Updates :

        ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে বাচ্চাদের স্বাস্থ্য নিয়ে শঙ্কায় অভিভাবকরা

        করোনা মোকাবিলায় নতুন পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরি: সিডিসি

        প্রাক্তন সামরিক সদস্য ও গৃহহীনদের সেবায় নিয়োজিত ভিলেজ ফর ভেটস

        ভাড়াটিয়া উচ্ছেদ নিষেধ আইনের সময়সীমা শেষ, হুমকিতে লাখো মানুষ

        ক্যালিফোর্নিয়ায় সেপ্টেম্বরে চতুর্থ স্টিমুলাস চেক প্রদান শুরু

        ফ্লোরিডায় বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, দৈনিক আক্রান্তের রেকর্ড

        এবার গণপরিবহন চালু

        জাপান, মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডে রেকর্ড সংখ্যক করোনা সংক্রমণ

        শ্রমিকদের কর্মস্থলে ফেরাতে এবার গণপরিবহন চালু

        প্রতারণার অভিযোগ থেকে রেহাই পেলেন ব্রিটিশ-বাংলাদেশী এমপি আপসানা

        ‘এই বাংলার মাটিতে আর আসবো না’

        ক্ষুদ্র গ্রাহকদের ঋণ মওকুফের প্রক্রিয়া সহজ করছে এসবিএ

        গারসেটির বাসভবনে বিক্ষোভকারীরা ছুঁড়লো আবর্জনা ও টয়লেট পেপার

        ক্যালিফোর্নিয়া ছেড়ে যাচ্ছেন বাসিন্দারা, বসতি গড়ছেন নেভাদায়

        লস এঞ্জেলেসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক

        দুই দিনের জন্য বন্ধ হলো মিরপুর স্টেডিয়াম

        ঢাকার পথে অসংখ্য কর্মজীবী মানুষ

        বাইডেন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ২ মার্কিন মুসলিম

        সালমান শাহের রুমে ঢুকে স্মৃতি ছুঁয়ে এসেছেন সাইমন

        বকেয়া টাকা চাওয়ায় ঝালমুড়িওয়ালাকে পেটালেন ঢাবি ছাত্রলীগ নেতা

অনুগল্প: জীবন সঞ্জীবিত মাতৃদুগ্ধে

অনুগল্প: জীবন সঞ্জীবিত মাতৃদুগ্ধে

বেলুড় রামকৃষ্ণ মিশনের অডিটোরিয়াম থেকে বের হলো অভীক একরাশ ভালোলাগা নিয়ে। আন্ত:রাজ্য বিতর্ক প্রতিযোগিতা ছিল জীবনানন্দ দাশের জন্মদিনে। বিষয়: "অদ্ভূত আঁধারেও সবুজ স্বপ্ন- গান"। বিচারক মন্ডলীর সদস্য ছিল অভীক। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চললো কলেজগুলোর মধ্যে। শেষ সময়ে এসে প্রেসিডেন্সীর সৌজন্য বলে ছেলেটি জয় ছিনিয়ে নিল। ছেলেটির অদ্ভূত ব্যাখ্যায় সারা হলে হাততালির ঝড় বিজয়ী নির্বাচনে সাহায্য করল। 'অ্যাকটিনোমাইসেটিস' নামে এক ব্যাকটেরিয়া আছে যা মাটিতে বৃষ্টি পড়লে যে সোঁদা গন্ধ ছাড়ে ,তার কারণ। জীবনানন্দ দাশের কবিতা ও ঠিক ঐ ব্যাকটেরিয়ার মতোই। জীবনের সোঁদা গন্ধটা  ফিরিয়ে আনে বারে বারে
সমস্ত প্রতিকুলতার মাঝেও। সত্যিই মন ভালো করে দেওয়া ব্যাখ্যা একদম নতুন মোড়কে !
       

ষ্টেশনে নেমে ক্লান্ত অভীক টলোমলো পায়ে বাড়ির পথে। হঠাৎ ষ্টেশনের প্রান্তে এসে চমকে উঠল। বড়ো মায়াময় দৃশ্য ! ষ্টেশন পাগলী একটা কুকুর ছানাকে কোলে নিয়ে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছে । সারা মুখ জুড়ে আবেশী হাসি।পরম মমতায় কুকুর ছানাটার সারা গায়ে হাত বুলিয়ে যাচ্ছে। দূরে দাঁড়িয়ে বাচ্চাটার মা দেখে চলেছে এ দৃশ্য।তার মুখেও মাতৃত্বের অনুভব। দুই মা যেন এক হয়ে গেছে তাদের মাতৃত্বের অনুভবে !
       

থমকে দাঁড়িয়ে পড়ল অভীক। মনে পড়ল, মাসখানেক আগে পাগলীর একটা বাচ্ছা হয়।দিন দশেক আগে বাচ্চাটা মারা যায়। সেদিন ওর বুকফাটা কান্না ষ্টেশনের সকলের বুক বিদীর্ণ করে দিয়েছিল।সেই অতৃপ্ত মাতৃত্ব যেন আজ পূরণ হচ্ছে ওর। সত্যিই মা তো এমনই হয় ! অভীকের মনে হলো, মায়ের দুধ ও যেন অ্যাকটিনোমাইসেটিস ! জীবনের তপ্ত মাটিতে সোঁদা গন্ধ ফিরিয়ে দিয়ে যায় মায়ের মমতার স্পর্শে !

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত