Updates :

        নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় ৩০ সেনা নিহত

        পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা

        কেন্টাকিতে গুলিতে ৩ পুলিশ কর্মকর্তা নিহত

        নানাবিধ সংকটে সিলেট-সুনামগঞ্জের বন্যাদুর্গতরা

        চর দেখতে যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া সফরে ২০ সরকারি কর্মকর্তা

        বুয়েটে চান্স পেয়ে আবরার ফাহাদের ছোট ভাইয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

        বিএনপির ত্রাণ বিতরণ স্থলে আ’লীগের কর্মসূচি, ১৪৪ ধারা জারি

        নুপুর শর্মাকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

        লিভারপুলে আরও ৩ বছর থাকছেন সালাহ

        নৌকায় করে মালয়েশিয়ায় প্রবেশের সময় ৩৭ বাংলাদেশি আটক

        মেরিল্যান্ডে সাধু আন্তনীর পর্ব উদযাপন

        ২৭ বছরের সম্পর্কের ইতি টানলেন মীর

        আফগান আলেমদের বৈঠকে তালেবানের শীর্ষ নেতা

        ‘বাংলাদেশ পুলিশ দেশের জনগণের প্রথম ভরসাস্থল হতে চায়’

        সুনামগঞ্জে বন্যায় ১৮০০ কোটি টাকার ক্ষতি

        ইয়েমেনে প্রায় দুই কোটি মানুষ ক্ষুধার্ত

        পদ্মা সেতুর নাট খোলার ভিডিও পোস্ট করায় আরেক যুবক গ্রেফতার

        পেনসিলভেনিয়ায় নাট্য সংগঠনের পুনর্গঠনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা

        গুগল সার্চে সবার আগে যারা

        ইউক্রেনকে আরো ১৩০ কোটি মার্কিন ডলার দিল যুক্তরাষ্ট্র

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে বন্যার্তদের সহায়তা দিতে সিলেট যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে বন্যার্তদের সহায়তা দিতে সিলেট যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বৃহত্তর সিলেটি শিক্ষার্থীদের সংগঠন জালালাবাদ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ সহায়তা নিয়ে সিলেট যাচ্ছেন সিলেটি শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীতের যাতায়াত সুবিধায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২১ জুন) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আলাওল হল থেকে প্রায় এক হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার নিয়ে রওয়ানা দেয় বাসটি।


গত ৩ দিন জালালাবাদ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয় এবং এর আশপাশ থেকে ৩ লক্ষাধিক টাকা বন্যার্তদের সহায়তার জন্য সংগ্রহ করেন। সে টাকা দিয়ে চট্টগ্রাম থেকেই মালামাল কিনে প্যাকেট করা হয়। যা সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে বন্টন করা হবে৷

জালালাবাদ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাসরুর আহমেদ বলেন, আমাদের জন্মস্থান সিলেট ও সুনামগঞ্জের মানুষ বন্যার অতিব কষ্টের মধ্যে আছেন। এমন অবস্থায় প্রিয়জনদের কষ্টের সময় আমরা বসে থাকতে পারি না। তাই আমাদের সাধ্য অনুযায়ী আমরা চেষ্টা করেছি কিছু সহযোগিতা করার।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, বন্যার্তদের জন্য আমাদের শিক্ষার্থীরা কাজ করেছে এটা অত্যন্ত গর্বের বিষয়। আমাকে বাসের কথা বলার পর আমি বিষয়টা উপাচার্য মহোদয়কে জানালে তিনি সাথে সাথে শিক্ষার্থীদের জন্য একটা বাসের ব্যবস্থা করতে বলেন। শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করতে পেরে আমাদেরও ভালো লাগছে।

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত