আপডেট :

        অজিদের জয়ের দিকে মুখিয়ে থাকবেন জস বাটলাররা

        রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় একটি বাসায় গ্যাস বিষ্ফোরণ

        ঈদের দিনে দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা

        ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এসআইকে মারধর

        আত্মশুদ্ধির বাসনায় পবিত্র হজ পালিত

        ঈদের আনন্দে ডেঙ্গু যেন বিষাদের কারণ না হয়

        সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাইয়ের মৃত্যু

        সেন্টমার্টিনের কাছে মিয়ানমার যুদ্ধজাহাজ নিয়ে এসে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত হানার চেষ্টা করছে

        ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের দুইজন কর্মকর্তাকে বদলি

        সাভারে মাদক ব্যবসা, বাধা দিলে হত্যার শিকার হচ্ছে নিরীহ মানুষ

        দেশের তিনটি বিভাগে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে

        লিফটে পরিচালককে মারধর, অভিযুক্ত কর্মকর্তার পদায়ন বাতিল

        বাধা ছাড়াই ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক সমাপনী অনুষ্ঠিত

        ঈদ উল আযহা উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ১৪ নির্দেশনা

        যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে এবার পাল্টা ব্যবস্থা নিল রাশিয়া

        তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ তুলে শুরু হচ্ছে ইউরো

        ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমে ভারী বৃষ্টির প্রভাবে বাড়ছে তিস্তা নদীর পানি

        স্ট্রোকে আক্রান্ত নোয়াম চমস্কি

        ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমে ভারী বৃষ্টির প্রভাবে বাড়ছে তিস্তা নদীর পানি

        রাজধানীতে জাতীয় ঈদগাহ তে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে চট্টগ্রামের আরও ২৫০ পরিবার

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে চট্টগ্রামের আরও ২৫০ পরিবার

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে চট্টগ্রামের আরও ২৫০ পরিবার। আগামীকাল জেলায় ৫ম পর্যায়ে ভূমিহীন ও গৃহহীন ২৩৪টি এবং জরাজীর্ণ ব্যারাক প্রতিস্থাপন করে একক গৃহ নির্মাণ ১৬টিসহ ২৫০টি পরিবারকে জমিসহ ঘরের মালিকানা হস্তান্তর করা হবে।


আগামীকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে এসব ঘর হস্তান্তর করবেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান।


তিনি বলেন, ৫ম পর্যায়ে এপর্যন্ত ৩৮৮ ঘরের বরাদ্দ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে গত ১৪ নভেম্বর ৮১টি পরিবারকে গৃহ হস্তান্তর করা হয়েছে। আগামীকাল ২৫০টি পরিবারকে গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া, মীরসরাই উপজেলার জন্য নতুনভাবে ৭৩টি ঘরের বরাদ্দ পাওয়া গেছে এবং ঘরগুলোর নির্মাণ কাজ সমাপ্তির পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।
নতুন ২৫০টি ঘরের মধ্যে চন্দনাইশে ১৫৫টি, মীরসরাইয়ে ৩৪টি এবং সীতাকু-ে ৪৫টি। এছাড়াও জরাজীর্ণ ব্যারাকের স্থলে একক গৃহ নির্মাণ করে ১৬টি পরিবারকে গৃহ হস্তান্তর করা হবে।

ইতোপূর্বে চট্টগ্রাম জেলার ১৫টি উপজেলার মধ্যে ১২টি উপজেলা যথাক্রমে পটিয়া, কর্ণফুলী, সাতকানিয়া, লোহাগাড়া, রাউজান, বোয়ালখালী, আনোয়ারা, ফটিকছড়ি, হাটহাজারী, রাঙ্গুনিয়া, বাঁশখালী, মীরসরাই উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড, চন্দনাইশ ও সন্দ্বীপ উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করার জন্য আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প কার্যালয়ে প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। এই তিনটি উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে এবং একই সাথে চট্টগ্রাম জেলাকেও ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে। 

 

এলএবাংলাটাইমস/আইটিএলএস

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত