আপডেট :

        ফিলিস্তিনকে এবার রাষ্ট্র হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিয়েছে আর্মেনিয়া

        বন্যার পানিতে নৌকাডুবি, মেডিকেল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

        বন্যার পানিতে নৌকাডুবি, মেডিকেল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

        বিষধর রাসেলস ভাইপার সাপের কামড়ে এক কৃষকের মৃত্য

        বিষধর রাসেলস ভাইপার সাপের কামড়ে এক কৃষকের মৃত্য

        প্রবাসীদের আয়ে ভর করে বাড়ল রিজার্ভ

        প্রবাসীদের আয়ে ভর করে বাড়ল রিজার্ভ

        রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লি পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

        রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লি পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

        কোরআন অবমাননায় শাস্তি স্বরূপ পর্যটককে 'জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা'

        একটু ধাক্কা লাগলে আওয়ামী লীগ সরে যাওয়ার পাত্র নয়ঃওবায়দুল কাদের

        একটু ধাক্কা লাগলে আওয়ামী লীগ সরে যাওয়ার পাত্র নয়ঃওবায়দুল কাদের

        ৭০০ থেকে ৮০০ কোটি ডলার পাচার হয় বলে ডলার-সংকট

        সূর্যের ফিফটিতে শক্ত পুঁজি ভারতের

        ট্রেজারি বিল ও বন্ডে ব্যাংকের বিনিয়োগ বৃদ্ধি

        দুর্নীতি মামলায় জামিন পেয়েছেন ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল

        বিষাক্ত মদ পানে ৩৭ জনের মৃত্যু

        বিষাক্ত মদ পানে ৩৭ জনের মৃত্যু

        লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ ইইউ সদস্য দেশ সাইপ্রাসকেও সতর্ক করেছে

        ইফাত রাজস্ব কর্মকর্তারই ছেলে, জানালেন এমপি নিজাম

পদত্যাগ করতে পারেন এটর্নি জেনারেল বার

পদত্যাগ করতে পারেন এটর্নি জেনারেল বার

ছবি: এলএবাংলাটাইমস

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই পদত্যাগের কথা ভাবছেন এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার৷ জানুয়ারির ২০ তারিখ নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় বসবেন জো বাইডেন।

এটর্নি জেনারেল অফিসের ঘনিষ্ঠ সূত্র গণমাধ্যমে এই তথ্য ফাঁস করেছেন। সূত্র জানায়, ট্রাম্পের উপর অখুশি উইলিয়াম বার। তবে এখনো পদত্যাগের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেননি তিনি।

মূলত এটর্নি জেনারেল বার নির্বাচন নিয়ে গণমাধ্যমে যে বক্তব্য দিয়েছেন, তার পর থেকেই ট্রাম্পের সাথে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে বারের। কিছুদিন আগে এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার বলেছেন, '২০২০ সালের মার্কিন নির্বাচনে জালিয়াতির যে অভিযোগ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করেছেন, তার সমর্থনে কোনো প্রমাণ তাঁর বিচার বিভাগ খুঁজে পায়নি'।

মূলত এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বারের এই বক্তব্যের পরই বেশ ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বারকে বরখাস্ত করার পরিকল্পনাও করেছিলেন তিনি। তবে সিনিয়র রিপাবলিকানদের আপত্তির মুখে সে পথে হাঁটেননি ট্রাম্প।

মূলত উইলিয়াম বারকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবেই গণ্য করা হতো।

উইলিয়াম বারের উপর ডোনাল্ড ট্রাম্পের এখনো আস্থা আছে কী না বা তাঁকে আদৌ এই পদে এখনো রাখা হবে কী না- এই প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্পের প্রেস সচিব কালেহি ম্যাকেনি বলেন, 'যদি এই পদে কোনো রদবদল হয়, তবে সবার প্রথমে গণমাধ্যমে জানানো হবে'।

এলএবাংলাটাইমস/ওএম

 

 

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত