Updates :

        ৯ মাসে সরকারের ঋণ বেড়েছে ১ লাখ কোটি টাকার উপরে

        উত্তরায় গার্ডার পড়ে নিহতের ঘটনায় মামলা

        বিশ্ব ফুটবলে ভারত নিষিদ্ধ!

        অবশেষে শ্রীলঙ্কার বন্দরে চীনের জাহাজ

        বঙ্গবন্ধু ফাঊন্ডেশন গ্রেটার ওয়াশিংটন ডিসি শাখার উদ্যোগে শোক দিবস পালিত

        মার্কিনিদের তাইওয়ান সফরে ফের উত্তেজনা, যুদ্ধের মহড়া দিচ্ছে চীন

        ঢাকায় ফ্লাইওভারের গার্ডার পড়ে প্রাইভেটকারের ৫ যাত্রী নিহত

        সান ফ্রান্সিসকো সিলিকন ভ্যালি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শোক দিবস পালন

        ২০২৩ সালে হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা! রাজধানী কাশী, ভোটাধিকার থাকবে কেবল হিন্দুদের

        স্পেনে দাবানল, শহর ছেড়ে পালাচ্ছে মানুষ

        আজ জাতীয় শোক দিবস

        যুক্তরাষ্ট্রে গ্রিনকার্ডের আবেদন জমে আছে ৮৬ লাখ

        সালমান রুশদির ওপর হামলাকারী যুবকের পরিচয় প্রকাশ

        পেনসিলভেনিয়ায় গাড়ি হামলায় মৃত ১, আহত ১৭

        ছাত্রকে বিয়ে করে ভাইরাল সেই শিক্ষিকার আত্মহত্যা

        আন্দোলনকারীদের যেন গ্রেফতার করা না হয়: প্রধানমন্ত্রী

        মিশরে চার্চে আগুন, নিহত ৪১

        নতুন প্রজন্মের বঙ্গবন্ধু ভাবনা

        কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় রহিমুল্লাহ হাক্কানি নিহত

        যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো রাডার সিস্টেম ধ্বংসের দাবি রাশিয়ার

ফিরে এসেছে লন্ডনে হারিয়ে যাওয়া বাংলাদেশী হাফিজা

ফিরে এসেছে লন্ডনে হারিয়ে যাওয়া বাংলাদেশী হাফিজা

চার দিন নিখোঁজ থাকার পর খুঁজে পাওয়া গেছে লন্ডনে হারিয়ে যাওয়া বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত হাফিজাকে। সোমবার রাত ১১.৩০ মিনিটের দিকে বাসায় ফিরেছেন তিনি। পরিবারের পক্ষ থেকে তার বড় বোন জয়নব এই খবর নিশ্চিত করেছেন। পরে বিবিসিসহ স্যোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে হাফিজার ফিরে আসার খবর।

লন্ডনের নিউহামের সেন্ট্রাল পার্ক রোডের বাসিন্দা ১৪ বছরের স্কুল ছাত্রী হাফিজা নিখোঁজ হয় গত ৭ অক্টোবর। স্ট্রাাটফোর্ডের সারা বোনেল গার্লস স্কুলের ইয়ার টেনের শিক্ষার্থী তিনি। ওই দিন স্কুল থেকে বাসায় না ফিরলে তার পরিবার চারদিকে খুজঁতে থাকে। বাংলাদেশী কমিউনিটিসহ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে তার হারিয়ে যাওয়ার খবর।

তার পরিবার পুলিশকে জানালে সবাই মিলে খুঁজতে থাকে ব্রিটিশ বাংলাদেশী তরুণী হাফিজাকে। শুরুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, হোয়াটসআপ, ফেসবুক ইত্যাদিতে হাজার হাজার পোষ্ট শেয়ারের মাধ্যমে মানুষের সহায়তা চাওয়া হয়। পরে টাওয়ার হ্যামলেটস ও নিউহ্যামের বিভিন্ন রাস্তার গাছ, পিলার, বাসস্টপে ছড়িয়ে দেয়া হয় হাফিজার ছবিসহ হারিয়ে যাওয়ার পোষ্টার। পোস্টারে আবেদন করা হয়, কেউ যদি হাফিজাকে খুঁজে পান তাহলে যেন অবশ্যই পুলিশ অথবা পরিবারের সাথে যোগাযোগ করেন।

হাফিজার নিরাপদ ফিরে আসায় লন্ডনে বাংলাদেশী কমিউনিটির মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে। কমিউনিটির বিভিন্ন পর্যায় থেকে এই সংবাদটির পর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয় সৃষ্টিকর্তার কাছে। সবার একটাই প্রত্যাশা ছিল হাফিজার নিরাপদ ফিরে আসার জন্য। সোমবার রাতে হাফিজা ফিরে এলে পরিবার থেকে একটি ম্যাসেজ বিভিন্ন হোয়াটসআপ গ্রুপে জানিয়ে দেয়া হয়। সেখানে তারা বলেন, এই মুহূর্তে হাফিজা নিরাপদে বাড়ি ফিরেছে এটাই সবচেয়ে বড় স্বস্তির। এর বাইরে আপাতত আর কোনো তথ্য তারা বলতে পারছেন না।

এদিকে হাফিজা নিখোঁজের পর থেকে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের নিউহ্যাম শাখা বেশ দায়িত্বশীলতার সাথে হাফিজাকে খুঁজে গেছে। তারাও সচেষ্ট ছিলো হাফিজা যেহেতু কিশোরী তাই তাকে নিরাপদে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে। লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ মঙ্গলবার ভোর রাতের দিকে টুইট কওে জানায়- ‘ভালো খবর, হাফিজাকে খুঁজে পাওয়া গেছে এবং তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। সবাইকে বিশেষ ধন্যবাদ যারা হাফিজার নিখোঁজ সংবাদ শেয়ার করেছেন। সবার প্রতি শুভকামনা।’

এদিকে হাফিজা চার দিন কোথায় ছিল, কিভাবে ছিল, কিভাবে উদ্ধার হয়েছে- তার কোনো তথ্য এখনো প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে বড় বোন জয়নব, হাফিজাকে খুঁজে পেতে ব্যাপক প্রচারণার জন্য সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, আমরা এই মুহূর্তে এর চেয়ে বেশি কিছু জানাতে পারছি না। কিন্তু আমরা প্রত্যেক ব্যক্তিকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি, হাফিজাকে খুঁজে পেতে সহায়তার জন্য। যারা পোস্টার লাগিয়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করেছেন তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা। তিনি তার বোনের জন্য দোয়া কামনা করেন।

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/এল

[এলএ বাংলাটাইমসের সব নিউজ আরও সহজভাবে পেতে ‘প্লে-স্টোর’ অথবা ‘আই স্টোর’ থেকে ডাউনলোড করুন আমাদের মোবাইল এপ।]

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত