যুক্তরাষ্ট্রে আজ শনিবার, ২৬ মে, ২০১৮ ইং

|   ঢাকা - 09:23pm

|   লন্ডন - 04:23pm

|   নিউইয়র্ক - 11:23am

  সর্বশেষ :

  একসাথে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করবেন রোনালদিনহো!   কঙ্গোতে নৌকা ডুবে ৪৯ জনের মৃত্যু   ট্রাম্প-কিম সম্মেলন বাতিলে উত্তেজনা-অস্থিতিশীলতার আশঙ্কা   যুক্তরাজ্যে ফের মেয়র নির্বাচিত হলেন সিলেটের মুজিবুর   কানাডায় রেঁস্তোরায় বিস্ফোরণে আহত ১৫   ভারতের পশ্চিমবঙ্গে হাসিনা-মোদির ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধন   নিরপেক্ষ সরকার ও নির্বাচন কমিশন গঠনের দাবি জানালেন বি চৌধুরী   ইতালীতে আ.লীগ নেতার উদ্যোগে ইফতার মাহফিল   বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী আজ   প্রফেসর ইউনূসকে অভ্যর্থনা জানালেন ইতালীয় পার্লামেন্ট স্পীকার   জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত   নোয়াখালী সমিতি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল   ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টকে শেখ হাসিনার ফোন   শিক্ষা ছাড়া হারিয়ে যাওয়া একটি প্রজন্মে পরিণত হবে রোহিঙ্গা শিশুরা : প্রিয়াঙ্কা চোপড়া   কিমের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন ট্রাম্প

>>  সিলেট এর সকল সংবাদ

আজান শুনে ক্ষেপে গেলেন আ’লীগ নেতা আনহার, শাসালেন ইমামকে

আনহার মিয়া। বালাগঞ্জ উজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বোয়ালজুড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। মধ্যবিত্ত পরিবারের আনহার এক সময় নিজ গ্রাম চান্দাইড়পাড়া স্কুলের পাশে চাচার দোকানে চা বিক্রি করতেন। এর পর কাজ শুরু করেন একটি ইন্সুেরেন্স কোম্পানীতে। আর ইন্সুরেন্স কোম্পানীতে কাজ করা কালিন সময়ে আওয়ামীলীগের একটি অঙ্গ সংগঠনের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন। তৎক্ষালিন যুবলীগ নেতা ফারুক মিয়ার আশির্বাদে দলে বেশ ভালো অবস্থান করে নেন। এরপর বোয়ালজুড় ইউনিয়ন পরিষদের তৎকালিন চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান (আখল মিয়া) আকস্মিক মৃত্যুবরণ করলে উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে ইউপি

বিস্তারিত খবর

গোলাপগঞ্জে গ্যাস রাইজারে আগুন ধরে মা-ছেলেসহ ৫ জনের মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৩-১৮ ০১:২৫:৪০

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার একটি বাড়িতে আগুনে পুড়ে মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আহত হয়েছে দুইজন।

রোববার ভোররাত সোয়া ৩টার দিকে উপজেলার লহ্মণাবন্দ পাহাড় লাইন এলাকায় স্থানীয় ক্লাব বাজারের লয়লু মিয়ার কলোনিতে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ করে। তবে, এর আগে বাড়ি পুড়ে হতাহত হয়।

নিহতরা হলেন- জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলার মোগলাবাজার খালেরমুখ গ্রামের ফজলু মিয়ার স্ত্রী তাসকিমা বেগম (৩০) ও তার শিশু সন্তান তাহমিদ (২), গোলাপগঞ্জের দক্ষিণ নোয়াই গ্রামের সেবুল (১৬), একই উপজেলার পনাইরচক গ্রামের মছকন্দর আলীর স্ত্রী সেবু বেগম (২২) ও অজ্ঞাত কিশোর (১৬)। নিহতদের মধ্যে দুই নারীই অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

সিলেট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক দিনেমনি শর্ম্মা বলেন, গ্যাস রাইজারের উপর বজ্রপাত হলে আগুন ধরে যায়। এতে তিন কক্ষের সেমিপাকা ঘরে আগুন লাগে। ঘুমন্ত অবস্থায় দগ্ধ হয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।  নিহতের মধ্যে একটি শিশু, দুইজন কিশোর ও দুইজন নারী।

প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির তথ্য দিতে পারেননি তিনি। গোলাপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম ফজলুল হক শিবলীও অগ্নিকাণ্ডে নিহতের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি 

বিস্তারিত খবর

শাবিতে জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত

 প্রকাশিত: ২০১৮-০৩-০৩ ১১:২৫:৫২

বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের মাথায় ছুরিকাঘাত করেছে এক দুর্র্বৃত্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে গতকাল বিকেল ৫টা ৪৫মিনিটে ইলেকট্রিকাল এন্ড ইলেট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অনুষ্ঠান চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে। তার পরিচয় জানা যায়নি। বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রচুর র‌্যাব ও পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রোবো ফাইট চলাকালীন সময়ে পিছন দিক থেকে একজন দুর্বৃত্ত তাকে ছুরিকাঘাত করে। দুজন হামলাকারীর একজনকে ধরতে পারলেও অন্যজন মোটর সাইকেলে চড়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এসময় রক্তাক্ত অবস্থায় পুলিশের গাড়িতে করে ড. জাফর ইকবালকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার সময় ইব্রাহীম নামে একজন পুলিশ সদস্যও হাতে ছুরিকাহত হন।

এদিকে হামলাকারীর অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা যায়। পুলিশ তাকে উদ্ধার করতে পারে নি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাকে একাডেমিক ভবন এ-তে আটক করে রাখা হয়েছে। বিক্ষোব্ধ শিক্ষার্থীদের বাঁধার মুখে তাকে কোন ধরনের চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়নি। ভবনের বাইরে প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থী জমায়েত হয়েছে। আটককৃত হামলাকারীর নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তার মুখে গুচ্ছ দাড়ি, পরনে কালো টি-শার্ট এবং জিন্স প্যান্ট ছিল।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত সিলেট মেট্রোপলিটন পলিশের এডিসি জ্যোতির্ময় সরকার তপু বলেন, ‘আমরা হামলাকারীকে উদ্ধারের চেষ্টা করছি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে।’ বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে বিপুল সংখ্যক  পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়ন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে সিলেট ওসমানী মেডিকেলের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার মাহবুবুল হক জানান, ‘স্যারের অবস্থা এখন শংকামুক্ত রয়েছে। তাৎক্ষণিক চিকিৎসার জন্যে এয়ার অ্যাম্বোলেন্সে করে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে পাঠানো  হয়েছে।’

এদিকে হামলার ঘটনায় তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে শাবি প্রেসক্লাব। এছাড়াও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট, সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

গত শুক্রবার র‌্যাগিংয়ের শাস্তির ঘটনায় জাফর ইকবাল শাস্তি কম হয়েছে উল্লেখ করে জাতির কাছে ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দেন। এ ঘটনার রেশ ধরেই হামলা হয়েছে কিনা তা এখনো জানা যায়নি।

হুমকি দিয়ে হামলা :
এর আগেও জাফর ইকবাল ও তার সহধর্মিণীকে হত্যা চেষ্টা করে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন। ২০১২ সালে জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লা বাংলা টিমের পক্ষ থেকে ও হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এরই প্রেক্ষিতে জালালাবাদ থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এরপর থেকেই উনার সুরক্ষার স্বার্থে ছয়জন পুলিশ টহলে থাকেন। পুলিশ প্রহরায়ই এবার তাকে হামলা করা। এছাড়াও ২০১১ এবং ২০০৯ সালেও হত্যার হুমকি দেয়া হয়।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেটে ২ সাংবাদিককে পেটালো ছাত্রলীগ

 প্রকাশিত: ২০১৮-০২-১০ ১৩:১৫:৪৮

সিলেটে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীদের হামলায় একটি বেসরকারি টেলিভিশনের দুই সাংবাদিক আহত হয়েছেন। মির্জাজাঙ্গাল নিম্বাক আশ্রমের ফটকে শনিবার দুপুরে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
 
আহতরা হলেন- ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সিলেট ব্যুরোর স্টাফ করসপনডেন্ট মাধব কর্মকার ও ভিডিওগ্রাফার গোপাল বর্ধন।

আহত সাংবাদিকরা বলেন, ‘দুপুর দেড়টার দিকে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের সংবাদ সংগ্রহে যাওয়ার পথে তাদের উপর হামলা করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ ক্যাডাররা।

তারা জানান, হামলাকারীরা মাধবকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। এ সময় তারা ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। গোপাল বর্ধনের মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

মাধব কর্মকার বলেন, ‘মদনমোহন কলেজ ছাত্রলীগ ক্যাডার রাজেশ সরকার ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোসাদ্দেক হোসেনের নেতৃত্বে ১৫-২০ জনের একটি দল অতর্কিত হামলা চালায়।’

হামলার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। কামরান এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

শাজজালাল-শাহপরানের মাজার জিয়ারত করলেন খালেদা

 প্রকাশিত: ২০১৮-০২-০৫ ১১:০৯:৫৩

বিএনপি চেয়ারপার্সন ও ২০ দলীয় জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া গতকাল সোমবার সিলেটে সফর করেছেন। শুধুমাত্র ওয়ালিকুল শিরোমনি হযরত শাহজালার (রহ.) ও হযরত শাহপরাণ (রহ.) এর মাজার জিয়াতের লক্ষ্যেই তাঁর সিলেট সফর। সফর সূচনাপূর্বে সোমবার সকাল সোয়া ৮টায় গুলশানে খালেদা জিয়ার বাড়ির সামনে সাংবাদিকদের এ তথ্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। পরে সকাল ৯টা ১৬ মিনিটে গুলশানের বাসভবন (ফিরোজা) থেকে  শতাধিক গাড়ির বহর নিয়ে সিলেটের পথে রওনা দেন বেগম খাএলদা জিয়া। সিলেট আগমনপথে কোথাও বিরতি নেয়নি বিএনপি চেয়ারপারসনের গাড়িবহর। সিলেট পৌঁছাতে কোন প্রকার প্রতিবন্ধকতার মূখোমূখি হতে হয়নি বেগম জিয়াকে। শাসকদল ও পুলিশের সাথে দলীয় নেতাকর্মীদের বিক্ষিপ্ত কয়েকটি ঘটনা ছাড়াই গাড়িবহর নিয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সিলেটে পৌঁছান সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

বিকেল সাড়ে ৪টায় সিলেট সার্কিট হাউজে প্রবেশ করে বেগম জিয়ার গাড়িবহর। এসময় সিলেট নগরীর রাজপথ ছিল জনাকীর্ণ। এসময় সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহর দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল দিয়ে নগরীতে প্রবেশের পর থেকে হাজার হাজার মানুষ সড়কের দুই পাশে দাঁড়িয়ে তাকে স্বাগত জানাতে থাকেন। খালেদাকে দেখেই মিছিল-শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে সিলেটের রাজপথ। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সদস্য এবং সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান চেয়ারপার্সনের সফরসঙ্গী ছিলেন বলে দলীয় সূত্র জানায়।

সিলেট সার্কিট হাউসে একঘন্টা বিশ্রামের পর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে গাড়ী বহর নিয়ে হযরত শাহজালাল (র.) এর মাজারে রওয়ানা দেন। এসময় চৌহাট্টা থেকে মাজার পর্যন্ত রাস্তার দু’ধারে হাজার-হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকরা তাকে স্বাগত জানায়। সন্ধ্যা ৫টা ৫৬ মিনিটে তিনি নগরীর দরগাহ মাজারে পৌঁছান। সেখানে মহিলা এবাদত খানায় ফাতিহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন তিনি। পরে গাড়িবহর নিয়ে হযরত শাহপরাণ (র.) এর মাজার জিয়ারতে যান। জিয়ারত শেষে রাতেই গাড়িবহর নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়া দেন বেগম খালেদা দিয়। সফরকালে কোন সভা কিংবা কোন দলীয় বৈঠক করেনে নি। গনমাধ্যম কর্মীদের সামনে কোন প্রেস ব্রিফিংও করেন নি বেগম খালেদা জিয়া।

বেগম খালেদা জিয়ার সিরেট সফরকালে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের দুধারে বিভিন্ন শহরে ও স্থানে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা নেত্রীকে বিদায় ও স্বাগত জানায়। এসময় বিভিন্ন স্থানে শাসকদলীঢ নেতাকর্মী ও পুলিশের সাথে বিএরনপি’র নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এসময় ঢাকা-সিলেট মসহাসড়কেই বিএনপির ১৭নেতাকর্মী আটক হন। এর আগের দিন ও রাতে সিলেটে ৩৮নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ। সব মিলে বেগম খালেদা জিয়ার সিলেট সফরে আটক হন বিএনপির ৫৫ নেতাকর্মী। আইনশৃংখলা রক্ষার্থে তাদের আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দীর্ঘ চারবছর পর বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সিলেট সফর। সর্বশেষ দশম জাতীয় নির্বাচনের আগে ২০১৩ সালের ৪ অক্টোবর সিলেটে জনসভায় বক্তব্য রেখেছিলেন খালেদা জিয়া। ২০ দলীয় জোটের ব্যানারে সিলেট আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে এ জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরআগে ২০১১ সালের ১০ অক্টোবর ঢাকা থেকে রোডমার্চ করে সিলেটে এসেছিলেন তিনি। পরদিন ১১ অক্টোবর আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে সমাবেশে বক্তৃতাও দিয়েছিলেন।

গত ৩০ জানুয়ারী প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সিলেট সফর, সিলেট থেকে নির্বাচনী প্রচারনার ঘোষনা এবং ১ ফেব্রুয়ারি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাএদর সিলেট সফর ও নির্বাচনী প্রচারনা শুরুর পর গতকাল সোমবার সিলেটে মাজহার জিয়ারতে আসেন সরকারবিরোধী বৃহৎ রাজনৈতিক দরের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তবে এটা ছিল তাঁর নিছক ব্যক্তিগত সফর। তাই কোন রাজনৈতিক কর্মসুচী, নির্বাচন কিংবা আন্দোলনের ঘোষনা দেন নি বেগম খালেদা জিয়। সম্পূর্নং নিরব ও নিস্তব্ধে সিরেট সফর সম্পন্ন করেন দেশের ৩ বারের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে বিএনপির চেয়ারপার্সন ও তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সিলেট সফর সফল করায় দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের সিলেটবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ। গতকাল এক বিবৃতিতে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, মহানগর সভাপতি নাসিম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, জেলা সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বলেন, নানা প্রতিকুলতা ও প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে সোমবার সিলেটে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শুভাগমন উপলক্ষে দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের সিলেটবাসী যে ভূমিকা রেখেছেন তাতে তারা কৃতজ্ঞ। সকল জুলুম, অন্যায় ও অবিচারের বিরুদ্ধে অতীতের মতো  ‘দেশনেত্রী’র পাশে থাকার জন্য সর্বস্তরের জনতার প্রতি আহবান জানান তারা।


এলএবাংলাটাইমস/স/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সেনা কর্মকর্তাকে ছুরিকাঘাতের মামলায় সিলেটে ৬ ছাত্রলীগ কর্মীর কারাদণ্ড

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-২৫ ১০:৫৮:২৫

সিলেটে এক সেনা কর্মকর্তাকে ছুরিকাঘাত করে গাড়ি ভাঙচুর করার অভিযোগে দ্রুত বিচার আইনে দায়ের করা মামলায় সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের ছয়জন কর্মীকে চার বছর করে কারা ও অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার আদালত এ রায় দেন।

কারাদণ্ড পাওয়া ছয়জন হলেন-হাসান শাহরিয়ার ওরফে রফি, সাফকাত হোসেন ওরফে শুভ, কাজি মাকসুদ আহমদ, ভানুলাল দাশ, সাইদুল ইসলাম ও সমীরণ চৌধুরী ওরফে সৌরভ। জুয়েল ও পাভেল নামের দুই ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার সিলেটের মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম মো. সাইফুজ্জামান হিরো এ রায় দেন। দণ্ডিত ছয়জন সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন বলে নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম নিশ্চিত করেছেন।

অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি মাহফুজুর রহমান গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ছয়জনকে চার বছর করে কারাদণ্ড ছাড়াও ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড এবং দ্রুত বিচার আইনের ৪ (২) ধারায় দণ্ডিত ছয়জনকে আরও ২০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ বাদীকে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় ছয় আসামি কাঠগড়ায় ছিলেন। এরপর ছয়জনকে জেলে পাঠানো হয়।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, গত বছরের ৬ এপ্রিল রাতে সিলেট নগরের কেওয়াপাড়ার কাছে আক্রান্ত হন জালালাবাদ সেনানিবাসের স্কুল অব ইনফ্যান্ট্রি অ্যান্ড ট্যাকটিকসে কর্মরত মেজর মোস্তফা আনোয়ারুল আজিজ। তিনি স্ত্রীকে নিয়ে গাড়ি দিয়ে যাওয়ার সময় ছাত্রলীগের কর্মীরা গাড়ি ভাঙচুর করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। একপর্যায়ে হামলাকারীরা মেজর মোস্তফাকে ছুরিকাঘাত করেন। ছুরিটি তার কানের কাছে লেগে জখম হন। এ ঘটনায় তিনি নিজে বাদী হয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা করেন। গত ২৬ এপ্রিল আট ছাত্রলীগ কর্মীকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।


এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেটে অর্থমন্ত্রীর গাড়ির ধাক্কায় ১০ জন আহত

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-১৯ ১২:৩০:৫৩

সিলেটে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ব্যক্তিগত গাড়ির ধাক্কায় আওয়ামী লীগ নেতাসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। তবে ওই সময় অর্থমন্ত্রী গাড়িতে ছিলেন না।

সোনারপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় শুক্রবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালি থানার ওসি গৌসুল হোসেন।

আহতদের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতা এসএম নুনু মিয়া, সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকরী কবিরুল ইসলাম কবির, যুবলীগকর্মী মানিক ও ছাত্রলীগ কর্মী নাসিরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

ওসি জানান, জুমার নামাজ শেষে অর্থমন্ত্রী স্থানীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করছিলেন। এ সময় চালক গাড়ি সামনের দিকে নিতে চাইলে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। এরপর গাড়িটি পথচারীদের ধাক্কা দিলে অন্তত ১০ জন আহত হন।


এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

‘উন্নয়ন’ পরখ করতে মন্ত্রীদের সড়কপথে সিলেটে আসার আহ্বান মেয়র আরিফের

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-১৩ ০২:০৫:৩৭

মন্ত্রীদের সড়কপথে সিলেটে আসার আহ্বান জানিয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। ১২ জানুয়রি শুক্রবার সিলেট নগরীর বাগবাড়িতে লায়ন্স চক্ষু হাসপাতালের ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘দেশের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার অভূতপূর্ব উন্নয়ন ঘটিয়েছেন। যার সুফল দেশবাসী ভোগ করছেন। এখন সরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোতে গিয়ে সাধারণ মানুষ উন্নত মানের সেবা পাচ্ছেন। দেশ দুর্বার গতিতে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে যাচ্ছে। এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।’

অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রীর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে মেয়র আরিফুল হক বলেন, ‘মন্ত্রী মহোদয় বলেছেন দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছে। দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এই উন্নয়নের তালিকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ককেও অন্তর্ভুক্ত করুন। এ অঞ্চলের যারা মন্ত্রিসভায় রয়েছেন তারা সড়কপথে সিলেটে আসুন।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিলেট লায়ন্স ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান লায়ন আছমা কামরান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এ ছাড়াও সিলেট লায়ন্স ফাউন্ডেশনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। পরে আনুষ্ঠানিকভাবে লায়ন্স চক্ষু হাসপাতালের ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেটে নিজ দলের ক্যাডারদের হামলায় ফের ছাত্রলীগ কর্মী নিহত

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৭ ১১:৩১:৩৪

নগরীর টিলাগড়ে নিজ দলের ক্যাডারদের ছুরিকাঘাতে ফের ছাত্রলীগের এক কর্মী নিহত হয়েছেন। নিহত তানিম খান সিলেট সরকারি কলেজের বিএ  পাস কোর্সের ছাত্র এবং ছাত্রলীগের রঞ্জিত গ্রুপের অনুসারী।

রোববার রাত পৌনে নয়টার দিকে টিলাগড় পয়েন্টে অবস্থানরত অবস্থায় ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষ আজাদ গ্রুপের অনুসারীরা। গুরুতর আহতাবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেলে নেয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তানিম সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার বুরুঙ্গা ইউনিয়নের নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের ইসরাইল খানের ছেলে। শহরতলীর ইসলামপুর এলাকায় একটি মেসে থাকত বলে তার সহপাঠিরা জানিয়েছেন।

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এঘটনার পর উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। টিলাগড় এলাকায় অতিরিক্ত সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

বিস্তারিত খবর

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে এমসি কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৪ ১২:১৭:০৯

সিলেট এমসি কলেজে বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দু’দফা সংঘর্ষে তিনজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, গুলিবর্ষণ ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় কলেজ ক্যাম্পাসসহ টিলাগড় ও আশপাশ এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এসময় আতঙ্কিত ছাত্রছাত্রী ও সাধারণ লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ে ছুটে যান।

সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে ৫ জনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন- আক্তার হোসেন, আবুল হাসান, সাহেল আহমদ, নাজমুল ইসলাম ও পাভেল । সংঘর্ষে খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে ঘটনাস্থলে শটগানের ৪০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশ।

পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে আনন্দ র‌্যালি বের করে হিরণ-জাহাঙ্গির-মিঠু সমর্থিত গ্রুপের নেতাকর্মীরা। এসময় দীর্ঘদিন থেকে ক্যাম্পাসের বাইরে থাকা আজাদ সমর্থিত গ্রুপের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে, পুলিশের বাধার কারণে তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশ না করেই চলে যায়।

কিছুক্ষণ পরে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ওই গ্রুপ আবার এমসি কলেজে ঢুকার চেষ্টা করলে ক্যাম্পাসের ভেতরে থাকা অন্য গ্রুপের নেতাকর্মীরা তাদের ধাওয়া দিয়ে টিলাগড় পয়েন্ট পর্যন্ত নিয়ে যায়। দুই দফায় ধাওয়ার সময় গুলিবর্ষণ ও ককটেল বিস্ফোরণের শব্দও শোনা গেছে। এছাড়া উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের হাতে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

হিরণ-জাহাঙ্গির-মিঠু সমর্থিত গ্রুপের অনুসারি সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাদিকুর রহমান বলেন, আমরা কলেজের নিয়মিত ছাত্রদের নিয়ে ক্যাম্পাসে আনন্দ র‌্যালী বের করি। কিন্তু বহিরাগত অছাত্রদের নিয়ে তারা আমাদের আয়োজনকে বানচাল করার চেষ্টা করেছিল। এ কারণে তাদের ধাওয়া দিয়ে ক্যাম্পাসের বাইরে বের করে দেয়া হয়েছে। সংঘর্ষে তাদের গ্রুপের সাহেল আহমদ, নাজমুল ইসলাম, আক্তার ও পাভেল নামের চার কর্মী আহত হন। এদের মধ্যে আক্তার ও পাভেলকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

শ্রীমঙ্গলে বিজিবি ক্যাম্পে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, আহত ৪

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০৩ ১৩:২১:৩৭

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল শহরের কালীঘাট রোডের বিজিবি ক্যাম্পের ভেতরে বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় চার জন আহত হয়েছেন। তাদের শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বুধবার সকাল ১০টা ১৮ মিনিটে বিজিবি সেক্টরের ভেতরে হেলিক্টারটি বিধ্বস্ত হয় বলে নিশ্চিত করেছেন শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান জাহির হোসেন।

আহত বিজিবি কর্মকর্তারা হলেন- লেফটেন্যান্ট মেহেদী ও সিনিয়র ওয়ারেন্ট কর্মকর্তা মো. ফরহাদ। এছাড়া হাসপাতালের রোগী ভর্তি রেজিস্ট্রারে বাকি দু’জনকে বিদেশি নাগরিক হিসেবে উল্লেখ করা হলেও তাদের নাম-ঠিকানা উল্লেখ করা হয়নি।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক রিপন চন্দ্র দাস জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে দু’জন বিজিবি কর্মকর্তা, বাকি দু’জন বিদেশি নাগরিক।

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পর ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকা বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘিরে রেখেছে। ঘটনার পর থেকে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। বর্তমানে হেলিকপ্টারটি উদ্ধার কাজ চলছে বলেও জানা গেছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে বলে বিজিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এদিকে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে,‘আজ (বুধবার)বেলা আনুমানিক ১০:১০ ঘটিকায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭১ হেলিকপ্টার ১৬ জন আরোহীসহ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে যাওয়ার সময় কারিগরী ত্রুটির কারণে বিজিবি হেলিপ্যাড থেকে ১০০ ফিট দুরত্বে জরুরী অবতরণ করে। হেলিকপ্টারের ২ জন পাইলট উইং কমান্ডার ওমর এবং ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মেহেদী সহ সকল আরোহী জরুরি অবতরণের পর হেলিকপ্টার থেকে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হন। বৈমানিকসহ সকল আরোহী সুস্থ আছেন। এখানে উল্লেখ্য যে, হেলিকপ্টারটি ৯:২০ ঘটিকায় তেজগাঁও থেকে উড্ডয়ন করে।’


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

জাফলং-এ অবৈধভাবে পাথর তুলতে গিয়ে ৪ জনের মৃত্যু

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০২ ০৯:২৭:৩৬

সিলেটের জাফলংয়ে অবৈধভাবে পাথর তুলতে গিয়ে গর্ত ধসে এক নারীসহ চার শ্রমিক নিহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। নিহত শ্রমিকদের একজন নারী ও তিন জন পুরুষ রয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নামপরিচয় পাওয়া যায়নি।মঙ্গলবার বিকালে মন্দিরের জুম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গোয়াইনঘাট থানার ওসি দেলওয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মন্দিরেরজুম এলাকায় একটি পাথর কোয়ারিতে গর্ত করে পাথর তুলছিলেন কয়েকজন শ্রমিক। বিকাল পৌনে পাঁচটার দিকে হঠাৎ গর্ত ধসে পড়লে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলে মারা যান চারজন। স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ মরদেহ উদ্ধারে কাজ করছে।


এলএবাংলাটাইমস/স/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেটে শোভাযাত্রায় ছাত্রদল নেতা খুন

 প্রকাশিত: ২০১৮-০১-০১ ১২:২৪:০৫

সিলেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী শোভাযাত্রায় নিজদলের ছুরিকাঘাতে খুন হলেন এক ছাত্রদল নেতা। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টায় নগরীর কোর্ট পয়েন্টে এ হত্যাকা- ঘটে। মিছিলের অগ্রভাগে যাওয়া নিয়ে ধাক্কাধাক্কি ও সংঘর্ষের সময় এ ঘটনা ঘটে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।
জানা গেছে, সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্ট থেকে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার শোভাযাত্রা বের করে ছাত্রদল। এ সময় শোভাযাত্রার সম্মুখভাগে থাকা নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি হয়। একপর্যায়ে তারা নিজেদের মধ্যে হাতাহাতি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় ছাত্রদল নেতা শিমুকে ছুরিকাঘাত করা হরে তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার মৃত্যু ঘটে। নিহত আবুল হাসনাত শিমু সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক।
সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গৌছুল হোসেন ছাত্রদল নেতা হত্যাকা-ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনায় এখনো থানায় কোন এজাহার দাখিল করা হয়নি। তবে খুনীদের সনাক্ত করে তাদের আটকে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেট প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন, ইকরামুল কবির সভাপতি ও ইকবাল মাহমুদ সাধারণ সম্পাদক

 প্রকাশিত: ২০১৭-১২-৩০ ১১:০৭:৫৮

সিলেট প্রেসক্লাবের ২০১৮-১৯ সেশনের কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতি পদে সময় টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান ইকরামুল কবির ও একাত্তর টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান ইকবাল মাহমুদ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত সোয়া ৮টায় প্রেসক্লাব নির্বাচন কমিশনের প্রধান ই ইউ শহীদুল ইসলাম শাহীন এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

অন্যান্য পদে নির্বাচিতরা হলেন- সিনিয়র সহ-সভাপতি এনামুল হক জুবের, সহ-সভাপতি এমএ হান্নান, সহ-সাধারণ সম্পাদক ইয়াহইয়া ফজল, ট্রেজারার শাহাব উদ্দিন শিহাব, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক নূর আহমদ, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক খালেদ আহমদ, সদস্য- ফয়ছল আলম, শোয়াইবুল ইসলাম ও দিগেন সিংহ।

এর আগে বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ক্লাব ভবনে ভোট গ্রহণ করা হয়। গণনাশেষে রাত সোয়া ৮টায় ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনে ই ইউ শহিদুল ইসলাম শাহীন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং এডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী ও এডভোকেট মনির আহমদ নির্বাচন কমিশনার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।


এলএবাংলাটাইমস/স/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

গোলাপগঞ্জে ব্যবসায়ী খুন

 প্রকাশিত: ২০১৭-১২-২৫ ১২:০৫:৩৭

সিলেটের গোলাপগঞ্জে এক তরুণ ব্যবসায়ী খুন হয়েছেন। সোমবার সকালে নিজবাড়ির পুকুরপাড় থেকে তার রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। হতভাগা ব্যবসায়ী তোফায়েল আহমদ দিপু (১৮) গোলাপগঞ্জ থানার রায়গড় প্রকাশিত লেচু বাগান- এর সৌদি প্রবাসী ওবুদ মিয়ার একমাত্র পুত্র ও থাপনার ঢাকাদক্ষিণ বাজারের ব্যবসায়ী।
এ ঘটনায় গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের চাচাত ভাই অনিক ও তার বন্ধু লায়েক আহমদকে আটক করেছে। ঘটনার খবর প্রকাশের পর এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

থানা পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, নিহত দিপু ঢাকাদক্ষিণ বাজারের হাসনাত মার্কেটের জননী টেলিকম এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী ছিলেন। গত রবিবার রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়ী ফিরে না যাওয়ায় পরিবার ও স্বজনরা রাতভর খোঁজ করেন। গতকাল সোমবার সকালে নিহতের বাড়ির রাস্তায় তার ব্যবহৃত রক্তমাখা ব্যাগ ও রক্তের চিহ্ন দেখতে পান স্বজনরা। এর কিছু সময় পর নিহতের বাড়ির ৪’শ মিটার দূরে এলাকার শ্রমিক একটি লাশ দেখতে পায়। ওই শ্রমিক স্থানীয় লোকজনকে বিষয়টি জানালে নিহত দিপুর পরিবার এসে তার লাশ শনাক্ত করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। লাশের শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে  বলে থানা পুলিশ নিশ্চিত করে। এসময় হত্যায় ব্যবহৃত টিউবওয়েলের রড উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে ঢাকাদক্ষিণ ইউপির ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ সেলিম আহমদ জানান, নিহত দিপুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে আমাদের ধারনা। তিনি হত্যাকা-ের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।
গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম ফজলুল হক শিবলী জানান, নিহত দিপুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সুরতহাল রিপোর্টের পর ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত দিপুর মাথায় রডের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার লাশের পাশ থেকে একটি রক্তাক্ত রড উদ্ধার করা হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে রাতে বাড়ি ফেরার পথে ওঁৎ গেতে থাকা ঘাতকরা ঘটনাস্থলেই তাকে হত্যা করেছে। কে বা কারা কি কারণে তাকে হত্যা করেছে তা সুস্পষ্ট নয়। তবে ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।


এলএবাংলাটাইমস/স/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

হবিগঞ্জে প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাই: তদন্ত কমিটি গঠন

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-৩০ ১৪:৩০:২৮

হবিগঞ্জ শহরের চাঁদের হাসি হাসপাতালে সিজারের সময় প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাই করার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. সত্যজিৎ কুমার সাহার নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. গোলাম মহিউদ্দিন আহমেদ ও সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. সুচিন্ত চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. সত্যজিৎ কুমার সাহার নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে সাত কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

সঞ্জীব সরকার জানান, তার স্ত্রী মল্লিকা দাসকে (৩৮) সিজারিয়ান অপারেশনের জন্য চাঁদের হাসি হাসপাতালে ভর্তি করেন। গত ২৩ আগস্ট অপারেশনের সময় চিকিৎসক ডা. এসকে ঘোষ রোগীর পেটে গজ রেখেই সেলাই করে দেন।

তিনি জানান, স্ত্রীকে বাসায় নিয়ে গেলে কয়েকদিন পর থেকেই পেটে ব্যথা অনুভব করতে থাকে মল্লিকা। ব্যথা বাড়ায় বেশ কয়েকদিন পর আবারও তাকে চাঁদের হাসি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মল্লিকাকে বেশ কয়েকটি পরীক্ষা দেন। পরীক্ষায় তার পেটের ভেতরে কিছু রয়ে গেছে বলে ধারণা করা হয়। পরে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সপ্তাহ খানেক আগে হেলথ কেয়ার ক্লিনিকে অপারেশন করে মল্লিকার পেটের ভেতর থেকে একটি গজ বের করেন ডা. আবুল কালাম চৌধুরী।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

শাহজালালের মাজারের কুপের পানিকে জমজমের পানি বলে প্রতারণা : তদন্তের নির্দেশ আদালতের

 প্রকাশিত: ২০১৭-১১-২০ ১১:০৮:৩৭

সিলেটে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজারে ডিপ টিবওয়েলের পানিকে পবিত্র মক্কার জমজম কূপে’র পানি বলে বিক্রির মাধ্যমে মানুষের ধর্মীয় বিশ্বাস ও আবেগকে পুঁজি করে ফায়দা লুটছে একটি মহল।

১৯ নভেম্বর রোববার এ প্রতারণার বিরুদ্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের প্রত্যাশায় সিলেটের মূখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে একটি আবেদন করেন।

নগরীর কদমতলীর দরিয়া শাহ মাজার রোডের এইচ এম আব্দুর রহমানের করা আবেদন আমলে নিয়ে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মূখ্য মহানগর হাকিম আদালতের অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেটের উপ-পরিচালককে আগামী ৩১ নভেম্বরের মধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

অভিযোগে এইচ এম আব্দুর রহমান বলেন, গত ১০ অক্টোবর বিকেল আনুমানিক সাড়ে তিনটায় হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার মসজিদে আসরের নামাজ আদায় করেন। পরে মাজার জেয়ারত ও মোনাজাত শেষে মাজারের পশ্চিম দিকে গিয়ে দেখেন ‘পবিত্র মক্কার জমজম কূপে’র পানি বিক্রি করা হচ্ছে। তিনি সরল বিশ্বাসে দুই বোতল পানি কিনে বাসায় নিয়ে যান।

গত ৩১ অক্টোবর বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচারিত একটি প্রতিবেদন দেখে তিনি জানতে পারেন, একটি মহল স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে গভীর নলকূপের মাধ্যমে পাম্পের সাহায্যে তোলা পানিকে জমজমের পানি বলে প্রচার ও  বিক্রি করছে। এরপর তিনি বেশ কয়েকজন আলেমের সঙ্গে আলাপ করে নিশ্চিত হন যে, এই কূপের সঙ্গে মক্কার জমজম কূপের কোনো সংযোগ নেই।

তিনি মনে করেন, মানুষের ধর্মীয় বিশ্বাস ও আবেগকে পুঁজি করে প্রতারণা করছে একটি মহল। এমন প্রতারণার প্রতিকার চান তিনি।

আর কোনো ধর্মপ্রাণ মানুষ যেন প্রতারিত না হয় সে জন্য আদালতের পদক্ষেপ প্রত্যাশা করেন আবদুর রহমান।

 এলএবাংলাটাইমস//এলআরটি

বিস্তারিত খবর

পুত্রসহ শিল্পপতি রাগীব আলী জামিনে মুক্ত

 প্রকাশিত: ২০১৭-১০-২৯ ১৩:০২:৪৩

সিলেটের তারাপুর চা-বাগানের ভূমি আত্মসাতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক (চিঠি) জালিয়াতি মামলায় দণ্ডিত আলোচিত শিল্পপতি রাগীব আলী ও তাঁর ছেলে আবদুল হাই সিলেট কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। রোববার দুপুরে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান তাঁরা।
এর আগে, গত বৃহস্পতিবার তাদের জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল উচ্চ আদালতে খারিজ হওয়ায় জামিন আদেশ বহাল থাকে।
গত বৃহস্পতিবার সকালে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আবদুল  ওয়াহহাব মিয়ার নেতৃত্বাধীন বিচারপতি ইমান আলী, বিচাপতি সৈয়দ মাহমুদ হাসান ও বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল খারিজের আদেশ দেন।
রাগীব আলীর পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান, সাবেক বিচারপতি মনসুরুল হক চৌধুরী, ব্যারিস্টার ইয়াদাজামান, অ্যাডভোকেট আসাদ উল্লাহ ও ব্যারিস্টার আবদুল হালিম কাফি। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল দিলুরুজ্জামান।
গত ২ ফেব্রুয়ারি সিলেটের তারাপুর চা-বাগান ইজারার ক্ষেত্রে ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতির বিষয়ে দায়ের করা মামলায় বিতর্কিত ব্যবসায়ী রাগীব আলী ও তাঁর ছেলে আবদুল হাইকে ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত।
আসামিদের বিরুদ্ধে সন্দেহাতীতভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সিলেটের মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম মো. সাইফুজ্জামান হিরো ৪৬৬ ধারায় রাগীব আলী ও তাঁর ছেলেকে ছয় বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড এবং ৪৬৮ ধারায় সমপরিমাণ সাজা দেন।
এ ছাড়া ৪২০ ও ৪৭১ ধারায় এক বছর করে দুই বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয় তাদের। পৃথক চারটি ধারায় রাগীব আলী ও তাঁর ছেলে আবদুল হাইকে মোট ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।
ওই রায়ের বিরুদ্ধে ১৬ ফেব্রুয়ারি দণ্ডপ্রাপ্তরা মহানগর দায়রা জজ আদালতে আপিল করেন। আপিলে তাঁরা জামিন চাইলে ২৪ মে সিলেটের বিশেষ দায়রা জজ আদালতে তা নামঞ্জুর করে দেন। এ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে জামিন চেয়ে তাঁরা আবেদন করেন।

এলএবাংলাটাইমস/স/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেট কীভাবে বাংলাদেশের অংশ হলো

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-১৯ ০২:৫৬:৩৭

১৯৪৭ সালে ভারতবর্ষ ভাগ করে পাকিস্তান ও ভারত নামে দুটি স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের সিদ্ধান্ত হলেও প্রশ্ন ওঠে আসামের অংশ সিলেটের ভাগ্যে কী হবে?

মুসলমান আর হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে ভারতকে ভাগ করার যে দায়িত্ব পড়েছিল লর্ড মাউন্টব্যাটেনের ওপর।

১৯৪৭ সালের ৩ জুন এক ঘোষণায় তিনি সিলেটের ভবিষ্যৎ নির্ধারনের দায়িত্ব দেন স্থানীয় জনসাধারণের কাঁধে। সিদ্ধান্ত হলো গণভোট অনুষ্ঠানের।

এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৯৪৭ সালের ৬ ও ৭ জুলাই সিলেটে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে মোট ভোটার ছিল ৫ লাখ ৪৬ হাজার ৮১৫ জন। ভোট দিয়েছিল ৭৭ শতাংশ মানুষ।

২৩৯টি ভোটকেন্দ্রে বড় কোনো ঝামেলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছিল বলেই জানা যায়। ১৯৪৭ সালের ভারত স্বাধীনতা আইনের ধারা ৩ অনুযায়ী সিলেটে গণভোট সংক্রান্ত কার্যক্রমের বৈধতা দেয়া হয়েছে।

দেশভাগের সময় ৫ম শ্রেণীর ছাত্র জকিগঞ্জের মোহাম্মদ নূরউদ্দীনের মনে রয়েছে সেই ভোটের কথা। মোহাম্মদ নূরউদ্দীন তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়েছিলেন করিমগঞ্জের প্রাথমিক স্কুলে।

ভোটে করিমগঞ্জের মানুষও আসাম ছাড়ার রায় দিলেও করিমগঞ্জের কিছু অংশ র‍্যাডক্লিফ লাইনে ভারতের আসামে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

‘আমরা বাইরাইয়া মিছিল দিছি করিমগঞ্জে। মসজিদ যেখানে ছিল সেখানে স্লোগান নাই। এইভাবে করছি। ভোটে আমরা করিমগঞ্জকেও পাইছি। এই যে সাড়ে তিন থানা গেল সবটা পাইছি। কিন্তু আমাদের নেতাদের অভাবেই কংগ্রেস বড়লাটের লগে মিল করিয়া নিয়া গেছে।’

কুশিয়ারা নদীর তীরে দাঁড়িয়ে নূরউদ্দীন বলেন, তার নানা বাড়ি, ভগ্নীপতিসহ অনেক আত্মীয়ের বাড়ি পড়ে যায় করিমগঞ্জে আর তারা থাকেন পূর্ব বাংলায় বর্তমান জকিগঞ্জ এলাকায়।

‘আত্মীয়স্বজন সবাই থাইকা গেছে। ইন্ডিয়ায় থাকছে। এখনো আছে। আমরার যাওয়া আসা নাই। তারাও আসে না।’

সিলেটের গণভোট দেখেছেন মাহতাবউদ্দীন আহমেদও। মনে করে বলেন সেই কিশোর বয়সে বড়দের সঙ্গে পাকিস্তানের পক্ষে কী স্লোগান দিতেন তারা।

‘মুসলিম লীগের মার্কা কী- কুড়াল ছাড়া কী, পাকিস্তান জিন্দাবাদ-লড়কে লেঙ্গে পাকিস্তান, কায়দে আজম জিন্দাবাদ এইগুলা স্লোগান ছিল।’

মাহতাবউদ্দীন জানান ভোটের প্রচারে সিলেটে মুসলিম লীগের বড় নেতারা এসেছেন। তার মনে আছে সিলেটের শাহী ইদগায়ে মোহাম্মাদ আলি জিন্নাহও এসেছিলেন।

দাবি করলেন, গণভোটের প্রচারে এসে করিমগঞ্জে তাদের বাড়িতে একবেলা খেয়েছিলেন তৎকালীন তরুণ ছাত্রনেতা শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১২ জন কর্মী।

‘কংগ্রেসের মার্কা ছিল ঘর আর মুসলিম লীগের ছিল কুড়াল। হিন্দুদের মধ্যে নমশূদ্ররা ছিল মুসলিম লীগের পক্ষে। আলেমদের একদল ছিল কংগ্রেসি। হুসেইন আহমেদ মাদানি উনি আর ওনার একটা গ্রুপ ছিল কংগ্রেসি।’

দেশভাগের ইতিহাসে সিলেটের গণভোট এক বিরল ঘটনা। এই ভোটে জয়ী হতে মুসলিম লীগের ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালায়। সিলেটের জনগণকে পাকিস্তানের পক্ষে ভোট দিতে নানাভাবে উদ্বুদ্ধ করেছিল মুসলিম লীগ।

পাকিস্তানের পক্ষে ভোট দেয়া ফরজ ঘোষণা করে ফতোয়াও জারি করা হয়। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইয়ে উল্লেখ রয়েছে গণভোটের জন্য শেখ মুজিবুর রহমান ৫০০ কর্মী নিয়ে কলকাতা থেকে সিলেট এসেছিলেন।

শেখ মুজিব লিখেছেন, শহীদ সোহরাওয়ার্দীর অনুরোধে হিন্দু রায়বাহাদুর আরপি সাহা একাধিক লঞ্চ সিলেটে পাঠিয়েছিলেন মুসলিম লীগের পক্ষে। সিলেটে গণভোটে জয়লাভ করে তারা আবার কলকাতা ফিরে যান।

শিক্ষাবিদ ও সিলেটের কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সভাপতি অধ্যাপক মো. আব্দুল আজিজ তখন ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র।

তিনি বলেন, ‘মুসলমানদের জন্য গণভোট পরিচালনার জন্য একটা রেফারেন্ডাম বোর্ড হয়। সেই বোর্ডের সভাপতি হলেন আব্দুল মতিন চৌধুরী নামে একজন প্রবীণ নেতা। যিনি এককালে জিন্নাহ সাহেবের খুব ঘনিষ্টজন ছিলেন। আর সেক্রেটারি হয়েছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল হাফিজ যিনি বর্তমান অর্থমন্ত্রী মুহিত সাহেবের বাবা।’

তার কথায় সিলেটে ৬০ ভাগ মুসলিম থাকা সত্ত্বেও মুসলমানদের একটি অংশ কংগ্রেসপন্থী হওয়ায় ভোটের প্রচার প্রচারণার প্রয়োজন হয়।

‘পাকিস্তানের পক্ষে পড়ল ২ লাখ ৩৯ হাজার ৬১৯ ভোট আর ভারতে যোগদানের পক্ষে পড়ল ১ লাখ ৮৪ হাজার ৪১ ভোট। মুসলিম লীগ ৫৫ হাজার ৫৭৮ ভোট বেশি। এজন্য সিলেটিরা গর্ব অনুভব করতো যে আমরা বাই চয়েস পাকিস্তানে আসছি।’

১৯৪৭-এ সিলেটের ঐতিহাসিক গণভোটেই ঠিক হয় পূর্ব পাকিস্তানের একাংশের মানচিত্র। কিন্তু গণভোটের রায় না মেনে মানচিত্রে দাগ কেটে করিমগঞ্জের কিছু অংশ ভারতকে দিয়ে দেয়ায় সিলেটের মানুষের কাছেও চির বিতর্কিত হয়ে যায় র‍্যাডক্লিফ লাইন।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

পুলিশের উপর হামলাকারী ছাত্রলীগ কর্মীদের হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৮-১৭ ০৮:২৫:১০

রিকাবীবাজারে পুলিশ সদস্য শফি আহমদের উপর হামলার ঘটনায় সিলেট কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে আসামীদের পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করতে হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ।
সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার এই মামলা দায়ের করা হয়। দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় পুলিশকে পিটিয়ে আহত করার অপরাধে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক দফতর সম্পাদক তানভীর কবির চৌধুরী সুমনকে প্রধান আসামী করে মামলাটি দায়ের করে পুলিশ। মামলা নং-২০। এতে আরও ৭ থেকে ৮ জন অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়।
সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. জেদান আল মূসা মামলা দায়েরের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে আসামীদের চিহ্নিত করা  হয়েছে। তাদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।
হমালায় আহত পুলিশ সদস্য শফি আহমদ জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে রিকাবীবাজারের নূরী রেস্টুরেন্টে নাস্তা করতে যান তিনি। বিল দেওয়ার সময় কাউন্টারের সামনে ম্যানেজারের সাথে তানভীর কবির চৌধুরী সুমন ও তার সহযোগিদের কথা কাটাকাটির ঘটনা দেখতে পান। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এ সময় ম্যানেজারকে বলে শোক দিবসের কর্মসূচী পালন করে নাস্তা করতে এসেছে তাই তারা বিল দেবে না। এ নিয়ে ম্যানেজারের সাথে তাদের কথাকাটাকাটি হয়। শফি আহমদ ঝগড়া না করে তার বিল রাখার জন্য বললে আচমকা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার উপর হামলা চালায়। এ সময় তাকে উপর্যুপরি চড় থাপ্পড় মারতে থাকে। নিজেকে পুলিশ সদস্য পরিচয় দিলেও তিনি রেহাই পাননি বলে জানান। পরে তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের দফতর সম্পাদক তানভীর কবির চৌধুরী সুমনের ব্যক্তিগত মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

জাহানারা তৈমুছ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট, লস এঞ্জেলেস, ইউএসএ-এর অর্থায়নে ফ্রি খতনা ক্যাম্প

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৫-০২ ১৬:৪৩:৪২

জাহানার তৈমুছ ও‌য়েল‌ফেয়ার ট্রা‌স্ট, লস এ‌ঞ্জে‌লেস, ইউএসএ-এর  অর্থায়‌নে ফ্রি খতনা ক্যাম্প অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে। গত সোমবার সি‌লে‌টের দ‌ক্ষিণ সুরমায় জালালাবাদ দ্বি-পা‌ক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ে দিনব্যাপী এই আয়োজ‌নে প্রায় ১০০ জন দরিদ্র শিশু‌কে খতনা দেওয়া হয়। ক্যাম্পে সা‌র্বিক সহ‌যো‌গিতা ক‌রে  স্থানীয় যুবকদের  সামা‌জিক সংগঠন অরু‌ণোদয় যুব সংঘ।
এ উপল‌ক্ষে বিদ্যাল‌য়ের কনফারেন্স হলে আ‌য়ো‌জিত অনুষ্ঠা‌নে প্রধান অ‌তি‌থি ছি‌লেন বাংলা‌দেশ আওয়ামী লী‌গের কেন্দ্রীয় সাংগঠ‌নিক সম্পাদক ও সি‌লেট জজ কো‌র্টের ‌পি‌পি অ্যাড‌ভোকেট মিসবাহ উ‌দ্দিন সিরাজ। বি‌শেষ অ‌তি‌থি ছি‌লেন সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সেক্রেটারি, দৈনিক নয়া দিগন্ত’র সিলেট ব্যুারো চিফ আফতাব উদ্দিন, দ‌ক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশীদ, স্থানীয় মোল্লারগাঁও ইউ‌পির চেয়ারম্যন আলহাজ্ব শেখ মকন মিয়া, জাহানারা তৈমুছ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান লস এঞ্জেলেস প্রবাসী মোঃ আব্দুস সামাদ, সি‌লেট জজ কো‌র্টের এ‌পি‌পি মোস্তফা শাহীন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট মি‌সেস ফার‌মিস ও আয়কর উপ‌দেষ্টা অ্যাড‌ভো‌কেট শা‌হিনুল ইসলাম।



অরু‌ণোদয় যুব সংঘ’র সভাপতি কিবরিয়া খান নাসেরের সভাপতিত্বে ও সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল মুমিত খান ছামিলের পরিচালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মোঃ শফিউল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, রাগিব-রাবেয়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওয়াহিদ সারো, সিলেট জজ কোর্টের এপিপি আব্দুর রহমান সেলিম, এলাকার বিশিষ্ট মুরব্বি জালালাবাদ দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ তজম্মুল ইসলাম, শামীম আহমদ, সাইস্তা খান, একরাম খান, সাখাওয়াত খান, গ্রামের মুরব্বি ছয়ফুল খান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহ আহমদ, তছলিম খান, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সৈয়দ মাছুম, সংগঠনের অর্থ সম্পাদক সুজাদ খান, শাওন, ছায়েফ, হাদি, সাফি, বরাত, ছালেখ, রাহাত, আলমগীর, ফুয়াদ, ছায়েম, সানুর, আব্দুর রহিম, মঞ্জুর, সালমান, রুম্মান, রকিব, হোসাইন, সাকিব, হাবিব, পারভেজ, মিজান, জুনায়েল, এনাম খান, নাইম, সিরাজুল মুবিন প্রমুখ।  

এছাড়াও এলাকার গণ্যমান্য ব্য‌ক্তিবর্গ, সি‌লে‌টে কর্মরত প্রিন্ট ও ই‌লেক্ট্র‌নিক্স মি‌ডিয়ার সাংবা‌দিকরা উপ‌স্থিত ছি‌লেন। অনুষ্ঠান শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সংগঠনের সদস্য আব্বাস আলী খান।



প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, ভালো কাজের মানুষকে মূল্যায়ন করতে হবে। আব্দুস সামাদের মত সুযোগ্য মায়ের সুযোগ্য সন্তান যেভাবে তরুণ বয়সে নিজেকে এই সমাজসেবার কাজে নিয়োজিত করেছেন তা অবশ্যই প্রশংসনীয়। তিনি তার মা বাবার নামে জাহানারা তৈমুছ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট গঠন করে সমাজের দুঃখী মানুষের সেবা করছেন তার এই কাজ দেখে সমাজের তরুণরা উদ্বুদ্ধ হবে। বর্তমানে আমাদের সমাজ একটা অন্ধকারের মধ্যে চলছে। যুবকরা অনেকে নেশাগ্রস্থ। বিভিন্ন খারাপ কাজে লিপ্ত। এই বয়সে আব্দুস সামাদ যে মানসিকতা নিয়ে সমাজসেবায় নেমেছেন। এটা নি:সন্দেহে অন্যদের জন্য উদাহরণ।  মিছবাহ সিরাজ আরও বলেন, আব্দুস সামাদের মত ছেলে আমাদের গর্ব। এরকম ছেলে প্রতিটি গ্রামে যেন হয়। এসময় তিনি জাহানারা তৈমুছ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রয়োজনে যেকোনো সময় যেকোনো সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। আব্দুস সামাদকে সহযোগিতার জন্য সবার প্রতি আহ্বানও জানান।



বি‌শেষ অ‌তি‌থির বক্তব্যে স্থানীয় মোল্লারগাঁও ইউ‌পির জনপ্রিয় চেয়ারম্যন আলহাজ্ব শেখ মকন মিয়া বলেন, আমাদের এলাকায় এরকম একটি বিশাল আয়োজন অবশ্যই আমাদের জন্য মহাখুশির বিষয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে আব্দুস সামাদকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমরা তাকে নিয়ে গর্বিত। তার সকল কাজে আমাদরে সহযোগিতা করা আবশ্যক।

দ‌ক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশীদ বলেন, তরুণরাই সমাজের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র। তরুণরা চাইলে যেকোনো কিছু করতে পারে। আব্দুস সামাদের মতো তরুণরা এভাবে এগিয়ে এলে দেশ অচিরেই অনেক দূর এগিয়ে যাবে। আমি আব্দুস সামাদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছি।



জাহানারা তৈমুছ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান,  জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব ক্যালিফোর্নিয়ার পাবলিক রিলেশন অফিসার, এলএ বাংলাটাইমস-এর সিইও, এলএ বাংলা গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ও লস এঞ্জেলেস প্রবাসী তরুণ সমাজসেবক আব্দুস সামাদ তার বক্তব্যে বলেন, আমি আমার মা-বাবার নামে এই ট্রাস্ট গঠন করেছি সমাজসেবামূলক কাজ করার উদ্যেশ্যে। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই আমরা সাধ্যমতো মানুষকে সাহায্য সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এই আয়োজন। এসময় তিনি এলাকার মুরব্বিয়ান ও যুবসমাজ এবং অরুণোদয় যুব সংঘের সদস্যবৃন্দ, প্রিন্ট ও  ও  ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, সর্বস্তরের এলাকাবাসী- সবার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, আজকের এই মহতি উদ্যোগে যারা বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আপনাদের এমন ভালোবাসায় সত্যিই আমি মুগ্ধ হয়েছি।
অরুণোদয় যুব সংঘ’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, এই সংগঠনের সদস্যদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও আন্তরিকতায় এমন একটা বিশাল আয়োজন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এবং অনুষ্ঠান সফল করতে এলাকার সর্বস্তরের মানুষও যে সহযোগিতা করেছেন আমি সবার প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।
আব্দুস সামাদ আরও বলেন, আমরা যারা প্রবাসে থাকি আমরা সবসময় দেশ নিয়ে চিন্তা করি। দেশের যুব সমাজকে নিযে চিন্তা করি। দেশের উন্নয়ন চাই। দেশের বঞ্চিত, দরিদ্র, অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করি। আমার মনে হয় সব প্রবাসীরাই এমন চিন্তা করেন। এভাবে সবাই নিজ নিজ অস্থান থেকে কাজ করলে দেশ আরও এগিয়ে যাবে এটা আমাদের প্রত্যাশা।
এসময় তিনি তার মা-বাবার জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেন।



আলোচনা সভা শেষে খতনা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন অ্যাড‌ভোকেট মিছবাহ উ‌দ্দিন সিরাজ। সবশেষে তিনি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ অতিথিরা আব্দুস সামাদের বাসায় মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন।

বিস্তারিত খবর

ছাত্রলীগের নামে অপকর্ম করলে কোনো ছাড় নেই : জাকির হোসাইন

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৪-১৬ ১৫:২৫:৪০

ছাত্রলীগের নামে যারা অপকর্ম করবে তাদের কাউকে ছাড় না দেয়ার হুশিয়ারি দিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেছেন, অপকর্মকারীদের ছাত্রলীগ নিজেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর হাতে তুলে দিচ্ছে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে কারা ফটকে হামলাসহ অন্যান্য ঘটনায় যেসব ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নাম ওঠে এসেছে তাদের বিরুদ্ধেও সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিয়েছে ছাত্রলীগ। কিছুদিন আগে সিলেট শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। তদন্তে সাংবাদিক নির্যাতনের সাথে যাদের নাম ওঠে আসবে তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
সিলেট প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এস এম জাকির হোসাইন বলেন, একটি নির্দিষ্ট বয়স পর্যন্ত ছাত্রলীগ করা যাবে। যাদের বয়স বেশি হয়ে গেছে তাদেরকে চাকরিসহ অন্য পথ খোঁজার পরামর্শ দেন তিনি।
সিলেট প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক আবদুল আহাদের পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির। বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেনু।
ক্বওমী মাদরাসার স্বীকৃতি দেয়াকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সরকারি চাকরিতে সিলেটের মানুষের পিছিয়ে পড়া রোধ করতে সিলেটে পিএসসির আলাদা পরীক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করতে হবে। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর পরীক্ষাও সিলেটে নেয়ার দাবি জানান ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। প্রতিটি ক্ষেত্রে স্থানীয়দের নিয়োগ নিশ্চিতেরও দাবি জানান তিনি। সেই সাথে সিলেটে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপনের দাবি জানান এসএম জাকির হোসাইন। এই দাবির পক্ষে সাংবাদিকদের আরো বেশি করে লেখনীর অনুরোধ জানান তিনি।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ আমজাদ হোসাইন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর ও মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মো. আফতাব উদ্দিন, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সাঈদ মো. নোমান, নির্বাহী সদস্য মো. কামরুল ইসলাম, চ্যানেল এস’র বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল মালিক জাকা, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল, একাত্তর টিভির ব্যুরো প্রধান ইকবাল মাহমুদ, দৈনিক সংগ্রামের ব্যুরো প্রধান কবির আহমদ, দৈনিক সকালের খবরের ব্যুরো প্রধান ফারুক আহমদ, ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মঞ্জুর আহমদ, আরটিভির সিলেট প্রতিনিধি কামকামুর রাজ্জাক রুনু, দৈনিক সিলেটের ডাকের স্টাফ রিপোর্টার নূর আহমদ, যমুনা টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান মাহবুবুর রহমান রিপন, এনটিভির সিলেট প্রতিনিধি মারুফ আহমদ, এটিএন নিউজের সিলেট প্রতিনিধি সজল ছত্রী, যমুনা টিভির ক্যামেরাপার্সন নিরানন্দ পাল, সময় টিভির চিত্র সাংবাদিক দিগেন সিংহ, দৈনিক ভোরের কাগজের সিলেট প্রতিনিধি সিন্টু রঞ্জন চন্দ, ডেইলী স্টারের ফটো সাংবাদিক শেখ আশরাফুল আলম নাসির, সময় টিভির চিত্র সাংবাদিক নৌসাদ আহমেদ চৌধুরী, এসএ টিভির ব্যুরো ইনচার্জ আব্দুল আলিম শাহ, এসএ টিভির ক্যামেরাপার্সন শ্যামানন্দ দাস, মাছরাঙা টিভির স্টাফ রিপোর্টার শাকির আহমদ, ক্যামেরাপার্সন রাজন, চ্যানেল ২৪-এর স্টাফ রিপোর্টার মাইদুল রাসেল, ক্যামেরাপার্সন শফি আহমেদ, চ্যানেল এস’র রিপোর্টার  সুজাত প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ, মহানগর সভাপতি আব্দুল বাছিত রোম্মান, মৌলভীবাজার ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান রনি, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরী।

এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ফের মেয়রের চেয়ারে বসলেন আরিফ

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৪-০২ ০৪:০৮:০১

সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার দুই বছর তিন মাস পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) মেয়রের চেয়ারে বসলেন আরিফুল হক চৌধুরী।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় তিনি সিটি কর্পোরেশনে গিয়ে পৌঁছলে তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান সিসিক কাউন্সিলর ও কর্মকর্তারা।

রোববার দায়িত্ব গ্রহণের পর এক প্রতিক্রিয়ায় আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, দায়িত্ব পালনে আমি সকলের সহযোগিতা চাই। আমি জনগণকে যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচিত হয়েছিলাম, তা পূরণে কাজ করতে চাই। বিনা দোষে আমাকে ২৭ মাস জনগণের কাছ থেকে দূরে রাখা হয়েছিল।

দায়িত্ব গ্রহণকালে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতা এমএ হক, কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি আবদুর রাজ্জাক, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিমসহ স্থানীয় বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার আসামি হয়ে দুই বছর চারদিন কারাভোগের পর গত ৪ জানুয়ারি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী।

কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে সাময়িক বরখাস্ত আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন তিনি। উচ্চ আদালতের রায়ে মেয়রের দায়িত্ব ফিরে পান আরিফ। পরে গত ৩০ মার্চ স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ সংক্রান্ত চিঠি তার কাছে পৌঁছে।

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার সম্পূরক অভিযোগপত্রে নাম আসার পর ২০১৫ সালের ৭ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ এক আদেশে সিসিক মেয়র আরিফকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে।

এই আদেশের বিরুদ্ধে মেয়র আরিফ রিট পিটিশন দায়ের করলে শুনানি শেষে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ গত ১২ মার্চ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। পরে এই আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপীল করে রাষ্ট্রপক্ষ। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের তিন সদস্যের বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ করে দিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন।

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জের বৈদ্যের বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় দুর্বৃত্তদের গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া। ওই হত্যাকাণ্ডের প্রায় ১০ বছর পর তৃতীয় সম্পূরক চার্জশিটে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিসিক মেয়র আরিফুর হক চৌধুরীকে আসামি করা হয়।

২০১৪ সালের ২১ ডিসেম্বর কিবরিয়া হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে গৃহীত হলে ২৮ ডিসেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। আদালত মেয়র আরিফুলের জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। কারাগারে থাকা অবস্থায় ২০০৪ সালের ২১ জুন সুনামগঞ্জে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় বোমা হামলার ঘটনার দীর্ঘ প্রায় ১২ বছর পর ২০১৬ সালের শেষ দিকে মেয়র আরিফকে শ্যোন এরেস্ট দেখানো হয়।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

ওসমানী মেডিকেল রোডে একজনকে কুপিয়ে হত্যা

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৩-৩১ ১৪:৫৭:৫১

সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সম্মুখে শুক্রবার ৮টা দিকে ডন হাসান (২৭) নামের এক যুবককে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জেদান আল মুসা জানান, নিহত ডন হাসান একটি মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামী এবং এক সময় সে ছাত্রদল করত। আটককৃত ৩ জন কতোয়ালী থানায় রয়েছে। তাদের একজনের নাম রাব্বী। আটককৃতদের কাছ থেকে হত্যাকান্ডের ভিডিও ক্লিপ এবং ওয়ান সুটার গান ও একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর থেকে সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু

 প্রকাশিত: ২০১৭-০৩-১৬ ০২:২২:৫৯

সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চালু হলো সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। গতকাল বুধবার বিকাল ৩টার দিকে দুবাই থেকে ১৪৭ জন যাত্রী নিয়ে ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট ওসমানীতে এসে অবতরণ করে। দেশে এবারই প্রথম দেশী-বিদেশী কোম্পানীর কোড শেয়ার ব্যবস্থার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হলো।

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের সাথে কোড শেয়ার ব্যবস্থায় দুবাই-সিলেট-দুবাই সরাসরি এই ফ্লাইট চালুু করে ফ্লাই দুবাই।

এ সময় ফ্লাইটে আগত যাত্রীদের স্বাগত জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রাক্তন স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আবদুল মোমেন, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এহসানুল গনি চৌধুরী, রিজেন্ট এয়ারওয়েজের চেয়ারম্যান ইয়াসিন আলী, ফ্লাই দুবাইয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গায়েত আল গায়েত, রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম. ফজলে আকবর, ফ্লাই দুবাইয়ের বাংলাদেশ জিএসএ স্কাই এভিয়েশন সার্ভিসের চেয়ারম্যান সাইফুল হক প্রমুখ।
এরপর বিমানবন্দর লাউঞ্জে আয়োজন করা হয় একটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাশেদ খান মেনন বলেন, আজ সিলেটবাসীর জন্য অত্যন্ত আনন্দের দিন। দীর্ঘদিন থেকেই তারা সিলেট থেকে সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের দাবি জানিয়ে আসছেন। ২০১৫ সালে একবার আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হলেও কিছু বাধার কারণে তা বন্ধ হয়ে যায়।

মন্ত্রী বলেন, ফ্লাই দুবাই’র সাথে রিজেন্টের কোড শেয়ারের বিষয়টি খুব সহজ ছিলো না। এটি করতে অনেক বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছে। আশা করছি এখন আর সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, ওসমানী বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণে ৪৫২ কোটি টাকার প্রকল্প একেনেকে অনুমোদন হয়েছে। শীঘ্রই এই প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। রানওয়ে সম্প্রসারিত হলে আরো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট সিলেট থেকে চালু হবে। আরো কয়েকটি বিদেশী উড়োজাহাড় সিলেট থেকে ফ্লাইট চালুর আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আশা করি, আগামী ২/৩ বছরের মধ্যে এটি পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বর্তমান বিশ্বে এভিয়েশন শিল্পে এ ধরনের কোড শেয়ার ব্যবস্থা বেশ কার্যকর হলেও বাংলাদেশে এই প্রথম দেশি-বিদেশি দুটি বিমানসংস্থা এই ব্যবস্থা রুট পরিচালনায় সম্পৃক্ত হয়েছে। এর ফলে পরিচালন পারমিট ও কোড, বিমানবন্দর স্পট এবং গ্রাউন্ড হ্যান্ডলিংয়ের দায়িত্বে থাকবে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। ফ্লাইট পরিচালনা, টিকেটিং, সেলস-মার্কেটিংয়সহ পুরো দায়িত্ব ফ্লাই দুবাইয়ের। সপ্তাহে প্রতিদিন দুবাই-সিলেট-দুবাই রুটে চলবে ফ্লাই দুবাইয়ের ১৭৫ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ।

এরআগে গত ২০১৫ সালের ১ মে ওসমানী বিমানবন্দর থেকে সরাসরি দুবাই-সিলেট-দুবাই ফ্লাইট চালু করেছিলো ফ্লাই দুবাই। তবে গ্রাউন্ড হ্যাডেলিং অনুমতি না থাকা ও বাংলাদেশ বিমানের আপত্তির কারণে একদিন পরই তা বন্ধ হয়ে যায়।

তবে এবার রিজেন্ট এয়ারওয়েজের সাথে কোড শেয়ার ব্যবস্থায় সরাসরি ফ্লাইট চালুু করল ফ্লাই দুবাই। যদিও রিজেন্টের সাথে কোড শেয়ারে আপত্তি জানিয়েছে বাংলাদেশ বিমানের কর্মকর্তারা। গতকাল বুধবার ফ্লাই দুবাই’র ফ্লাইটরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেননসহ অন্য অতিথিরাও জানিয়েছেন, ‘অনেক বাধার পর’ এই ফ্লাইট চালু করা হয়েছে।

আনুষ্ঠানিকতা শেষে সাড়ে ৫ টায় ১৬৯ জন যাত্রী নিয়ে ওসমানী থেকে দুবাই’র উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে ফ্লাই দুবাই।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৮ সালের ২০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক তকমা গায়ে লাগে ওসমানী বিমানবন্দরের। প্রায় ১৭ বছর পর ২০১৫ সালের ১ এপ্রিল এমএজি ওসমানী বিমানবন্দর থেকে চালু হয় সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। দুবাই থেকে ১৬৩ জন যাত্রী নিয়ে ফ্লাই দুবাইয়ের একটি ফ্লাইট ওই দিন বিকেলে অবতরণ করে। পরে ওসমানীর রিফুয়েলিং স্টেশন থেকে জ্বালানি সংগ্রহ করে ১৩০ জন যাত্রী নিয়ে ফের দুবাইয়ের উদ্দেশে উড্ডয়ন করে ফ্লাইটটি। এর মধ্য দিয়ে সিলেটবাসীর বহুল প্রতীক্ষিত স্বপ্নের বাস্তবায়ন ঘটেছিল। কিন্তু এরপরই ফ্লাইট চালনা বন্ধ করে দেয় ফ্লাই দুবাই। অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ফের শুরু হলো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট।

এখন থেকে ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স ওসমানী বিমানবন্দরের মাধ্যমে আগামী তিন মাস সপ্তাহে পাঁচদিন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এরপর পুরো সপ্তাহই থাকবে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট।


এলএবাংলাটাইমস/এস/এলআরটি

বিস্তারিত খবর

সাম্প্রতিক খবর

সর্বাধিক পঠিত