আপডেট :

        আমাদের আগামীরা আজকে দেশব্যাপী রাজপথে

        দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

        দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

        নৌ অবরোধের কারণে দেউলিয়া হয়ে গেছে ইসরায়েলের ইলাত বন্দর

        ‘ধাতব স্যুটের বর্ম’ তৈরি করতে চান টেসলার প্রধান ইলন মাস্ক

        শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের নৃশংস হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

        হামলায় আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের ছবি-ভিডিও মুহূর্তের মধ্যেই ঝড় তোলেছে ইন্টারনেট

        পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

        কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আবু সাঈদ নিহত

        কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আবু সাঈদ নিহত

        শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে জনগণকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান

        শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে জনগণকে সাড়া দেওয়ার আহ্বান

        ডান কানে বড় একটি ব্যান্ডেজ নিয়ে জাতীয় সম্মেলনে উপস্থিত ট্রাম্প

        ট্রাম্পকে মাসে ৪৫ মিলিয়ন ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ইলন মাস্কের

        শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগ পাল্টাপাল্টি ধাওয়া

        আম্বানি পুত্রের বিয়েতে নিক-প্রিয়াঙ্কার উজ্জ্বল উপস্থিতি নজর কেড়েছে নেটিজেনদের

        প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

        সাহিত্যিক যাত্রার শুরু এবং কাশবন পত্রিকার সম্পাদনার পিছনে অনুপ্রেরণা

        নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন

        নারী শিক্ষার অগ্রদূত হিসেবে "তমগায়ে কায়েদে আজম "

আরও ১৪ ইউএনও বদলি

আরও ১৪ ইউএনও বদলি

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আরও ১৫৮ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) বদলি করছে সরকার। বদলির তালিকায় রয়েছেন সিলেট বিভাগের চার জেলার ১৪ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশন (ইসি) বদলির তালিকা অনুমোদন দেয়।

সূত্র জানায়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ১৫৮ জন ইউএনওকে বদলির দুটি প্রস্তাব পাঠালে এর অনুমোদন দেয় ইসি।

দ্বিতীয় ধাপে সিলেট বিভাগের বদলিকৃত ১৪ জন ইউএনও হলেন- সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই মাহমুদুর রহমানকে কুলাউড়ায়, সুনামগঞ্জ সদরের সালমা পারভীনকে তাহিরপুরে, কোম্পানীগঞ্জের লুসিকান্ত হাজংকে জুড়ী উপজেলায়, মাধবপুরের মনজুর আহসানকে শাল্লায়, কুলাউড়ার মো. মাহমুদুর রহমান খোন্দকারকে দিরাই, গোলাপগঞ্জের মৌসুমী মান্নানকে সুনামগঞ্জ সদরে, শ্রীমঙ্গলের রাজিব মাহমুদ মিঠুনকে গোলাপগঞ্জ, হবিগঞ্জ সদরের আয়েশা আক্তারকে বিয়ানীবাজার, শাল্লার আবু তালেবকে শ্রীমঙ্গল, জুড়ীর রঞ্জন চন্দ্র দে’কে হবিগঞ্জ সদর, বিয়ানীবাজারের আফসানা তাসলিমকে জকিগঞ্জে, তাহিরপুরের সুপ্রভাত চাকমাকে বড়লেখায়, জকিগঞ্জের একেএম ফয়সালকে মাধবপুরে, বড়লেখার সুনজিত কুমার চন্দকে কোম্পানীগঞ্জে বদলি করা হয়েছে।

এর আগে, গত ৪ ডিসেম্বর প্রথম ধাপে ৪৭ জন ইউএনওকে বদলির অনুমোদন দেয় ইসি। ওই তালিকায় ছিলেন সিলেট বিভাগের ছয়জন। বদলিকৃতরা হলেন-হবিগঞ্জের বাহবলের ইউএনও মহুয়া শারমিন ফাতেমাকে ওসমানী নগর সিলেটে, আর ওসমানীনগরের ইউএনও নীলিমা রায়হানাকে হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে, সিলেটের গোয়াইনঘাটের ইউএনও তাহমিলুর রহমানকে হবিগঞ্জের বাহুবলে, হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের ইউএনও সিদ্ধার্থ ভৌমিককে সিলেটের গোয়াইনঘাটে, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের ইউএনও মো. সাজেদুল ইসলামকে সিলেটের জৈন্তাপুর আর জৈন্তাপুরের ইউএনও আল বশিরুল ইসলামকে জগন্নাথপুরে বদলি করা হয়েছে।

প্রথম ধাপে কর্মস্থলে ২ বছরের বেশি সময় দায়িত্ব পালন করা ইউএনওদের বদলি হয়। এবার বর্তমান কর্মস্থলে এক বছরের বেশি দায়িত্ব পালন করা ইউএনওদের বদলি করা হলো। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত সিলেট বিভাগের ২০জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্বাচন কেন্দ্রিক বদলি হলেন।

এলএবাংলাটাইমস/আইটিএলএস

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত