Updates :

        মাসিক শিশুভাতা প্রদান শুরু জুলাই থেকে

        কোয়ারেন্টিনে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা

        দেশে মাথাপিছু আয় বেড়ে হলো ২২২৭ ডলার

        ইসরাইলের হামলায় ফিলিস্তিনে নিহতের সংখ্যা ২০০

        পশ্চিমবঙ্গের ৪ মন্ত্রী গ্রেফতার

        মিতু হত্যা: জবানবন্দি দেননি বাবুল আক্তার, কারাগারে প্রেরণ

        ওয়ার্ল্ড হাইপারটেনশন লীগের পুরস্কার পেলেন জাতীয় অধ্যাপক মালিক

        মিস ইউনিভার্স মুকুট জিতলেন মেক্সিকান সুন্দরী

        কর্মীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক ছিল বিল গেটসের !

        লস এঞ্জেলেসের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের বিনামূল্যে রেফ্রিজারেটর প্রদান

        ফ্রি কনসার্ট নিয়ে ফিরছে হলিউড বাউল

        লস এঞ্জেলেসে বাড়ানো হচ্ছে টিকাদান কার্যক্রমের ব্যাপ্তি

        লস এঞ্জেলেসে দাবানলের আগুন দ্বিগুণ হলো

        অভিবাসনে স্বাস্থ্যসেবার শর্ত বাতিল করলো যুক্তরাষ্ট্র

        দেশের করোনা পরিস্থিতি এখন অনেকটা ভালো: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

        বিনোদন পার্কে মাস্ক ব্যবহার নির্দেশমালায় পরিবর্তন

        লস এঞ্জেলেসে দাবানল: অন্যত্র সরে যেতে বাসিন্দাদের নির্দেশ

        হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

        লস এঞ্জেলেসে ১২ থেকে ১৫ বছর বয়েসীদের টিকাদান শুরু

        উগ্রবাদী হামলা নিয়ে সতর্কবার্তা জারি

শরনার্থীদের আইনী সহায়তায় সরকারি অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাব

শরনার্থীদের আইনী সহায়তায় সরকারি অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাব

ছবি: এলএবাংলাটাইমস

ইমিগ্রেশন কোর্টে অভিবাসীদের বৈধ আইনী সহায়তা দেওয়ার জন্য সরকারি অর্থ বরাদ্দের দাবি করেছেন হাউজ ডেমোক্র্যাটদের ৪৮ সদস্যের একটি দল।

বর্তমানে অভিবাসী কোর্টে শরনার্থীরা সরকারি অর্থ সহায়তা পায় না। যদিও ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়া কোনো ক্রিমিনাল কার্যকলাপ নয়।

হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভ নরমা টরেসের প্রতিনিধিত্বে অ্যাপ্রোপ্রিয়েশনস কমিটির কাছে ৭৫ মিলিয়ন ডলার সরকারি বরাদ্দের জন্য চিঠি প্রদান করেন।

ইমিগ্রেশন কোর্টে শরনার্থীদের অনেক নেতিবাচক রায়ের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। পরিবার বিচ্ছিন্ন, কর্মস্থল থেকে ছাঁটাই এমন আরো অভিবাসীদের বিরোধী রায় দেওয়া হয়।

রিপ্রেজেনটেটিভ নরমা টরেস বলেন, 'সুষ্ঠু আইনী সহায়তার মাধ্যমে অনেক শরনার্থী একটি ন্যায্য রায় পেতে পারে ও আদালতে একটি সুষ্ঠু বিচার পেতে পারে। যাদের আইনী সহায়তা দেওয়া হয়, তাদের ন্যায় বিচার পাওয়ার সম্ভাবনা পাঁচ গুণ বেশি থাকে'।

তিনি বলেন, 'এসব আইনী সহায়তায় মামলাগুলো আরো গতিশীলভাবে চলতে পারে। সেই সাথে তারিখ পেছানোর মতো সমস্যার সমাধান হবে'।

ইমিগ্রেশন কোর্ট জুডিশিয়ারি কোর্টের তত্ত্বাবধানে কাজ করে না। ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিক এক্সিকিউটিভ অফিস এটির রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে।

এলএবাংলাটাইমস/ওএম

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত