যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ১৮ অগাস্ট, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 04:49pm

|   লন্ডন - 11:49am

|   নিউইয়র্ক - 06:49am

  সর্বশেষ :

  সবচেয়ে বেশি আয় স্কারলেট জোহানসনের   শিক্ষার্থীদের নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার দাবি ড. কামালের   ছাত্র আন্দোলনে ‘গুজব’ ছড়ানোর অভিযোগে কফিশপের মালিক ফারিয়া রিমান্ডে   এবার ট্রাম্পের পুত্রবধূর বিরুদ্ধে অভিযোগ   যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন!   হ্যান্ডশেক না করা সেই সুইডিশ তরুণী মামলায় জিতলেন   ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে নিহত ৮ শতাধিক   পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, শপথ শনিবার   মিলানে শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন   নিউজিল্যান্ডে বাড়ি কিনতে পারবে না বিদেশিরা   লিবিয়ায় হত্যার দায়ে ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড   কোটা সংস্কার আন্দোলন : ইডেন কলেজছাত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে   বঙ্গবন্ধু হত্যায় খালেদাও জড়িত: প্রধানমন্ত্রী   ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ী আর নেই   আমেরিকার বিপক্ষে তুরস্কের সঙ্গে জার্মান

মূল পাতা   >>   তারুণ্য

যুক্তরাষ্ট্রে ‘সাহসী নারী’র পুরষ্কার পেলেন বাংলাদেশি মেয়ে

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৩-৩০ ০৬:৪৫:২১

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প ও রাজনীতি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট থমাস এ. শ্যাননের হাত থেকে পুরস্কার নিলেন বাংলাদেশের ‘কন্যা সাহসিকা’ শারমিন আক্তার।

বুধবার (২৯ মার্চ) বেলা ১১টায় মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শারমিনের হাতে ‘ইন্টারন্যাশনাল উইমেন অব কারেজ (আইডব্লিউওসি) অ্যাওয়ার্ড’ শীর্ষক এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ১৩ জন নারীকে এবার সাহসিকতা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। শারমিনকে এ সম্মানজনক পুরস্কার দেওয়া হয়েছে বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে বিশেষ ভূমিকা রাখার জন্য।

২০০৭ সাল থেকে প্রতিবছর বিশ্বের নারীদের অসাধারণ সাহসিকতা ও নেতৃত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ এ পুরস্কার দেওয়া হয়ে থাকে। এ পর্যন্ত বিশ্বের ৬০টি দেশ থেকে শতাধিক নারী পেয়েছেন এ পুরস্কার।

অনুষ্ঠানে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প বলেন, এই সাহসী নারীদের সঙ্গে একই মঞ্চে উপস্থিত থাকতে পারা আমার জন্য খুব সম্মানের। আমি বিশ্বাস করি বিশ্বকে পরিবর্তন ও উন্নয়নের পথে প্রত্যেক পুরস্কারগ্রহীতা অসম্ভব সব বাধা অতিক্রম করেছেন। সমন্বিত ও ব্যক্তিগত সাহসিকতার মাধ্যমে আমাদের বিশ্বকে নিরাপদ রাখতে নারী হিসেবে আমাদের অবশ্যই একসঙ্গে দাঁড়ানো অব্যাহত রাখা উচিৎ।

যেখানে নারীরা পিছিয়ে থাকে, সেখানে পুরো বিশ্বই পিছিয়ে থাকে উল্লেখ করে ফার্স্ট লেডি বলেন, আমাদেরকে নারীর ক্ষমতায়ন এবং জাতি ও নৃ-গোষ্ঠী নির্বিশেষে সকল মানুষের সম্মানের জন্য কাজ অব্যাহত রাখতে হবে, সব সময় মনে রাখতে হবে যে আমরা একসঙ্গে একটিই জাতি – মানব জাতি – এবং আমাদের প্রত্যেকেরই বিশ্বের কাছে তুলে ধরার মতো স্বকীয় প্রতিভা ও সহজাত গুণ রেয়েছে।

এই খবরটি মোট পড়া হয়েছে ১৬৯৮ বার

আপনার মন্তব্য