আপডেট :

        চার স্টেশন বন্ধ, দুই ভাগে চলছে ট্রেন

        বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) গেটে আগুন

        বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) গেটে আগুন

        ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ভেতরে থেকে পুলিশদের উদ্ধার করতে হেলিকপ্টার

        একটি মাত্র ভিসায় ৬টি দেশ ভ্রমণ করা যায়

        প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আইনমন্ত্রী সংবাদ মাধ্যমে আলোচনা করবেন আইনমন্ত্রী

        ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি ঘিরে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সড়কে যান চলাচল বন্ধ

        হামলার ঘটনাকে ‘নৃশংস’ উল্লেখ করে একের পর এক পদত্যাগ

        শুধু কোটা নয়, গোটা দেশ সংস্কার প্রয়োজন

        মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বিঘ্ন হওয়ার তথ্য জানিয়েছেন ব্যবহারকারীরা

        ইউরো শেষে পদত্যাগ করলেন সাউথগেট

        ফ্লাইওভারে সং ঘ র্ষের ঘটনায় এক তরুণ নি হ ত

        রাহুল গান্ধী পরিপক্ব রাজনীতিবিদে পরিণত হয়েছেন মন্তব্য করলেন অমর্ত্য সেন

        ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী আবু সাঈদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবী

        ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী আবু সাঈদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবী

        সিদ্ধান্ত মোতাবেক হল ছেড়ে যাওয়ায় শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানালো ঢাবি কর্তৃপক্ষ

        ট্রাম্পকে জয়ী করতে মাসে ৪৫ মিলিয়ন ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ইলন মাস্কের

        ইতালিতে ‘দাসের জীবন’ থেকে মুক্তি পেলেন ৩৩ শ্রমিক

        ট্রাম্পকে ‘আমেরিকার হিটলার’ বলা জেডি ভ্যান্সই এখন তাঁর রানিং মেট

        শিয়া মসজিদে হামলার দায় স্বীকার করলো আইএস

‘জাদুর চাদর’ আবিষ্কারের দাবি চীনের

‘জাদুর চাদর’ আবিষ্কারের দাবি চীনের

চীনা তরুণ গবেষকদের আবিষ্কৃত এই অদৃশ্য জাদুর চাদরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইনভিসডিফেন্স''

চীনের একদল স্নাতক শিক্ষার্থী এমন এক ধরনের কোট বা চাদর আবিষ্কার করেছেন যা মানুষকে লুকিয়ে ফেলতে সক্ষম। কোনো ক্যামেরা দিয়েই এ ধরনের কাপড় পরিহিত কোনো ব্যক্তিকে শনাক্ত করা সম্ভব নয়। এই চাদর দেখতে খুবই সাধারণ এবং দামেও সস্তা। হংকং থেকে প্রকাশিত চীনা সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনা তরুণ গবেষকদের আবিষ্কৃত এই অদৃশ্য জাদুর চাদরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইনভিসডিফেন্স’। গবেষকেরা বলছেন- এই চাদরটি খালি চোখে দেখা গেলেও কোনো ক্যামেরা দিয়ে এটিকে শনাক্ত করা সম্ভব নয়। গত বছরের ২৭ নভেম্বর চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে আয়োজিত চায়না পোস্টগ্র্যাজুয়েট ইনোভেশন অ্যান্ড প্র্যাকটিস কমপিটিশনে এই আবিষ্কার প্রথম পুরস্কার জিতে নেয়।

তরুণ গবেষকদের এই প্রকল্পের তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন উহান ইউনিভার্সিটির স্কুল অব কম্পিউটার সায়েন্সের অধ্যাপক ওয়াং ঝেং। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে একাডেমিক আলোচনার আন্তর্জাতিক সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য অ্যাডভান্সমেন্ট অব আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ২০২৩ সালের সম্মেলনে এই আবিষ্কারের নিবন্ধ গৃহীত হয়েছে।

এই আবিষ্কারের বিষয়ে ওয়াং ঝেং বলেন, ‘আজকাল অনেক নজরদারি যন্ত্র মানবদেহ শনাক্ত করতে পারে। রাস্তায় থাকা ক্যামেরাগুলোতে পথচারী শনাক্তকরণ ব্যবস্থা আছে রয়েছে। বিভিন্ন স্মার্ট গাড়ি পথচারী, রাস্তা এমনকি এর সামনে আসা বাধাগুলো শনাক্ত করতে পারে। আমাদের ইনভিসডিফেন্স ব্যবহারে হয়তো ব্যক্তি ক্যামেরায় ধরা পড়বে কিন্তু সেটি যে একজন মানুষ সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেবে না।

সাধারণত, দিনের বেলায় ক্যামেরা প্রায়ই চলাফেরা, শারীরিক কাঠামোর সাহায্যে মানবদেহ শনাক্ত করে। কিন্তু ইনভিসডিফেন্স যে এমন এক ধরনের ক্যামোফ্ল্যাজ প্যাটার্ন আছে যা ক্যামেরার দৃষ্টির অ্যালগরিদমে হস্তক্ষেপ করে এটিকে অন্ধ করে দেয়। যে কারণে এটি পরিহিত কাউকে সেই ক্যামের শনাক্ত করতে পারে না।

আবার রাতের বেলায় ক্যামেরা ইনফ্রারেড থার্মাল ইমেজিং বা মানুষের দেহের তাপমাত্রা শনাক্ত করার মাধ্যমে মানবদেহ শনাক্ত করে। কিন্তু ইনভিসডিফেন্সের ভেতরের পৃষ্ঠে অবস্থিত অনিয়মিত আকারের তাপমাত্রা-নিয়ন্ত্রক মডিউলগুলো এক ধরনের অস্বাভাবিক তাপমাত্রার প্যাটার্ন তৈরি করে যা ইনফ্রারেড ক্যামেরাকে বিভ্রান্ত করে।

গবেষকেরা বলছেন, ইনভিসডিফেন্সের আরেকটি সুবিধা হলো এর কম খরচ। ওয়াং ঝেং বলেন, ইনভিসডিফেন্সের একটি সম্পূর্ণ সেটের মূল্য মাত্র ৫০০ ইউয়ান বা ৭০ ডলারে কম। তবে অন্য অনেকেই এই আবিষ্কারের নেতিবাচক দিকও দেখছেন। কেউ কেউ বলছেন, এর ফলে মানুষের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যেতে পারে।

এলএবাংলাটাইমস/আইটিএলএস

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত