Updates :

        ম্যারাডোনার সমাধিতে চুরি: প্রহরায় সশস্ত্র পুলিশ

        নিরীহ আফগান নাগরিকদের হত্যার বিচার চাইল চীন

        বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ কিনবে সৌদি-ভারত-নেপাল-ভুটান

        ভাস্কর্য আর মূর্তি এক নয়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

        আগামী বছর ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’ আয়োজন করবে বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

        টিকা নিন, সুস্থ থাকুন: ফাউসি

        আজ বিশ্ব এইডস দিবস: বিশ্বে প্রতিদিন সাড়ে ৫ হাজার মানুষ এইডসে আক্রান্ত হয়

        এলো রক্তঝরা বিজয়ের মাস

        'ঐতিহাসিক' মন্ত্রিসভা গড়ছেন বাইডেন

        যুক্তরাষ্ট্র পেতে পারে প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী

        অবৈধ অভিবাসীদের গণনা জটিলতা, সুপ্রিম কোর্টে শুনানি

        টিকা অনুমোদনের জন্য আবেদন করছে মডার্না

        পা ভাঙ্গলেন বাইডেন!

        করোনা সংক্রমণের আতঙ্কে শ্রীলঙ্কায় কারাগারে সংঘর্ষে নিহত ৬

        মাস্ক না পরলে জেলেও যেতে হতে পারে বাংলাদেশে

        এমসি কলেজে ধর্ষণ: ডিএনএ টেস্টে ৮ আসামিরই জড়িত থাকার প্রমাণ

        জিয়াউর রহমানের নামে থাকা বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করায় বিএনপির নিন্দা

        সৃষ্টিকে ভালোবাসুন, ভালো লাগার মতো নিজেকে যোগ্য করে তুলুন

        দেশে মাশরুমের মতো বেসরকারি মেডিকেল কলেজ গড়ে উঠেছে

        ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন স্বাস্থ্য সেক্টরের বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা

গাজীপুরের সাবেক মেয়র এমএ মান্নানের কারাদণ্ড

গাজীপুরের সাবেক মেয়র এমএ মান্নানের কারাদণ্ড

৪৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের করা মামলায় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) ঢাকার বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক সৈয়দ কামাল হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুদকের আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর সাংবাদিকদের এ তথ‌্য জানান।

তিনি আরও জানান, রায় ঘোষণার সময় এমএ মান্নান আদালতে উপস্থিত ছিলেন। ওই মামলার আরেক আসামি গোলাম কিবরিয়াকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র থাকাকালে ২০১৩ সালের ১৮ আগস্ট থেকে ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৯৯৯টি ভুয়া ভাউচারের মাধ‌্যমে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ত্রাণ এবং দরিদ্র তহবিল থেকে ৪৯ লাখ ১ হাজার ৮৪৮ টাকা আত্মসাৎ করেন এম এ মান্নান। এ ঘটনায় দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক শামসুল আলম ২০১৬ সালের ২৩ জুন গাজীপুরের জয়দেবপুর থানায় মান্নান ও তার সহযোগী গোলাম কিবরিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

২০১৭ সালের ১২ জানুয়ারি এমএ মান্নান ও গোলাম কিবরিয়ার নামে চার্জশিট দাখিল করে দুদক। পরে গাজীপুরের স্পেশাল জজ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারের জন্য ঢাকার বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন। ২০১৯ সালের ১৭ জানুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন ঢাকার বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালত। মামলার বিচার চলাকালে আদালত ছয়জনেরর সাক্ষ্য নেন।

 

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এন

শেয়ার করুন