যুক্তরাষ্ট্রে আজ বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল, ২০২০ ইং

|   ঢাকা - 04:47am

|   লন্ডন - 11:47pm

|   নিউইয়র্ক - 06:47pm

  সর্বশেষ :

  স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির ভাইয়ের গোডাউনে ৬৩০ বস্তা চাল   করোনার মধ্যে বিয়ে করায় সরকারি কর্মকর্তা বরখাস্ত   আইসিইউ থেকে ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে   ঢাকায় বাড়ি থেকে করোনা রোগীর ভাইয়ের পলায়ন, সন্ধানে পুলিশের মাইকিং   করোনা: স্পেনে কমছে মৃতের সংখ্যা   করোনায় মারা গেলেন গার্মেন্টস মালিক   যুক্তরাজ্যে ভয়াবহ আকারে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা   নারায়ণগঞ্জ থেকে নীলফামারী যাওয়া পোশাক শ্রমিক করোনা আক্রান্ত   লস এঞ্জেলেসের করোনা সংক্রমণ যে কারণে চীন থেকে ভিন্ন   করোনায় মানসিক দুশ্চিন্তা কাটাতে ‘হেলথ ডেস্ক’ খুলেছে গভর্নর নিউসোম   করোনায় বেকার ভাতার আবেদন করল ১ কোটি লোক   ট্রাম্পের ধন্যবাদের জবাবে যা বললেন মোদি   সব ধরনের চিকিৎসা সেবায় ৬৯ বেসরকারি হাসপাতাল প্রস্তুত   জার্মান নাগরিকরাও ঢাকা ছাড়ছেন   যেভাবে জীবাণুমুক্ত করবেন প্রতিদিনের বাজার

মূল পাতা   >>   স্বদেশ

বরিশালে সব খেয়াঘাট বন্ধ করেছে জেলা প্রশাসন

বরিশাল প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ২০২০-০৩-২৬ ০৪:৩০:৫৩

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশাল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে  জেলার সব খেয়াঘাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান  জানান, একটি খেয়ায় বহু লোক একসঙ্গে পারাপার হচ্ছে। তাই খেয়া পারাপার বন্ধ না করা হলে গণজমায়েত বন্ধ হচ্ছে না। সার্বিক দিক বিবেচনা করে সব খেয়াঘাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

জেলাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, স্বাস্থ্য ও প্রশাসন বিভাগের যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা ছাড়া কেউ অযথা ঘর থেকে বের হবেন না। আর নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগপণ্য ও ওষুধের দোকান ছাড়া কিছুই খোলা রাখা যাবে না।
অন্যদিকে, সরকারি ছুটি ও করোনা আতঙ্কে নগরের রাস্তাঘাট ফাঁকা হয়ে পড়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে প্রতিদিনের ব্যস্ত নগরের চেহারা অন্য রকম। নগর ও বিভিন্ন উপজেলায় সাধারণ মানুষের আনাগোনা অনেকটাই কমে গেছে। নগরের সড়ক ও জেলার মহাসড়কে গণপরিবহন না থাকায় যানবাহনের সংখ্যা কমে গেছে। নগরে কমেছে মোটরসাইকেল ও রিকশা চলাচলও।ফলে শহরের রাস্তাগাট ফাঁকা হয়ে পড়েছে।

এদিকে প্রধান সড়কগুলোতে কোথাও অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা না থাকলেও বিভিন্ন মহল্লার গলিতে চায়ের দোকান খোলা থাকার খবর পাওয়া গেছে। যেখানে সাধারণ মানুষ নিরাপত্তা বজায় রাখা থেকে দূরে থাকছে। জেলাজুড়ে পুলিশ, র‌্যাবের পাশাপাশি সেনা সদস্যরাও টহল দিচ্ছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার পাশাপাশি প্রতিটি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ও স্থাপনা ঘিরে জীবানুনাশক স্প্রে ছিটানো হচ্ছে।



এম/এইচ/টি

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ৪৯ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত