যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার, ১৯ অগাস্ট, ২০১৯ ইং

|   ঢাকা - 01:17am

|   লন্ডন - 08:17pm

|   নিউইয়র্ক - 03:17pm

  সর্বশেষ :

  পদ্মা সেতু নির্মাণের মেয়াদ ও ব্যয় দুটোই বাড়ছে   ডেঙ্গুতে আরো ৫ জনের মৃত্যু   ৩০ বছরে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা   গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী   গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী   ভার্জিনিয়াতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনা মূল্যে স্বাস্থ্যসেবা   গভীর চক্রান্তে হজ্জ, মুসলিম সেজে বোরকা পরে মদিনায় মহিলা সেকশনে পুরুষ ই’হুদী চর   পুড়ে যাওয়া বস্তি যেন দর্শনীয় স্থান!   ডেঙ্গু: চব্বিশ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১৭০৬   আসামের এনআরসি ও কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল: নেপথ্যে মোদির মুসলিমবিদ্বেষ   কাশ্মীর ইস্যুতে আরব দেশগুলোর নীরবতার নেপথ্য কারণ কী?   কাবুলে বিয়ের অনুষ্ঠানে হামলা, নিহত ৬৩   মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর সোহেল’র ইন্তেকাল   ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি   রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের সাথে গুলি বিনিময়ে এক সেনাসদস্য নিহত

মূল পাতা   >>   বহিঃ বিশ্ব

চীন-যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ বিশ্বকে বিপর্যয়ের মুখে ফেলবে: চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৯-০৬-০২ ১৭:৪৭:৫৯

নিউজ ডেস্ক: চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে যুদ্ধ বা সংঘাত উভয় দেশ এবং সারা বিশ্বকে বিপর্যয়ের মুখে ফেলবে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী উয়েই ফেনঘে।

রোববার সিঙ্গাপুরে এশিয়ার বৃহত্তম প্রতিরক্ষা সম্মেলন শাংগ্রি-লা ডায়ালগে বক্তব্য প্রদানের সময় তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের সংবাদপত্র ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

উয়েই ফেনঘে জানান, চায়না আক্রমণের শিকার না হওয়া পর্যন্ত আক্রমণ করবে না। যদি যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধ চায়, তবে চীন এর শেষ দেখে ছাড়বে।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র যদি আলোচনা করতে চায়, তবে চীন দেশটির জন্য আলোচনার দরজা সবসময় খোলা রাখবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, চীনকে বিভক্ত করার কোনও প্রচেষ্টা সফল হবে না। তাইওয়ানের প্রশ্নে কারও কোনও ধরনের হস্তক্ষেপ, তার অবধারিত ধ্বংস ডেকে আনবে।

তিনি আরও বলেন, যদি কেউ চীন থেকে তাইওয়ানকে বিভক্ত করার সাহস দেখায়, তবে চীনের সেনাবাহিনীর কাছে যুদ্ধ ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।

তাইওয়ানের নিজস্ব পতাকা, মুদ্রা ও সরকার থাকলেও পূর্ব এবং দক্ষিণ চীন সাগরের মাঝে অবস্থিত এই দ্বীপের স্বাধীনতা কখনও মেনে নেয়নি বেইজিং।

তাই চীন থেকে তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্নকারী জলপ্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর টহলদারি মাথাব্যথার কারণ হয়েছে বেইজিংয়ের।

তাইওয়ান স্বাধীনতা ঘোষণা করলে যুদ্ধ করতেও পিছপা হবে না বলেও ইতোমধ্যে একাধিক বার জানানো হয়েছে চীনের পক্ষ থেকে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৬২ বার

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত

সাম্প্রতিক খবর