আপডেট :

        বৈরি আবহাওয়ায় বাতিল হচ্ছে ফ্লাইট

        সরকারি অর্থে ঋষি সুনাকের বাগানের জন্য কেনা ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্ক

        জরুরি অবস্থা ঘোষণা ইতালিতে

        ‘কৃত্রিম সূর্য’ তৈরিতে বড় অগ্রগতি

        এবার এসএসসিতে গড় পাসের হার ৮৭.৪৪%

        দুপুর ১টায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমানের ফল হস্তান্তর

        ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর ৬০ শতাংশই ঢাকায়

        ফিজিওথেরাপিতে নাসার প্রযুক্তি ব্যবহার নেইমারকে সারিয়ে তুলতে

        রোনালদোদের আজ উরুগুয়ে পরীক্ষা

        মরক্কোর কাছে হারের পর দাঙ্গা বেধেঁছে বেলজিয়ামে

        টানটান উত্তেজনার মধ্য দিয়ে স্পেন-জার্মানির ম্যাচে সমতা

        ক্যালিফোর্নিয়ার সময় অনুযায়ী ম্যাচ সিডিউল: ২৮ নভেম্বর

        এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ কাল

        সান বার্নার্ডিনোয় সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত ২, আহত ১

        বিদ্যুৎবিহীন পরিস্থিতিতে জেলেনস্কির সমালোচনার শিকার কিয়েভের মেয়র

        অর্থনৈতিক সংকটের কারণে এ বছর হচ্ছে না পদ্মা ও মেঘনা বিভাগ

        জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো ৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ

        গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে সাবেক এই তারকা দম্পতিকে

        তিনা-রিয়াজ আহমেদ দম্পতি পুত্র সন্তানের মা-বাবা হয়েছেন

        সড়ক দুর্ঘটনার কবলে জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী

রাজা কেন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করবেন

রাজা কেন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করবেন

মালয়েশিয়ায় নতুন সরকার গঠন নিয়ে সংকট নিরসনে এগিয়ে এসেছেন দেশটির রাজা সুলতান আব্দুল্লাহ সুলতান আহমাদ শাহ। গত শনিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে প্রধান রাজনৈতিক জোটগুলোর কোনোটিই একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। এ প্রেক্ষাপটে সরকার গঠন নিয়ে গভীর সংকট সৃষ্টি হয়। কোন দল সরকার গঠন করবে, কে হবেন নতুন প্রধানমন্ত্রী- মালয়েশিয়ায় এটাই এখন আলোচনার কেন্দ্রে। জটিল এ পরিস্থিতিতে আজ বৃহস্পতিবার রাজপরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসছেন রাজা। নির্বাচনে আনোয়ার ইব্রাহিমের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট পাকাতান হারাপান (পিএইচ) পেয়েছে ৮২টি আসন। পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে তাদের প্রয়োজন ছিল ১১২ আসন। অপরদিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিনের জোট পেরিকাতান ন্যাশনাল (পিএন) পেয়েছে ৭৩টি আসন। এ অবস্থায় আনোয়ার ইব্রাহিম ও মহিউদ্দিন ইয়াসিন- উভয়েই সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

এ দুই জোটের নেতাদের সঙ্গে এরই মধ্যে বৈঠক করেছেন রাজা সুলতান আব্দুল্লাহ। কুয়ালালামপুরে মালয়েশিয়ার জাতীয় প্রাসাদের বাইরে মঙ্গলবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তিনি শিগগির একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন। সেসঙ্গে তাঁর সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। মালয়েশিয়ায় 'ইয়াং ডি-পেরতুয়ান' দেশটির রাজপরিবারের সদস্যরা হয়ে থাকেন। পাঁচ বছরের জন্য দেওয়া হয় এ দায়িত্ব। তবে পূর্বসূরির পদত্যাগের কারণে অনেকটা আকস্মিক দায়িত্ব পান বর্তমান রাজা সুলতান আব্দুল্লাহ। মালয়েশিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় পাহাঙ প্রদেশের সুলতান আব্দুল্লাহ লেখাপড়া করেছেন যুক্তরাজ্যে। তিনি ফুটবল খেলোয়াড়ও। দায়িত্ব পালন করেছেন মালয়েশিয়ার ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে। ছিলেন ফিফার নির্বাহী কমিটিতেও। আলজাজিরা জানায়, এরই মধ্যে পিএইচ ও পিএনকে একই ছায়াতলে আনতে সবরকম চেষ্টা চালিয়েছেন রাজা সুলতান আব্দুল্লাহ। তিনি দুই প্রধান জোটকে 'ঐকমত্যের সরকার' গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর এ প্রস্তাবে তারা সম্মত হয়নি। ডানপন্থিদের জোট পিএনের নেতা মহিউদ্দিন সরাসরি এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। আর পিএইচের আনোয়ার ইব্রাহিম বলেছেন, তিনি একটি শক্তিশালী সরকার গঠন করতে চান, যে সরকার হবে 'ধর্ম, বর্ণ, আঞ্চলের ক্ষেত্রে আরও বেশি অন্তর্ভুক্তিমূলক।'

চলমান সংকটের মধ্যে রাজা সুলতান আব্দুল্লাহ গাবুনগান পার্টি সারায়কের (জিপিএস) নেতাদের সঙ্গে গতকাল বৈঠক করেছেন। নির্বাচনে দলটি পার্লামেন্টে ২৩ আসনে বিজয়ী হয়েছে। গাবুনগান পার্টি রাখিয়াতের (জিপিআর) নেতাদের সঙ্গেও বসেছেন। এ দলটি পেয়েছে ছয়টি আসন। এ প্রেক্ষাপটে সংকট না কাটায় আজ অন্য সুলতানদের সঙ্গে বৈঠক করবেন সুলতান আব্দুল্লাহ। মালয়েশিয়ার দ্য স্টার অনলাইন জানায়, রাজধানী কুয়ালালামপুরে রাজপ্রসাদ ইস্তানা নিগারায় এ বৈঠক হওয়ার কথা।

লেখালেখিতে মন দেবেন মাহাথির : মালয়েশিয়ার রাজনীতির প্রভাবশালীদের একজন মাহাথির মোহাম্মদ। পঞ্চাশ বছরের বেশি সময় ধরে তিনি দেশটির রাজনীতিতে প্রভাবশালী ভূমিকায় ছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে প্রথমবারের মতো তার ভরাডুবি হয়। এ অবস্থায় গতকাল বুধবার মাহাথির জানিয়েছেন, তিনি লেখালেখিতে মনোযোগ দেবেন। তবে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াবেন, এ কথা বলেননি। নিজ এলাকা দ্বীপাঞ্চল লঙ্কাউয়ি থেকে ভোটের লড়াইয়ে ৯৭ বছর বয়সী এ রাজনীতিক পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে চতুর্থ হয়েছেন। এ হার মেনে নিয়েছেন মাহাথির। জানা যায়, দেশের ইতিহাস লিখবেন প্রবীণ এ রাজনীতিক। ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, ব্রিটিশ শাসনামলের ঘটনাসহ অনেক কিছু ঘটেছে, যেগুলোর কোনো রেকর্ড নেই।মাহাথির ১৯৮১ সাল থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তার সময়ে দেশটিতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়। ২০১৮ সালে তিনি আবারও নির্বাচিত হন এবং বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লেখান। মাহাথির সব সময়ই ব্রিটিশ শাসনের কঠোর সমালোচক ছিলেন। প্রথমবার ক্ষমতায় গিয়ে তিনি ব্রিটেন থেকে আমদানি সীমাবদ্ধ করেছিলেন। ১৯৫৭ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীন হয় মালয়েশিয়া।

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত