আপডেট :

        বৈরি আবহাওয়ায় বাতিল হচ্ছে ফ্লাইট

        সরকারি অর্থে ঋষি সুনাকের বাগানের জন্য কেনা ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্ক

        জরুরি অবস্থা ঘোষণা ইতালিতে

        ‘কৃত্রিম সূর্য’ তৈরিতে বড় অগ্রগতি

        এবার এসএসসিতে গড় পাসের হার ৮৭.৪৪%

        দুপুর ১টায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমানের ফল হস্তান্তর

        ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর ৬০ শতাংশই ঢাকায়

        ফিজিওথেরাপিতে নাসার প্রযুক্তি ব্যবহার নেইমারকে সারিয়ে তুলতে

        রোনালদোদের আজ উরুগুয়ে পরীক্ষা

        মরক্কোর কাছে হারের পর দাঙ্গা বেধেঁছে বেলজিয়ামে

        টানটান উত্তেজনার মধ্য দিয়ে স্পেন-জার্মানির ম্যাচে সমতা

        ক্যালিফোর্নিয়ার সময় অনুযায়ী ম্যাচ সিডিউল: ২৮ নভেম্বর

        এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ কাল

        সান বার্নার্ডিনোয় সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত ২, আহত ১

        বিদ্যুৎবিহীন পরিস্থিতিতে জেলেনস্কির সমালোচনার শিকার কিয়েভের মেয়র

        অর্থনৈতিক সংকটের কারণে এ বছর হচ্ছে না পদ্মা ও মেঘনা বিভাগ

        জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো ৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ

        গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে সাবেক এই তারকা দম্পতিকে

        তিনা-রিয়াজ আহমেদ দম্পতি পুত্র সন্তানের মা-বাবা হয়েছেন

        সড়ক দুর্ঘটনার কবলে জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী

মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের দায়ে ৪ নারী সাংবাদিক অভিযুক্ত

মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের দায়ে ৪ নারী সাংবাদিক অভিযুক্ত

ছবি: এলএবাংলাটাইমস

মিশরে একটি বেসরকারি অনলাইন পত্রিকার সম্পাদকসহ চার নারী সাংবাদিককে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ ও দেশের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সম্মানহানির দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদন প্রকাশের পরই অনলাইন পত্রিকাটির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে নেশনস ফিউচার পার্টি। এরই জের ধরে গত বুধবার ওই চার নারী সাংবাদিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠান প্রসিকিউটররা। তবে আপাতত জামিনে মুক্তি পেয়েছেন ওই চার নারী।

গত ৩১ আগস্ট নেশনস ফিউচার পার্টি সম্পর্কে একটি নিউজলেটার প্রকাশ করে মাদা মাসর। সংবাদটি দেশটির সংসদে আধিপত্য বিস্তার করে এবং প্রেসিডেন্ট সিসিকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন দেয়।

তবে নেশনস ফিউচার পার্টি প্রতিবেদনটিকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করে বলেছে, দেশের নিরাপত্তাকে অস্থিতিশীল করতে সংশয়পূর্ণ ও অপেশাদার কৌশল ব্যবহার করেছে মাদা মাসর। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমটির বিরুদ্ধে মামলা করে দলটি।

প্রতিবেদনটি তৈরি করেছিলেন রানা মামদুহ, সারা সাইফ উদ্দিন ও বিসান কাসাব। মামলায় নেশনস ফিউচার পার্টি এই তিনজনসহ মাদা মাসরের প্রধান সম্পাদক লিনা আত্তালাহের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি অভিযোগ আনে।

এ ছাড়া মিসেস আতালাহের বিরুদ্ধে লাইসেন্স ছাড়া একটি নিউজ ওয়েবসাইট চালানোর অভিযোগও আনা হয়। ২০১৮ সালে মিশরে গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণে একটি নতুন আইন কার্যকর হয়। তখন থেকেই লাইসেন্স পাওয়ার চেষ্টা করছে মাদা মাসর। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তাদের লাইসেন্স দেয়া হয়নি।

মিশরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদুল ফাত্তাহ আল-সিসির অধীনে দেশটিতে বাকস্বাধীনতা ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে।

এলএবাংলাটাইমস/ওএম

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত