরা তাদের পাশে দাঁড়াবো। যে কেউ চাইলে এই ফান্ডে অনুদান প্রাদান করতে পারেন। অনুদানের পাশাপাশি আপনার জাকাতের টাকাও দিতে পারেন বাফলা চ্যারিটির ফান্ডে। বাফলা IRS 501(c)(3) tax deductible status. আপনার টাকা সম্পূর্ণ ট্যাক্স মুক্ত।
সাহায্যের জন্য আমাদের কাছে অনেকে আবেদন করেছেন। যেহেতু বাফলা শুরু থেকেই চ্যারিটির কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। আপনারা জানেন আমরা সবাই আর্থিক সঙ্কটে‌। বাফলার নেতৃবৃন্দও এর বাইরে নয়। তারপরেও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমরা মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

করোনায় মৃত্যু: ব্রিটিশ মন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে বললেন বাংলাদেশি ছেলে

 প্রকাশিত: ২০২০-০৪-২৮ ১১:০৮:২০

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ব্রিটেনে বাংলাদেশি এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার জন্য ভুল স্বীকার করে ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে বললেন ঐ চিকিৎসকের ছেলে।

আব্দুল মাবুদ চৌধুরী ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা (এনএইচসের) একজন চিকিৎসক ছিলেন। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পূর্ব লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি।

এতে ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকককে ক্ষমা চাইতে বলেন ১৮ বছর বয়সী ছেলে ইনতিসার চৌধুরী।

তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ভাইরাসটি মোকাবেলা করতে গিয়ে যেসব ভুল হয়েছে তা স্বীকার করুন। এতে আপনি আরও বেশি মানবিক হয়ে উঠবেন।’

ঐ চিকিৎসকের ছেলে আরও বলেন, ‘আজকের সংবাদ সম্মেলনের সময় আপনি কি দয়া করে আমাদের জন্য জনগণের কাছে এই ক্ষমাটুকু চাইতে পারবেন?’

সরকারি হিসেবে ব্রিটেনে অন্তত ৮২ জন এনএইচএস কর্মী এবং ১৬ জন কেয়ার কর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

এদের মধ্যে একজন হলেন বাংলাদেশি চিকিৎসক আবদুল মাবুদ চৌধুরী। তিনি মৃত্যুর আগে স্বাস্থ্য কর্মীদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সামগ্রী বা পিপিইর বিষয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে সতর্ক করে ছিলেন।

তিনি এক খোলা চিঠিতে লিখেন, ‘প্রিয় প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, দয়া করে ব্রিটেনে এনএইচএসের সমস্ত স্বাস্থ্যকর্মীর জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষার জিনিসপত্র নিশ্চিত করুন। আমাদেরও অধিকার আছে এই পৃথিবীতে সন্তান এবং পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকার।’


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশির মৃত্যু ২০০ পেরিয়েছে

 প্রকাশিত: ২০২০-০৪-২৭ ০৮:০২:২৯

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশির মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ পেরিয়ে গেছে। ২৬ এপ্রিল আরও তিন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে আমেরিকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২০১ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হলো।
গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে নিউইয়র্কে ২৬ এপ্রিল মৃত্যুর সংখ্যা ৪০০-এর নিচে নেমে এসেছে। এদিন রাজ্যে মৃতের তালিকায় ৩৬৭ জনের নাম যুক্ত হয়েছে।

এদিকে ২৬ এপ্রিল মৃত্যুবরণকারী বাংলাদেশিরা হলেন-জাসাসের সাধারণ সম্পাদক হেলাল খানের বাবা আবদুন নুর খান, নিউইয়র্ক নগরীর ট্রাফিক বিভাগের সুপারভাইজার আহসান মোহাম্মদ ও ওয়াশিংটন ডিসিতে খাদিজা বেগম ।

তবে হাসপাতালে ভর্তি, ভেন্টিলেশনে যাওয়া ও মৃতের হার ক্রমাগত কমার দিকে হলেও দিনে ১০০০ করে নতুন রোগীর হাসপাতালে আগমন ঘটছে। এ বিষয়টা মোটেই সুখকর নয় বলে উল্লেখ করেছেন রাজ্য গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো। করোনাভাইরাসে রাজ্যের ১৭ হাজার মানুষ হারিয়ে ধাপে ধাপে সব কিছু খুলে দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে নিউইয়র্কে। ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই নাকাল হতে থাকা নিউইয়র্ক হুট করেই খুলছে না। গভর্ণর কুমো ধাপে ধাপে খোলার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। প্রথম ধাপে নিউইয়র্কের ওয়েস্টচেষ্টার এলাকা ১৫ মে থেকে খুলে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ নিয়ে রাজ্য গভর্নরের বিস্তারিত নির্দেশনা এ সপ্তাহেই আসবে।

নিউইয়র্ক, নিউজার্সি ও কানেকটিকাট মিলে লকডাউন উঠিয়ে দেওয়ার কৌশল ঠিক করা হচ্ছে। আগামী ১৫ মে পর্যন্ত জারি থাকা লকডাউন চালু থাকবে। এর মধ্যে আসছে দুই সপ্তাহ কঠোর পর্যবেক্ষণ করা হবে। অর্থনৈতিক কৌশল ও জনস্বাস্থ্য সংরক্ষণের কৌশলকে মাথায় রেখে কাজ করা হচ্ছে বলে নিউইয়র্কের গভর্নর জানিয়েছেন। এ ছাড়া স্বাস্থ্য সাবধানতা অবলম্বন করে প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের কৌশল ঠিক করবে।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

লস এঞ্জেলেস প্রবাসী জিকু বড়ুয়ার মায়ের মৃত্যু, এলএ বাংলা টাইমস সিইও’র শোক

 প্রকাশিত: ২০২০-০৪-২৪ ১৬:২৯:৩৮

লস এঞ্জেলেস প্রবাসী কমিউনিটি এক্টিভিস্টি নিরুপম বড়ুয়া (জিকু)-এর মা পারুল বড়ুয়া আর নেই। তিনি গত বুধবার রাতে হার্ট স্ট্রোক করে চট্টগ্রামে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়সে হয়েছিল ৫৫ বছর।   

পারুল বড়ুয়া ২ ছেলে, এক মেয়ে ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখেছেন। বড় ছেলে  নিরুপম  বড়ুয়া (জিকু) লস এঞ্জেলেস প্রবাসী।‌ ছোট ছেলে রিপন বড়ুয়া‌ এসএসসির ফলপ্রার্থী এবং মেয়ে‌ বৃষ্টি বড়ুয়া বিবাহিত।
 
জিকু বড়ুয়া জানিয়েছেন, পারুল বড়ুয়া দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। গত বুধবার হঠাৎ হার্ট স্ট্রোক করে তিনি মৃত্যু বরণ করেন।

এলএ বাংলা টাইমসের সিইও’র শোক:
কমিউনিটি এক্টিভিস্টি নিরুপম বড়ুয়া (জিকু)-এর মায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন এলএ বাংলা টাইমসের সিইও আব্দুস সামাদ। এক শোক বার্তায় তিনি তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে বলেন, লস এঞ্জেলেস প্রবাসীদের অতি পরিচিত মুখ জিকু বড়ুয়ার মায়ের আকস্মিক মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। আমরা তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। সৃষ্টিকর্তা তাদেরকে মা হারানোর এই শোক সইবার ক্ষমতা দিন।


এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

নিউজার্সিতে বাসায় থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে করোনা থেকে সুস্থ ছাত্রলীগনেতা

 প্রকাশিত: ২০২০-০৪-২৩ ০৫:১৩:১৬

কোভিড নাইনটিনের দোহাই দিয়ে অভিবাসী দেশ আমেরিকায় অস্থায়ীভাবে সব ধরনের অভিবাসন স্থগিত করছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।আগামী  গত বুধবারএ বিষয়ে এক নির্বাহী আদেশ জারি করবেন তিনি। এদিকে লক ডাউন খুলে দেওয়া নিয়েও বিতর্ক চাঙ্গা। সব মিলিয়ে এক অস্থির দেশ স্বপ্নের আমেরিকা।অন্যদিকে আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক দিয়ে সমান তালে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আমেরিকার পাশাপাশি দুটি রাজ্য নিউইয়র্ক ও  নিউজার্সি ।করোনা রোগী সামাল দিতে সেখানকার হাসপাতালগুলো রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে।

ঠিক সে সময় নিউজার্সিতে হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে নিজ বাসায় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সম্পুর্ণ সুস্থ হয়েছেন রাজু খান নামে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ।

নিউজার্সির প্যাটরসন সিটিতে বসবাসকারী  নিউজার্সি স্টেট ছাত্রলীগ নেতা ও নিউজার্সি ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার টেকনোলজি এন্ড মেডিকেল ইনফোরম্যাটিক্স ডিপার্টমোন্টের শেষবর্ষের ছাত্র রাজু খান কিভাবে করোনা সংক্রমিত হয়েছিলন সেটা তিনি বুঝতেই পারেন নাই।
রাজু জনান  ১৪-১৫দিন আগে জ্বর, সর্দি কাশি অনুভব করেন ,প্রথমে স্বাভাবিক সিজনাল জ্বর মনে করে ২ দিন বাসায় থাকার পর যখন  জ্বর কমেনি এবং জ্বরের সাথে প্রচণ্ড মাথাব্যথা শুরু হয় তখন, সে নিজে থেকে পেসাইক কাউন্টি ড্রাইভ ত্রো কোবিড ১৯ টেস্টিং সাইটে গিয়ে দীর্ঘ তিন ঘন্টা দাড়িয়ে থেকে করোনা টেস্টের জন্য নমুনা জমা দেন।জমা দেওয়া পর রাজুকে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে দ্বায়িত্বে থাকা স্বাস্থকর্মীরা বলেন টেস্টের রেজাল্ট যদি পজিটিভ হয় তাহলে ৭২ঘন্টার ভিতরে থাকে জানানো হবে আর নেগেটিভ হলে রিপোর্ট আর দেয়া হবেনা ।

এরপর ঠিক ৭২ ঘন্টা পরে তাকে ফোন করে জানিয়ে দেওয়া হয় তার নমুনা পজিটিভ এবং বাসায় আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ নির্দেশ দেন এবং তার প্রাইমারী চিকিৎসক  ড. রেহেনা রব ডি এন পি এর সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়।আর  শ্বাস-প্রশ্বাস কষ্ট হলেই হাসপাতালে যেতে।

এরপর থেকে প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট টাইমে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চিকিৎসা নিয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সাধারণ সর্দি জ্বর কাশির ওষুধ গ্রহন করে ১৪দিন আইসোলেশনে থেকে সম্পুর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেন।

করোনা মুক্ত হওয়ার পর রাজু জানায় করোনা পজিটিভ থাকলেও হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে নিজ বাসায় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আইসোলেশনে থেকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থেকে সাধারণ প্রতিরোধের নিয়ম মেনে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার খেয়ে খুব সহজেই করোনা মুক্ত হওয়া যায়।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এএল

বিস্তারিত খবর

আমেরিকায় আরও ৯ জনসহ ১৮৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০২০-০৪-২২ ০৯:০১:৫৮

আমেরিকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও নয়জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আমেরিকায় ১৮৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হলো। লকডাউনের সীমাবদ্ধতার কারণে তথ্য সংগ্রহে সমস্যা হওয়ায় এ সংখ্যার কিছুটা তারতম্য হতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হওয়া বাংলাদেশিরা হলেন-সিরাজুল ইসলাম, আবদুর রাজ্জাক, বাবুল ইসলাম, শফি হায়দার, বিদ্যুৎ দাস, আতাউর রহমান চৌধুরী, আবদুস সালাম খান, আবদুল খালেক ও আবু জাহের ।

করোনায় মৃত্যু হওয়া আবদুস সালাম খান (৭৬) জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ারের শ্বশুর। তিনি ২১ এপ্রিল লং আইল্যান্ডের নর্থশোর হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, পাঁচ মেয়ে ও নাতি-নাতনিসহ বহু আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন। মরহুমের দেশে বাড়ি সিলেট জেলার বিয়ানিবাজার উপজেলার কুড়ার বাজার ইউনিয়নের আঙ্গারজুর গ্রামে।

এদিকে নিউইয়র্কে ছোট ভাইয়ের পর বড় ভাইয়েরও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে। তিন সপ্তাহের ব্যবধানে একই পরিবারের দুজনের মৃত্যুতে শোকে বিহ্বল হয়ে আছে পরিবারের সদস্যরা। টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ইউএসএর সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক মোহাম্মদ খান রাজেশের বড় ভাই শফি হায়দারের (৫৪) ২১ এপ্রিল মৃত্যু হয়। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩০ মার্চ থেকে ম্যানহাটনের মাউন্টসিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাঁর ছোট ভাই সাইফুর হায়দার খান আজাদ (৪৭) করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন। মরহুম শফি হায়দারের স্ত্রী মাসুমা পারভীন তাঁদের ছোট মেয়েকে নিয়ে বাংলাদেশে বেড়াতে গিয়ে আটকা পড়েছেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্কের প্রিয়মুখ প্রকৌশলী বিদ্যুৎ দাস ২১ এপ্রিল স্থানীয় সময় রাত আটটা পাঁচ মিনিটে হাসপাতালে পরলোক গমন করেন। বেশ কিছুদিন থেকেই তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বিদ্যুৎ দাস যুক্তরাষ্ট্র হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টানন ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী কেকা দাস, কন্যা কুহু ও পুত্র আকাশকে রেখে গেছেন। তিনি স্ট্যাটেন আইল্যান্ডে বাস করতেন।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এন

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত