Updates :

        টিকা নিন, সুস্থ থাকুন: ফাউসি

        আজ বিশ্ব এইডস দিবস: বিশ্বে প্রতিদিন সাড়ে ৫ হাজার মানুষ এইডসে আক্রান্ত হয়

        এলো রক্তঝরা বিজয়ের মাস

        'ঐতিহাসিক' মন্ত্রিসভা গড়ছেন বাইডেন

        যুক্তরাষ্ট্র পেতে পারে প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী

        অবৈধ অভিবাসীদের গণনা জটিলতা, সুপ্রিম কোর্টে শুনানি

        টিকা অনুমোদনের জন্য আবেদন করছে মডার্না

        পা ভাঙ্গলেন বাইডেন!

        করোনা সংক্রমণের আতঙ্কে শ্রীলঙ্কায় কারাগারে সংঘর্ষে নিহত ৬

        মাস্ক না পরলে জেলেও যেতে হতে পারে বাংলাদেশে

        এমসি কলেজে ধর্ষণ: ডিএনএ টেস্টে ৮ আসামিরই জড়িত থাকার প্রমাণ

        জিয়াউর রহমানের নামে থাকা বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করায় বিএনপির নিন্দা

        সৃষ্টিকে ভালোবাসুন, ভালো লাগার মতো নিজেকে যোগ্য করে তুলুন

        দেশে মাশরুমের মতো বেসরকারি মেডিকেল কলেজ গড়ে উঠেছে

        ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা

        চাঁদপুর প্রতিদিনের লেখক ও গুনীজন সম্মাননা পেলেন ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ প্রধান আনোয়ার হাবিব কাজল

        এবার কলোরাডোর গভর্নর করোনায় আক্রান্ত

        নির্বাচনে কারচুপির মামলা নিয়ে সংশয়ে ট্রাম্প

        ট্রাম্পকে দেওয়া অনুদান ফেরত চান সমর্থক!

        পেনসিলভেনিয়ায় আবারো হতাশ ট্রাম্প শিবির

৭ বছরে এলএ বাংলাটাইমস: প্রবাসে সবুজের স্বপ্ন বুকে

৭ বছরে এলএ বাংলাটাইমস: প্রবাসে সবুজের স্বপ্ন বুকে

প্রবাসীরা দেশ ছাড়া, ঘর ছাড়া। আপন মাটি ছেড়ে বহু দূরে অবস্থান করেন। কিন্তু কখনও কোনোভাবে ভুলে যেতে বা ভুলে থাকতে পারেন না দেশের মাটির কথা। মাতৃভূমির কথা। হাজার হাজার মাইল দূরে অবস্থান করেও হৃদয়টা পড়ে থাকে বাংলাদেশের সবুজ মাঠে-প্রান্তরে।


সবুজের স্বপ্ন বুকে নিয়ে সেইসব ব্যাকুল প্রবাসীদের সঙ্গে দেশের যুগসূত্র তৈরী এবং তাদের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা, জীবনমান, সমস্যা-সম্ভাবনার কথা বলতে যাত্রা শুরু করেছিল ‘এলএ বাংলা টাইমস’। আজ ৯ নভেম্বর  শত স্বপ্ন-সম্ভাবনা নিয়ে যাত্রা করা পোর্টালটি ৬ পেরিয়ে ৭ বছরে পদার্পন করল। ২০১৪ সালের এই দিনে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু ‘এলএ বাংলা টাইমস’-এর । ‘সত্যের সাথে প্রবাসীদের পাশে’-এই স্লোগানকে ধারণ করে প্রতিনিয়ত বাড়ছে এর কর্মপরিধি।


‘এলএ বাংলা টাইমস’ যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূল তথা পৃথিবীর বিখ্যাত পর্যটন ও বিনোদন নগরী ক্যালিফোর্নিয়ার লস এঞ্জেলেসের অন্যতম প্রধান বাংলা অনলাইন নিউজ পোর্টাল। নিজ লক্ষ্যে অবিচল এবং প্রত্যয়ে দৃঢ়তার কারণে পোর্টালটি ইতোমধ্যে এখানকার প্রবাসীদের মুখপত্রে রূপ নিয়েছে।


প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই শুভ লগ্নে আমাদের সকল লেখক, পাঠক, বিজ্ঞাপনদাতা, শুভাকাঙ্ক্ষী, শুভানুধ্যায়ীসহ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা বাংলাদেশি ও বাংলা ভাষাভাষীদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও প্রাণঢালা অভিনন্দন।


বিশ্বস্থততা ও নির্ভরযোগ্যতা দিয়ে পোর্টালটি প্রবাসীদের মন জয় করে যে ভালোবাসা পেয়েছে  এতে এলএ বাংলাটাইমস পরিবার যেমন গর্বিত তেমনি কৃতজ্ঞ লস এঞ্জেলেস প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি ও দেশ-বিদেশের অগণন পাঠকের কাছে। যাদের ভালোবাসা এবং সহযোগিতায় ‘এলএ বাংলাটাইমসের এই অগ্রযাত্রা। আমরা আমাদের এই যাত্রাকে আরও অনেক দূর এগিয়ে নিতে চাই। এজন্য এবার আমরা স্লোগান নির্ধারণ করেছি ‘প্রবাসে সবুজের স্বপ্ন বুকে’। সবুজের স্বপ্নটা বুকে নিয়ে এগিয়ে যেতে প্রয়োজন আপনাদের সমর্থন ও ভালোবাসা।


ছয় বছরের এই যাত্রায় নানা চড়াই-উৎরাই পেরুতে আমাদের যারা সাথে ছিলেন আগামীতেও আপনাদের ভালোবাসা-সমর্থনের প্রত্যাশা থাকলো শ্রদ্ধভারে।


শুরুর কথা :

দীর্ঘদিন ধরে লস এঞ্জেলেস তথা ক্যালিফোর্নিয়ায় বসবাস করে আসছেন বাংলাদেশী প্রাবাসী ও অভিবাসীরা। সময়ের পরিক্রমায় এখানে গড়ে উঠেছে ৫০-৬০ হাজার বাংলাদেশীর এক বিশাল কমিউনিটি।

প্রবাসীরা এখানে পড়ালেখা, চাকুরি ও ব্যাবসা-বণিজ্যসহ আমেরিকার মেইন স্ট্রিমের বিভিন্ন সেক্টরে অবদান রাখছেন সাফল্যের সাথে। এখানকার প্রকৃতি, পরিবেশ, জীবনপদ্ধতির অনুসরণ করে নিজস্ব একটি ধারা তৈরী করে বাস করছেন বাংলাদেশীরা। তাই মার্কিন এই সমাজেও স্বত:স্ফুর্ত ও স্বাভাবিকভাবে বাস করছেন তারা। বসবাসের এই ধারাবাহিকতায় এখানে গড়ে উঠেছে অসংখ্য শিক্ষা, সামাজিক, সাংস্কৃতি, ক্রীড়া এবং ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন। তেমনি গণযোগাযোগের জন্যও প্রতিষ্ঠিত হয়েছে একাধিক গণমাধ্যমের। যা প্রবাসীদের সুখ-দুঃখের কথা তুলে ধরছে দেশে-বিদেশে।

এই ধারাবাহিকতায় একটি সৃজনশীল ও প্রতিভাদীপ্ত মুখপত্র হিসেবে ‘এলএ বাংলাটাইমস’ প্রতিষ্ঠা করেন একজন স্বপ্নবাজ পুরুষ, লস এঞ্জেলেস প্রবাসী তরুণ সমাজকর্মী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুস সামাদ। যার দূরদর্শী চিন্তা, সমাজসচেতনতা ও বিজ্ঞ দিক নির্দেশনায় পোর্টালটি ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছে একটি সুন্দর-সমৃদ্ধ ভবিষ্যত পৃথিবীর লক্ষ্যকে সামনে রেখে।


যেতে চাই বহুদূর :

৬ ছর ধরে একটি নিউজপোর্টাল ধারাবাহিকভাবে পরিচালিত হয়ে আসা নিশ্চয়ই কম কথা নয়। এই যাত্রা যেমন ছিল সুখকর, আনন্দঘন ও উপভোগ্য তেমনি কিছু বাঁধা-বিপত্তিও ছিল যাত্রা পথে। কিন্তু আমাদের সংকল্পের দৃঢ়তা এবং সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য উদ্দেশ্য আমাদেরকে বিপথগামী করেনি। বিশ্বব্যাপী কমিউনিটির মুখ উজ্জ্বল করতে আমরা ছিলাম প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। তাই বিগত ৬ বছরে সাফল্যের অনেক চিহ্ন রেখেছে এলএ বাংলাটাইমস। সবসময় কমিউনিটির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ ও তথ্য নিরেপেক্ষতার সাথে সবার সামনে তুলে ধরেছে। তাই সর্বমহলে প্রসংশিত হয়েছি আমরা।

আমরা সব সংকীর্ণতাকে পিছনে ফেলে সবসময় সত্য, ন্যায়, সামজিকতা ও মানবিকতার দিক বিবেচনা করে কাজ করে যেতে চাই। একটি সুন্দর সমাজ ও সম্প্রীতিপূর্ণ কমিউনিটি গড়ার কাজে আমরা সবার সহযোগী হতে চাই।


আমাদের অর্জন :

গত ৬ বছরে  ‘এলএ বাংলাটাইমস’ অর্জন করেছে বেশ কিছু সাফল্যের স্মারক। কমিউনিটির শ্রেষ্ঠ মিডিয়া হিসেবে স্বীকৃতি, কমিউনিটির সকল সামাজিক কাজে অংশগ্রহণ এবং প্রবাসীদের স্বার্থে সব কাজে অগ্রবর্তী কিংবা সহযোগী ছিলো  ‘এলএ বাংলাটাইমস’। কমিউনিটির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবেও তাই সবাই এলএ বাংলাটাইমসে গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করেন। এজন্য প্রবাসী কমিউনিটিসহ দেশ-বিদেশের অসংখ্য পাঠকের ভালোবাসায় ধন্য ‘এলএ বাংলাটাইমস’পরিবার।

রমজান মাসে ইফতার মাহফিল আয়োজন এবং বিভিন্ন দিবসের আয়োজনসহ নানাবিধ সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে আসছে  ‘এলএ বাংলাটাইমস’। দেশে চ্যারিটির কাজ করার জন্য গত ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান বাদ দেওয়া হয়। এরপর সিইও আব্দুস সামাদ দেশে গিয়ে বেশকিছু প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করেন। এর আগে ১ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে একটি ঝমকালো অনুষ্ঠান ছিলো  ‘এলএ বাংলাটাইমস’র জন্য একটি মাইলফলক। যেটি অনুষ্ঠিত হয়েছিলো লস এঞ্জেলেসের শ্যাটো রিক্রিয়েশন সেন্টারে। যেখানে বাংলাদেশ থেকেও এসেছিলেন গণ্যমান্য অতিথিরা।


সিইও’র শুভেচ্ছা :

এলএ বাংলাটাইমস’র ৬ষ্ঠ  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৭ম বর্ষে পাদার্পন উপলক্ষে প্রবাসী কমিউনিটিসহ দেশ-বিদেশের সকল পাঠক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পোর্টালের সিইও আব্দুস সামাদ। তিনি এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, অসংখ্য পাঠকের ভালোবাসা এবং কমিউনিটির সবার সহযোগিতায় আমাদের এত দূর আসা। এজন্য আমাদের সকল লেখক, পাঠক, শুভাকাঙ্ক্ষী এবং লস এঞ্জেলেস প্রবাসী কমিউনিটিসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে থাকা সকল প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা। আগামীতেও আপনাদের পাশে চাই বরাবরের মতো। সবুজের স্বপ্ন বুকে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।

শেয়ার করুন