Updates :

        শাস্তি মওকুফ হচ্ছে শাহাদাতের

        ফুটপাতে বস্তাভর্তি জাতীয় পরিচয়পত্র!

        আমরা কেন ধর্ষককে সম্ভ্রমহারা পুরুষ বলি না: শিক্ষামন্ত্রী

        সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট

        হাউজে ভোটাভুটির অপেক্ষায় তৃতীয় নাগরিক প্রণোদনা প্যাকেজ

        ক্যালিফোর্নিয়ায় ছুরিকাঘাতে মা-মেয়ের মৃত্যু, তদন্তে পুলিশ

        লস এঞ্জেলেসে গোলাগুলিতে মৃত ১, আটক ৪

        বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়ার্স এন্ড আর্কিটেক্টস সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া চ্যাপ্টারের ‘হাই স্কুল স্টুডেন্ট ওয়ার্কশপ’ শীর্ষক জুম কর্মশালা আয়োজন

        বাংলাদেশে করোনার এক বছর, শনাক্ত সাড়ে পাঁচ লাখের বেশি

        এবার ইংল্যান্ডের কাছে বাংলাদেশের সাবেকদের হার

        ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু আজ

        ইসলামে নারীর অধিকার

        কুমিরের পেট কেটে বের করা হলো গিলে ফেলা শিশু

        হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় ফরাসি ধনকুবের এমপির মৃত্যু

        মোদির পাশে বসার শখ পূরণ হলো না তাদের

        আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস

        গায়ানার সেনাঘাঁটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বহু হতাহত

        লস এঞ্জেলেসে বাংলাদেশ কনস্যুলেটে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন

        ১৫-১৬ মার্চ ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল ফিজিটাল এডুকেশন সামিট

        নারী অর্থনৈতিক সমতা নিয়ে দুই নির্বাহী আদেশে সই করবেন বাইডেন

দেশে দারিদ্র্যের হার বেড়েছে, আয় কমেছে ৫৫.৯ ভাগ পরিবারের

দেশে দারিদ্র্যের হার বেড়েছে, আয় কমেছে ৫৫.৯ ভাগ পরিবারের

করোনা মহামারির সময় দেশে সার্বিক দারিদ্র্যের হার বেড়ে হয়েছে ৪২ শতাংশ। তুলনামূলক বেশি দারিদ্র্য মানুষের বসবাস রংপুর বিভাগে। করোনার প্রভাবে দেশে দারিদ্র্য মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বৈষম্যও বেড়েছে।

বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অন ইকোনমিক মডেলিং (সানেম) এর জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। সংস্থাটির হিসাবে করোনার এই সময়ে মাথাপিছু গড় শিক্ষাব্যয় কমলেও সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য খাতে খরচ বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ।

‘দারিদ্র্য ও জীবিকার ওপর কোভিড-১৯ মহামারির প্রভাব: সানেমের দেশব্যাপী জরিপের ফলাফল’ শিরোনামের শনিবার একটি ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ওয়েবিনারে জরিপের ফলাফল উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এবং সানেমের নির্বাহী পরিচালক ড. সেলিম রায়হান।

ওয়েবিনারে আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ, সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন, অর্থনীতিবিদ ড. জাহিদ হোসেন।

জরিপের ফলাফল উপস্থাপনের সময় ড সেলিম রায়হান বলেন, এই জরিপের মূল উদ্দেশ্য ছিলো কোভিড পূর্ববর্তী সময়ের সঙ্গে কোভিড পরবর্তী সময়ে দারিদ্র্য, বৈষম্য ও কর্মসংস্থানের স্বরূপ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া। ২০১৮ সালে পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের (জিইডি) সঙ্গে সানেমের করা জরিপের মধ্যে থেকে ৫৫৭৭টি খানার ওপর এই জরিপটি ফোন কলের মাধ্যমে পরিচালিত হয়। সারা দেশব্যাপী এই জরিপটি ২০২০ সালের ২ নভেম্বর থেকে ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিচালিত হয়।

জরিপের ফল অনুযায়ী, ২০২০ সালের শেষ দিকে দেশের দারিদ্র্য হার পাওয়া গেছে ৪২ শতাংশ। ২০১৮ সালে জিইডি-সানেমের জরিপে যা ছিলো ২১ দশমিক ৬ শতাংশ এবং ২০১৬ সালের বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) খানা জরিপ অনুসারে দারিদ্র্য হার ছিল ২৪ দশমিক ৩ শতাংশ।

বিবিএস’র খানা জরিপ অনুসারে ২০১৬ সালে গ্রামাঞ্চলের সার্বিক দারিদ্র্য ছিলো ২৬ দশমিক ৪ শতাংশ, ২০১৮ সালের জিইডি সানেম জরিপ অনুসারে যা ছিলো ২৪ দশমিক ৫ শতাংশ, করোনাকালীন ২০২০ সালে এই হার বেড়ে হয়েছে ৪৫ দশমিক ৩ শতাংশ। শহরাঞ্চলে সার্বিক দারিদ্র্যের হার ২০১৬ সালে ছিলো ১৮ দশমিক ৯ শতাংশ, ২০১৮ সালে ছিলো ১৬ দশমিক ৩ শতাংশ আর ২০২০ সালে এই হার বেড়ে হয়েছে ৩৫ দশমিক ৪ শতাংশ।

চরম দারিদ্র্যের হারের (লোয়ার পোভার্টি রেট) ক্ষেত্রে ২০১৬ সালে বিবিএস’র খানা জরিপ অনুসারে এই হার ছিলো জাতীয়ভাবে ১২ দশমিক ৯ শতাংশ। তবে ২০২০ সালে মহামারির প্রভাবে এই হার বেড়ে হয়েছে ২৮ দশমিক ৫ শতাংশ। গ্রামাঞ্চলে চরম দারিদ্র্যের হার এখন ৩৩ দশমিক ২ শতাংশ। শহরাঞ্চলে চরম দারিদ্র্যের হার বেড়ে হয়েছে ১৯ শতাংশ।

২০২০ সালে সার্বিক দারিদ্র্যের হার বরিশালে ছিলো ২৯ দশমিক ৩ শতাংশ, চট্টগ্রামে ৩৫ দশমিক ১ শতাংশ, ঢাকায় ৩৮ দশমিক ৪ শতাংশ, খুলনায় ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ, ময়মনসিংহে ৪৬ দশমিক ২ শতাংশ, রাজশাহীতে ৫৫ দশমিক ৫ শতাংশ, রংপুরে ৫৭ দশমিক ৩ শতাংশ এবং সিলেটে ৩৫ শতাংশ।

প্রাক-কোভিড এবং কোভিড পরবর্তী পরিস্থিতিতে জাতীয় পর্যায়ে অসমতার তুলনা করার জন্য গিনি সহগ ব্যবহার করা হয়েছে। গিনি সহগ ২০১৮ সালে ছিল শূন্য দশমিক ৩১ এবং ২০২০-এ বেড়ে শূন্য দশমিক ৩২ হয়েছে। ২০১৮ এবং ২০২০ সালের মধ্যে মাথাপিছু গড় শিক্ষাব্যয় হ্রাস পেয়েছে। তবে গড় মাথাপিছু স্বাস্থ্যব্যয় বেড়েছে, মধ্যম দরিদ্র (৯৭%) এবং অ-দরিদ্র (১০৪%) পরিবারের জন্য এটি সবচেয়ে বেশি।

 

এলএবাংলাটাইমস/এলআরটি/বি

শেয়ার করুন

পাঠকের মতামত